সম্পূর্ণ নিউজ সময়
খেলার সময়
১৯ টা ৩৯ মিঃ, ৫ মে, ২০২১

অলিম্পিকের আয়োজন বাতিল চায় জাপানিরা

অলিম্পিকের আগে পরীক্ষামূলকভাবে আয়োজন করা হয়েছে ম্যারাথান ইভেন্টের। স্বাস্থ্যবিধি মেনে অলিম্পিক আয়োজন সম্ভব এটা প্রমাণ করতেই এমন আয়োজন বলে জানিয়েছেন আয়োজক কমিটির সভাপতি সেইকো হাসিমোতো। তবে এত কিছু করেও জাপানিদের মন ভরাতে পারছেন না আয়োজকরা। অলিম্পিক আয়োজন হোক তা চান না বলেই জানিয়েছেন তারা।
খেলার সময় ডেস্ক

জাপানের সাপ্পোরো'র সকালটা অন্যসব দিনের চেয়ে একটু আলাদা। বুধবার (০৫ মে) সকাল থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে হাজির অ্যাথলিটরা। নিয়ম মেনেই শুরু ম্যারাথন। দেখে মনে হতে পারে যেন সত্যি সত্যিই আলোর মুখ দেখেছে টোকিও অলিম্পিক। কিন্তু না এটা পরীক্ষামূলক ইভেন্ট। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত জাপানেও বেড়েছে করোনা সংক্রমণ। চলছে জরুরি অবস্থা। পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় অলিম্পিক আয়োজন নিয়ে দেখা দিয়েছে শঙ্কা।

জাপানি নাগরিকরা তো আগে থেকেই চাচ্ছিলেন না অলিম্পিক হোক। কিন্তু নিজেদের সিদ্ধান্তে বরাবরই অটল ছিলো আইওসি ও জাপান অলিম্পিক আয়োজক কমিটি। ২৩ জুলাই থেকেই অলিম্পিক আয়োজনে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ তারা। তাইতো নিরাপত্তা মেনে কিভাবে গেমস আয়োজন করা যায় তারই বিকল্প পথ খুঁজে এসেছে তারা। অবশেষে পরীক্ষামূলক ম্যারাথন ইভেন্ট দিয়েই বিশ্বকে এক-ঝলক দেখিয়ে দিলেন আয়োজকরা। ম্যারাথন আয়োজন হতে পারে নিরাপদ গেমস আয়োজনের চমৎকার উদাহরণ। এমনই মনে করেন টোকিও অলিম্পিকের আয়োজক কমিটি প্রধান সেইকো হাসিমোতো।

তিনি বলেন, আমি মনে করি এই ইভেন্টের মধ্যে দিয়ে সারা পৃথিবীর মানুষ দেখবে চাইলেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে গেমস আয়োজন সম্ভব। টিভিতে সবাই এই ইভেন্ট দেখেছে। ম্যারাথনে যে সব ক্রীড়াবিদ অংশ নিয়েছেন তারা সবাই যানবাহন থেকে শুরু করে বাসস্থান ও খাবার দাবার সব কিছুই দূরত্ব মেনে আলাদা আলাদাভাবে করেছেন। আমি মনে করি সবাইকে আমরা ম্যারাথনের মধ্যে দিয়ে বাস্তবতা দেখিয়ে দিতে পেরেছি। আশা করি এখন আর কোন সন্দেহ থাকবে না কারো মধ্যে।

তবে, এত কিছুর পরেও হাসিমোতো মন ভরাতে পারেননি জাপানি নাগরিকদের। টেস্ট ইভেন্টের পর মিশ্র অনুভূতি প্রকাশ করেছেন জাপানিরা।

তারা বলেন, এটাতো শুধু একটা পরীক্ষামূলক ইভেন্ট। যখন অলিম্পিক শুরু হবে, তখন তো অনেক ডিসিপ্লিন হবে। সেখানে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে খেলোয়াড়রাও আসবেন। একসঙ্গে এত ক্রীড়াবিদ নিয়ে কিভাবে তারা নিরাপত্তা মেনে গেমস চালাবেন তা নিয়ে আমাদের সন্দেহ রয়েছে। মহামারির এখনকার যে অবস্থা তাতে করে টেস্ট ইভেন্ট দিয়ে একটা পুরো গেমসের কাঠামো আপনি প্রমাণ করতে পারেন না। আমরা চাই গেমস বাতিল করে দেয়া হোক। যা ক্ষতি হয়েছে তাতো হয়েছেই নতুন করে প্রাণহানির মত কিছু হোক তা চাইনা।

জনগণের এই মিশ্র অনুভূতি বলে দেয় যতই পরীক্ষামূলক ইভেন্ট হোক না কেন, গেমস আয়োজন করা কঠিনই হয়ে যাবে আয়োজকদের জন্য।  

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়