সম্পূর্ণ নিউজ সময়
স্বাস্থ্য
২ টা ২৯ মিঃ, ১৬ নভেম্বর, ২০১৭

কুড়িগ্রামের ৯৬টি উপস্বাস্থ্য-পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে নেই মেডিকেল অফিসার

১৯৬২ সালের কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী জেলার উপজেলার রায়গঞ্জ ইউনিয়নে সাড়ে ৯ একর জমির ওপর নির্মিত হয় পল্লী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। ১০ সজ্জার এই স্বাস্থ্যকেন্দ্রে শুরুতেই দু'জন মেডিকেল অফিসার এবং ৮ জন নার্সসহ জনবল ছিল ২২ জন। বর্তমানে একজন সেকমাসহ মাত্র তিনজন দিয়ে চালানো হচ্ছে কার্যক্রম। শুধু এটি নয় জেলার অন্যান্য স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতেও দীর্ঘদিন ধরে শূন্য রয়েছে মেডিকেল অফিসারের পদ। বেশিভাগ উপস্বাস্থ্য এবং পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে ডিপ্লোমা পাস উপ-সহকারী কর্মকর্তা দিয়ে চালানো হচ্ছে কার্যক্রম। এতে উন্নত চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সাধারণ মানুষ।
Somoy News
স্বাস্থ্য সময় ডেস্ক

এদিকে, রক্ষণাবেক্ষণ ও সংস্কারের অভাবে অবকাঠামোগুলো জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। এরমধ্যে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই চালানো হচ্ছে সেবা কার্যক্রম।

রায়গঞ্জ পল্লী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের উপ-সহকারী মেডিকেল অফিসার গৌতম চন্দ্র গোস্বামী বলেন, 'প্রায় ৫ ইউনিয়নের লোক এখানে আসা-যাওয়া করে। আমাদের এখানে অবকাঠামোর অবস্থা খুবই খারাপ। আমরা ও রোগীরা খুব ঝুঁকির মধ্যেই এখানে আসা-যাওয়া করি।'

রায়গঞ্জের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মো. নুরু মণ্ডল বলেন, 'দীর্ঘদিন থেকে বন্ধ থাকায় আমরা চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। আমরা সকলেই চাই, এ হাসপাতালটা একটি পূর্ণাঙ্গ হাসপাতাল হোক।'

অবশ্য জনবল সংকটের সীমাবদ্ধতার কথা স্বীকার করে সিভিল সার্জন ডা.এস এম আমিনুল ইসলাম বলেন, 'তিন ভাগের একভাগেরও কম লোক দিয়ে আমরা স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে যাচ্ছি এই জেলায়। আশা করি খুব শিগগিরই এখানে মেডিকেল অফিসার প্রদান হবে এবং সমস্যার সমাধান হবে।'

স্বাস্থ্যবিভাগের তথ্যমতে জেলায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক মেডিকেল অফিসারের পদ রয়েছে ২০৯টি । এর মধ্যে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে হাসপাতালে কর্মরত আছেন ৫৩ জন। তবে ৯৬টি উপস্বাস্থ্য ও  পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে নেই কোন মেডিকেল অফিসার।

ফাএ/

© ২০২১ সময় মিডিয়া লিমিটেড
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়