আন্তর্জাতিক সময় ডেস্ক
আপডেট
২৪-১১-২০২০, ২০:৪৮

ভারতের রাজনীতিতে শক্ত ভিত গড়ছে ইত্তিহাদুল মুসলিমিন

ভারতের রাজনীতিতে শক্ত ভিত গড়ছে ইত্তিহাদুল মুসলিমিন
ঐতিহ্যগতভাবে ধর্মনিরপেক্ষ দলগুলোকে ভোট দিয়ে আসছেন মুদাচ্ছির নাজারের পরিবার। সম্প্রতি ভারতের বিহার রাজ্যে অনুষ্ঠিত বিধানসভা নির্বাচনে সেই ঐতিহ্য থেকে সরে এসেছে তারা। ভোট দিয়েছে অল ইন্ডিয়া মজলিসে ইত্তিহাদুল মুসলিমিন (এআইএমআইএম) বা মিম পার্টিকে। দলটি মুসলমান এবং প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর অধিকারের বিষয়ে যথেষ্ট সরব ভূমিকা পালন করায় নতুন এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।

বিহারের সিমাঞ্চল জেলার কিশানগঞ্জের বোহিতার বাসিন্দা নাজার জানান, আমাদের গ্রামের সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানরা ঐক্যবদ্ধভাবে এআইএমআইএম’কে ভোট দিয়েছে।

সম্প্রতি বিহারে অনুষ্ঠিত বিধানসভার নির্বাচনে ৫টি আসনে জয় পেয়েছে এআইএমআইএম। যেগুলো মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ এলাকার অন্তর্ভুক্ত। বাংলাদেশ এবং নেপালের সীমান্তবর্তী ভারতের বিহার রাজ্যের বাসিন্দারা জানান, ভারতের বিরোধীদলগুলো ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলে আসলেও দীর্ঘদিন ধরে এলাকার দরিদ্রতার মতো গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু উপেক্ষা করেছে তারা।

নাজার আল জাজিরাকে জানান, ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল কংগ্রেসের মতো ভারতের ধর্মনিরপেক্ষ দলগুলো মুসলমানদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে।

তিনি বলেন, তথাকথিত ধর্ম নিরপেক্ষদলগুলো বর্তমান সরকারের সংখ্যালঘুবিরোধী সিদ্ধান্তের বিষয়ে বরাবরই নীরব ভূমিকা পালন করছে। তারা নূন্যতম বিরোধিতা পর্যন্ত করেনি। ব্যতিক্রম এআইএমআইএম। তারা সংখ্যালঘুদের পক্ষে কথা বলছে। মুসলিমসহ সংখ্যালঘুদের অধিকার রক্ষায় এআইএমআইএম’র অব্যাহত অবস্থান সাধারণ মানুষের আস্থা এবং বিশ্বাস অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

১শ’ ৩০ কোটি জনসংখ্যার ভারতে মুসলমানদের উপস্থিতি ১৪ শতাংশ। মুসলমানদের মুলধারার রাজনীতি থেকে অব্যাহতভাবে সরিয়ে দেয়া হচ্ছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দেশটিতে মুসলমানরা ক্রমান্বয়ে আরো প্রান্তিক জনগোষ্ঠীতে পরিণত হচ্ছে। বিহারের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এবার কোনো মুসলমানকে মন্ত্রিপরিষদে জায়গা দেয়া হয়নি।

ভারতের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে ৫৪৩টি আসন রয়েছে। বর্তমানে মুসলমানদের উপস্থিতি মাত্র ২৭টি আসনে; যা চার শতাংশেরও কম। এটিও ভারতের ইতিহাসের ৪০ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন।

হিন্দু জাতীয়বাদী এজেন্ডা

২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকার হিন্দু জাতীয়তাবাদী এজেন্ডার অংশ হিসেবে অনেকগুলো আইন পাস করেছে। যে আইনগুলোকে মুসলমানদের বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক আখ্যা দিয়েছেন বিশেষজ্ঞররা।

