সম্পূর্ণ নিউজ সময়
খেলার সময়
৭ টা ৫৬ মিঃ, ৯ মে, ২০২১

গোল উৎসব করে শিরোপা জিতল বায়ার্ন

বুন্দেসলিগার মসনদটা নিজেদের কাছেই রাখল হ্যান্সি ফ্লিকের বায়ার্ন মিউনিখ। লেওয়ানডস্কির হ্যাটট্রিকে বরুশিয়া মনশ্যানগ্ল্যাডবাখকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে চার ম্যাচ হাতে রেখেই শিরোপার উল্লাসে মাতে বাভারিয়ানরা। আরেক ম্যাচে আগেই সিরি'আর শিরোপা পুনরুদ্ধার করা ইন্টার মিলান, অ্যালেক্স সানচেজের জোড়া গোলে সাম্পদোরিয়াকে উড়িয়ে দিয়েছে ৫-১ ব্যবধানে।
খেলার সময় ডেস্ক

সবশেষ ২০১১-১২ মৌসুম। শেষবার শিরোপা বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের। তারপরের গল্পটা বায়ার্ন মিউনিখের। টানা ৯ বছর জার্মান ফুটবলে লালের রাজত্ব। সময়ের পরিধি বাড়ার সঙ্গে দাপট বেড়েছে বাভারিয়ানদের। ব্যতিক্রম ছিল না এবারের মৌসুমও। লেইপজিগ, ডর্টমুন্ড, ফাঙ্কফুর্ট, ভলসবুর্গ। কেউ বাধা হতে পারেনি এমন লিগ টাইটেল জয়ের উল্লাসে।

এর চেয়ে অসাধারণ বিদায় হয়তো আর কিছুই হতে পারতো না বায়ার্ন বস হ্যান্সি ফ্লিকের জন্য। তাইতো উল্লাস ছিল কোচকে ঘিরেও।

বায়ার্নের শিরোপা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল মাঠে নামার আগেই। দুইয়ে থাকা লেইপজিগ-ডর্টমুন্ডের কাছে হারায়। তবুও শুরু থেকে উঠল গোলের ঝড়। যে বানে ভেসে গেলো মনশ্যানগ্ল্যাডবাখ।

হ্যাটট্রিক গোল মেশিন লেওয়ানডস্কির পায়ে। একটি করে মুলার, কোম্যান, লেরয় সানের। আর তাতেই ৩০তম শিরোপার উল্লাসে পায় বাড়তি মাত্রা। শিরোপার উল্লাস হয়েছে মিউনিখের চেয়ে ৪৯৩ কিলোমিটার দূরের শহর মিলানেও। আগেই শিরোপা নিশ্চিত করা ইন্টার এদিন উল্লাস করেছে ক্লদিও রানিয়েরির সাম্পদোরিয়াকে গোলে ভাসিয়ে।

সিরি'আর নিয়মানুসারে ম্যাচের আগে প্রতিপক্ষের কাছ থেকে গার্ড অব অর্নার পায় চ্যাম্পিয়ন ইন্টার। সেই রোমাঞ্চকে পাশ কাটিয়ে ম্যাচে সাম্পদোরিয়াকে তারা বুঝিয়ে দিলো চ্যাম্পিয়নদের সঙ্গে তাদের ফারাক।

গোলের শুরু ৪ মিনিটে গাগলিয়ারদিনের পায়ে। এরপর একে একে সেই উৎসবে যোগ দেন সানচেজ, পিনামন্তি, লাউতারো মার্টিনেজ। মাঝে সাম্পদোরিয়ার হয়ে সান্ত্বনার এক গোল আসে দিয়াওয়ের পায়ে।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়