আলি হার্ব
আপডেট
১৬-০৮-২০২০, ২১:৩৮

‘পরকীয়া’ ছেড়ে ‘স্বীকৃত জঘন্য’ পরিণয়ে আমিরাত-ইসরাইল

ইসরাইলি সংস্কৃতি ও ক্রীড়া বিষয়কমন্ত্রী মিরি রেগেভ (ডানে), সংযুক্ত আরব আমিরাতের রেসলিং-জুডো অ্যান্ড কিকবক্সিং ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বিন থা’লোব আল দেরাল-ফাইল ছবি
ছবি: ইসরাইলি সংস্কৃতি ও ক্রীড়া বিষয়কমন্ত্রী মিরি রেগেভ (ডানে), সংযুক্ত আরব আমিরাতের রেসলিং-জুডো অ্যান্ড কিকবক্সিং ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বিন থা’লোব আল দেরাল-ফাইল ছবি
সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ইসরাইলের মধ্যে ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব বহুদিনের। চলতি বছরের জুনে আবুধাবি থেকে দুটি বিমান ভর্তি করে চিকিৎসা সহায়তা পাঠানো হয় তেল আবিবে। বেসরকারি অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে করোনা মোকাবিলার ঘোষণাও দেয় দু’পক্ষ। ২০২০ সালে দুবাইয়ে ওয়ার্ল্ড এক্সোপে আমন্ত্রণ জানানো হয় ইসরাইলকে। যদিও করোনা মহামারীর কারণে প্রদর্শনীটি স্থগিত হয়।

২০১৮ সাল থেকে ইসরাইলের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তারা সরাসরি সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর করছেন। ইরানকে মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্রের আঞ্চলিক জোটের সদস্য হিসেবে আমিরাত-ইসরাইল একে অপরের ঘনিষ্ঠ বলেও স্পষ্টভাবে স্বীকৃত।

ফিলিস্তিনের মাটিতে ইসরাইল রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর থেকে নিপীড়িত, নির্যাতিত, বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনিরা। ফিলিস্তিনের ভূমি উদ্ধারে যুদ্ধের নামে ফিলিস্তিনিদের উপর সামরিক ক্ষমতা প্রয়োগের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয় আরবরা-তথাকথিত আরব-ইসরাইল যুদ্ধের মাধ্যমে।

নির্লজ্জের মতো শুধু আর্থিক আর ক্ষমতায় টিকে থাকার কথা চিন্তা করে ইসরাইলের সঙ্গে অনানুষ্ঠানিক সম্পর্ক বজায় রেখেছে বহু আরব রাষ্ট্র। এতে রয়েছে মুসলিম বিশ্বের নেতৃত্বদানকারী ক্ষমতাসীনরাও; যা ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে, আল আকসার সঙ্গে সম্পূর্ণভাবে বিশ্বাসঘাতকতা।


জর্ডান, মিশরের পর সংযুক্ত আরব আমিরাত ইসরাইলের সঙ্গে নিজেদের গোপন সম্পর্ককে প্রকাশ্যে স্বীকৃতি দিয়েছে। গোপন সম্পর্ককে প্রকাশ্যে স্বীকৃতি দেয়ার মাধ্যমে বৈধতা দেয়ার চেষ্টা করা হলেও তাদের সম্পর্ক বরাবরই অনৈতিক।

এখন ইসরাইলের সঙ্গে জঘন্য এ সম্পর্ক স্থাপনের অপেক্ষায় রয়েছে ওমান, বাহরাইনসহ আরো অনেকে। সৌদি আরব, কাতারও অনানুষ্ঠানিকভাবে ইসরাইলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বজায় রেখে চলছে। এ অবস্থায় জাতি ভাইদের সহায়তায় নিজেদের ভূমি উদ্ধার করে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় ফিলিস্তিনিদের চলমান সংগ্রাম কিছুটা হলেও হুমকিতে পড়েছে।

এছাড়া, হোয়াইট হাউস থেকে যৌথ বিবৃতিতে বৃহস্পতিবার  যখন বলা হলো, মধ্যপ্রাচ্যের দুই রাষ্ট্র ইসরাইল-সংযুক্ত আমিরাত নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে একমত হয়েছে; তখন তাদের মধ্যেকার সম্পর্ককে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয়ার ‘ক্ষণটি’ নিয়ে অনেকে বিস্মিত হয়েছেন।

