ওয়েব ডেস্ক
আপডেট
২২-০২-২০২১, ২১:২৪

সর্বস্তরে প্রয়োগই হলো আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের চ্যালেঞ্জ

সর্বস্তরে প্রয়োগই হলো আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের চ্যালেঞ্জ
মাতৃভাষার জন্য সংগ্রাম করে সে ভাষার মর্যাদা রক্ষা করেছেন এমন জাতি বিশ্ব ইতিহাসে বিরল। কিন্তু আমরা সৌভাগ্যবান কিংবা দুর্ভাগ্যবান যা-ই হই না কেন, পৃথিবীর বুকে আমাদের বাংলাদেশই একমাত্র দেশ, যেখানে বাংলা ভাষায় কথা বলার অধিকার রক্ষার জন্য সংগ্রাম করতে হয়েছে। জীবন দিতে হয়েছে কতশত মানুষকে। যখন দ্বিজাতি তত্ত্বের ভিত্তিতে ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগ হয়েছিল, তখনই এর বীজ রোপিত হয়েছিল। কারণ তখন একটি অপপ্রচার চালানো হতো বিকৃত ও সংকীর্ণ রাজনৈতিক মতাদর্শের ব্যক্তিবর্গের দ্বারা। তখন তাদের তরফ থেকে এভাবে অপপ্রচার করা হতো যে, যেহেতু হিন্দু ও মুসলমান-এই দুই ধর্মের ভিত্তিতে দেশ বিভাগ হয়েছে, সেজন্য বাংলা হলো হিন্দুদের ভাষা এবং উর্দু হলো মুসলমানদের ভাষা।

কাজেই মুসলমানিত্ব টিকিয়ে রাখতে হলে অবশ্যই সেদেশের ভাষা বাংলা হওয়া বাঞ্ছণীয়। সেখান থেকেই শুরু। তারপর ১৯৪৮ সালে থেকেই বাংলাভাষা রক্ষার আন্দোলন শুরু হতে লাগলো। পশ্চিম পাকিস্তানিরা তখন ভেবেছিল যে, যদি পূর্ববাংলাকে তাদের নিজস্ব বাংলা ভাষায় কথা বলা, লেখাপড়া, জ্ঞান চর্চা করতে, প্রয়োগ, ব্যবহার ইত্যাদি করতে দেওয়া হয় তাহলে বাঙালিরা পশ্চিম পাকিস্তান থেকে অনেক বেশী এগিয়ে যেতে পারে। তাহলের আর তাদেরকে শাসন- শোষণ করা যাবে না।

সেজন্যই উর্দুভাষাকে জোরপূর্বক পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা হিসেবে চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল বারবার। সেখানে আরো একটি দূরভিসন্ধি ছিল এরকম যে, যদি কোনোভাবে পূর্ববাংলার ওপর উর্দু ভাষাকে চাপিয়ে দেওয়া যায় তাহলে বাঙালি জাতি তাদের মুখের ভাষা হারিয়ে, তাদের বিরুদ্ধে সবধরণের অন্যায়-অত্যাচার মুখবুজে সহ্য করবে। কোন প্রতিবাদের ভাষা খুঁজে পাবে না তারা। কিন্তু রাখে আল্লাহ, মারে কে? দেখা গেল ১৯৪৮ সাল থেকে শুরু করে আস্তে আস্তে পূর্ব বাংলার মানুষের ভিতর বাংলা ভাষা হারানোর চক্রান্ত ক্রমশই পরিষ্কার হতে থাকে দিনদিন।

তারপরে ১৯৫২ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে সে মাতৃভাষার আন্দোলন চরম পরিণতির দিকে গিয়ে শেষপর্যন্ত সালাম, বরকত, রফিক, জব্বার প্রমুখ ব্যক্তিবর্গসহ সারাদেশের বিভিন্ন জায়গায় আরো অনেক শহীদের তাজা প্রাণ ও রক্তের বিনিময়ে পাকিস্তানি স্বৈরাচারেরা পিছু হঠে বাঙালির দাবি মেনে নিতে বাধ্য হয়। এতে দুই ধরনের প্রতিক্রিয়াই পরবর্তীতে লক্ষণীয়। প্রথমত বাঙালি জাতি তাদের আগামীর দাবি আদায়ের একটি পথ পেয়ে যায়। রচিত হয় একটি সুগম পথের যা ধরে আমাদের পরবর্তী স্বাধীনতার আন্দেলনের সুদূরপ্রসারী রাস্তা-ঘাট আস্তে আস্তে নির্ভয়ে এগোনোর প্রেরণা যুগিয়েছে।