গেলো বছর বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন পাস করে মোদি সরকার। অ্যাকটিভিস্টরা এ আইনকে দেশটির ধর্মনিরপেক্ষ সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক আখ্যা দিয়েছেন। প্রস্তাব করা হয় সিটিজেনশিপ রেজিস্টারের। এসবের প্রতিবাদে মুসলমানদের নেতৃত্বে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।



গেলো বছরের আগস্টে কাশ্মীরের রাজ্য মর্যাদা এবং কাশ্মীরীদের দেয়া সাংবিধানিক বিশেষ সুবিধা বাতিল করে মোদি সরকার। মুসলিম অধ্যুষিত অঞ্চলটিতে বন্ধ করে দেয়া হয় সবধরনের যোগাযোগ ব্যবস্থা। যা বহাল থাকে ৬ মাসেরও বেশি। পাশাপাশি জম্মু এবং কাশ্মীরকে কেন্দ্র শাসিত আলাদা অঞ্চলে পরিণত করে ক্ষমতাসীন বিজেপি।

ন্যাশনাল ইন্ডিয়ান কংগ্রেসের মতো বিরোধী দলগুলোকে ঐতিহ্যগতভাবে মুসলমানরা ভোট দিয়ে আসছে। ওই দলগুলোর বিরুদ্ধে অভিযোগ- মুসলমানদের অস্তিত্বে হুমকি সৃষ্টি করার মতো মোদি সরকারের সিদ্ধান্তে চুপ থেকেছে তারা। দেশটির সবচেয়ে বড় সংখ্যালঘুগোষ্ঠী মুসলমানরা।

তেলেঙ্গানা রাজ্যের দক্ষিণাঞ্চলীয় হারদ্রাবাদ শহরে কয়েক দশক নিজেদের কার্যক্রম সীমাবদ্ধ রেখেছিল এআইএমআইএম। কিন্তু সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মুসলিম অধ্যুষিত অঞ্চলগুলোতে নিজেদের কার্যক্রম জোরদার করে দলটি। রাজনীতি থেকে মুসলমানদের বিতাড়িত করার মতো বিষয়গুলোতে গুরুত্ব দিচ্ছে এআইএমআইএম।

দলটির নেতৃত্বে রয়েছেন আসাদুদ্দিন ওয়াইসি। চারবারের এ সাংসদ পার্লামেন্ট এবং টিভিতে তুখোড়, চৌকষ এবং যুক্তিযুক্ত বক্তব্যের জন্য বিখ্যাত। ভারতে মুসলমানসহ সংখ্যালঘুদের বিভিন্ন ইস্যুতে জোরদার ভূমিকা রেখে তাদের কণ্ঠস্বরে পরিণত হয়েছেন তিনি।

মোদির হিন্দু জাতীয়তাবাদী এজেন্ডার বিরুদ্ধে ভারতের বিরোধীদলগুলো প্রতিবাদ জানাতে ব্যর্থ হয়েছে বলে অভিযোগ এআইএমআইএম’র।

নয়াদিল্লির জওহরলাল নেহরুর বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক অভিনাশ কুমার আল জাজিরাকে বলেন, বিজেপি সরকারের নেয়া ভারতীয় সংবিধানের মূলনীতিবিরোধী কর্মকাণ্ডের প্রকাশ্যে কোনো প্রতিবাদ করেনি ধর্মনিরপেক্ষ বিরোধীদলগুলো। এ কারণে মুসলমানরা এআইএমআইএম’র দিকে ঝুঁকছে। বিজেপিকে মোকাবিলার জন্য এআইএমআইএম’কে সঠিক দল হিসেবে দেখছে তারা।

তিনি বলেন, তথাকথিত ধর্মনিরপেক্ষ প্রত্যেকটি দল যখন নিজেদেরকে সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধি হিসেবে প্রমাণে ব্যস্ত, একইসঙ্গে প্রান্তিক বা সংখ্যালঘুদের অবস্থানকে উপেক্ষা করছে তখন খুব স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় সুনির্দিষ্ট জনগোষ্ঠীর অধিকারের বিষয়ে যারাই গুরুত্ব দেবে তারা মূল্যায়ন পাবে।’

দেশব্যাপী আবেদন

বিহারের বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারণার সময় কংগ্রেস পার্টি এবং তাদের আঞ্চলিক জোট রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরএসডি) মুসলমানদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো সচেতনভাবে এড়িয়ে গেছে।

