আন্তর্জাতিক সময় ডেস্ক
আপডেট
১৪-০৮-২০২০, ২১:২৯

ইসরাইল-আমিরাত চুক্তি সর্বসম্মতভাবে প্রত্যাখ্যান ফিলিস্তিনের

ইসরাইল-আমিরাত চুক্তি সর্বসম্মতভাবে প্রত্যাখ্যান ফিলিস্তিনের
নিজেদের মধ্যকার সম্পর্ক স্বাভাবিক করার লক্ষ্যে চুক্তিতে পৌঁছেছে ইসরাইল-সংযুক্ত আরব আমিরাত। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এমন ঘোষণায় বিস্মিত, হতাশ ফিলিস্তিনিরা।

চুক্তি অনুযায়ী নিরাপত্তা, পর্যটন, প্রযুক্তি, বাণিজ্যসহ সবক্ষেত্রে পরিপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনে একমত হয় তেল আবিব-আবুধাবি। চুক্তির বিনিময়ে পশ্চিমতীরে সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা স্থগিত করে ইসরাইল।

বৃহস্পতিবারের এমন ঘোষণায় অবাক হয়েছেন ফিলিস্তিনের সাধারণ মানুষ এবং তাদের নীতিনির্ধারকরাও।

‘এই চুক্তির বিষয়ে আগে থেকে আমরা খুব একটা জানতাম না। বলেন, ফিলিস্তিনের সমাজকল্যাণ মন্ত্রী আহমেদ মাজদালানি। দ্রুততার সঙ্গে চুক্তিতে পৌঁছানো এবং চুক্তি ঘোষণার সময় বিবেচনায় আমরা সত্যি বিস্মিত। বিশেষ করে ফিলিস্তিনিরা যখন নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে তখন এমন ঘোষণা এলো।


সাবেক ফিলিস্তিনি মন্ত্রী মুনিব আল মাসরি বলেন, শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান ২০০৪ সালে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত দীর্ঘ ৩০ বছর আবুধাবি শাসন করেন। তিনি সবসময় ফিলিস্তিনিদের পক্ষে শক্তিশালী অবস্থান নিয়েছেন।

‘মরহুম শেখ জায়েদ ভাই আমার খুব পছন্দের মানুষ ছিলেন। আমি জানি তিনি ফিলিস্তিনিদের পক্ষে অবস্থান নিতে পেরে কতোটা গর্ববোধ করতেন। আমি কখনো ভাবতেই পারিনি; আমরা জীবদ্দশায় এমনটা দেখতে হবে যে, সংযুক্ত আরব আমিরাত শুধুমাত্র সম্পর্ক স্বাভাবিক করার অজুহাতে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে প্রতারণা করবে। এটা খুবই লজ্জাজনক। আমি এখনো বিশ্বাস করতে পারছি না।’

ফিলিস্তিনের বিভিন্ন সংগঠন ও রাজনৈতিক দলের নেতারা মনে করেন, চুক্তির ঘোষণাটা হঠাৎই এসেছে। তবে তারা তাতে ততোটা অবাক নন।

‘আমরা মোটেই বিস্মতি হইনি। কারণ আমিরাতি সামরিক বাহিনী কখনোই সীমান্তে ইসরাইলি বাহিনীকে মোকাবিলায় প্রস্তু ছিল না।’ বলেন প্যালেস্টাইন ন্যাশনাল ইনেশিয়েটিভের নেতা এবং পার্লামেন্ট সদস্য মুস্তাফা আল বারঘৌতি।

বারঘৌতি বলেন, ‘সম্প্রতি আমিরাতের কিছু আজব পদক্ষেপ আমরা দেখেছি। যেমন ইসরাইলে সরাসরি বিমান পরিচালনা। তাদের মধ্যে বাণিজ্য বিজ্ঞান-প্রযুক্তিখাতে চুক্তি হয়েছে এমন খবরও ফাঁস হয়। এটা পরিষ্কার যে আগের কর্মকাগুলো বৃহস্পতিবারের বিস্ময় হজমের প্রাথমিক ধাপ ছিল।