অপরদিকে পাকিস্তানিরা ভবিষ্যতের জন্য আরো সতর্ক হয়ে গিয়ে বাঙালিকে আর কোন ধরনের ছাড় না দেওয়ার বিষয়ে অনড় ও ফন্দি-ফিকিরে আবৃত হতে থাকে। তাদের ভিতরে অদম্য স্পৃহা সৃষ্টির মাধমে বাঙালির ওপর শোষণ, অত্যাচার ও নির্যাতন আরো বহুগুণে বাড়িয়ে দিতে লাগল। কারণ এর মাধমে তারা বাঙালির ভিতর যে চেতনাবোধ ও দেশপ্রেম উপলব্ধি করতে পেরেছিল, তাতে তারা ভয় পেয়ে গিয়েছিল মনে মনে। আর এও তাদের মনে ছিল যে, সহস্রাধিক মাইল দূরের একটি ভূখণ্ডে সম্পূর্ণ আলাদা একটি জাতি-রাষ্ট্রের উপর খুব বেশীদিন জুলুম, কর্তৃত্ব, অত্যাচার করা যাবেনা।

 সেজন্যই তারা ‘যা পারো নিয়ে নাও’ এর মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছিল তখন। তারপর ১৯৪৮ সালের পর থেকে শুরু হওয়া ভাষা আন্দোলনের সাফল্য অর্জনের পর ১৯৫৮ তে সামরিক শাসন বিরোধী আন্দোলন, বাষট্টিতে শিক্ষা আন্দোলন, ছিষট্টির ছয়দফা, উনসত্তরের গণ অভ্যুত্থান, সর্বোপরি ১৯৭১ সালে ৯ মাসের স্বাধীনতা সংগ্রাম আসলে একইসূত্রে গাথা। সবগুলোই স্বৈরাচারী, নিপীড়ক, শোষক পাকস্তানিদের হটানোর মাধ্যমে বাংলাদেশের ভাষা পুণরুদ্ধার ও দেশের স্বাধীনতার জন্য করা হয়েছিল। ভাষা সংগ্রামে সেসময় যেমন ছিলেন শিক্ষাবিদ ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, আবার ছিলেন প্রবীণ ও অভিজ্ঞ রাজনীতিক মাওলানা আব্দুর রশিদ তর্কবাগীশ, শেরে বাংলা একে ফজলুল হক, হোসেন শহীদ সোহরাওয়র্দী, মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী প্রমুখ নেতৃবৃন্দের সাথে সে সময়ের তরুণ ও উদীয়মান নেতা পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু ও জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানও ভাষা আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।

তারপর যখন বাংলা পূর্ববাংলার মাতৃভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হলো, সেই পথ ধরে একই আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় তখন ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দুই লক্ষাধিক মা-বোনের ইজ্জত এবং ত্রিশ লক্ষাধিক শহীদের রক্তের বিনিময়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হলো। ১৯৫২ সালের পর থেকেই দাবি উঠেছিল যে পূর্ব বাংলায় সর্বস্তরে বাংলা ভাষা ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। যেহেতু বাংলাভাষা রক্ষার জন্য একমাত্র আমাদের বাংলাদেশকেই কেবল ভাষার জন্য রক্ত ও জীবন দিতে হয়েছে, সেজন্য সেই ভাষা বর্তমানে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে। কিন্তু ১৯৫২ সাল থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত ১৯ বছর বাংলা ভাষা সে কাজটি খুবই ধীর গতিতে হয়েছে। কারণ ভাষা স্বাধীন হলেও দেশ যে ছিল পরাধীন। তখন একুশে ফেব্রুয়ারিতে মাতৃভাষা দিবসকে শ্রদ্ধা জানাতে দেওয়া হতো না। তৈরী করতে দেওয়া হতো না কোন শহীদ মিনার। তখন লুকিয়ে লুকিয়ে অত্যন্ত ভয়ে ভয়ে ও সংক্ষিপ্ত কলেবরে পালন করা হতো ভাষাশহীদ দিবস।