বিহারের সাংবাদিক মাজিদ আলম আল জাজিরাকে বলেন, ওই দলগুলো তাদের প্রচারণায় কর্মসংস্থান এবং উন্নয়নের উপর জোর দিয়েছে শুধু। কারণ তারা সংখ্যালঘুদের অধিকারের বিষয়ে সোচ্চার হয়ে সংখ্যাগুরুদের ভোট হারাতে চায়নি। এ কারণে মুসলমানদের একাংশ এআইএমআইএম’র মতো একটি দলকে সমর্থনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে, যারা তাদের হয়ে আওয়াজ তুলছে।

বিশ্লেষকদের মতে, ভারতের স্বাধীনতা পরবর্তী ইতিহাসে এআইএমআইএম-ই একমাত্র মুসলমানদের রাজনৈতিক দল যা দেশজুড়ে একটা আবেদন তৈরি করেছে। যদিও এখনো অধিকাংশ মুসলমান বিজেপি বিরোধীদেরই ভোট দেন।

আল জাজিরাকে এআইএমআইএম’র জাতীয় মুখপাত্র ওয়ারিস পাঠান বলেন, মুসলমানসহ সব সংখ্যালঘুদের বঞ্চনা এবং তাদের অধিকারের বিষয় আমরা তুলে ধরছি। সাধারণ মানুষ সাড়া দিচ্ছে। যা আমাদের ভোটের ফলে প্রভাব ফেলছে।



আসাদ উদ্দিন ওয়াইসি

পাঠান বলেন, বিহারে আগের বারের চেয়ে আমাদের ভোট বেড়েছে। আমরা প্রত্যেকটি প্রতিযোগিতায় নিজেদের ভোট বাড়াচ্ছি। গেলো বছর মহারাষ্ট্রের নির্বাচনেও আমাদের ভোটের সংখ্যা বেড়েছে। আমরা কয়েকটি আসনেও জয়ী হয়েছিলাম।

এআইএমআইএম’র জ্যেষ্ঠ নেতা সৈয়দ আসিম ওয়াকার বলেন, শুধুমাত্র মুসলমানদের জন্য নয়, পুরো দেশের জন্য তাদের দল একটি টেকসই বিকল্প।

আল জাজিরাকে তিনি বলেন, আমরা নিজেদের মুসলমানদের দল বলে পরিচয় দেই না। যেখানে হিন্দু সংখ্যাগরিষ্ঠ, মুসলমানরা সংখ্যায় কম সেখানেও আমরা জয়ী হয়েছি। এটা সম্ভব হয়েছে দলিত শ্রেণির হিন্দু জনগোষ্ঠীও আমাদের ভোট দেয়ায়।

বিহারের নির্বাচনে এআইএমআইএম বহুজন সমাজ পার্টি (বিএসপি) এবং রাষ্ট্রীয় লোক সমতা পার্টির সঙ্গে জোট গড়ে নির্বাচন করে। যারা বিভিন্ন সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধিত্ব করে।

মুসলিম-দলিত জোট

২০১৯ সালের সাধারণ নির্বাচনে মহারাষ্ট্রে দলিত পার্টির সঙ্গে জোট গড়ে এআইএমআইএম। হায়দ্রাবাদের বাইরে প্রথমবারের মতো পার্লামেন্ট আসনে জয় পায় দলটি।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, দলের প্রধান ওয়াইসির কারিশমায় এআইএমআই’র অবস্থান দিন দিন শক্ত হচ্ছে। কারণ তিনি তরুণ মুসলিম ভোটারদের স্বপ্নকে বুঝতে পেরেছেন। তাদের স্বপ্ন দেখাচ্ছেন তিনি।

কলকাতার আলিয়া ইউনিভার্সিটির সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ রিয়াজ বলেন, ওয়াইসির উপস্থিতি এবং তার বাচনভঙ্গি তার সমসাময়িক রাজনীতিবিদদের থেকে আকর্ষণীয় এবং সম্পূর্ণ আলাদা। এআইএমআইএম’র উত্থানের এটাও একটা কারণ।

