সম্পূর্ণ নিউজ সময়
বাংলার সময়
১২ টা ৫ মিঃ, ১৪ মে, ২০২১

ঈদ নেই স্পিডবোট দুর্ঘটনায় নিপার ঘরে

ঈদ আনন্দ নেই বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌরুটে স্পিডবোট মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় নিহত মাদারীপুরের কালকিনির নিপা আক্তারের পরিবারের সদস্যদের মাঝে। নারায়ণগঞ্জের গার্মেন্টেকর্মী নিপার অকাল মৃত্যুতে বাকরুদ্ধ সবাই। পুরো এলাকায় শোকাবহ পরিবেশ।
সঞ্জয় কর্মকার অভিজিৎ

পরিবারের সাথে ঈদ করার জন্য কেনাকাটা শেষে নারায়ণগঞ্জ থেকে ছেলে রিফাতকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন মাদারীপুরের কালকিনির বালিগ্রামের শ্রমজীবি আলআমিন বেপারির স্ত্রী গার্মেন্টস কর্মী নিপা আক্তার। মর্মান্তিক ফেরি দুর্ঘটনায় রিফাত প্রাণে বেঁচে গেলেও পদদলিত হয়ে মারা যায় নিপা।

তার অকাল মৃত্যুতে পরিবারের মাঝে নেই ঈদের কোন আমেজ। নিপাকে হারিয়ে শোকে পাথর পুরো পরিবার। প্রতিবছর একত্রে সবাই ঈদ করলেও এবার জ্বলছে না চুলার আগুন।

নিপার স্বামী বলেন, এখন তো আমার পরিবার নেই। আমি আমার স্ত্রীকে হারিয়েছি। নিপার ছেলে বলে, আমার মা নেই এখন আমরা ঈদ করবো কিভাবে।

ছেলে রিফাত চতুর্থ শ্রেণিতে ও মেয়ে আজমিরি দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ালেখা করে। আনন্দ নেই প্রতিবেশিদের মাঝেও। আছে শুধু হাহাকার।

প্রতিবেশী এক নারী বলেন, ছোট একটা ছয় বছরের মেয়ে তারে রেখে এই অবস্থা। এই পরিস্থিতিতে আমাদের আনন্দ হয় না। আমাদের মনে আনন্দ নেই। মর্মান্তিক দুর্ঘটনার জন্য ঘাটের অব্যবস্থাপনাকে দায়ী করেছেন নিহতের স্বজন ও স্থানীয়রা। পাশাপাশি অসহায় পরিবারের পাশে থাকার জন্য প্রশাসনের কাছে আকুতি জানান তারা।

স্থানীয় একজন বলেন, ফেরিঘাটে প্রশাসনের এই দিকে কোনো নজর নেই। প্রশাসনে যদি এটা দেখেশুনে রাখত তাহলে এত লোক মারা যেত না। এই বাচ্চাদের কে দেখবে, কাকে মা বলে ডাকবে।

গত বুধবার (১২ মে) মাদারীপুরের বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরিতে অতিরিক্ত যাত্রীর চাপে প্রখর রোদে পদদলিত হয়ে মারা যায় ৫ জন। এ সময় গুরুতর ৩ জনসহ আহত হয় অন্তত ১৫ জন।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়