তবে পরবর্তীতে আস্তে আস্তে বীর বাঙালিকে আর কেউ-ই রুখতে পারেনি। ঠিকই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে প্রতিষ্ঠিত হলো সবচেয়ে বড় শহীদ মিনার। তার পর থেকেই পালিত হচ্ছে ভাষাদিবস যা সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে অনেক আগেই। তারই ধারাবাহিকতায় মাতৃভাষা দিবস প্রতিষ্ঠিত হলো আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে। এর পিছনেও রয়েছে একটি কাকতালীয় ইতিহাস। ১৯৯৯ সালে কানাডা প্রবাসী কয়েকজন বাংলাভাষা প্রেমীদের মধ্যে সেখানেও আব্দুস সালাম ও রফিকুল ইসলাম নামের ব্যক্তিবর্গ উদ্যোগী হয়েছিলেন।

তাদের উদ্যোগেই জাতিসংঘের ইউনেস্কোর আহবানে তৎকালীন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরকারে নেতৃত্বে শিক্ষামন্ত্রী এএইচএসকে সাদেকের সহযোগিতায় তা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা হিসেবে স্বীকৃতি পায়। সেই ১৯৯৯ সাল থেকেই জাতিসংঘের সকল সদস্য রাষ্ট্রের মধ্যে প্রতিবছরের একুশে ফেব্রæয়ারিতে এ দিবসটি পালিত হয়ে থাকে। এরই উদাহরণ হিসেবে ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের জাতিসংঘের সদর দপ্তরের সামনে বিরাট বড় এক শহীদ মিনার প্রতিষ্ঠিত করে সেখানে বাংলাদেশ মিশন কর্তৃক অনেক আড়ম্বরপূর্ণভাবে পালন করেছিল। এবছর (২০২১) সারা বাংলাদেশে এবং বিদেশের সব মিশন এবং জাতিসংঘের সকল সদস্য রাষ্ট্রসমূহ সেই গৌরবময় অমর একুশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সীমিত আকাওে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পালন করার জন্য উদগ্রিব হয়ে রয়েছে।

কিন্তু দঃখের বিষয় হলো এখনো সর্বস্তরে বাংলার ব্যবহার নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি। কিন্তু যখন সঙ্গত কারণেই পরাধীন পূর্ববাংলায় ইচ্ছা করলেই সর্বস্তরে বাংলা ব্যবহার নিশ্চিত করার অনেক বাধা-বিপত্তি ছিল। কিন্তু তখনো দেখা গেছে, ১৯৭১ সালের পর যখন দেশ ও ভাষা দুটোই স্বাধীন তখনও সর্বস্তরে বাংলাভাষা ব্যবহার উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পায়নি। এখনো অফিস, আদালত, স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় সবকিছুই এখনো চলছে বিদেশি ভাষাতেই। আমরা জাতি হিসেবে আবেগ তাড়িত হয়ে সবকিছুই আন্দোলনের মাধ্যমে অর্জন করতে পারি, কিন্তু এর সুফল পুরোপুরি ভোগ করতে যেন এতটা আগ্রহ বোধ করিনা।

