সম্পূর্ণ নিউজ সময়
বাংলার সময়
৬ টা ৭ মিঃ, ১০ মে, ২০২১

দিনাজপুরে রসুনের বাম্পার ফলনে দুশ্চিন্তায় কৃষক

দিনাজপুরে রসুনের বাম্পার ফলন হয়েছে। তবে চলতি মৌসুমে দাম কাঙ্ক্ষিত পর্যায়ে না থাকায় দুশ্চিন্তায় পড়েছেন কৃষকরা। এ রসুন সংরক্ষণ করে, সঠিক সময়ে বিক্রির ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছেন তারা। এদিকে আরও ভালো ফলনের জন্য চাষিদের বিভিন্ন পরামর্শ দিচ্ছে কৃষি বিভাগ।
গোলাম নবী দুলাল

দিনাজপুর জেলার খানসামা, চিরিরবন্দর ও বীরগঞ্জ উপজেলায় সবচেয়ে বেশি চাষ হয় রসুনের। এই অঞ্চলের রসুন জেলার চাহিদা মিটিয়ে রাজধানীসহ বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হয়। তবে এবার ভালো ফলন হলেও যথাযথ দাম না পেয়ে চাষিরা হতাশ। তারা বলছেন, গেলো বছর এই সময়টায় প্রতিকেজি ৬০ থেকে ৭০ টাকা বিক্রি হলেও চলতি মৌসুমে সর্বোচ্চ ৪০ টাকা কেজিদরে বিক্রি হচ্ছে রসুন।

চাষিরা জানান, গত বছর রসুন বিক্রি করেছি ৬০ টাকা কেজিতে। এ বছর বিক্রি করতে হচ্ছে ২৮-৩০ টাকায়। এভাবে দাম না পেলে কৃষক শেষ হয়ে যাবে।

কৃষকদের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে রসুন সংরক্ষণের জন্য সরকারিভাবে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি স্থানীয়দের।

ব্যবসায়ী ও সমাজসেবী সফিউল আযম চৌধুরী বলেন, এ অঞ্চলে রসুনের ভালো আবাদ হয়। যদি সংরক্ষণের জন্য কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হলে কৃষকরা উপকৃত হবেন।

এদিকে লাভজনক ফসল হওয়ায় দিন দিন বাড়ছে রসুনের চাষ। উৎপাদন বাড়ানোর লক্ষ্যে কৃষকদের বিভিন্ন পরামর্শ দিচ্ছে কৃষি বিভাগ।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক অশোক কুমার রায় বলেন, কৃষকদের ফলন বৃদ্ধি ও সময় মতো পোকা-দমনের বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।  

চলতি বছর এ জেলায় মোট ৫ হাজার হেক্টর জমিতে রসুনের চাষ হয়েছে। আর উৎপাদন হয়েছে ৫০ হাজার মেট্রিক টনের মতো।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়