ঘোষণাটি এলো মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ঠিক ৮২ দিন আগে। এ নির্বাচনে দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় থাকার জন্য লড়বেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যদিও জনমত জরিপ আভাস দিচ্ছে, নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ট্রাম্প উতরে যাবেন।

‘ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা ঘোষণা’

মিডল ইস্ট মনিটরকে ওয়াশিংটন ডিসিতে অবস্থিত গবেষণা প্রতিষ্ঠান দি আরব সেন্টারের নির্বাহী পরিচালক খালির জাহশান বলেন, হোয়াইট হাউসের বিবৃতি নির্বাচনী প্রচারণা ঘোষণার মতো। যার মাধ্যমে ৩ নভেম্বর মার্কিন নির্বাচনের আগে ট্রাম্প প্রশাসনকে জয়ী আখ্যা দেয়ার চেষ্টা হয়েছে। আমিরাত-ইসরাইল স্বাভাবিক সম্পর্ক স্থাপনের ঘোষণাকে ট্রাম্প প্রশাসন নির্বাচনী প্রচারণায় কাজে লাগাতে চাইছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বিনইয়মিন নেতানিয়াহু পশ্চিমতীরের ভূখণ্ডে সার্বভৌমত্ব ঘোষণা বাতিল করবেন। উভয়পক্ষের প্রতিনিধিরা কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সাক্ষাত করে কূটনীতিক সম্পর্ক স্থাপনের রূপরেখা তৈরি করবেন।

মার্কিন প্রশাসন পরে জানিয়েছে, দু’পেক্ষর কয়েকটি বৈঠক হোয়াইট হাউসে অনুষ্ঠিত হবে। জাহশান বলেন, তাদের মধ্যে মৌলিক মূলনীতি বিষয়ে হয়তো কোনো ঐক্যই হয়নি। হোয়াইট হাউসের বৈঠকের ছবিকে নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যবহার করবেন ট্রাম্প। যা ট্রাম্পকে পুনর্নির্বাচনে সহায়তা করতে পারে। নেতানিয়াহুও তার থেকে ফায়দা নেবেন। কারণ তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে প্রতিদিন অকল্পনীয় বিক্ষোভ হচ্ছে।

যুদ্ধবিরোধী নারীবাদী সংগঠন কোড পিংকের জাতীয় সমন্বয়ক আরিয়েল গোল্ডও জাহশানের বক্তব্যের প্রতিধ্বনি করেছেন। বলেন, আমিরাত-ইসরাইল চুক্তি, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট, ইসরাইল প্রধানমন্ত্রী এবং আবুধাবির ক্রাউন প্রিন্স তিনজনকেই ব্যক্তিগতভাবে ফায়দা নিতে সহায়তা করবে।

তিনি বলেন, মহামারীর কারণে হাজার হাজার মার্কিন মারা যাচ্ছেন, ট্রাম্প চাচ্ছেন এ ধ্বংসযজ্ঞ থেকে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের চোখ সরাতে। আবুধাবির ক্রাউন প্রিন্স উদ্দেশ্য সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের যে অভিযোগ রয়েছে তা থেকে নিষ্কৃতি পাওয়া। আর নেতানিয়াহু চান সরকারবিরোধীকে শান্ত করতে।

চুক্তি তাদের তিনজনকে সমানভাবে উপকৃত হতে সহায়তা করবে। তবে সবচেয়ে বড় ক্ষতিগ্রস্ত হলো ফিলিস্তিনিরা। বলেন গোল্ড।

পরিকল্পনা কতটা কাজে দেবে?