মুসলমানদের ঐতিহ্যবাহী টুপি এবং পাঞ্জাবি পরে ৫১ বছর বয়সী এআইএমআইএম নেতা ওয়াইসিকে টিভির প্রাইম টাইম নিউজে প্রায়ই বিরোধীদলীয় নেতাদের সঙ্গে প্রচণ্ড বাকযুদ্ধে লিপ্ত হতে দেখা যায়।

জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কুমারের মতে, পার্লামেন্টেও তিনি যুক্তিতর্ক এবং গবেষণামূলক ভাষণ দিয়ে থাকেন। যা মুসলমান ভোটারদের নিশ্চিতভাবে আকৃষ্ট করে। এ বিষয়গুলো এখন নির্বাচনে ভোটের লড়াইয়েও প্রতিফলিত হচ্ছে।

তবে বিরোধী দলীয় কিছু নেতার অভিযোগ, এআইএমআইএম মুসলমানদের ভোটে বিভাজন তৈরি করে বিজেপিকে সহায়তা করছে।

ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল কংগ্রেসের জাতীয় মুখপাত্র মিম আফজাল বলেন, বিজেপি যেমন সাধারণ মানুষের মধ্যে ধর্মের ভিত্তিতে বিভাজন করছে, একই কাজ করছে এআইএমআইএমও। এআইএমআই নির্বাচনী লড়াইয়ে উল্লেখযোগ্য কোনো সফলতা কখনোই পাবে না। শুধুমাত্র মুসলমান ভোটারদের ভোট ভাগাভাগির মাধ্যমে বিজেপি এবং তাদের সহযোগীদের ক্ষমতায় থাকতে সহায়তা করতে পারে।

সমালোচনা পাশ কাটিয়ে এআইএমআইএম’র লক্ষ্য এখন পশ্চিমবঙ্গের বিধান সভা নির্বাচন। পশ্চিমবঙ্গের মোট জনসংখ্যার ২৭ শতাংশ মুসলমান।

এআইএমআইএম’র বিহার যুব শাখার প্রেসিডেন্ট আদিল হাসান আজাদ বলেন, পুরো ভারতে এআইএমআইএম’র উপস্থিতি নিশ্চিত করাই আমাদের লক্ষ্য।



DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু
৫৩১৩২৬ ৪৭৪২৪ ৪৭৫৮৯৯ ৮০০৩
বিস্তারিত
সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম গ্রাউন্ডস-২ উদ্বোধন বরুণ-নাতাশার বিয়েতে অতিথিরা ঢুকতে পারবেন ‘এক শর্তে’ ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী, প্রে‌মি‌কের বিরু‌দ্ধে মামলা চলে গেলেন কিংবদন্তি মার্কিন সাংবাদিক ল্যারি কিং ৬৪ বছর বয়সী বৃদ্ধের ২৭ স্ত্রী, ১৫০ ছেলে-মেয়ে ছাতকে ডাকাতির ঘটনায় গ্রেফতার ২ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার কতদিন পর পরীক্ষা হবে? কুমিল্লায় হবে আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচ: বাফুফে সভাপতি ডাক্তারদের ৫ মিনিট মহাত্মা গান্ধীর সময়ের চেয়েও দামি! ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান শুনেই রেগে মঞ্চ ছাড়লেন মমতা! হরতাল স্থগিত চূড়ান্তভাবে চাকরিচ্যুত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩ শিক্ষক চট্টগ্রাম পৌঁছেছে বাংলাদেশ-উইন্ডিজ শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন শেখ ফজলে ফাহিম মার্কিন সেনাবহরে নজিরবিহীন হামলা বাইডেনের জন্য চিঠিতে কী লিখে গেছেন ট্রাম্প? ৬২ কোটির অফার ফিরিয়ে দিলেন রোনালদো! খুলে দেয়া হলো উদয়াচল পার্ক বিশ্বকাপকে সামনে রেখে শুরু হচ্ছে যুবাদের কন্ডিশনিং ক্যাম্প ‘পৃথিবীর কোথাও একদিনে ৭০ হাজার পরিবার ঘর পেয়েছে কি!’ বঙ্গবন্ধু বায়োপিকের সংগীত পরিচালক শান্তনু মৈত্র মসজিদে পাওয়া ১৪ বস্তায় কত টাকা ছিল? পটুয়াখালীতে মেছো বাঘের ৬ শাবক উদ্ধার বাড়িতে হামলা চালিয়ে চেয়ারম্যানের ভাইকে হত্যা আগুনে সেরামের বড় আর্থিক ক্ষতি, ভ্যাকসিন সুরক্ষার দাবি পৌর নির্বাচনে মামা-ভাগ্নের লড়াই আবারো সীমান্তে লম্বা সুড়ঙ্গের সন্ধান ইমন সাহাকে এক হাত নিলেন নির্মাতা ঝন্টু পিতৃত্বের অধিকার নিয়ে ঐতিহাসিক রায় ভারতে মানিকগঞ্জে বাল্লা ইউপি চেয়ারম্যান সাময়িক বহিষ্কার বর গেলেন ঘোড়ায়, পালকিতে বধূ বাইডেনের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি চায় ট্রাম্প আমলের শত্রুরাও ‘জাতীয় ক্রিকেট দলে খেলতে চায় পুলিশ’ টিকাদানের মধ্যেই বাড়ছে সংক্রমণ, জনমনে উদ্বেগ ট্রাম্পের ব্যবসায় ধস, পকেটে 'ডলার' নেই নিউইয়র্কের পর ক্যালিফোর্নিয়ায় টিকা সংকট গার্মেন্টসের মতো প্লাস্টিক পণ্যকে রফতানিযোগ্য করতে হবে: টিপু মুনশি সুশান্ত একটাই ভুল করেছিলেন, দাবি কঙ্গনার করোনার প্রভাবে কমেছে চেয়ারম্যানের বেতন ইন্টার্নশিপে তৃতীয় দিনে নতুন গ্রহ আবিষ্কার (ভিডিও) টাকা তৈরির সরঞ্জামসহ চার যুবক আটক উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিসহ ৩ নেতা বহিষ্কার সেন্টমার্টিনে ট্রলার ডুবিতে ৪ জেলের মৃত্যু বিএমডব্লিউ কিনেছেন অটোচালকের ছেলে সিরাজ সিরাজগঞ্জে বিজয়ী কাউন্সিলর হত্যায় আরও ৪ আসামি গ্রেফতার হাতে হাত রেখে করোনায় আক্রান্ত দম্পতির মৃত্যু (ভিডিও) আগুনে পুড়ে একই পরিবারের চারজনের মৃত্যুর ঘটনায় দুই তদন্ত কমিটি ভারতে হচ্ছে আইফোন উৎপাদন কারখানা মসজিদে মিলল ১৪ বস্তা টাকা নাতাশাকে নিয়ে যেখানে হানিমুন করবেন বরুণ গলায় ফাঁস দিয়ে রেস্তোরাঁ কর্মচারীর আত্মহত্যা দেশে