সম্পূর্ণ নিউজ সময়
আন্তর্জাতিক সময়
৩ টা ৩৭ মিঃ, ১১ মে, ২০২১

<span class="shl"> </span> ফিলিস্তিনি প্রতিরোধের প্রতীক শেখ জাররাহ

পূর্ব জেরুজালেমের ছোট্ট নয়নাভিরাম পাড়া শেখ জাররাহ। অবৈধ ইহুদি বসতি স্থাপনকারীরা সেখান থেকে আটটি ফিলিস্তিনি পরিবার উৎখাত করতে উঠেপড়ে লেগেছে। এতে প্রতিবাদে ফেটে পড়েন ফিলিস্তিনিরা।
ওয়েব ডেস্ক

বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দিতে এক সপ্তাহ ধরে গ্রামটিতে বিষাক্ত তরল পদার্থ ছোড়ে ইসরায়েলি পুলিশ। এতে পাড়াটির বাতাস দূষিত হয়ে ওঠে।

ইসলামের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান আল-আকসায় বিক্ষোভে চড়াও হয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে শত শত মুসল্লি আহত হয়েছেন। আর সোমবার (১০ মে) রাতে অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় ৯ শিশুসহ ২০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।-খবর রয়টার্সের

সাম্প্রতিক ফিলিস্তিনিদের প্রতিরোধ আন্দোলনের প্রতীক হয়ে ওঠেছে শেখ জাররাহ পাড়াটি। সেখান থেকে ফিলিস্তিনিদের উচ্ছেদ করতে বহু আগ থেকেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দখলদাররা।

সারি সারি গাছে ঢাকা, বেলপাথরের বাড়ি, বিদেশি কনস্যুলেট ও বিলাসবহুল হোটেল—শেখ জাররাহ পাড়াটির বিবরণ দিলে প্রথমে এভাবেই বলতে হবে। জেরুজালেমের প্রাচীন শহর দামাস্কাসের ফটক থেকে ৫০০ মিটার দূরে এটির অবস্থান।

দিগ্বিজয়ী সুলতান সালাহউদ্দিন আইয়ুবীর ব্যক্তিগত চিকিৎসকের নামে পাড়াটির নামকরণ। ১১৮৭ সালে ক্রুসেডারদের কাছ থেকে জেরুজালেম দখল করেছিলেন সুলতান সালাহউদ্দিন।

১৯৬৭ সালের যুদ্ধে প্রাচীন শহর বা ওলড সিটি, পূর্ব জেরুজালেমের অবশিষ্টাংশ ও পশ্চিমতীরের নিকটস্থ এলাকা দখল করে ইসরায়েল। শেখ জাররাহসহ পুরো জেরুজালেমকে রাজধানী দাবি করছে তারা।

শেখ জাররাহের অধিকাংশ বসতবাড়িই ফিলিস্তিনিদের। অবৈধ বসতি স্থাপনকারীরাও সেখানকার সম্পত্তি দখলে নিয়েছে। সেখানে অনেকগুলো ইহুদি বসতি নির্মিত হয়েছে। উচ্ছেদের মুখোমুখি হওয়া নাবিল আল-কুর্দ বলেন, আমাকে এখান থেকে তাড়িয়ে না দেওয়া পর্যন্ত তারা ক্ষান্ত হবে না। অথচ পুরোটা জীবন আমি এখানে বসবাস করেছি।

স্থানীয় ওসমান বিন আফফান সড়কে ৭৭ বছর বয়সী এ বৃদ্ধের ঘর। এর আগে ২০০৯ সালে তার বাড়ির অর্ধেকটা দখল করে নিয়েছে অবৈধ বসতি স্থাপনকারীরা।

১৯৫০-এর দশকে জর্ডান বাড়ি নির্মাণ করে দিলে ফিলিস্তিনিরা শেখ জাররাহতে বাস করতে থাকেন। এর আগে ১৯৪৮ সালে উগ্র ইহুদি সংগঠনগুলো পূর্ব জেরুজালেম ও হাইফা থেকে তাদের বের করে দিলে এখানে এসে আশ্রয় নেন।

বছর ত্রিশের খালিদ হামাদ বলেন,  আমাদের পরিবার এখানে শরণার্থী হিসেবে এসেছে। এখন আবার আমরা আগের অবস্থায় ফিরে যাচ্ছি।

এক সময় এ পাড়ায় হুসায়নি পরিবারের ফিলিস্তিনি অভিজাতদের বসবাস ছিল। ১৯৪৮ সালে ইসরায়েল পশ্চিম জেরেজালেম দখল করে নেয়। পূর্ব জেরুজালেম ছিল জর্ডানের কর্তৃত্বে। শেখ জাররাহ দুই জেরুজালেমের মিলনস্থলে অবস্থিত। পাড়াটি থেকে সব ফিলিস্তিনিকে পদ্ধতিগত উচ্ছেদের প্রক্রিয়া চালাচ্ছে দখলদাররা।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়