ওয়েব ডেস্ক
আপডেট
০৪-০৫-২০২১, ১৬:৩২

সবুজ অর্থনীতি ও জলবায়ু পরিবর্তনের ভূ-রাজনীতি

সবুজ অর্থনীতি ও জলবায়ু পরিবর্তনের ভূ-রাজনীতি
বিশ্বের জলবায়ু পথপ্রদর্শক হিসেবে এগিয়ে আসছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। সম্প্রতি আইনপ্রণেতা ও ইউরোপীয় সরকারগুলো ইউরোপীয় জলবায়ু আইনে সম্মতি দিয়েছে। সংবিধিবদ্ধভাবেই এটি আমাদের (ইউরোপের) জলবায়ু-ভারসাম্য লক্ষ্যমাত্রাকে সমর্থন করছে।

আমাদের প্রবৃদ্ধি কৌশল ও ২০৩০ নাগাদ অন্তত ৫৫ শতাংশ কার্বন-নিঃসরণ-লাঘবের টার্গেটের সঙ্গে সবুজ চুক্তি থাকায় ২০৫০  সালের মধ্যে ভালোভাবেই জলবায়ু ভারসাম্য অর্জনের পথে থাকছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

কিন্তু ইউরোপ কেবল একাই না: আরও অনেক দেশ যখন কার্বন-নির্গমন-হ্রাসে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, তখন এই অঙ্গীকার নিয়ে বিশ্বজুড়ে একটা উচ্ছ্বাসা তৈরি হয়েছে। 

গ্লাসগোতে গত নভেম্বরে জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনে (কপ২৬) আন্তর্জাতিক জোটকে ঐক্যবদ্ধ করে কাজ করতে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন একমত হয়।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জলবায়ুবিষয়ক বিশেষ দূত জন কেরির সাম্প্রতিক বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এখন একটি মুহূর্তও নষ্ট করার মতো সময় হাতে নেই। 

অনিয়ন্ত্রিত জলবায়ু পরিবর্তন—সর্বনাশা খরা, দুর্ভিক্ষ, বন্যা ও গণবাস্তুচ্যুতিতে—নতুন অভিবাসনের ঢল উসকে দেবে এবং এর পুনরাবৃত্তি উল্লেখযোগ্যহারে বাড়াবে এবং পানি, আবাদিভূমি ও প্রাকৃতিক সম্পদ নিয়ে সংঘাত আরও তীব্রতর হবে।

জলবায়ু পরিবর্তন ও জীববৈচিত্র্যের ক্ষতি সামাল দিতে বড় বিনিয়োগ নিয়ে যারা অভিযোগ করেছেন, তাদের আমরা কেবল দেখিয়ে দেব যে, এই নিষ্ক্রিয়তার খেসারত বহুগুণ বেশি দিতে হবে।

জলবায়ু ও জীববৈচিত্র্য মোকাবেলার মাধ্যমে সবাই ভালো থাকতে পারবেন, উন্নত কর্মসংস্থান, নির্মল পানি-বাতাস, কম মহামারি, স্বাস্থ্য ও সামাজিক সমৃদ্ধি বাড়বে।

কিন্তু যে কোনো বড় ধরনের রূপান্তরের ক্ষেত্রে আসন্ন পরিবর্তনগুলো কাউকে কাউকে হতাশ করে তুলবে—কেউ কেউ উপকৃত হবেন। এতে দেশগুলোর মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হবে। আমরা একটি হাইড্রোকার্বনভিত্তিক অর্থনীতি থেকে নবায়নযোগ্য জ্বালানিনির্ভর টেকসই অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে জোর দিচ্ছি।

এই ভূরাজনৈতিক প্রভাব নিয়ে আমরা একেবারে অন্ধ থাকতে পারি না।

এই রূপান্তর নিজেই জীবাশ্ম জ্বালানি রফতানি ও নিয়ন্ত্রণকারীদের থেকে ক্ষমতাকে দূরে সরিয়ে নিয়ে ভবিষ্যতে সবুজ প্রযুক্তিতে দক্ষদের দিকে ঝুঁকে পড়বে।