বিশ্লেষকরা বলছেন, নির্বাচনে আগে আমিরাত-ইসরাইল চুক্তি ট্রাম্পকে ইতিবাচক হিসেবে উপস্থাপন করেছে। প্রাথমিক ফলাফলও সন্তোষজনক। তবে তা ভোটারদের উপর দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব ফেলবে না বলেও মনে করেন তারা।

গণমাধ্যম বিশ্লেষক এবং ডেমোক্র্যাটরাও চুক্তির প্রশংসা করেছেন। নিউইয়র্ক টাইমসের কলামিস্ট থমাস ফ্রেইডম্যান চুক্তিকে ‘ভূ-রাজনৈতিক ভূমিকম্প’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। এটি মার্কিন জাতীয়তাবাদী, মধ্যপন্থী ইসলামপন্থী এবং মধ্যপ্রাচ্যে ইসরাইলের সঙ্গে চলমান সংঘাত নিরসনের পক্ষে যারা তাদের লাভবান করবে বলে মনে করেন তিনি।

ফরেন ফলিসি ম্যাগাজিন চুক্তিকে ‘ট্রাম্পের প্রথম দ্ব্যর্থহীন কূটনৈতিক সফলতা’ বলে শিরোনাম করেছে। এনবিসি শিরোনাম করেছে, আমিরাত-ইসরাইল চুক্তি ট্রাম্পের প্রথম খাঁটি কূটনৈতিক সফলতা।

ট্রাম্পের জামাতা এবং হোয়াইট হাউসের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা জ্যারেড কুশনার শুক্রবার বলেছেন, ঐতিহাসিক আমিরাত-ইসরাইল চুক্তি সম্পাদনে সহায়তা করেছেন তিনি।  

বলেন, চুক্তি বাস্তবায়নের ফলে কী হবে আমাদের শুধু তাতে গুরুত্ব দেয়া উচিৎ। সিএনএনকে তিনি বলেন, আমি মনে করি এ চুক্তি মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিনদের আরো নিরাপদ করবে। ওই অঞ্চলে মার্কিন সেনা উপস্থিতির প্রয়োজনীয়তাও কমিয়ে দেবে।

কুশনার বলেন, ইসরাইল-ফিলিস্তিন সংঘাতকে ব্যবহার করে তরুণদের উগ্রবাদী মতাদর্শে অনুপ্রাণিত করা হচ্ছে। আমিরাত-ইসরাইল চুক্তি উগ্রবাদী মতাদর্শকে দমনে সহায়তা করবে।

মার্কিন বৈদেশিক নীতি বিশ্লেষক এবং ইসরাইলপন্থী রাজনীতিবিদরা চুক্তি নিয়ে মাঠ গরম করলেও মার্কিনরা ব্যস্ত মহামারীর তাৎক্ষনিক ধ্বংসযজ্ঞ মোকাবিলা এবং আর্থিক ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে।

জাহশান বলেন, মার্কিন নির্বাচনে মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের বৈদেশিক নীতিকে ব্যবহার করা একটি জটিল। আপনি এ চুক্তির উপর ভিত্তি করে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে পারবেন না। 
 
গোল্ড বলেছেন, মার্কিন ভোটাররা অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বেশি আগ্রহী। ইহুদি আমেরিকান, যারা এ চুক্তিতে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছে তাদের অধিকাংশ ডেমোক্র্যাটের বিশ্বস্ত ভোটার।

’এ চুক্তি ট্রাম্পকে খুব সহায়তা করবে বলে দেখতে পাচ্ছি না। তবে ফিলিস্তিনিদের ক্ষোভের কারণে তাকে মূল্য দিতে হবে। বলেন, গোল্ড।

ডেমোক্র্যাটদের প্রতিক্রিয়া

মার্কিন নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বাইডেন বহুদিন ধরে ইসরাইলের সঙ্গে আরব দেশগুলোর সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে চেষ্টা করেছেন। ট্রাম্পের নাম উল্লেখ না করে চুক্তিকে তিনি স্বাগত জানিয়েছে। তিনি, আবুধাবির সিদ্ধান্তকে সাহসী এবং রাষ্ট্রনায়কোচিত বলে আখ্যা দিয়েছেন।

যৌথ বিবৃতিতে প্রাথমিক চুক্তিকে ট্রাম্পের অর্জন হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। তবে বাইডেন বলছেন, ওবামা-বাইডেন প্রশাসনের আরব শান্তি পদক্ষেপসহ অনেক প্রশাসনের অবদান রয়েছে এ চুক্তিতে। কারণ তারাই ইসরাইলের সঙ্গে আরব দেশগুলোর সম্পর্ক স্থাপনে কাজ শুরু করে।
 