যেখানে রাশিয়া, চীন, জাপানের মতো দেশ তাদের মাতৃভাষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে শিল্প-সাহিত্য চর্চাসহ জ্ঞান-বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে গুরুত্ব দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে, সেখানে আমরা আমাদের দেশে সর্বস্তরে বাংলাভাষা ব্যবহার করতে পারছিনা। এখানো নিজের বাচ্চাদের ইংরেজি স্কুলে পড়িয়ে গর্বকরে পরিচয় দিতে কুণ্ঠাবোধ করিনা। অথচ আমাদের দেশের সর্বোচ্চ আদালত কর্তৃক সর্বস্তরে মাতৃভাষা ব্যবহারের বিষয়ে নির্দেশনা রয়েছে। তারপরও আমরা তা ব্যবহারে সার্বজনীন হতে পারছিনা। বাংলাভাষা চর্চা যেন এখন শুধু ফেব্রুয়ারি মাসকেন্দ্রিক হয়ে  গেছে। ফেব্রুয়ারি মাস এলেই আমরা বাংলাভাষাকে নিয়ে মাতামাতি করে থাকি। কিন্তু ফেব্রুয়ারি মাস শেষে সারাবছর যেন আমার তা বেমালুম ভুলে যাই।

ভাষা সত্ত্বাকে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য, এর চর্চা বাড়ানোর জন্য, শুদ্ধভাবে ভাষা চর্চার জন্য, ভাষা বিষয়ে গবেষণা করার জন্য দেশে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল বাংলা একাডেমি নামের জাতীয় প্রতিষ্ঠান। সেই বাংলা একাডেমি প্রতিবছর মাসব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলার আয়োজন করে থাকে যা এখন চলমান রয়েছে। কাজেই বাংলা একাডেমি, সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তর কর্তৃক সর্বস্তরে বাংলা ব্যবহারের একাধিক নির্দেশনা বিভিন্ন সময়ে জারি করা হয়েছে। কিন্তু তা সঠিকভাবে পালন করা হচ্ছেনা কোনখানেই। কাজেই সঠিকভাবে পালন করতে হলে এটি একটি চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিতে অবশ্যই সকলের আন্তরিক সহযোগিতা প্রয়োজন হবে। তা না হলে আমাদের সংগ্রামের মাধ্যমে অর্জিত ভাষা এবং সংগ্রাম দুটোই বিফলে যেতে পারে।  

লেখক: ড. মো. হুমায়ুন কবীর
ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়।

ইমেইল: [email protected]



DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু
৫৪৫৪২৪ ৪১৫৩১ ৪৯৫৪৯৮ ৮৩৯৫
বিস্তারিত
ইউনাইটেড এয়ারকে আবার উড়ানোর চেষ্টা ঠাকুরগাঁওয়ে জমির বিরোধে হামলার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ব্রাজিলিয়ান-আর্জেন্টাইনে বিধ্বস্ত ঢাকা আবাহনী ভাসানচর ঘুরে এসে বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসা করলেন ওআইসি প্রতিনিধিরা ব্যাংকিং খাতের সুশাসন আনতে ঋণের ওপর ৭ শর্ত ২০২২ সালের এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা যেভাবে হবে ঘরোয়া লিগে ফিক্সিংয়ের তদন্ত হচ্ছে ফলাফল নিয়ে গুজবে ম্যাজিস্ট্রেট অবরুদ্ধ, সংঘর্ষে আহত ২৫ নিজেকে বাঁচাতে চলন্ত বাসে কলেজছাত্রীর লাফ, চালক-হেলপার আটক তিনদিন পর মুশতাকের মৃত্যুর কারণ জানালো কারা কর্তৃপক্ষ ‘বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দিন, নয়তো বিষ দিন’ মোবাইল চুরির অপবাদে শিশুকে পিটিয়ে জখম জালে উঠল ১২০ কেজির বাঘাইড়, ১ লাখ ২১ হাজারে বিক্রি দৃশ্যমান উত্তরা-আগারগাঁও মেট্রোরেলের প্রায় ১২ কিলোমিটার ভোটার তালিকায় ‘মৃত’, তাই টিকা নিতে পারছেন না স্কুলশিক্ষক! মশক নিধনে ডিএনসিসির অভিযানে ১১ লাখ টাকা জরিমানা দেশে টিকা গ্রহণকারীর সংখ্যা ছাড়াল ৩১ লাখ আবারও ডিম দিয়েছে বিলুপ্ত প্রজাতির কচ্ছপটি অভিজিৎ হত্যা: ফাঁসির রায়ের ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে ইয়াবা দিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীকে ফাঁসাতে গিয়ে গ্রেফতার ৪ মেডিকেলের প্রশ্নফাঁস: ব্যাংকে ৬৫ কোটি টাকা, নামে-বেনামে ৪২ একর জমি ড্রাইভিং লাইসেন্স ও স্মার্টকার্ড প্রদান শুরু বাঘায় দু’পক্ষের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ৪ এক কক্ষে ধরা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী যুগল, অতঃপর... বিকৃত যৌনাচার সামগ্রী বিক্রির মূল হোতাসহ গ্রেফতার ৬ পুলিশের ফেসবুকে বার্তা, টিউশন ফি পেলেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনের মামলা সরকারি নিয়োগপত্র পেলেন ৫২ জন আওয়ামী লীগকে বৈধভাবে ক্ষমতাচ্যুত করা যাবে না: হানিফ অন্যের বউ চুরি করে বিয়ের অদ্ভুত রীতি যেসব দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে ভুয়া তথ্য ফেসবুকে অপরাধ দমনে র‌্যাবের টহলে থাকবে ফিঙ্গারপ্রিন্ট প্রযুক্তি ১৮ বিক্ষোভকারীর রক্তে ভিজল মিয়ানমারের রাজপথ ফেসবুকের জন্মদিনে সবাইকে বিকাশে ৩০০০ টাকা দেয়ার তথ্য সত্য নয় ‘কিছু টাকা পেলে মাছ ধরা বন্ধের সময় নদীতে যেতাম না’ নিকুঞ্জে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ বান্ধবীকে নিয়ে ঘুরতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে যুবক আহত ঘর থেকে ডেকে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে হত্যা নোটিশ ছাড়াই উচ্ছেদ অভিযানের অভিযোগ গাইবান্ধায় ইউরোপের প্রযুক্তিতে উৎপাদিত হচ্ছে ফ্রেশ বিস্কুট হবিগঞ্জে নৌকার জয় বেইলি ব্রিজ ভেঙে খালে, শুরু হয়নি মেরামত কাজ সাতক্ষীরায় স্বামীকে হত্যার দায়ে স্ত্রীর যাবজ্জীবন মমতাকে উৎখাতের ডাক দিলেন পীরজাদা আব্বাস বান্দরবানে নদীতে অজ্ঞাতপরিচয় মরদেহ উদ্ধার বাঁশ নিয়ে পুলিশকে পেটানোর ভিডিও ভাইরাল ‘সুইসসহ বিদেশি ব্যাংকে দেশের কার কত টাকা’ জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট খাশোগি হত্যায় সৌদি যুবরাজের বিচার নিয়ে বাইডেনের ঘোষণা আসছে আশি বছর আগে