উদহারণস্বরূপ বলা যায়, ধীরে ধীরে জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার বন্ধ করে দেওয়ায় ইউরোপীয় ইউনিয়নের কৌশলগত অবস্থান শক্তিশালী হবে, জ্বালানি আমদানির ওপর নির্ভরশীলতা কমিয়ে আনার মাধ্যমে না।

২০১৯ সালে আমাদের তেলের ৮৭ শতাংশ আর গ্যাসের ৭৪ শতাংশ এসেছে বিদেশ থেকে, ওই বছর ৩৮ হাজার ৬০০ কোটিরও বেশি ডলারের জীবাশ্ম-জ্বালানি আমদানি করতে হয়েছে।

সবুজ অর্থনীতিতে* রূপান্তরে পুরনো কৌশলগত প্রণালীগুলোর—হরমুজ থেকে শুরু করে—প্রাসঙ্গিকতা হারিয়ে যাবে এবং এভাবে তা খুব একটা বিপজ্জনকও থাকবে না। 

এসব সমুদ্রবাহিত পথ বহু দশক ধরে সামরিক কৌশলীদের দুশ্চিন্তায় ফেলে রেখেছিল। কিন্তু যখন তেলযুগ শেষ হয়ে যাবে, তখন আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক শক্তিগুলোর এই পথে প্রবেশ ও নিয়ন্ত্রণের কোনো গুরুত্ব থাকবে না।

জ্বালানি আমদানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় রাশিয়ার মতো দেশগুলোর ভূরাজনৈতিক ক্ষমতা ও আয়ের পথ কম যাবে। রাশিয়া অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এখন ইউরোপীয় মার্কেটের ওপর নির্ভরশীল। অবশ্যই, নিকট-ভবিষ্যতে রাশিয়ার রাজস্বের উৎস খোয়ানোতে এ অঞ্চলকে অস্থিতিশীলতার দিকে নিয়ে যেতে পারে, বিশেষ করে, ক্রেমলিন যদি এটাকে বাণিজ্যিক ঝুঁকি হিসেবে দেখে।

দীর্ঘমেয়াদে বিশ্ব যদি পরিচ্ছন্ন জ্বালানিতে চলে তাহলে সরকারগুলো আরও স্বচ্ছ হয়ে উঠবে। কারণ এতে ঐতিহ্যবাহী জীবাশ্ব-জ্বালানি রফতানিকারকদের অর্থনীতিকে আরও বৈচিত্র্যময় করে তোলার পাশাপাশি তেলের অভিশাপ থেকে মুক্ত হতে হবে। তারা যে দুর্নীতি লালন করতো, তাও আর থাকবে না।

সবচেয়ে বড় কথা, সবুজ অর্থনৈতিক রূপান্তরে খুব একটা কাঁচামাল দরকার পড়ে না। যা প্রয়োজন হয়, তার কিছু কিছু দেশের অভ্যন্তরেও মেলে।

দেশগুলো ইতিমধ্যে পররাষ্ট্রনীতির হাতিয়ার হিসেবে প্রাকৃতিক সম্পদ কাজে লাগানোর ইচ্ছার কথা জানিয়েছে। দুটি উপায়ে ক্রমবর্ধমান ঝুঁকি সামাল দেওয়া সম্ভব: গুরুত্বপূর্ণ সম্পদগুলোর পুনর্ব্যবহার ও রফতানিকারক দেশগুলোর বড় জোট গড়ার মাধ্যমে।

যদি অন্যান্য দেশের জলবায়ু অঙ্গীকার আমাদের সমতুল্য না হয়, তবে কার্বন নির্গমনের একটা ঝুঁকি থেকে যায়। যে কারণে কার্বন নির্গমনের সীমা সমন্বয় কলাকৌশল (সিবিএএম) নিয়ে কাজ করছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। 

