সম্পূর্ণ নিউজ সময়
মহানগর সময়
১৫ টা ৬ মিঃ, ২৬ মার্চ, ২০২১

সুবর্ণজয়ন্তীতে অসংকোচ প্রকাশের স্বাধীনতা চান লেখকরা

একাত্তরে ফিরেছে বায়ান্ন। স্বাধীনতা দিবসের বিকেল এমনই দ্যোতনা তৈরী করেছে অমর একুশে গ্রন্থমেলায়। সুবর্ণজয়ন্তীতে অসংকোচ প্রকাশের স্বাধীনতা চান লেখকরা। যদিও, করোনা পরিস্থিতি প্রভাব ফেলেছে বই বেচাকেনায়।
ফয়সাল মোর্শেদ

মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পার করছে বাংলাদেশ। করোনা পরিস্থিতিতে স্বাধীনতার মাসে বইমেলার আয়োজন ভিন্ন আবহে এসেছে পাঠকদের মাঝে।

বইমেলার শুক্রবার মানে শিশুপ্রহর। করোনা বাস্তবতায় শিশুদের এই আনন্দ আয়োজনের অনুপস্থিতি কিছুটা মনখারাপের কারণ।

এক শিশু বলে, গত বছর কোভিডের কারণে বইমেলায় আসতে পারিনি। এ বছর এসেছি। এবার একটা কমিক বই কিনেছি। ভালো লাগছে।

এক তরুণ বলেন, বইমেলায় বাচ্চারা এসে একটু মজা করছে। বই কিনছে, এটা একটা ভালো দিক। বাড়ছে করোনার প্রকোপ। খোলেনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। যার প্রভাব পড়েছে বই বিক্রিতে।

প্রকাশকরা বলেন, করোনা পরিস্থিতি যদি স্বাভাবিক হতো তাহলে হয়তো আমরা আরো বেশি বই বিক্রি করতে পারতাম। একটু ভালো লাগতো। স্বাধীন দেশে মতপ্রকাশের স্বাধীনতা বেশী জরুরি বলে মনে করছেন লেখকেরা।

লেখক মোহসিনা সরকার বলেন, যা ভাবতাম তা খোলাখুলিভাবে বলতে পারব। এইজন্য আমার বইটার নাম 'শেকলে বাধা শতাব্দি'। আমরা ২০২১ সালে আছি, কিন্তু আমরা যা মনে করছি সেটা মুক্তভাবে লিখতে পারছি না। 

বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৮০৮ টি বই প্রকাশিত হয়েছে এবারের মেলায়।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়