চুক্তি প্রত্যাখ্যান

প্যালেস্টাইন ন্যাশনাল অথিরিটি, হামাস, ইসলামি জিহাদসহ স্থানীয় সব গোষ্ঠী বিবৃতি দিয়ে ইসরাইল-আমিরাত চুক্তির নিন্দা জানিয়েছে। প্রত্যাখ্যান করেছে তাদের চুক্তি। একে পিঠে ছুরিকাঘাত বলে আখ্যা দিয়েছেন ফিলিস্তিনি নেতারা।

‘আমরা ইতোপূর্বে জানতাম সম্পর্ক স্বাভাবিক করার জন্য তলে তলে কার্যক্রম চলছে। তবে বিষয়টা বর্তমান প্রেক্ষাপটে যেভাবে স্বাবভাবিক এবং বৈধ করা হলো-তাতে আমরা হতাশ। এটা আমাদের এবং পুরো আরব জাতির পিঠে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। বলেন, ফিলিস্তিনের সাবেক সমাজ কল্যাণমন্ত্রী মাজিদা আল মাসরি।

আল বাঘৌতি জোর দিয়ে বলেন, চুক্তিতে নতুন কিছু যুক্ত করা হয়নি। তাদের পরিকল্পনা প্রকৃত শান্তি প্রতিষ্ঠা থেকে বহু দূরে।

‘তথাকথিত ট্রাম্পের শতাব্দীর সেরা চুক্তি বাস্তবায়নের পদক্ষেপ এটি। ওই পদক্ষেপের লক্ষ্য ফিলিস্তিনি জাতিসত্ত্বা মুছে ফেলা। ফিলিস্তিনি, আরব এবং মুসলামনদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করা।

চুক্তিকে ইসরাইলের জন্য ফ্রি গিফট বলে মন্তব্য করেছেন ফিলিস্তিনি নেতারা। এ চুক্তি ট্রাম্পকে এবং নেতানিয়াহুকে নির্বাচনে জয়ী হতে সহায়তা করবে বলেও মত তাদের।

‘সময় এবং পারিপার্শ্বিকতা বিবেচনায় বিষয়টি আন্দাজ করা খুব সহজ। বিনামূলে ইসরাইলকে সুবিধা দেয়ার জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাত এটি করেছে। বলেন, প্যালেস্টাইন লিবারেশন অর্গানাইজেশনের সদস্য এবং প্যালেস্টাইন লিবারেশন ফ্রন্টের নেতা ওয়াসেল আবু ইউসুফ।

তিনি বলেন, ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে অত্যাচার-অবিচার এবং দখলদারিত্ব বাড়াতে ইসরাইলকে আরো ক্ষমতা দেয়ার লক্ষ্যে এ চুক্তি হয়েছে। এতে কোনো সন্দেহ নেই।

একতরফা সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠা পরিকল্পনা স্বাভাবিক করা

যদিও আবুধাবির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন জায়েদ বলেছেন, ইসরাইলি সংযোজন পরিকল্পনা বন্ধের লক্ষ্যে এ চুক্তি করা হয়েছে। ফিলিস্তিনিরা বলেছেন, তার এ দাবির গ্রহণযোগ্যতা খুবই কম।

‘সংযুক্ত আরব আমিরাত সাধারণ মানুষকে প্রতারিত করছে বিভ্রান্ত করছে। তারা বুঝাতে চায় লজ্জাজনক এ চুক্তির মাধ্যমে তারা ফিলিস্তিনিদের পাশে রয়েছে এবং ইসরাইলের সংযোজন পরিকল্পনা বাতিল হয়েছে। আসলে এটা চোখে ধুলো দেয়া ছাড়া কিছুই নয়।’ বলেন মাজদালানি।

আল মাসরি বলেন, ইসরালের সংযোজন পরিকল্পনার বাস্তবায়ন এখন কোথাও নেই। বিশ্ববাসী দখলদারদের এ পরিকল্পনা বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে। রুখে দিয়েছে।