আমরা জানি কিছু দেশ, এমনকি আমাদের মিত্ররাও বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন। কিন্তু আমরা পরিষ্কার করে দিতে চাই: রফতানি করা কার্বন-নির্গমন পণ্যে মূল্য নির্ধারণ করে দেওয়ায় শাস্তিমূলক কিংবা সুরক্ষানীতি হতে পারে না।

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার নীতির প্রতি নমনীয়তার বিষয়টিও আমাদের পরিকল্পনায় নিশ্চিত করতে হবে। প্রাথমিকভাবে আমাদের পদক্ষেপের ব্যাখ্যার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অংশীদারদের সঙ্গে যুক্ত থাকতে হবে। জলবায়ু লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছাতে সহযোগিতা ও সহায়তায়ই আমাদের উদ্দেশ্য। আমাদের প্রত্যাশা, সিবিএএম পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করে দেবে।

সবুজ অর্থনীতিতে রূপান্তর কেবল টেকসই ও স্থিতিশীলতাই নিয়ে আসবে না, ভূরাজনৈতিক প্রতিযোগিতা ও লড়াই কমিয়ে আনতে বিশ্বকে পথ দেখাবে। কাজেই কোনো মোহের আশ্রয় না নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের উচিত বিভিন্ন অঞ্চলে তাদের নীতির কী প্রভাব পড়বে, সেই ব্যাখ্যা দেওয়া, সম্ভাব্য পরিণতি মেনে নেওয়া এবং অদূর-ভবিষ্যত ঝুঁকির মোকাবিলায় প্রস্তুতি নিতে হবে।

উদহারণস্বরূপ, আর্কটিক অঞ্চলের ভূখণ্ড ও বরফের নীচে জমে থাকা সম্পদে নিজেদের অবস্থান শক্ত করতে চেষ্টা করছে রাশিয়া, চীন ও অন্যান্য দেশগুলো। অঞ্চলটিতে বৈশ্বিক গড় তাপমাত্রা দ্বিগুণ বাড়তে শুরু করেছে। 

উত্তেজনা কমাতে এবং আর্কটিককে আর্কটিকের জায়গায় রাখতে এসব শক্তির জোরালো ইচ্ছা থাকলেও বর্তমানে তাদের অবস্থান জোরদারের লড়াই পুরো অঞ্চলকে ঝুঁকিতে ফেলে দেবে।

ইউরোপের দক্ষিণে সৌর ও সবুজ হাইড্রোজেন থেকে জ্বালানি উৎপাদনের বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে। নবায়নযোগ্য জ্বালানির ওপর ভিত্তি করে নতুন টেকসই অর্থনৈতিক মডেলও প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। এসব সুযোগ হাতিয়ে নিতে সাব-সাহারান আফ্রিকা ও অন্যান্য দেশের সঙ্গে ইউরোপের সহযোগিতা বাড়ানো প্রয়োজন।

ইউরোপ সবুজ অর্থনৈতিক রূপান্তরের দিকে যাচ্ছে। কারণ বিজ্ঞান বলেছে যে—আমাদের এটা অবশ্যই করতে হবে। অর্থনীতিও আমাদের সেই শিক্ষা দিয়েছে। আর প্রযুক্তিও দেখিয়ে দিয়েছে, আমাদের দিয়ে এটা সম্ভব।

আমাদের বিশ্বাস, দূষণমুক্ত পরিচ্ছন্ন প্রযুক্তি পরিচালিত একটি বিশ্ব সবার জন্য সামাজিক সমৃদ্ধি ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা নিয়ে আসবে। কিন্তু ঝুঁকি ও বাঁধার কারণে এই পথ খুব একটা মসৃণ না। এ কারণে আমাদের সব চিন্তাভাবনায় জলবায়ু পরিবর্তনের ভূরাজনৈতিক বিষয়টিও চলে আসছে।

