সম্পূর্ণ নিউজ সময়
খেলার সময়
১৯ টা ৫৫ মিঃ, ১১ মে, ২০২১

স্থগিত আইপিএল মাঠে গড়ালে থাকবে না ইংলিশরা

এ বছর স্থগিত আইপিএল মাঠে গড়ালেও, সেখানে থাকবে না ইংল্যান্ডের কোনো ক্রিকেটার। নিশ্চিত করেছেন ইসিবির ডিরেক্টর অব ক্রিকেট অ্যাশলে জাইলস। এদিকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায়, আইপিএলের পর এবার শঙ্কা দেখা দিয়েছে পাকিস্তান সুপার লিগ পিএসএল নিয়েও। মন্ত্রীত্ব পেয়েছেন সাকিবের সাবেক সতীর্থ মনোজ তিওয়ারী। আর ব্যস্ততার কারণে ইংল্যান্ড-শ্রীলঙ্কায় আলাদা দুই দল পাঠাবে ভারত।
খেলার সময় ডেস্ক

করোনার ভয়াবহতা আর ফ্রাঞ্চাইজিগুলোতে একের পর এক সংক্রমণের কারণে মাঝপথে এসে স্থগিত করা হয় আইপিএল। তবে এখনও টুর্নামেন্টির বাকি ম্যাচগুলো আয়োজনে আশা ছাড়ছে না বিসিসিআই। ঘরের মাঠে না হলেও অন্য কোথাও আসর আয়োজনে মরিয়া ভারতীয় বোর্ড।

তবে এ নিয়ে এখন আর ভাবছে না ইসিবি। এমনকি ভারত শেষ পর্যন্ত টুর্নামেন্টটি চালু করলেও আপাতত সেখানে খেলার অনুমতি পাবে না কোনো ইংলিশ ক্রিকেটার। কারণ সামনেই ব্যস্ত শিডিউল। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের পর আছে বাংলাদেশ আর পাকিস্তানে সফর। তাইতো দেশের ক্রিকেটের সঙ্গে ক্রিকেটারদের সম্পৃক্ত করতে এমন সিদ্ধান্ত ইসিবির। এ নিয়ে কোনো ছাড় না দেয়ার কথাও স্পষ্ট জানিয়েছেন ইসিবির ডিরেক্টর অব ক্রিকেট অ্যাশলে জাইলস।

করোনাকালে সুখবর নেই অন্য ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেটেও। জুনে পাকিস্তানে পিএসএলের ম্যাচগুলো আয়োজনের পরিকল্পনা ভেস্তে যাওয়ার পর পিসিবি চেয়েছিল নিরপেক্ষ ভেন্যু হিসেবে সংযুক্ত আমিরাতে টুর্নামেন্ট করতে। তবে সে পরিকল্পনাও গেছে ভেস্তে। ইউএই সরকার পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল ও বাংলাদেশ থেকে আগতদের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। যা কার্যকর হচ্ছে কাল বুধবার থেকেই। এ অবস্থায় বিকল্প হিসেবে আসর শ্রীলঙ্কায় সরিয়ে নেয়ার পরিকল্পনা পিসিবির। তবে বাস্তবতা বললে সেখানকার কড়া স্বাস্থ্যবিধি সহ আছে অনেকগুলো প্রতিবন্ধকতা। ফলে টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ানো নিয়েই দেখা দিয়েছে শঙ্কা!

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল আর ভারতের লঙ্কা সফর কাছাকাছি হওয়ায় ইংল্যান্ড-শ্রীলঙ্কায় আলাদা দুই দল পাঠানোর পরিকল্পনা বিসিসিআইয়ের। শ্রীলঙ্কায় যেখানে কোচ হিসেবে দেখা যেতে পারে রাহুল দ্রাবিড় আর অধিনায়ক শেখর ধাওয়ান। শুধু তাই নয় লঙ্কা সফরে সম্পূর্ণ নতুন এক দল দেখা যাবে ভারতের।

এদিকে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেসের ব্যানারে বিধানসভার নির্বাচনে প্রথমবারই জিতে মন্ত্রীত্বও পেয়ে গেছেন সাকিবের একসময়ের কেকেআর সতীর্থ মনোজ তিওয়ারী। এখনও দপ্তর বণ্টন না হলেও শোনা যাচ্ছে, তিনি পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর দপ্তর সামলাবেন।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়