‘ফিলিস্তিনিদের শোষণের চিত্র গোপন করার জন্য ইসরাইলের সংযোজন পরিকল্পনা একটি অজুহাত। সংযুক্ত আরব আমিরাত বা অন্যকেউ ফিলিস্তিনের নাম ব্যবহার করে কোনো কিছু করতে পারে না। তাদের এ চুক্তি জেরুজালেমে ইসরাইলের অবৈধ সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠাকে পরোক্ষভাবে স্বীকৃতি দিয়েছে। কারণ নতুন চুক্তিতে নতুভাবে ফিলিস্তিনি ভূমিতে ইসরাইলের সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠার বিষয়ে আপত্তি জানানো হয়েছে। ’ বলেন মাসরি।

আমিরাতের চুক্তি পশ্চিমতীরে সার্বভৌমত্ব বাড়ানো থেকে ইসরাইলকে বিরত রাখতে পারবে কী না এ নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেন ফিলিস্তিনি নেতারা।

‘ফিলিস্তিনের ভূমি আত্মসাত বন্ধের পরিবর্তে ইসরাইল তার অবৈধ কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে চলছে। বসতি নির্মাণ, বাড়িঘর গুড়িয়ে দেয়া, ইব্রাহিমি ও আল-আকসা মসজিদ এবং অঞ্চলটিতে পতিত জমিতে তেল আবিব তার আগ্রাসন বাড়িয়েছে।’ বলেন আল মাসরি।

ফিলিস্তিনিরা বলেছেন, নেতানিয়াহু ফিলিস্তিনের ভূমি ইসরাইলের ভূখণ্ডের সঙ্গে সংযোজনের পথ খোলা রেখেছেন। মাসরি বলেন, এ প্রক্রিয়া সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে।

‘নেতানিয়াহু সরাসরি বলেছেন, সংযোজন প্রক্রিয়া এখনো তাদের পরিকল্পনায় রয়েছে। তারা তা বাতিল করেনি। অথচ আমিরাত বলেছে সংযোজন প্রক্রিয়া বাতিলের শর্তে সম্পর্ক স্বাভাবিকে চুক্তি হয়েছে। তেল আবিব আবুধাবির গালে চড় মেড়েছে। প্রমাণ করেছে আমিরাত ভুল। 

আরবদের অবস্থান লঙ্ঘন

আমিরাতের চুক্তি, আরব শান্তি পরিকল্পনার পরিপন্থী বলে অভিহিত করেছেন আল বারঘৌতি। আরবদের অবস্থানে পেছনে থেকে ছুরি মেরেছে আবুধাবি। তাদের চুক্তি আমিরাতের সাধারণ মানুষের স্বার্থ এবং তাদের সাবেক শাসক শেখ জায়েদের অবস্থানের সঙ্গে সম্পূর্ণভাবে সাংঘর্ষিক। বলেন বারঘৌতি।

‘ইসরাইল-ফিলিস্তিন সংকট থেকে আরবদের অবস্থান পরিবর্তনের লক্ষ্য এ চুক্তি হয়েছে। এটি নেতানিয়াহুকে বলতে সুযোগ করে দেবে যে, ফিলিস্তিনিদের ভূমি থেকে না সরেও তিনি আরবদের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ উপায়ে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে পারেন। বলেন মাজদালানি।

আল বারঘৌতি শঙ্কা প্রকাশ করেন, জার্মানি, যুক্তরাজ্য যারা এ চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতি থেকে তাদেরকে চোখ সরিয়ে নিতে অজুহাতের সুযোগ করে দেবে।

‘কিন্তু আমি বিস্মিত বাহরাইনসহ আরব দেশগুলো এ চুক্তিতে সরাসরি সমর্থন জানিয়েছে। তারা কী ভুলে গেছে ফিলিস্তিনিদের এবং তাদের অধিকার? তারা জেরুজালেম ভুলে গেছে? ভুলে গেছে ইসলামকেও? প্রশ্ন রাখেন বারঘৌতি।

‘ইসরাইল শুধু ফিলিস্তিনের ভূমি নিজেদের ভূখণ্ডে যুক্তের হুমকি দিচ্ছে না তারা দখলকৃত ভূমিতে অত্যাচার-অবিচারের মাত্রা বাড়িয়েছে। বিষয়টি অবশ্যই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের পর্যবেক্ষণ করা উচিৎ।’ বলেন আবদেদ আবু ইউসুফ।