আমাদের গতিপথের ধারার পরিবর্তন ও অভিমুখ উল্টে দেওয়ার ক্ষেত্রে ভূরাজনৈতিক ঝুঁকি কোনো অজুহাত হতে পারে না। বরং সবার জন্য সবুজ অর্থনৈতিক রূপান্তরকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। যত দ্রুত সম্ভব বিশ্বজুড়ে আমরা এটা নিশ্চিত করতে পারব, তত দ্রুতই সবাই তা উপভোগ করবে, সবার জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে।

*পরিবেশের ক্ষতিসাধন না করে প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষা করে অর্থনৈতিক উন্নয়নই সবুজ অর্থনীতি। সহজভাবে বলতে গেলে, সবুজ অর্থনীতি এমন অর্থনীতিকে বোঝায় যা মানুষের উন্নয়ন নিশ্চিত করবে এবং একই সঙ্গে পরিবেশগত ঝুঁকি কমাবে এবং অভাব দূর করবে।

লেখক: ফ্রান্স টিমারম্যানস, ইউরোপীয় ইউনিয়নের নির্বাহী ভাইস-প্রেসিডেন্ট।

জোসেফ বোরেল, ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র বিষয়ক হাই রিপ্রেজেন্টিটিভ এবং ইউরোপিয়ন কমিশন ফর স্ট্রগার ইউরোপ ইন দ্যা ওয়ার্ল্ডের ভাইস-প্রেসিডেন্ট। স্বত্ব, প্রজেক্ট সিন্ডিকেট। অনুবাদ, আতাউর রহমান রাইহান।



DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু
৭৭৬২৫৭ ৪৮৯৩১ ৭১৫৩২১ ১২০০৫
বিস্তারিত
দেশের ৩০ গ্রামে ঈদ উদযাপন ‘স্ত্রীকে হত্যায় তিন লাখ টাকা দিয়েছিল বাবুল’ স্বপ্ন হচ্ছে সত্যি, মহাকাশ থেকে ইন্টারনেট! ঈদে পাঁচ টিভিতে দীঘি মিতু হত্যা: সাবেক এসপি বাবুলের বিরুদ্ধে শ্বশুরের মামলা শিরোপা জয়ের আনন্দে ভাসছে সিটি সমর্থকরা আল-আকসায় হামলা: মাহমুদ আব্বাসকে চিঠি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ঈদের পরই গণমাধ্যমের শৃঙ্খলা আনা হবে: তথ্যমন্ত্রী মন্ত্রীদের কাছে চীনের টিকা হস্তান্তর করলেন রাষ্ট্রদূত অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা স্থগিত করল ব্রাজিল সরকার ঈদে ‘‌পিছুটান’ দেশে শিলা বৃষ্টিসহ ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস টিকা প্রয়োগ পরিকল্পনায় আরও সতর্ক হওয়ার তাগিদ ‘যারা গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছে, তারাই মানুষকে নির্যাতন করছে’ ধর্ষণসহ ৫ মামলায় মামুনুল হক রিমান্ডে জাপানে অনলাইনে টিকা নিবন্ধনকারীদের তথ্য মুছে গেল বঙ্গবন্ধু সেতুতে রেকর্ড ৫২ হাজার যান পারাপার, সর্বোচ্চ টোল আদায় নিয়ম ভাঙলেন সালমান খান! নতুন মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হবে বাবুলকে: পিবিআই এক যুগ পর টিভিতে টনি ও প্রিয়া ডায়েস চীনা ভ্যাকসিনের কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী চীন থেকে আরও টিকা আনার চেষ্টা চলছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী অবসরের ঘোষণা দিলেন ওয়াটলিং শিশুদের আন্তরিকতায় বাঁচল লক্ষ্মীপেঁচা ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাত শেষ হবে কবে? ১০ টাকার ওষুধে সারবে করোনা, দাবি চিকিৎসকদের চীনের ভ্যাকসিনও সংরক্ষণ হবে ২-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে শ্রীলঙ্কা সফরে কে হচ্ছেন ভারতের কোচ-অধিনায়ক? রেমিটেন্স প্রবাহ: বিদেশে নতুন কর্মী পাঠানোসহ জরুরি খাতে অর্থ ব্যয়ের পরামর্শ ইসরায়েল-ফিলিস্তিন ইস্যুতে যা বলছে জাতিসংঘ বাসায় ডেকে আপত্তিকর ছবি তুলে চাঁদা নিত চক্রটির সদস্যরা সৌদি আরবে গৃহবধূ নিখোঁজ ৬ মাস, প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা পরিবারের কাতার প্রবাসী জসীম উদ্দিনের কথায় আকাশ মাহমুদের নতুন গান সৌরভ গাঙ্গুলির চোখে যে পাঁচটি কারণে সফল ভারতীয় ক্রিকেট এক সপ্তাহ পরেই বাজারে আসছে ব‌রেন্দ্রের আম এবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ওসিকে বদলি করোনায় শ্রমিক সংকটে সিঙ্গাপুর বাড়ি যেতে রোজা রেখে সাইকেল চালিয়ে ২৮০ কিলোমিটার পাড়ি তরুণীর! ইইউয়ের অভিযোগ ভিত্তিহীন: অ্যাস্ট্রাজেনেকা পারফিউমের এই গুণাগুণ জানলে আপনি চমকে যাবেন পাউবো কর্মীর যৌন হয়রানি তদন্তে কমিটি ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের নাম নিবন্ধন শুরু ইতালিতে খোলা মাঠে ঈদের নামাজের অনুমতি পেলেন প্রবাসীরা সশরীরে আদালতে হাজির হতে পারেন অং সান সুচি কুয়েতে ফ্ল্যাটের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত দুই প্রবাসী ‘বিক্রম বেদা’র হিন্দি সিনেমায় নতুন চমক ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ৪০ কিলোমিটার যানজট সন্ধ্যায় জানা যাবে ঈদের তারিখ ৪৪ দেশে মিলেছে করোনার ভারতীয় ধরন শিমুলিয়ায় জনস্রোত গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর নির্বিচার