করোনায় মৃত্যু ৮ হাজার ছাড়াল আয় বৃদ্ধিতে বেড়েছে ভোগ, খাল ভরছে আবর্জনায়: এলজিআরডি মন্ত্রী একসঙ্গে রোশান-যশ কারাগারে নারীর সঙ্গে আসামি: যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৭তলা ভবন থেকে পড়ে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু প্রণোদনা তহবিল থেকে ঋণ পাচ্ছেন না ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা: ডিসিসিআই উন্নয়নের নামে লুটপাট করছে সরকার: রিজভী গলায় চাদর পেঁচিয়ে ভটভটি চালকের মৃত্যু সবজি দিয়ে মানচিত্র, জাতীয় পতাকা আর নৌকা তৈরি কলমাকান্দায় ভারতীয় মদ-ইয়াবাসহ আটক ৩ দুই মাহিন্দ্রার সংঘর্ষে প্রাণ হারালেন সুভাস চুরি হওয়া নবজাতককে বস্তি থেকে উদ্ধার, গ্রেফতার ১ মিরপুরে চলছে উচ্ছেদ অভিযান লকডাউনের এক বছর, কেমন আছে উহান ট্রুডোর মান ভাঙাতে কানাডায় বাইডেন! চসিক নির্বাচন: ইশতেহারে আ.লীগ প্রার্থীর ৩৭ দফা, বিএনপির ৭ ‘ভারতে ভেঙে ফেলতে ৩৫০০ মসজিদের তালিকা করেছে বিজেপি’ হরিণের ১৯টি চামড়াসহ দুই পাচারকারী আটক ‘ঢাকার ৩৯টি খালকেও পর্যায়ক্রমে উদ্ধার করা হবে’ দলিত থেকে তৃতীয় লিঙ্গ, কেউ বাদ যায়নি আশ্রয়ণ প্রকল্প থেকে লন্ডন ফেরতদের কোয়ারেন্টিনের সময় আবার বাড়ল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রস্তুত হচ্ছে যেভাবে, সংক্রমণ প্রতিরোধে নতুন নির্দেশনা ৫ কোটি টাকার হদিস নেই, আতঙ্কে এসিসিএফ ব্যাংকের গ্রাহকরা ‘সেনাবাহিনী দুর্বল’ স্বীকার করলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান আরো এক লাখ ঘর বানানোর কাজ শিগগিরই শুরু হবে: শেখ হাসিনা কারাগারে নারীর সঙ্গে আসামি: প্রত্যাহার হতে পারেন জেল সুপারও দেশীয় চিনিকল রক্ষায় ফেব্রুয়ারিতে ঢাকায় সমাবেশ কন্টেইনার সংকটে লাগামহীন পণ্য আমদানি রফতানি খরচ আলোচিত কে এই মাহসান স্বপ্ন? মালিক হাসপাতালে ভর্তি, বাইরে কুকুরের ৬ দিনের অপেক্ষা (ভিডিও) দলীয় শৃঙ্খলার অনুশাসন সবাইকে মানতে হবে: কাদের ‘সন্তানদের নিয়ে পরের জমিতে থাকতি হবে না’ ভাষাসৈনিক আলী তাহের আর নেই শেষ ম্যাচে একাদশে পরিবর্তনের আভাস সারা আলির শরীরচর্চার ভিডিও ভাইরাল অনুপ্রবেশকারীদের বিতাড়িত করে ত্যাগীদের মূল্যায়নের ঘোষণা তাপসের ক্ষমা চাইলেন বাইডেন, বিস্কুট খাওয়ালেন স্ত্রী তীব্র রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব, তবু কি আজ মোদি-মমতা এক মঞ্চে? কড়া নিরাপত্তায় বরুণ-নাতাশার বিয়ে! শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ৭ ঘণ্টা পর ফেরি চলাচল শুরু দেশে করোনার প্রথম টিকা পাবেন এক নার্স আলু ক্ষেত থেকে গ্যারেজ কর্মীর লাশ উদ্ধার কমিশন্ড অফিসার পদে নিয়োগ দেবে নৌবাহিনী দরজা ভেঙ্গে গৃহবধূকে গণধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত আটক ক্ষুধা-দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে লড়াই করছে বিশ্বের ৬৯ কোটি মানুষ: বিসলে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবলীগ নেতা নিহত উদয়াচল পার্ক খুলে দিল ডিএনসিসি ইত্যাদি এবার বঙ্গোপসাগরের তীরে সারা দিনে আপনি কী করবেন, জানিয়ে দেবে আলেক্সা কাস্টমস অ্যাসিট্যান্ট
আরও সংবাদ...