সংগ্রাম চলবে

হতাশ হলেও, বৃহস্পতিবারের ঘোষণা ইসরাইলের দখলদারী অবসানে বিক্ষোভ, প্রতিবাদে কোনো ধরনের প্রভাব ফেলবে না বলে জানিয়েছেন ফিলিস্তিনিরা। 

‘দখলদারী অবসানে আমাদের ত্যাগকে কখনো বৃথা যেতে দেবো না। মুক্তবিশ্বের সাধারণ মানুষের সহায়তায় আমাদের অধিকার এবং দাবি আরো জোরালোভাবে তুলে ধরবো আমরা।’ বলেন আবু ইউসুফ।

মাজদালানি বলেন, আমিরাতকে জবাব দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে ফিলিস্তিনি নেতারা। আবুধাবি থেকে অতিসত্ত্বর রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহারের কথাও ভাবা হচ্ছে। করণীয় সব বিষয়ে আমরা আলোচনা করছি।’

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ আরব বিশ্ব এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এ চুক্তির বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলার আহ্বান জানান। এক্ষেত্রে আরব জাতিকে ব্যাপকভাবে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানানো হয়।

আবু ইউসুফ বলেন, প্যালেস্টাইন লিবারেশন অর্গানইজেশন আবর রাষ্ট্রগুলোকে ঐক্যবদ্ধভাবে আমিরাতের চুক্তির বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে। যাতে আর কোনো আরব দেশ যাতে আমিরাতকে অনুসরণকে ফিলিস্তিন ইস্যুতে আরবদের অবস্থান দুর্বল করতে না পারে।

তিনি বলেন,  দখলকৃত ফিলিস্তিনের ভূমিতে ইসরাইলের চালানো বর্বরতা তদন্তে শিগগিরই জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত-আইসিসি একটি ঘোষণা দেবেন। 

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়, বিশেষত জাতিসংঘের মতো আন্তর্জাতিক সংস্থাকে ইসরাইলি অবিচার বন্ধ এবং ফিলিস্তিনিদের ক্ষমতায়নে দায়িত্ব নেওয়ার জন্য বিশেষভাবে দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। একইসঙ্গে দখলদারদের জবাবদিহিতার আওতায় আনাতে দ্রুত রুল জারির করতে আইসিসি’র প্রতি আহ্বান জানাই। বলেন আবু ইউসেফ।

আল মাসরি বলেন, আমিরাতসহ আরব জনগণের প্রতি আমাদের এখনো আস্থা রয়েছে। যদিও আমিরাতের জনগণ রাষ্ট্রীয় অত্যাচারের কারণে মুখ খুলতে পারছেন না। আরব রাষ্ট্রগুলো এখনো এ ধরনের স্বাভাবিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার অজুহাত প্রত্যাখ্যান করে।



DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু
৩৫৬৭৬৭ ৮৯৭৪৩ ২৬৭০২৪ ৫০৯৩
বিস্তারিত
এবার বিট কয়েনের দরপতন পশ্চিমাদের অস্ত্রে রণক্ষেত্র মধ্যপ্রাচ্য-উত্তর আফ্রিকা বিএসএইউপিএম’র ২০২০-২১ কার্যকরী কমিটি গঠন নিষেধাজ্ঞায় ইরানের ১৫ হাজার কোটি ডলার ক্ষতি আশুলিয়া প্রেসক্লাবে ককটেল বিস্ফোরণ নারীর দিকে আড়চোখে তাকাবে, এমন কর্মী ছাত্রলীগে নেই: লেখক বার্সাকে ডোবানো বায়ার্নের এ কী হাল! তলা ফেটে পানি ঢুকছিল লঞ্চে, ভয়ানক মুহূর্তে ২শ’ যাত্রী উদ্ধার! স্থানীয় অর্থনীতি নিয়ে ভারতকে বিশ্ব ব্যাংকের সতর্কতা এমসি কলেজে গণধর্ষণের আরও ২ আসামি গ্রেফতার সিঙ্গাপুরে কমেছে জনসংখ্যা, কমবে জিডিপিও নেত্রকোনায় মদসহ আটক ২ স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর ১২ উপায় অভিষেকেই জোড়া গোল সুয়ারেজের যেভাবে ফিরে যাবেন পুরনো ফেসবুকে ভৈরবে পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ায় মামলা বীমা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষে নতুন চেয়ারম্যান নিয়োগ ব্যাটে ঝড় তুলেই চলেছেন ‘টেস্ট ব্যাটসম্যান’ বন্দি বিনিময়ে একমত ইয়েমেন সরকার-হাউথি শেষ মুহূর্তে ধরা খেল টটেনহ্যাম একটি মোরগের দাম ২০ হাজার টাকা বন্ধুর বাঁশের আঘাতে বন্ধুর মৃত্যু আদার রসে নতুন চুল গজায়-দূর করে খুশকি নিরাপত্তা পরিষদে ভারতের আসন দাবি, পাকিস্তানের আপত্তি ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফেবারিটদের জয় মোবাইলে গেম খেলতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু পদ্মায় অল্পের জন্য ২০০ যাত্রীর প্রাণ রক্ষা নিরীহ নারীদের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ, ২ আসামি রিমান্ডে হাসপাতাল থেকে শিশু চুরির সময় নারী আটক চার নদী বন্দরে কাকলী প্রধানের আলোকচিত্র প্রদর্শনী ‘নদী নেবে’ পণ্য বিক্রিতে অনিয়ম, সারাদেশে ৯১ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা ভিন ডিজেলের একক গান প্রকাশ জয়পুরহাটে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মুদি দোকানির মৃত্যু আর্মেনিয়ার দখল থেকে ভূমি পুনরুদ্ধার আজারবাইজানের লক্ষ্য ময়মনসিংহে চার জেএমবি সদস্য আটক একটি বর্ণাঢ্য জীবনের পরিসমাপ্তি মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক ‘আসল’ রোনালদোর চোখে সর্বকালের সেরা ফুটবলার কে? সাতক্ষীরা জজকোর্টের পিপি’র দুর্নীতির প্রতিবাদ সমাবেশ করোনায় অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যু তারকাদের ফেসবুক আইডি থেকে প্রতারণা ঢাবি শিক্ষার্থী হত্যার বিচার দাবিতে কালীগঞ্জে মানববন্ধন ছুটি বাড়ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নেত্রকোনায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু বিধ্বস্ত বার্সার একাদশে আজ কারা থাকবেন? কিছু মানুষ স্বাস্থ্যকর্মীদের মনোবল ভেঙে দিচ্ছিলেন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাওয়ায় প্রতিদিন ৫০ টন ইলিশ বিক্রি জলঢাকা পৌরবাসী এখন ‘জলে ঢাকা’ লুকাশেঙ্কোকে হুমকি দিলেন ম্যাক্রোঁ সৌদির ফ্লাইট সংখ্যা বাড়ানোর অনুরোধ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মসজিদে বিস্ফোরণ: ৫ লাখ টাকা করে পেল ৩৫ পরিবার পোপ জন পলের রক্ত চুরি! জোড়া খুন: একজনের ফাঁসি থেকে যাবজ্জীবন, দু’জন খালাস শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে