সম্পূর্ণ নিউজ সময়
বাংলার সময়
১৩ টা ৩ মিঃ, ৮ মে, ২০২১

আখাউড়ায় শতবর্ষী মধু পালের বাড়ি দখলের চেষ্টা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌর এলাকার রাধানগরে শনিবার সকালে মধু সূদন পাল নামে এক শতবর্ষী ব্যক্তির বাড়ি দিনদুপুরে দখলের চেষ্টা চালানো হয়েছে। তবে পুলিশ, সাংবাদিক ও স্থানীয় লোকজন ছুটে এলে দখলকারীরা পিছু হটতে বাধ্য হয়।
উজ্জল চক্রবর্তী

এ ঘটনায় পুলিশ আরিফ নামে একজনকে আটক করলেও আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে মুচলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। বিকেল নাগাদ এ বিষয়ে থানায় কোনো লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। স্থানীয় মেয়র বিষয়টি সামাজিকভাবে দেখার দায়িত্ব নিয়েছেন বলে জানা গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শ্রী শ্রী রাধামাধব আখড়া কমিটির সাবেক সভাপতি ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রাধানগর গ্রামের ১০৩ বছর বয়সী বৃদ্ধ মধু সূদন পালের সঙ্গে সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা প্রতিবেশী জসমিদ মিয়ার পরিবারের সঙ্গে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছে। 

শনিবার (০৮ মে) বেলা ১১টার দিকে জমসিদ মিয়ার আত্মীয় দেবগ্রামের মনির মিয়া সহ ১০-১৫ জন নির্মাণাধীন ঘর তুলতে বাধা দেন ও দখলে নেয়ার চেষ্টা করে। এরই মধ্যে মধু সূদন পালের ছেলেরা তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ জানান। 

খবর পেয়ে বেশ কয়েকজন পাশাপাশি স্থানীয় লোকজন জড়ো হলে দখল চেষ্টাকারীরা পালিয়ে যায়। পুলিশ এসে জমসিদ মিয়ার ছেলে আটক করে থানায় নিয়ে যান। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দখলদাররাও সটকে পড়ে। 

মধু সূদন পালের ছেলেসহ স্বজনেরা জানান, জমসিদ মিয়ার সঙ্গে যে জায়গা নিয়ে সমস্যা সেটির দাগ নং ভিন্ন এবং জায়গাটি পুকুরের পাড়ে। শনিবার মনির মিয়া দলবল নিয়ে এসে অন্য দাগের জায়গায় ঘর তুলতে বাধা দেন ও নির্মাণাধীন ঘরে ঢুকে সেটা দখলে নেয়ার চেষ্টা করেন। অথচ জায়গাটির বিএসসহ সব কাগজপত্র তাদের নামে আছে। দখল চেষ্টায় নেতৃত্ব দেয়া মনির মিয়া নামে ব্যক্তি এ সময় হুমকি দিয়ে বলে যান, ৫০০ দা নিয়ে এসে জায়গাটি দখল নেয়া হবে। কেউ কোনও কথা বললে তার জিহবা কেটে ফেলা হবে।

ছেলে আটক করার খবর পেয়ে থানায় ছুটে যান জমসিদ মিয়া। সেখানে তিনি জানান, তাদের পক্ষে মামলায় রায় এলে প্রতিপক্ষ আপিল করে। এখনো সেটি আপিল অবস্থায় আছে। দখল করতে নয় কাজ না করার জন্য লোকজনকে বলা হয়েছিল। তবে আইনগতভাবে না গিয়ে দলবল নিয়ে যাওয়া ঠিক হয় নি বলে তিনি স্বীকার করেন। কারা হুমকি দিয়েছে সেটি তিনি জানেন না বলে জানান।

এ ব্যাপারে আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ঘটনার পর আমরা ঘটনা স্থল থেকে একজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসি। উভয়পক্ষকে ডাকা হয়েছে। পরবর্তী সময়ে আমরা আখাউড়া পৌরসভার মেয়রের উপস্থিতিতে বিষয়টি সুষ্ঠু সমাধান করতে পারবো বলে আশা করছি। বর্তমানে উভয় পক্ষ স্থিতাবস্থায় থাকবে বলে পুলিশকে নিশ্চিত করেছে।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়