সম্পূর্ণ নিউজ সময়
বাংলার সময়
৯ টা ১৩ মিঃ, ৯ মে, ২০২১

নির্যাতনের ভিডিও পাঠিয়ে মুক্তিপণ আদায়

অবৈধভাবে সমুদ্রপথে ইতালি যাওয়ার সময় মানবপাচারকারী চক্র লিবিয়ার বন্দিশালায় এক সপ্তাহ ধরে আটকে রেখেছে মাদারীপুরের ১৭ যুবককে। তাদের নির্যাতনের ভিডিও পরিবারকে পাঠিয়ে মুক্তিপণ আদায় করছে দালালচক্র। সর্বস্বান্ত হওয়া অসহায় পরিবারগুলো যুবকদের ফিরে পেতে তাকিয়ে আছে প্রশাসনের দিকে। এই ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে মানবপাচারকারী চক্রের অন্যতম সদস্য জাহিদ খানকে আটক করেছে পুলিশ। 
সঞ্জয় কর্মকার অভিজিৎ

নিজের গহনা বিক্রি করে ও ব্যাংক ঋণ নিয়ে ছেলেকে ইতালি পাঠানোর জন্য দালালের হাতে ৮ লাখ টাকা তুলে দেন মা পারভিন আক্তার। কিন্তু অবৈধভাবে সমুদ্রপথে ইতালি যাওয়ার সময় লিবিয়ার বন্দিশালায় এক সপ্তাহ ধরে ছেলে জনিকে আটকে রেখেছে মানব পাচারকারী চক্র। নির্যাতন করে ভিডিও পাঠিয়ে দাবি করছে মোটা অঙ্কের মুক্তিপণ। ভিডিও দেখে পুরো পরিবারজুড়ে বিরাজ করছে আতঙ্ক। শুধু জনি নয়, তার মতো মাদারীপুর সদর উপজেলার হিফজু হাওলাদার, আসাদুল খান, জাহিদুল ইসলামসহ ১৭ যুবককে ওই বন্দিশালায় একসঙ্গে আটকে রাখা হয়েছে। সবকিছু খুইয়ে দিশেহারা পরিবারগুলো প্রশাসনের কাছে সন্তানকে ফিরে পেতে আকুতি জানিয়েছেন।

এলাকাবাসী জানায়, ধুরাইল ইউনিয়নের চাছার গ্রামের মানবপাচারকারী চক্রের অন্যতম সদস্য জাহিদ খান ইউসুফ ইতালি নেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রত্যেক পরিবারের কাছ থেকে ৮ লাখ টাকা করে নেয়।

মানুষ সচেতন না হলে অবৈধ পথে বিদেশ পাড়ি দেয়া কমবে না বলে মনে করেন সচেতন নাগরিক কমিটির (টিআইবি) সভাপতি খান মোহাম্মদ শহীদ। 

মাদারীপুর পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল জানান, অভিযোগের প্রেক্ষিতে আটক করা হয়েছে অভিযুক্ত জাহিদকে। বাকিদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আটক জাহিদ খান ইউসুফ ধুরাইল ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী। এখন পর্যন্ত অভিযুক্ত জাহিদ তিন শতাধিক মানুষকে অবৈধ পথে ইতালিসহ বিভিন্ন দেশে পাঠিয়েছেন বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়