সম্পূর্ণ নিউজ সময়
বাংলার সময়
৬ টা ৩৩ মিঃ, ৭ মে, ২০২১

মানিকগঞ্জে ব্যক্তি মালিকানায় গড়ে উঠেছে হরিণের খামার

মো: ইউসুফ আলী

মানিকগঞ্জে ব্যক্তিগত উদ্যোগে হরিণ ও ময়ূরসহ বিভিন্ন বণ্যপ্রাণী খামারে লালন পালন করা হচেছ। রোমান্টিক নামের এক লন্ডন প্রবাসী শখের বসেই গড়েছেন এ খামার। কেয়ারটেকারের দাবি, সরকারের অনুমতি নিয়েই গড়া হয়েছে খামারটি। এটি দেখতে ভিড় করছেন অনেকেই। 

লন্ডন প্রবাসী ওই প্রাণীপ্রেমিক মানিকগঞ্জ শহরের পশ্চিম দাশরা এলাকায় গড়ে তুলেছেন বন্যপ্রাণীর খামারটি। এখানে রয়েছে ৯টি চিত্রা হরিণ। এ ছাড়া খামারে রয়েছে সিলজর পেজেন ৭টি, ম্যান্ডারিন ডাক ১০টি, ময়ূর ৩টি, জার্মান শেফার্ড ৪টি, হাঁস ১ হাজার  ২০০টি। লাইসেন্স করে শখের বসেই করা হয়েছে এ খামার বলে জানালেন কেয়ার টেকার।

এক্সোটিক রয়েল ফার্ম নামের এই খামারের কেয়ারটেকার নূর জাহান বেগম বলেন, ৬০০ শতাংশ জমির ওপর আমরা এই খামারটি করি। আমার ভাই একজন সৌখিন মানুষ। তিনি একজন চিত্রশিল্পী। তার শখ থেকেই এই খামারটি করা। সে এখানে থাকে না, তাই আমিই এটা দেখাশোনা করি।

চিত্রা হরিণসহ খামারের অন্যান্য প্রাণীদের লালন-পালন করে খুশি খামারের শ্রমিকরা। প্রাণীগুলোকে নিজেদের সন্তানের মতো আদর-যত্নে লালন-পালন করছেন তারা।

খামারের এক নারী শ্রমিক বলেন, এখানকার সব পশুপাখিকে আমি নিজের সন্তানের মতো করে লালন-পালন করি। নিজের হাতে এদের খাওয়ায়।

তারা বলছেন, একেকটা প্রাণীর খাবারের ধরন অনুযায়ী তাদের আলাদা আলাদাভাবে খাওয়ানো হয়।  

খামার গড়ার আগ্রহ নিয়ে দূর-দূরান্ত থেকে দেখতে আসছেন অনেকে খামারটি। জানান তাদের ইচ্ছার কথা।

৬০০ শতাংশ জমিতে এক্সোটিক রয়েল নামের খামারটির যাত্রা শুরু ২০১৯ সালে। ঢাকার কাঁটাবন থেকে কেনা হয় ৮টি হরিণ। প্রাণীদের লালন-পালনে রয়েছেন ১০ জন শ্রমিক।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়