হারানো হাতির সন্ধান! ৪০ হাজার ম্যাক পিসিতে ম্যালওয়্যার ভাইরাসের হানা! নোয়াখালীতে মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে আরও একজন গ্রেফতার উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে উত্তরণে আনন্দমিছিল ‘টিকা নিলেও করোনা আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা আছে’ নিঃসন্তান হওয়ায় দুই নবজাতক চুরি করেন তিনি! ‘মেহেদী রাঙা হাত’ নারীদের ভোট নিল না ইভিএম প্রাথমিক বিদ্যালয়ের টাইমস্কেল সংক্রান্ত রিট খারিজ সিলেটে নারীসহ ‘মাদক সম্রাট’ পুলিশের হাতে ধরা আল-আকসা নিয়ে ফিলিস্তিনের ভিডিও গেম হাত-পা বেঁধে মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা, কিশোর আটক বাঙালি সংস্কৃতিকে অসম্মান করছে ‘কে কে আর’, কলকাতায় প্রতিবাদ ‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে আছে ওআইসি’ স্কুল-কলেজের আগে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা উচিত, মত শিক্ষাবিদদের নোয়াখালীতে মাদক কারবারীর কারাদণ্ড ভর্তি পরীক্ষায় আগের জিপিএ বহাল চান বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছুরা অর্থ আত্মসাৎ: আল হামীম পাবলিকের ৩ কর্মকর্তা কারাগারে মিয়ানমারে সেনাবিরোধী বিক্ষোভে গুলি, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭ খালেদার মানহানির দুই মামলার শুনানি পেছাল স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বের হলে কমতে পারে রফতানি কলাবাগানে ছাত্রীর মৃত্যু, সন্দেহে জবি ট্রেজারারের ছেলে ‘পার্বত্য জেলায় সেনাবাহিনীর ছেড়ে দেওয়া ক্যাম্পে পুলিশ মোতায়েনের সিদ্ধান্ত’ সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে যাওয়ায় মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত বহিষ্কৃত বেসরকারি হাসপাতালের সেবামূল্য সরকার নির্ধারণ করবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী পিডিদের প্রকল্প এলাকায় থাকার তাগিদ শিল্পমন্ত্রীর গোপালগঞ্জে রিজভীর বিরুদ্ধে সমন জারি পরীক্ষার দাবিতে আমরণ অনশনে জাবি শিক্ষার্থীরা ১ মার্চ থেকে ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা পাকস্থলীতে ১৪শ’ ইয়াবা! যত অর্জন সব আওয়ামী লীগের হাতেই: ড. হাছান মাহমুদ ‘বঙ্গবন্ধু অ্যাওয়ার্ড ফর ওয়াইল্ডলাইফ কনজারভেশন’ পাচ্ছেন যারা বয়স্ক ভাতার সেই টাকা বুঝিয়ে দিল ব্যাংক ইউপি নির্বাচনে আর অংশ নেবে না বিএনপি: ফখরুল মাদক সেবনের টাকা না দেওয়ায় মাকে খুন করল মেয়ে মানিকগঞ্জে হত্যা মামলায় আসামির মৃত্যুদণ্ডাদেশ মেডিকেলে আসনপ্রতি লড়বে ২৮ জন, বাড়ছে ২৮২ আসন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুললে বোঝা যাবে কে টিকে থাকবে, কে থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী টুঙ্গিপাড়ায় খুঁটির বদলে শিমুল গাছে বিদ্যুৎ লাইন করোনায় মৃত্যু বাড়ল দেড়গুণ সামাজিক সুরক্ষা ভাতা পায় না ৪৬ শতাংশ মানুষ! ইভিএমের বোতামে ছাত্রলীগ নেতার হাত, বাধা দিল ভোটাররা (ভিডিও) ‘মনে হচ্ছিল জেলখানায় আছি’ চারদিনেও গ্রেফতার হয়নি হাত-পা বেঁধে নির্যাতনকারী সেই ইউপি সদস্য সিআইডির অনুসন্ধানে বেরিয়ে এলো আনুশকার মৃত্যুর কারণ স্বপ্ন পূরণে এগিয়ে চলছে সরকার: পলক বেপরোয়া গাড়ি চালানো বন্ধ করতে বললেন ওবায়দুল কাদের নারায়ণগঞ্জে ৪ শ্রমিক হত্যায় ২ আসামির মৃত্যুদণ্ড, ৯ জনের যাবজ্জীবন সিরাজগঞ্জে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৩০ আড়াই হাজার ফ্ল্যাট পাচ্ছেন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জুটি বাঁধছেন ইয়াশ-দীঘি ডিজিটাল সেবায় আসছে পোস্ট অফিস যেভাবে শীর্ষ কোটিপতি হলেন আমাজনের জেফ বেজস