শত্রু এবং প্রতিপক্ষের জন্য এটি বার্তা। যেখানে কোনো কিছুই ছিল না এখন অনেক কিছু হচ্ছে। মার্কিন কূটনীতি চাইলে সব কিছু পারে। বিবৃতিতে বলেন বাইডেন।

কংগ্রেসের বৈদেশিক নীতি বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান এলিয়ট এঞ্জেল বলেন, চুক্তি আঞ্চলিক শান্তি ও নিরাপত্তায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। বলেন, আমি আশা করি এ সফলতা অন্যান্য দেশকে ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে উৎসাহী করবে। যা ফিলিস্তিনিদের জন্য শান্তি নিশ্চিতে জরুরি।

কংগ্রেসের স্পিকার ডেমোক্র্যাট দলীয় শীর্ষ নেতা ন্যান্সি পেলোসি চুক্তিকে ভালো খবর আখ্যা দিয়ে স্বাগত জানিয়েছেন। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ইসরাইলের একতরফা সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনার বিরোধিতা করে যাবে কংগ্রেস। কারণ তেল আবিবের এ পরিকল্পনা মধ্যপ্রাচ্যে দীর্ঘমেয়াদী শান্তি প্রতিষ্ঠাকে বাধাগ্রস্ত করবে।

ফিলিস্তিনি বংশোদ্ভূত মার্কিন কংগ্রেস রাশিদা তালিব বলেছেন, তিনি এ চুক্তি উদযাপন করবে না। কারণ এটি ফিলিস্তিনিদের কোনো উপকার করবে না। বলেন, ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে ধ্বংসাত্মক আচরণ করা হচ্ছে। এটিই এখন মূল প্রধান বিষয়। বলেন ট্রাম্প-নেতানিয়াহু চুক্তি ফিলিস্তিনিদের জন্য নয়। বরং ইসরাইলের সঙ্গে আরো দেশকে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে সহায়তা করবে।

২০২০ সালের শুরুতে ট্রাম্প এবং কুশনার ইসরাইল-ফিলিস্তিন সংকট নিরসনে তথাকথিত ডিল অব সেঞ্চুরির নকশা প্রণয়ন করেন। যাতে পশ্চিম তীরসহ ফিলিস্তিনের ভূমিতে বসতি স্থাপন করা এলাকাগুলোকে নিজেদের ভূখণ্ডের সঙ্গে একীভূত করতে ইসরাইলকে ক্ষমতা দেয়া হয়। যদিও বিবদমান পক্ষগুলোকে রাজি করাতে না পারায় ট্রাম্প-কুশনারের সে প্রকল্প এখন স্থবির হয়ে আছে।

লেখক: মার্কিন পররাষ্ট্রনীতি বিশেষজ্ঞ। সূত্র: মিডল ইস্ট আই। ভাষান্তর: ফাইয়াজ আহমেদ



DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু
৩৫২১৭৮ ৯১৩৮৮ ২৬০৭৯০ ৫০০৭
বিস্তারিত
১০০ ফুট সুড়ঙ্গ খুঁড়ে পালালো মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত আসামী অস্ট্রেলিয়ার সাথে সিরিজ মেলাতে পারেনি বিসিবি আবারও 'জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড' অবশেষে ২৫২ প্রবাসীকে নিয়ে সৌদি আরবের পথে সাউদিয়ার ফ্লাইট এ বছর নোবেল পুরস্কার অনুষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের অবস্থা সংকটাপন্ন রাজধানীর চকবাজারে ভয়াবহ আগুন মহামারিতে উপার্জন হারিয়েছে উদ্বাস্তুরা এইচএসসি পরীক্ষা না হলে রেজাল্ট হবে যেভাবে এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার আ. লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পাল্টাপাল্টি মামলা দুর্গাপুরের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত করলেন দুই চিকিৎসক করোনামুক্ত সিলেটের মেয়র আরিফ একদিনেই মহেশখালীতে ৪ জনের লাশ উদ্ধার দুই মামলা নিয়ে মুখ খুললেন নুর হিলিতে বেড়েছে চালের দাম জার্মানির সাথে বাণিজ্য সম্পর্ক বাড়াতে তাগিদ স্পিকারের পরীক্ষায় জালিয়াতি, ফেঁসে যাচ্ছেন সুয়ারেজ শীতে করোনার আঘাত মোকাবিলায় সতর্ক অবস্থানে সরকার ধর্ষণের শাস্তি ৬ বেত্রাঘাত! গাজার অবরোধ তুলতে ইসরাইলকে আল্টিমেটাম হামাসের বৈরী আবহাওয়ায় সেন্টমার্টিনে আটকা শতাধিক পর্যটক ডিসেম্বরে আমিরাতকে এফ-৩৫ যুদ্ধ বিমান দেবে যুক্তরাষ্ট্র? স্বাস্থ্যের অফিস সহকারী-স্টোর কিপারও কোটিপতি! ‘টেস্ট নয়, টি টোয়েন্টি খেলতে আসবে অস্ট্রেলিয়া’ সারা দেশে ১৪৯ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা আইপিএল শীর্ষে, বিপিএল সাত নম্বরে নেপালকে করোনার চিকিৎসা সামগ্রী দিল বাংলাদেশ প্রবাসীর স্ত্রীর পর্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায়, গ্রেফতার ২ আটকেপড়া প্রবাসীদের ইকামার মেয়াদ বাড়াতে সৌদিকে চিঠি ৩ মাস ধরে গৃহকর্মীকে ধর্ষণ, শিক্ষক কারাগারে লেবাননে হিজবুল্লাহ’র ঘাঁটিতে শক্তিশালী বিস্ফোরণ জাতিসংঘ আবারো ব্যর্থ হয়েছে: তুর্কি প্রেসিডেন্ট দূষণকারী ৪ কারখানা গুঁড়িয়ে দিল পরিবেশ অধিদফতর কুড়িগ্রামে কাঠমিস্ত্রির মৃত্যুদণ্ড রাতে মাদ্রাসার সাইনবোর্ড কেটে নিল দুর্বৃত্তরা এবার চাঁদে পা পড়বে নারীর বাসচাপায় মা-ছেলের পর এবার মারা গেল মেয়েও ব্যাট হাতেও দক্ষ হতে চান তাসকিন আরব লিগের বৈঠকে সভাপতিত্ব প্রত্যাখ্যান ফিলিস্তিনের কোনোভাবেই পূর্ণাঙ্গ লকডাউনে ফিরবে না ব্রিটেন ইতালির রি-এন্ট্রি ভিসার কার্যক্রম শুরু করোনার দ্বিতীয় ঢেউ, নজরদারির দায়িত্বে থাকবে সেনাবাহিনী ইলিশের উন্নয়নে ২৪৬ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন পাকিস্তান থেকে ড্রোনে আসা বিপুল অস্ত্র উদ্ধার জম্মু-কাশ্মীরে করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে রাশিয়া-মালয়েশিয়া চুক্তি সীমান্ত সুরক্ষায় ৭৩টি বিওপি নির্মাণ করবে বিজিবি জাকিরের বিরুদ্ধে মহালুটপাটের অভিযোগ, ব্যবস্থা নেয়নি কেউ! পিচ্চি রাজাসহ আটক ৮ মাদারীপুরে ৪ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ ২৪ ঘণ্টায় করোনায় সব মৃত্যু