সম্পূর্ণ নিউজ সময়
আন্তর্জাতিক সময়
২৩ টা ৩৩ মিঃ, ৪ মে, ২০২১

ভারতের পথেই হাঁটছে নেপাল, সরকারের অসহায়ত্ব!

করোনার সংক্রমণে এবার ভারতের মতো ভয়াবহ পরিস্থিতিতে পড়তে যাচ্ছে নেপাল। ভারতের সীমান্তবর্তী নেপালের জেলাগুলোতে সংক্রমণ বৃদ্ধি এবং হাসপাতালে শয্যা ও অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দেওয়ায় এমন আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন দেশটির চিকিৎসকেরা।
আন্তর্জাতিক সময় ডেস্ক

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্যা গার্ডিয়ান মঙ্গলবার (৪ মে) এমন এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। সেখানে বলা হয়, ভারতের উত্তর প্রদেশের সীমান্তবর্তী লুম্বিনি প্রদেশের বাঙ্কে জেলার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। সেখানকার ভেরি হাসপাতালের ৮০ জন কর্মীর করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়েছে। 

হাসপাতালের চিকিৎসকেরা সেটিকে এখন ‘মিনি ইন্ডিয়া’ বলেছেন। চিকিৎসক রাজন পান্ডে বলেছেন, ‘সেখানে নার্সের সংকট চলছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। আমরা অসহায় অবস্থায় আছি।’

পান্ডে বলেন, এটা কোন ভ্যারিয়েন্ট, তা পরীক্ষা করে দেখার মতো যন্ত্র নেই। আবার কোভিড–১৯ রোগীদের সামলাতে যেসব হাসপাতাল আছে তারা রোগীর চাপ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে। হাসপাতালে ভর্তির জন্য শ্বাসকষ্ট নিয়ে অনেককে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বাইরে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। রোগীর তুলনায় সেখানে আইসিইউ বেড ও ভেন্টিলেটরের ঘাটতি রয়েছে।

গার্ডিয়ানের প্রতিবেদন বলা হয়েছে, কাঠমান্ডুর বাইরে যেসব এলাকায় করোনার সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি হয়েছে, তার একটি বাঙ্কে জেলা।

এর আগে, নেপালের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হরিদায়েশ ত্রিপাঠি করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসছে- সতর্ক করায় বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানী কাঠমান্ডুতে দুই সপ্তাহের লকডাউন দেওয়া হয়। নেপালি টাইমসকে ত্রিপাঠি বলেছেন, নেপালের স্বাস্থ্যব্যবস্থার মহামারি সামাল দেওয়ার মতো যথেষ্ট শক্তিশালী নয়।

সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘সংক্রমণ এত দ্রুত বাড়ছে যে দেশের স্বাস্থ্যব্যবস্থা সামাল দিতে পারছে না। আমরা সবাইকে দায়িত্বশীল হওয়ার অনুরোধ করছি’।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়