বোমাবর্ষণ চলছেই, নিহত বেড়ে ৩৫ মতিঝিলে ছাপাখানার কর্মচারী খুন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট সাভারের দিকে হেঁটেই রওনা দিচ্ছেন ঘরমুখো মানুষ করোনায় ফের রেকর্ডসংখ্যক মৃত্যু দেখল ভারত আপনার ভাগ্যে কী আছে, জেনে নিন আজকের রাশিফল ১২ মে: ইতিহাসের এই দিনে যা ঘটেছিল বিশ্বে করোনা আক্রান্ত ছাড়াল ১৬ কোটি হামাসের রকেট হামলায় অসহায় আইরন ডোম, পালাচ্ছে ইসরায়েলিরা! ফিলিস্তিনিদের হত্যায় যুক্তরাষ্ট্রে তীব্র নিন্দা প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় যোগ্যদের তালিকা প্রকাশ করল বুয়েট রাতে গাজায় দফায় দফায় বিমান হামলা ফেনীতে পুলিশ কর্মকর্তাদের রদবদল, তিন থানায় নতুন ওসি গাছে বেঁধে মা-ছেলেকে নির্যাতনের প্রধান আসামি গ্রেফতার চীনের উপহার পাঁচ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন এখন ঢাকায় ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাত: লডে জরুরি অবস্থা জারি দিশার স্বপ্নপূরণ, মন খারাপ সালমানের লা লিগার স্বপ্ন ফিকে হয়ে গেল বার্সার হামাসের রকেট হামলায় জ্বলছে ইসরায়েল, বিমানবন্দর বন্ধ ঘোষণা ‘পূর্ণাঙ্গ যুদ্ধের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে ফিলিস্তিন-ইসরায়েল’ ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা থামাতে বিশ্ব নেতাদের যে আহ্বান জানালেন সালাহ ইউনাইটেড হারতেই ইপিএল চ্যাম্পিয়ন ম্যান সিটি মালিহার মৃত্যু: ৩ দিনেও জট খুলেনি, কথিত স্বামীর পরিচয় নিয়ে ধোঁয়াশা শুভশ্রীর জীবনের শ্রেষ্ঠ সিদ্ধান্ত কী? জানালেন অভিনেত্রী নিজেই ছাতকে নারীকে ধর্ষণের চেষ্টা, পিটিয়ে আহতের অভিযোগ নিজের রেস্তরাঁ থেকে বিনামূল্যে খাবার দিচ্ছেন দেব ফিলিস্তিনের পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ ৭ বছর রাজত্ব করবে বায়ার্ন! সমুদ্রের গভীরে নেমে শরীরচর্চা! কিন্তু কেন? বিশ্ব আর্চারিতে যাচ্ছেন ৮ তীরন্দাজ স্থগিত আইপিএল মাঠে গড়ালে থাকবে না ইংলিশরা আর ফ্রী নয়, ছবি রাখতে নতুন নিয়ম আনল গুগল ফটোস! বিশ্বকাপ সামনে রেখে পুরনো চিন্তায় বিসিবি বন্ধ হয়ে যেতে পারে রোনালদোর ফুটবল খেলা! বাল ঠাকুরের নাতির সঙ্গে প্রেম করছেন আলিয়া? ২৭০ শিশুকে খুশি করল ভয়েস অব পাকুন্দিয়া ভারতে করোনা আক্রান্তে মৃত বাংলাদেশির মরদেহ হস্তান্তর অনলাইনে পরীক্ষা: অসুবিধার কথা বললেন জাককানইবি উপাচার্য বাংলাদেশের পররাষ্ট্র নীতিকে সমৃদ্ধ করতে সহযোগিতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী যে নতুন নিয়মে সন্ধ্যার আগেই ঈদের তারিখ নির্ধারণ করল সৌদি ৫ দিনের ছুটিতে টাইগাররা ইসরায়েলি আগ্রাসনের শেষ দেখতে কয়েক দেশের সঙ্গে এরদোয়ানের ফোনালাপ ঈদের দিন ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে বৃষ্টির পূর্বাভাস লক্ষ্মীপুরের নদীভাঙা ও দ্বীপের শিশুদের মুখে ঈদের হাসি ফুটাল আলোকযাত্রা হামাসের রকেট হামলায় ২ ইসরায়েলি নিহত অ্যাম্বুলেন্স থেকে করোনায় মৃতদের ফেলা হয় নদীতে ইসরায়েলি সেনার মুখোমুখি ‍যুবক, সাহস থাকলে অস্ত্র রেখে আসুন (ভিডিও) ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ৪০ কিলোমিটারে গাড়ির চাপ সৌদি আরবে চাঁদ দেখা যায়নি, ঈদ বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীকে ঈদকার্ড পাঠিয়েছে বিএনপি
আরও সংবাদ...
