সম্পূর্ণ নিউজ সময়
প্রবাসে সময়
৪ টা ৪১ মিঃ, ১৪ মে, ২০২১

বিধিনিষেধ শিথিল করতে যাচ্ছে জার্মান

বিটু বড়ুয়া

গরমের মৌসুম সামনে রেখেই করোনা বিধিনিষেধ শিথিল করতে যাচ্ছে জার্মানি। এর অংশ হিসেবে দুই ডোজ টিকা গ্রহণকারী পর্যটকদের জার্মানিতে প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে দেশটি। পাশাপাশি দেশটির বাইরে ছুটি কাটাতে যাওয়া ও ফেরত আসার জন্য অপেক্ষমাণ স্থানীয়রাও পাবেন বিশেষ সুযোগ। তবে এমন পরিকল্পনায় হিতে বিপরীত হতে পারে বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

ইউরোপ ও স্ক্যান্ডিনেভীয় দেশগুলোর মতো জার্মানিতেও জোরেশোরেই চলছে করোনা টিকা কার্যক্রম। প্রায় প্রতিদিনই দেশটিতে বাড়ছে টিকা গ্রহণকারীর সংখ্যাও।

দেশটির রবার্ট কক ইনস্টিটিউট বলছে, প্রথম ডোজ গ্রহণকারীর সংখ্যা তিন কোটির কাছাকাছি, আর দ্বিতীয় ডোজ সম্পন্ন করেছেন এমন মানুষের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৮৩ লাখেরও বেশি। এদিকে আসছে গ্রীষ্মে জার্মানিতে ভ্রমণের অপেক্ষায় থাকা পর্যটকদের মধ্যে যারা দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন এবং করোনা থেকে সেরে উঠেছেন তাদের দেশটিতে প্রবেশ করতে করোনা নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে না। তবে দুই ডোজ টিকা নেয়া কোনো জার্মান নাগরিক যদি করোনার ভয়াবহ প্রাদুর্ভাব আছে এমন অঞ্চল থেকে জার্মানিতে প্রবেশ করেন শুধু সেক্ষেত্রেই যেতে হবে কোয়ারেন্টাইনে।

তবে সুইজারল্যান্ড, অস্ট্রিয়া, গ্রিস, ইতালি, স্পেনে ছুটি কাটাতে যাওয়া পর্যটকদের জার্মানিতে প্রবেশের ক্ষেত্রে করোনার নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখাতে হবে। তা না হলে যেতে হবে কোয়ারেন্টাইনে। তবে তড়িঘড়ি করে মার্কেল সরকারের এমন শিথিলতার পরিকল্পনা ডেকে আনতে পারে মহাবিপদ এমনটাই বলছেন স্থানীয়রা।

এক জার্মান নাগরিক বলেন, শুধু টিকা নিলেই পর্যটকদের সুবিধা দেয়া হবে, না হলে তারা ঘরে বসে থাকবে এটা মেনে নেয়া যায় না। তারপরও দেখা যাক কি হয়। প্রয়োজনে ছুটি কাটাতে গেলামই না। কি আসে যায় বলুন?

আরেক জন বলেন, শিথিলতার সময় এখনো আসেনি। আমাদের দেশে এখনো করোনার ভাইরাস রয়ে গেছে। যাতে প্রায় প্রতিদিনই করো না কারো জীবন যাচ্ছে। আইসিইউতে চিকিৎসা নিচ্ছেন এমন মানুষের সংখ্যাও কিন্তু কম নয়।

এরই মধ্যে টিকা কার্যক্রমের গতি বাড়াতে সাধারণ ডাক্তারদের চেম্বারে বয়সের বাধ্যবাধকতা তুলে নেয়ার পরিকল্পনা করছে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ।

 

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়