বাসা ফাঁকা পেলেই বান্ধবীদের নিয়ে ফুর্তি করত দিহান আনুশকার শরীরে ‘ফরেন বডি’র আলামত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে লিগ্যাল নোটিশ জন্ম তারিখ অনুযায়ী কেমন যাবে আগামী বছর, দেখে নিন ফুটপাতেই ১০ বছর ভিক্ষুক জীবন পুলিশের শুটারের! সমালোচকদের জবাব দিলেন ভাইরাল সেই টম ইমাম মেয়েদের যেসব অভ্যাস পুরুষদের আকৃষ্ট করে আবারও প্রভার ভিডিও ভাইরাল! জন্মতারিখ অনুযায়ী কেমন যাবে ২০২১ সাল বোনের গর্ভে জন্ম নিল আরেক বোন! ধর্ষণের উদ্দেশ্যে নয়, একান্তে সময় কাটাতে বাসায় ডেকেছিল: দিহানের মা অবশেষে বিক্রি হলো মাইকেল জ্যাকসনের সেই রাজকীয় বাড়ি ৭ বছর আগে মারা যাওয়া বাবাকে গুগলে খুঁজে পেলেন সন্তান! নববর্ষ উদযাপন করতে গিয়ে যুবকের করুণ মৃত্যু বিকৃত যৌনাচারের ‘ফরেন বডি’সহ নানা উপাদানে সয়লাব দেশের বাজার দিহানের বাসার সিসিটিভিতে যা পাওয়া গেল জীবনসঙ্গী থাকতেও অন্যের প্রতি আকর্ষণ যে ৪ কারণে মানুষের ভিতরে কেন এত যৌন কাম: এসপি আবিদা তৃতীয় সন্তানের বাবা হচ্ছেন সাকিব! অনুষ্ঠানে গান বাজালে জানাজা বা বিয়ে না পড়ানোর ঘোষণা যুবককে চেয়ারে বেঁধে শারীরিক সম্পর্ক তরুণীর, ফাঁস লেগে মৃত্যু! ভারতীয় ক্রিকেটারদের দিয়ে টয়লেট পরিষ্কার করাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া! গৃহবধূকে হত্যার পর চামড়া ছিলে লবণ লাগানোর বর্ণনা দিলেন স্বামী ঠোঁটের লিপস্টিক বলে দেবে নারীর চরিত্র পছন্দের পাত্র-পাত্রীকে বিয়েতে পরিবারকে রাজি করানোর ১০ উপায় দেওয়ানবাগী পীর মারা গেছেন ২৪ ঘণ্টার আগেই শেষ হচ্ছে দিন, তবে কি কেয়ামতের আলামত! নুসরাতের পোশাক বদলানোর ভিডিও ভাইরাল ধর্ষণকাণ্ড থেকেই নিখিলের সঙ্গে মন কষাকষি নুসরাতের! থার্টিফার্স্ট নাইটে বিমানবালাকে ১১ জনে ধর্ষণের পর হত্যা! (ভিডিও) আনুশকা-দিহানের সম্পর্ক দুইমাস আগে থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সময় জানালেন মন্ত্রী স্কুল-কলেজ ছাড়া কোথাও বাবার নাম নিও না, সন্তানদের উদ্দেশ্যে মাশরাফী ২০২১ সালে আসছে পুরুষের জন্মনিরোধক পিল! ঘটনার কিছুক্ষণ আগে বাবাকে ফোন করেছিল আনুশকা ডিএসপি মেয়েকে স্যালুট জানিয়ে ভাইরাল ইন্সপেক্টর বাবা বাংলাদেশেও করোনার নতুন ধরন শনাক্ত! ফজরের ওয়াক্তে মারা যাওয়ার ইচ্ছা পূরণ যুবকের, স্ট্যাটাস ভাইরাল লকডাউনে জন্মনিরোধক সামগ্রী বিক্রির হিড়িক নতুন ধরনের করোনা ভাইরাসে উচ্চহারে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা অমরজিৎ পৃথিবীর 'সবচেয়ে কম বয়সী' সিরিয়াল কিলার বাংলাদেশে আসছে ‘রয়েল এনফিল্ড’! মেশিনে টুকরো টুকরো হয় ঘুমন্ত মেহেদীর দেহ স্কুলে ২০২১ সালের ছুটির তালিকা প্রকাশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খুলতে পারে জানালেন প্রধানমন্ত্রী আসছে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ, তাপমাত্রা নামবে ৪ ডিগ্রিতে নববর্ষে আতশবাজি, লাখ লাখ পাখির করুণ মৃত্যু ‘বিকৃত যৌনাচারের কারণে মারা যায় স্কুলছাত্রী’ প্রেমিকের আবদার মেটাতে ১৪ বছরের মেয়েকে ধর্ষণে সাহায্য মায়ের! আনুশকার দাফন সম্পন্ন
আরও সংবাদ...

মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  EnglishLive TV DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে