সম্পূর্ণ নিউজ সময়
আন্তর্জাতিক সময়
০ টা ৫১ মিঃ, ১৯ মে, ২০২১

বিশ্ব সম্প্রদায়ের আহ্বান উপেক্ষা করল নেতানিয়াহু

যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়াসহ বিশ্ব সম্প্রদায়ের যুদ্ধবিরতির আহ্বান উপেক্ষা করে আবারও গাজায় ফিলিস্তিনিদের অবস্থানে অভিযান অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বিনইয়ামিন নেতানিয়াহু। ইসরায়েলি জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত এ অভিযান চলবে বলেও জানান তিনি। এরমধ্যেই, গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর তীব্র বিমান হামলা ও স্থল অভিযানের মধ্যেই সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়েছে পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেমে। খবর আল-জাজিরার।
আন্তর্জাতিক সময় ডেস্ক

গাজায় প্রায় দশদিন ধরে চলা ইসরায়েলি আগ্রাসনের প্রতিবাদে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ছে অন্যান্য শহরেও। পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেমে সাধারণ ফিলিস্তিনিরা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করলে, ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে তাদের দফায় দফায় সংঘর্ষ বাধে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এসময় পুলিশকে গুলি, টিয়ার শেল ও স্টান গ্রেনেড ছুড়তে দেখা যায়। জবাবে, ইট পাটকেল ছুঁড়ে, রাস্তায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে দেখা যায় নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিদেরকে। এতে, দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত হন বেশ কয়েকজন। চলে ধরপাকড়।

এই যখন অবস্থা তখন ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংকট নিরসনে উভয়পক্ষকে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। উত্তেজনা নিরসনে হামলা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনও। এর আগে, মুসলিশ বিশ্বের সমালোচনার পর প্রথমবারের মতো ইসরায়েলের প্রতি সমর্থন থেকে সরে এসে, উভয়পক্ষকে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও।

তবে, বিশ্ব সম্প্রদায়ের এসব আহ্বান উপেক্ষা করেই গাজায় অভিযান চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বিনইয়ামিন নেতানিয়াহু। ইসরায়েলি জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত এ অভিযান চলবে বলেও জানান তিনি।

এর মধ্যেই, গাজায় ফিলিস্তিনিদের অবস্থানে বিমান হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েলি বাহিনী। মঙ্গলবার (১৮ মে) রাতভর চলে বোমাবর্ষণ। সেইসঙ্গে, গাজা সীমান্তেও অব্যাহত রয়েছে স্থল অভিযান। এদিনও, ট্যাংক এবং আর্টিলারি থেকে ফিলিস্তিনিদের অবস্থানে গোলাবর্ষণ করতে দেখা যায় ইসরায়েলি সেনাবাহিনীকে। গাজার দক্ষিণাঞ্চলের খান ইউনিস এবং রাফাহ শহরে ৬০টি বিমান হামলা চালায় দখলদার বাহিনী। জবাবে, ইসরায়েলি ভূখণ্ড লক্ষ্য করে রকেট হামলা অব্যাহত রেখেছে হামাস। ইসরায়েলের বিভিন্ন আবাসিক এলাকা লক্ষ্য করে গাজা থেকে রকেট হামলা চালাতে দেখা যায় তাদেরকে।

এদিকে, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের নিষ্ক্রীয় ভূমিকার কারণেই ফিলিস্তিনিদেরকে জীবন দিতে হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত ফিলিস্তিনি প্রতিনিধি রিয়াদ মানসুর। গাজায় ইসরায়েলি আগ্রাসন বন্ধে নেতানিয়াহু প্রশাসনকে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে জাতিসংঘ বরাবরই ব্যর্থ হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।

এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে চলে আসা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে গাজায় ইসরায়েলি হামলায় অন্তত ২১৮ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৬৩টি শিশুও রয়েছে। আহত হয়েছেন অন্তত দেড় হাজার মানুষ। এছাড়া, ২ শিশুসহ ১২ ইসরায়েলি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ৩০০ জন।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়