আরও সংবাদ...
ঢাকার রাস্তায় নামছে ‘বাঘ’ তামিমা সম্পর্কে যা জানা গেল! তামিমার চার বিয়ে তিন স্বামী! পপিকে বিয়ে করতে চাওয়া যুবকের পরিচয় বিরল রোগে আক্রান্ত নবজাতক, গবেষণায় শিশুকে দান করবেন দম্পতি খেলতে গিয়ে হরিণকে ‘বন্ধু’ বানিয়ে বাসায় নিয়ে এলো শিশু! প্রেমিকার অপেক্ষায় ৪০ বছর ধরে ঢাবি হলের বারান্দায় সরু (ভিডিও) ঢাকায় ৫০ টাকায় গরুর মাংস! তামিমার তিন নম্বর স্বামী নাসির হোসেন! রহিমার প্রেমের টানে কেশবপুরে আমেরিকান ইঞ্জিনিয়ার চাঁদপুরের বাস দুর্ঘটনার ভিডিও ভাইরাল টিকা নিলে বিশেষ অঙ্গ ছোট হওয়ার খবর কতটা সত্য? আলোচনায় ব্যাচেলর পয়েন্টের ‘নোয়াখালীর শিমুল’ এই লেখকের প্রতি কপি বইয়ের দাম ৩ লাখ টাকা মহানবীর (সা.) ১৪০০ বছর আগের যে বাণী সত্য প্রমাণ পেল বিজ্ঞান পর্ন সাইট খুললে তথ্য যাবে পুলিশের কাছে! ছিলেন নাইটগার্ড, ১৫ দিনের ছুটি নিয়ে হয়ে গেলেন মেয়র আল জাজিরার প্রতিবেদন: পেছনে কারা? সুইডেনে পড়তে গিয়ে পালিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশিরা জনপ্রিয় টিকটক তারকা রফির মরদেহ উদ্ধার শাহরিয়ার নাফিসের বিদায়ে স্ত্রীর আবেগঘন স্ট্যাটাস আল জাজিরার সামি, আপাদমস্তক অপরাধে মোড়া এক চরিত্র! এখনই খুলছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ফেব্রুয়ারি-মার্চ দেখে এপ্রিলে সিদ্ধান্ত নাসিরের প্রেমিকার তালিকায় অভিনেতা সিদ্দিকের সাবেক স্ত্রী! বিয়ে করলেন নাসির ভ্যাকসিন নিলে সাড়ে ৮ হাজার টাকা পুরস্কার! যে কারণে স্বামী-সন্তান ছেড়ে নাসিরকে বিয়ে করেছে তামিমা সুইমিং পুলে সৃজিত-মিথিলার রোমান্স টিকা দেওয়ার দ্বিতীয় দিনে কমল মৃত্যু ও আক্রান্ত ভাইয়ের পা ধরে মাফ চেয়েও রক্ষা পেলেন না নিজাম বছরের ভাইরাল দুই জুটি (ফটো অ্যালবাম) এবার ট্রলকারীদের জবাব দিলেন নায়ক রিয়াজ আল জাজিরার সংবাদ ভিত্তিহীন দাবি, সরকারের প্রত্যাখ্যান মধ্যবয়সী নারীদের টার্গেট করে শারীরিক সম্পর্ক করে বরিশালের বেলাল কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ সাকিব! বিতর্কের মধ্যেই নাসির-তামিমার জমকালো বিবাহোত্তর অনুষ্ঠান পার্লারে গিয়ে মুখ পুড়ল সুন্দরী নারীর! (ভিডিও) সুখবর পেতে পারেন ৪৩তম বিসিএস আবেদনকারীরা ৪০ হাজার কোটি মার্কিন ডলারের মালিক ছিলেন মুসা! (ভিডিও) আল-জাজিরায় সাক্ষাৎকারের চাঞ্চল্যকর তথ্য দিলেন মুন্না এসএসসির প্রকাশিত সিলেবাস বাতিল ছানাদের বাঁচাতে লড়াই করে বিষধর সাপ রুখে দিল মা মুরগি! (ভিডিও) স্বামীকে রেখে বিয়ে: আইন কী বলে? ২৩ বছরে ১১ শিশুর মা, নিতে চান ১০০ সন্তান! শিক্ষিকাকে বিয়ে করলেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ নেতা দেবরের লাগাতার ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা প্রবাসীর স্ত্রী, অবশেষে বাড়ি ছাড়া টিকা নিয়ে ৪২৬ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ডিভোর্স ছাড়াই স্বামী-সন্তান ফেলে নাসিরকে বিয়ে করেছেন তামিমা! একাধিক সিনেমা থেকে বাদ দীঘি! সশস্ত্র বাহিনীকে নিয়ে খেলবেন না: সেনাপ্রধান
আরও সংবাদ...

মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  EnglishLive TV DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে
x