কাবিলার মুক্তির দাবি দর্শকদের, যা বললেন নির্মাতা পরশ মনিকে ফলো করেন মামুনুল হক! অশ্লীল ভিডিওতে ঠাসা ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের ফোন, বিয়েতেও ধোঁয়াশা! সত্য প্রকাশ হওয়ায় চটেছেন নোবেল ঢাকায় লকডাউনের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীদের মিছিল-অবরোধ (ভিডিও) মুনিয়ার মৃত্যু রহস্য নিয়ে যা জানাল ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা মামুনুলকে ‘গাদ্দার’ বলে ক্ষোভ ঝাড়লেন সেই নারীর ছেলে (ভিডিও) মামুনুলের সঙ্গে থাকা সেই নারীর পরিচয় মিলেছে যে কাজ অসম্পূর্ণ রেখে গেলেন কবরী শৌচাগারে ঢুকে পুরুষের নগ্ন ভিডিও করা মিথিলা এখন ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ সাসপেন্ড হলেন ফেসবুক লাইভে আসা সেই পুলিশ সদস্য এবার তৃতীয় বিয়ের দাবি মামুনুল হকের! শুক্রবার টানা সাড়ে ৭ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায় বাংলাদেশের আকাশে রহস্যময় মিথেন গ্যাস! করোনায় দেশের ইতিহাসে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু, শনাক্তেও রেকর্ড ‘তুই মেডিকেলে চান্স পাস নাই, তাই তুই পুলিশ’ (ভিডিও) মামুনুলের বিষয়ে হেফাজতের সিদ্ধান্ত জানালেন বাবুনগরী পড়াশোনার খরচ চালাতে দেহ ব্যবসায় ঝুঁকছেন শিক্ষার্থীরা! টানা দু’দিন গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায় মামুনুল কাণ্ড: জান্নাত আরার সাবেক স্বামী শহিদুল আটক আরেফিন শুভর দেওয়া কষ্ট মৃত্যু পর্যন্ত মনে রাখবেন পরিচালক ছেলের বিয়ের দিন মা জানলেন কনে তার হারিয়ে যাওয়া মেয়ে! লকডাউনে দোকান বন্ধ করতে বলায় আনসারকর্মীকে খুন মিনা পাল থেকে কবরী হলেন যেভাবে শারীরিক সম্পর্কে জোর করায় হাত-পা বেঁধে স্বামীকে হত্যা আবারও কঠোর লকডাউনের হুঁশিয়ারি কাদেরের শামীম-সারিকার ‘সীমিত পরিসরে বিয়ে’ সর্বাত্মক লকডাউনের প্রজ্ঞাপন মামুনু‌ল হকের প‌ক্ষে স্ট্যাটাস দেয়ায় বহিষ্কার ছাত্রলীগ নেতা ৩ পুরুষাঙ্গের বিরল শিশুর জন্ম লাখ টাকার ভাড়া ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন তরুণী জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ফারুক-কবরী ছাত্রলীগ নেতা রাব্বানীকে নিয়ে জনপ্রিয় অভিনেত্রী ‘জবা’র স্ট্যাটাস ‘অসম্ভবকে’ সম্ভব করল জাপান মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ পেলেন যে স্কুলের ২২ শিক্ষার্থী ভারতফেরত ১০ করোনা রোগী পালিয়েছেন, ‘ভারতীয় ধরন’ ছড়ানোর শঙ্কা! এক বছরেই দুই রমজান! এবার কঠোর লকডাউনের ঘোষণা ফেসবুকে দেওয়া ছবিই কাল হলো মুনিয়ার! ‘বুর্জ আল খালিফা’র গায়ে কুমিল্লার মোশাররফের ছবি! (ভিডিও) অভিজাত ফ্ল্যাটে তরুণীর ঝুলন্ত মরদেহ, যাতায়াত ছিল এক শিল্পপতির ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ নাটকের নতুন খবর দিলেন নির্মাতা করোনায় দেশে মৃত্যুর নতুন রেকর্ড নিয়মিত পর্নোগ্রাফি দেখতেন রফিকুল মাদানী: পুলিশ মামুনুল হককে কি গ্রেফতার করা হয়েছে? ‘হুজুর, দয়া করে আপনার লাইভ লাইভ খেলা বন্ধ করেন’ মামুনুল কাণ্ড: ‘রোমান্টিক প্রেমের’ চার অডিও ফাঁস শিল্পী মমতাজের সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি ‘ভুয়া’! কেজিপ্রতি ১০০ টাকা কমেছে মুরগির দাম, ডিম ডজনে ১০ ‘শিশু বক্তা’ রফিকুলকে নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিল র‍্যাব
আরও সংবাদ...

মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  EnglishLive TV DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে
x