সম্পূর্ণ নিউজ সময়
আন্তর্জাতিক সময়
২২ টা ৫৪ মিঃ, ৪ মে, ২০২১

শুষে না নিয়ে কার্বন ছড়াচ্ছে ‘পৃথিবীর ফুসফুস’, অবাক বিজ্ঞানীরা!

আমরা যে কার্বন প্রতিনিয়তই পরিবেশে ছড়াই, গাছ তার খাদ্য তৈরির জন্য বাতাস থেকে কার্বন ডাই অক্সাইড শুষে নেয়- এটা আমরা সকলেই জানি। এই কারণে পরিবেশবিদরা ব্রাজিলের আমাজন অরণ্য নিয়ে খুবই নিশ্চিন্ত বোধ করেন। 
আন্তর্জাতিক সময় ডেস্ক

তাদের ধারণা ছিল, বিশ্বের বৃহত্তম ক্রান্তীয় অরণ্য পরিবেশের বাড়তি কার্বন ডাই অক্সাইডের শোষণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়। কিন্তু সাম্প্রতিক এক সমীক্ষায় তাদের সেই ধারণা ভুল প্রমাণিত হয়েছে। দেখা গেছে, দু'দশক ধরে আমাজন অরণ্য যতটা না কার্বন ডাই অক্সাইড শোষণ করেছে, নিঃসরণ করেছে তার চেয়ে অন্তত ২০ শতাংশ বেশি!

ওকলাহামা ইউনিভার্সিটির স্যাটেলাইট থেকে প্রাপ্ত এই তথ্য চমকে দিয়েছে একদল ফরাসি বিজ্ঞানীকে। গবেষক দলের মুখপাত্র, ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট ফর আর্গোনমিক রিসার্চের অধ্যাপক জঁ পিয়ের উইনেরন এই প্রসঙ্গে একটা পরিসংখ্যান পেশ করেছেন। যা সম্প্রতি নেচার ক্লাইমেট চেঞ্জ জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। 

সেখানে তিনি বলছেন, গত দুই দশকে, বিশেষ করে ২০১০-২০১৯ সাল পর্বে আমাজন কার্বন ডাই অক্সাইড নিঃসরণ করেছে ১৬ দশমিক ৬ বিলিয়ন টন। সেই তুলনায় কার্বন ডাই অক্সাইড শোষণ করে উঠতে পেরেছে মাত্র ১৩ দশমিক ৯ বিলিয়ন টন! 

এটা দেখে এই বিজ্ঞানীরা তো বটেই, সারা পৃথিবীর পরিবেশবিদেরাই আতঙ্কিত হয়ে উঠেছেন। বিশ্বের বৃহত্তম ক্রান্তীয় অরণ্যের যদি এই অবস্থা হয়, তাহলে বিশ্ব উষ্ণায়ন এবং বাতাসে কার্বন ডাই অক্সাইড কমানোর জন্য হাতে তো আর কোন উপায় থাকল না।
  
কিন্তু কেন এরকম হল? বিজ্ঞানীরা দেখেছেন, আগুন লাগিয়ে, কেটে ফেলে নির্বিচারে আমাজনের অরণ্যসম্পদ ধ্বংস করা হয়েছে। এর মধ্যেই যে পরিমাণ বনভূমি সাফ হয়ে গেছে, তা প্রায় নেদারল্যান্ডের সমপরিমাণ। 

বিশ্বের বৃহত্তম ক্রান্তীয় অরণ্য এরকম দুর্দশার মুখে পড়ল কী ভাবে? পরিবেশবিদরা জানিয়েছেন, ২০১৯ সালের ১ জানুয়ারি বলসোনারো ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট পদে আসীন হওয়ার পর থেকেই আমাজন অরণ্য আরও বেশি বেহাল হয়ে উঠেছে।  দ্যা গার্ডিয়ান

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়