হাসপাতালে মেয়াদ শেষেও ছাড়া পাননি রিয়া চক্রবর্তী নারায়ণগঞ্জে বিস্ফোরণের ঘটনায় বৈদ্যুতিক মিস্ত্রীর জবানবন্দি ১৪ বছর পর মৃত্যুদণ্ড থেকে রেহাই পেলেন হুমায়ুন নীলফামারীতে ভুয়া এসপি গ্রেফতার অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের সময় আটক ৪ গাজীপুরে তালা ভেঙে উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে চুরি নুরের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা ড. কামাল হোসেনের চাকরির প্রলোভনে ৩৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন আবজাল চাচাকে কুপিয়ে হত্যায় ভাতিজার যাবজ্জীবন যুদ্ধ নয়, গ্রিসের উচিৎ শান্তির পথে হাঁটা: তুরস্ক নূরসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন ১৩ অক্টোবর আইপিএলে রেকর্ড দর্শক! অনুমোদনহীন চিকিৎসা যন্ত্রপাতি বিক্রির দায়ে জরিমানা স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করে পরিবারকে হুমকি শিক্ষকের ধর্ম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে যুবক গ্রেফতার টিকটকার ‘অপু ভাই’য়ের সহযোগী গ্রেফতার ফের লকডাউন নিয়ে কী ভাবছে সরকার জানালেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব চুয়াডাঙ্গায় নদীতে গোসলে নেমে বৃদ্ধ নিখোঁজ শি জিনপিং’কে ‘ভাঁড়’ বলায় ব্যবসায়ীর ১৮ বছরের জেল তরকারিতে লবণ বেশি হলে কী করবেন? যাচাই.কমে ৩৬ টাকা কেজিতে মিলবে পেঁয়াজ! কুড়িগ্রামে আইপিএল নিয়ে জুয়া, আটক ১৯ বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় জাতিসংঘ সংস্কার আবশ্যক: মার্কেল আবারো লকডাউনের পথে ব্রিটেন, আতঙ্কে প্রবাসীরা প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উদযাপনে ঢাকায় আন্তর্জাতিক দাবার আসর রেকর্ড জয়ে নাদালকে ছাড়িয়ে জোকোভিচ ‘ঈশ্বরের খোয়াবনামা’ আর স্ত্রীর ইচ্ছে পূরণে জমি বেচে কিনলেন হাতি কৃষকদের দখলে ভারতের রাজপথ পাল্টাপাল্টি দ্বন্দ্বে অস্থির শ্যুটিং ফেডারেশন নিরাপদ ব্যাংকিং ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠায় টিআইবির ১০ সুপারিশ অগ্নিকন্যা প্রীতিলতার চরিত্রে কে আসছেন? ফ্ল্যাগশিপ ফিচারে রিয়েলমির স্মার্টফোন ‘সি সেভেন্টিন’ তুমুল বাকযুদ্ধে জড়িয়েছেন ট্রাম্প-বাইডেন করোনার ভ্যাকসিন সুষ্ঠু বণ্টনে একমত ১৫৬ দেশ দাপুটে জয় দিয়ে মৌসুম শুরু ম্যান সিটির মেসেঞ্জার-ইনস্টাগ্রাম চ্যাট একসঙ্গে ‘১০ বছরে খেলাপি ঋণ ৪১৭ শতাংশ বৃদ্ধি’ জয় দিয়ে মিশন শুরু কোহলিদের করোনা শনাক্তে তিন পরীক্ষা ভারতকে কুপোকাত করার চীনের পরিকল্পনা ফাঁস জয়পুরহাটে ২৪ মাদকসেবী-জুয়াড়ি আটক সুনামগঞ্জের হাওরে অজ্ঞাতপরিচয় মরদেহ সাভারে দূষণের দায়ে চার কারখানাকে জরিমানা তুর্কি সীমানার সেনা সরাতে গ্রিসের প্রতি জার্মানির আহ্বান মানিকগঞ্জে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু রাস্তায় নারীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে পুলিশ কর্মকর্তা বরখাস্ত ৩ সপ্তাহে ৬ লাখ টন পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি রাশিয়ায় আকাশ থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে পড়ছে মৃত পাখি (ভিডিও) নুরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর
আরও সংবাদ...
ভিসা ছাড়াই বাংলাদেশি নাগরিকরা ভ্রমণ করতে পারবেন যে ৪১ দেশ ভারত থেকে লন্ডন যেতে বাস সার্ভিস চালু ৩০ মিনিটে এনআইডির অসুন্দর ছবি বদলে ফেলুন বাংলাদেশকে ১৬ আনাই ফাঁকি দিয়েছে ভারত! ডাচ্-বাংলা-আইবিএলসহ ৫ ব্যাংকে লেনদেন সীমিত করা হয়েছে ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলমকে নোটিশ মোবাইল কিনতে শিক্ষার্থীদের ১০ হাজার টাকা করে ঋণ দেয়ার সিদ্ধান্ত বাইকার ফারহানা ‘নববধূ’ নয়, বিয়ে তিন বছর আগে, রয়েছে সন্তানও ‘দুই আর দুই পাঁচ’ বলছেন শাহেদ ডাল-আলু ভর্তা খেয়ে মাকে টাকা পাঠান সৌদি প্রবাসী কিশোর (ভিডিও) দেখা মিলল বিশ্বের সবচেয়ে বড় নীল তিমির (ভিডিও) ওয়াইফাই ইন্টারনেটের গতি বাড়ানোর কৌশল আল বুখারি বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর হলেন ড. ইউনূস দু'বোনের মারামারিতে দেরিতে ছাড়ল বিমান (ভিডিও) শিক্ষার্থীদের এক হাজার করে টাকা দেবে সরকার চেয়ার ছেড়ে পালালেন জায়েদ খান! মিয়া খলিফাকে খুঁজছে মার্কিন সেনারা (ভিডিও) সুশান্তের মৃত্যু: ‘আওয়াজ আসলেই তালা ভাঙা বন্ধ করে দিও’ (ভিডিও) মসজিদের একটি এসিও বিস্ফোরিত হয়নি এক সপ্তাহ পরেই বদলে যাচ্ছে ফেসবুক, বাধ্যতামূলক নতুন ডিজাইন ঘুষের ৫০ হাজার টাকা না দেয়ায় ঝরল ১৮ প্রাণ, শঙ্কা আরো! গ্রিসের ছয়টি যুদ্ধবিমানকে তুরস্কের ধাওয়া (ভিডিও) খোঁজ মিলেছে অভিনেতা শুভর মেসি-বার্সা ইস্যুতে নাটকীয় মোড়! পৃথিবীর সবচেয়ে বিষাক্ত সাপের দেখা মিলল সমুদ্রে জয়কে সাতদিনের আলটিমেটাম, নিঃশর্ত ক্ষমা না চাইলে মামলা এবার ভারতের প্রদেশের মালিকানা দাবি করল চীন মেয়েসহ দেশ ছাড়লেন মিথিলা গভীর রাতে বাসভবনে ঢুকে ইউএনওকে হাতুড়ি পেটা জাদুকরি পরিবর্তন ঘটে সকালে কুসুম গরম লেবু পানিতে দেশে পাঁচ রকম করোনা ভাইরাসের সন্ধান চাঁদে পড়ছে মরচে! বাংলাদেশি ভ্যাকসিন কবে আসবে জানালেন আসিফ মাহমুদ লাইভ কনসার্টে টাকা ছুঁড়লেন দর্শক, উচিৎ শিক্ষা দিলেন অরিজিৎ (ভিডিও) দেশে বিমান তৈরি শুরু হবে ২০২১ সালে (ভিডিও) তুরস্ককে চারদিকে ঘিরে ফেলছে ফ্রান্স? পছন্দের রঙ বলে দেয় ব্যক্তিত্ব কেমন আড়াইহাজারে এশিয়ার সবচেয়ে বড় বিদেশি বিনিয়োগ! মোবাইল কিনতে ‘ঋণ’ দিচ্ছে রবি ইসরায়েল-আমিরাতের চুক্তি, মুখ খুললো সৌদি শোক দিবসে তারকাদের আচরণে সমালোচনার ঝড় সময় টিভিতে তিন ক্যাটাগরিতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি সুশান্ত হত্যায় নাম জড়াল ভারতীয় খেলোয়াড়ের! নতুন নিয়মে ট্রেনের টিকিট-ভ্রমণ করবেন যেভাবে রিয়াকে জড়িয়ে ধরা মহেশ ভাটের ভিডিও ভাইরাল দেশে আরো একটি গাধার জন্ম সুশান্তের মৃত্যু: সন্দীপের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট প্রকাশ তুরস্কের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় গ্যাস ক্ষেত্রের সন্ধান এসি বিস্ফোরণের কারণ ও রক্ষা পেতে যা করবেন প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার প্রস্তুতির নির্দেশ
আরও সংবাদ...


মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  EnglishLive TV DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে