সম্পূর্ণ নিউজ সময়
আন্তর্জাতিক সময়
১৫ টা ১৫ মিঃ, ৪ মে, ২০২১

বিল-মেলিন্ডার বিচ্ছেদে যা বললেন বড় মেয়ে জেনিফার গেটস

বিশ্বের শীর্ষ ধনী ও মাইক্রসফট কর্ণধার বিল গেটস ও তার স্ত্রী মেলিন্ডা গেটসের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়েছে। এ প্রসঙ্গে তাদের বড় মেয়ে জেনিফার গেটস, তাদের পরিবারের সদস্যরা কঠিন সময় পার করছে। 
বাঁ থেকে জেনিফার, বিল, মেলিন্ডা
আন্তর্জাতিক সময় ডেস্ক

সোমবার (০৩ মে) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইন্সটাগ্রামে এক পোস্টে জেনিফার লেখেন, বন্ধুরা, ইতোমধ্যে আপনারা অনেকেই জেনে গেছেন, আমার বাবা ও মা আলাদা থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমাদের পুরো পরিবার একটি কঠিন সময়ে মুখে দাঁড়িয়ে আছে। এই পরিস্থিতিতে আমি চেষ্টা করছি পরিবারের সদস্যরা যেন মানসিক ভাবে ভেঙে না পড়েন।

তিনি লিখেন, নিজের আবেগকেও নিয়ন্ত্রণে রাখতে হচ্ছে আমার। এই কঠিন সময়ে তারা আমাকে তাদের আগলে রাখার সুযোগ দিয়েছেন, এ কারণে আমি আমার পরিবারের সদস্যদের কাছে কৃতজ্ঞ।

জেনিফার ওই পোস্টে আরও লেখা হয়েছে, আমি ও আমার পরিবারের সদস্যরা জীবনের একটি নতুন পর্যায়ে প্রবেশ করতে যাচ্ছি। আমাদের পরিবারের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা রক্ষায় যারা সহযোগিতা করেছেন, তাদের সবাইকে আমি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

বিল-মেলিন্ডা দম্পতির তিন সন্তান রয়েছে- জেনিফার (২৫); ছেলে ররি (২২) ও ছোট ফোবি (১৯)। তারা সবাই বাবার প্রতিষ্ঠিত আলমা ম্যাটার হাইস্কুল থেকে পড়াশোনা করেছেন।

সোমবার (৩ মে) টুইটারে দেয়া বিয়েবিচ্ছেদের বার্তায় তারা বলেন, দম্পতি হিসেবে একসঙ্গে থাকা তাদের পক্ষে আর সম্ভব হচ্ছে না। তবে, বিচ্ছেদ হলেও নিজেদের প্রতিষ্ঠিত দাতব্য প্রতিষ্ঠান 'বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন' এর কাজ একসাথে চালিয়ে যাওয়ার কথা জানান তারা। এদিকে, বিচ্ছেদের পর তাদের সম্পত্তির বন্টন  কিভাবে হবে সে বিষয়ে মুখ খোলেননি কেউই।

দীর্ঘ সংসার জীবনে বিল গেটস ও মেলিন্ডার ঘর আলো করে আসে তিন সন্তান। দাতব্য সংস্থা 'বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউনডেশন' এর যৌথ পরিচালক এ ধনী দম্পতি। তাদের এ সংস্থাটি বিশ্বব্যাপী সংক্রামক রোগের বিরুদ্ধে লড়াই ও শিশুদের টিকার আওতায় আনতে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে যাচ্ছে। ২০০০ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই মানুষের স্বাস্থ্য ও উৎপাদনমুখী জীবন যাপনে উদ্বুদ্ধ করে আসছে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়াও ২০১০ সালে আরেক ধনকুবের ওয়ারেন বাফেটের সঙ্গে যৌথভাবে 'দ্য গিভিং প্লেজ' নামে আরও একটি দাতব্য সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন গেটস দম্পতি, যার লক্ষ্য বিশ্বের ধনী ব্যক্তিদের সম্পদের একটি অংশ দাতব্য কাজে লাগানো।

১৯৭৫ সালে পল অ্যালেনের সঙ্গে যৌথভাবে মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠা করেন বিল গেটস। এরপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি গেল কয়েক বছর ধরে শীর্ষ ধনীর তালিকায় থাকা মার্কিন এই ধনকুবেরকে। সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে মাইক্রোসফট। প্রভাবশালী সাময়িকী ফোর্বসের তথ্যমতে, বর্তমানে বিল গেটস বিশ্বের চতুর্থ শীর্ষ ধনী ব্যক্তি। বর্তমানে তার মোট সম্পদের পরিমাণ প্রায় ১২ হাজার ৪০০ কোটি মার্কিন ডলার।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়