সম্পূর্ণ নিউজ সময়
অন্যান্য সময়
৪ টা ৫১ মিঃ, ১৩ মে, ২০২১

চাপাতি দিয়ে চুল কাটেন আব্বাস (ভিডিও)

চুল কাটতে নাপিতরা সাধারণত কাঁচি ও চিরুনি ব্যবহার করে থাকেন। তারা চিরুনি ব্যবহার করে চুলকে সঠিকভাবে সাজানোর জন্য আর কাঁচি ব্যবহার করে চুল কাটার জন্য। কিন্তু এবার দেখা গেল ভিন্ন ঘটনা। চুল কাটতে রীতিমত এই নাপিত চাপাতি ব্যবহার করছে।
অন্যান্য সময় ডেস্ক

আলী আব্বাস, পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় পাঞ্জাব প্রদেশের রাজধানী লাহোরের বাসিন্দা তিনি। পেশা হিসেবে চুল কাটার কৌশলকে বেছে নিয়েছেন তিনি। তবে তার কৌশল অন্য সকল নাপিতদের থেকে আলাদা। তিনি চুল কাটার সময় আগুন, চাপাতি এবং ভাঙ্গা কাচ ব্যবহার করেন।

এসব কথা শুনে মনে হতে পারে আব্বাসের কাছে চুল কাটতে যাওয়াটা অনেকটা ভয়ের। তারপরও তার চুল কাটার গ্রাহক সংখ্যা নেহাত কম নয়। তার এই ভিন্নধর্মী কৌশল অনেককেই টানছেন বলে ডেইলি পাকিস্তানের একটি প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আব্বাস জানান, চুল কাটার সময় তিনি এই তিনটি অস্ত্র ব্যবহার করে থাকেন। চুল সমান করতে ব্যবহার করেন আগুন। এক্ষেত্রে তিনি আগুন জ্বালাতে ব্লোটর্চ লাইটার ব্যবহার করেন। চুলের স্তর তৈরি করতে ব্যবহার করেন মাংস কাটার চাপাতি। আবার কারো চুল পাতলা করতে হলে আব্বাস কাচ ব্যবহার করেন।

প্রচলিত কৌশল থেকে বেরিয়ে এসে আব্বাস কেন ভিন্ন কৌশল বেছে নিয়েছেন সেটার ব্যাখা দিয়ে আব্বাস বলেন, প্রতিযোগিতা অনেক বেড়ে গেছে। কাজেই গ্রাহক আকর্ষণ করতে ভিন্ন কৌশলের বিকল্প নেই। এ প্রসঙ্গে আব্বাস আরও বলেন, ‘আমার মনে হয়েছিল আরও বেশি গ্রাহক টানতে আমাকে ভিন্ন কিছু করতে হবে।’

তবে আগুন, চাপাতি আর কাচ এসব দিয়ে চুল কাটা খুব একটা সহজ বিষয় না। তারপর কেন এই ঝুঁকিপূর্ণ কৌশল আব্বাস বেছে নিলেন। তার ব্যাখ্যা দিয়ে আব্বাস বলেন, ‘আমি প্রথমে কৃত্রিম চুলের ওপর এই সরঞ্জামগুলো দিয়ে অনুশীলন করেছি। পুরোপুরি অভ্যস্ত হয়ে ওঠার পরই আমি গ্রাহকের চুল কাটার সময় এসব সরঞ্জাম ব্যবহার শুরু করেছি। প্রথম যে গ্রাহকের ক্ষেত্রে এগুলো ব্যবহার করেছি, তিনি অনেকটা পছন্দ করেছিলেন।’ 

২০১৬ সাল থেকে আব্বাস এই ভিন্ন কৌশলে চুল কাটা শুরু করেন। প্রথম দিকে গ্রাহকরা এসব যন্ত্রপাতি ব্যবহারে ভয় পেতেন, কিন্তু তারা এখন আর ভয় পান না। তার এই ভিন্ন কৌশল তাকে বেশ আলোচিত করেছে। গ্রাহক সংখ্যাও বেড়েছ অনেক। আব্বাসের আলোচিত হওয়ার ক্ষেত্রে একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠান বিশেষ ভূমিকা রাখে।

আব্বাস বলেন, ‘গ্রাহকরা আমার এই ভিন্ন কৌশল এখন ইতিবাচকভাবে নিয়েছে তবে তারা শুরুর দিকে কিছুটা ভয় পেতেন।’

আব্বাসের একজন গ্রাহক আলী সাকলাইন। তিনি বলেন, ‘আব্বাস চুল পরিচর্যার শুরুতে যখন মাথায় ব্লোটর্চ ব্যবহার করেন, তখন থেকেই যেন আমার ভেতর স্বস্তি আর প্রশান্তি ভর করে।’

আরেকজন নারী গ্রাহক আরুক ভাট্টি। তিনি বলেন,  ‘আমি আব্বাসের কাছে তিনবার চুল কেটেছি। কাঁচির চেয়ে চাপাতির ব্যবহারই আমার ভালো লাগে।’

আব্বাসের কাছে এই ভিন্ন কৌশলে চুল কাটতে হলে গুনতে হবে স্বাভাবিকের চেয়ে একটু বেশি টাকা। তিনি এসব ভিন্ন যন্ত্রপাতি দিয়ে চুল কাটাতে গ্রাহকের কাছ থেকে  হাজার রুপি (১৩ মার্কিন ডলার) নেন। তবে প্রচলিত চুল কাটার কৌশল বাদ দেননি আব্বাস। প্রচলিত যন্ত্রপাতি দিয়ে চুল কাটাতে আব্বাস নেন ১ হাজার রুপি।

আব্বাসের কাছে শুধু পুরুষ গ্রাহকরাই চুল কাটেন তা নয়, নারীরাও আসেন তার কাছে। তিনি নারীদের চুল কাটতে পুরুষদের থেকে ৫০০ রুপি বেশি নিয়ে থাকেন। 

 

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়