মোদির শুভেচ্ছা কাকলী প্রধানের আলোকচিত্র প্রদর্শনী ‘নদী নেবে’ নিজস্ব গেমিং চ্যানেল আনছে অ্যামাজন বেশি ধান-চাল মজুত করার দায়ে জরিমানা প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র থেমে নেই: তথ্যমন্ত্রী ‘নুরকে ঢাবিতে অবাঞ্ছিত ঘোষণা, ধর্ষকদের দায় নেবে না ছাত্রলীগ’ সোমবার টিভিতে প্রদর্শিত হবে ‘হাসিনা: অ্যা ডটার্স টেল’ ভারতে ফিরল ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি! ‘দেশের মানুষের কল্যাণে সংগ্রাম করছেন শেখ হাসিনা’ সাইবার নিরাপত্তায় ব্যাংকগুলো নির্দেশনা মানতে উদাসীন অটোরিকশা চালকের সততা, ফেরত দিলেন ১৪ লাখ টাকা আজারবাইজানের পাশে থাকবে তুরস্ক করোনার টিকা আসার সঠিক সময় জানাল চীনের সিনোভ্যাক ঢাকা-মাস্কাট রুটে বিমানের ফ্লাইট চালু ২ অক্টোবর গোপালগঞ্জে অপহরণের মুক্তিপণ দাবি, গ্রেফতার ৪ ভ্যাট ফাঁকি: ২৫৩ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা বেগমগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক বাদশা আর নেই চিকিৎসা ব্যবস্থা ভালো বলেই করোনায় মৃত্যু কম: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফ্রান্সে প্রবাসীদের কৃষি খামারে বাংলাদেশি শাক-সবজি সেই রাতের লোমহর্ষক বর্ণনা দিলেন তরুণী প্রধানমন্ত্রীর নামে প্রতিবছর হবে দাবা প্রতিযোগিতা ফরেনসিকে যাচ্ছে দিপিকা-সারাদের মোবাইল ফোন বিয়ে করা হলো না তাদের, প্রাণ গেল দু’জনেরই শহীদের রক্তের বদলা নেবে আজারবাইজান: প্রেসিডেন্ট নওগাঁয় বড় ভাইকে পিটিয়ে মারল ভাইয়েরা ১ অক্টোবর পঞ্চগড়ের বাফার গোডাউন উদ্বোধন মন ভালো নেই শাকিব-অপুর মানিকগঞ্জে সাংবাদিকদের ওপর হামলায় আটক ১ চিনিকল বন্ধ বা শ্রমিক ছাঁটাইয়ের কোনো পরিকল্পনা নেই চীনে কার্বন মনোক্সাইড গ্যাসে ১৬ শ্রমিকের মৃত্যু ভারতে হোটেলে ৯ বাংলাদেশি তরুণী উদ্ধার নড়াইলে বালু ব্যবসায়ী আরিফ খুন উড়ন্ত গাড়ি বাজারে আনছে চীন আবারও বন্ধ শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটে ফেরি কোকেন-হেরোইন মামলা: চয়েজ রহমানের জামিন স্থগিত স্বাস্থ্যখাতে দুর্নীতি: দুদকের ২৫ দফা বাস্তবায়ন চেয়ে হাইকোর্টে রিট শাড়ি পরে উদ্দাম নৃত্যও দেখালেন জনপ্রিয় হুপ ড্যান্সার! (ভিডিও) জামালপুরে হত্যা মামলায় দুজনের মৃত্যুদণ্ড, যাবজ্জীবন ৭ পাপিয়ার যাবজ্জীবন সাজা চায় রাষ্ট্রপক্ষ ছাত্রলীগের নেতারাই সবগুলো ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত: ফখরুল ‘শেখ হাসিনা ছিলেন বলেই করোনাকালেও না খেয়ে থাকতে হয়নি’ খোলা সিগারেট-বিড়ি বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা মহারাষ্ট্রে! মুমূর্ষু স্বামীর রক্ত দিতে চেয়ে স্ত্রীকে ধর্ষণ: দুই আসামির রিমান্ড চায় পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেট থেকে শীর্ষ কর্মকর্তা সেজে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন পারভিন হয় ক্যাশ না হয় লাশ, অবশেষে উদ্ধার অপহৃত শিশু আপন মধ্যযুগীয় কায়দায় যুবককে নির্যাতনকারী হ্যাপি গ্রেফতার ধর্ষণ-নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন-বিক্ষোভ
আরও সংবাদ...
ভিসা ছাড়াই বাংলাদেশি নাগরিকরা ভ্রমণ করতে পারবেন যে ৪১ দেশ ভারত থেকে লন্ডন যেতে বাস সার্ভিস চালু ৩০ মিনিটে এনআইডির অসুন্দর ছবি বদলে ফেলুন বাংলাদেশকে ১৬ আনাই ফাঁকি দিয়েছে ভারত! ডাচ্-বাংলা-আইবিএলসহ ৫ ব্যাংকে লেনদেন সীমিত করা হয়েছে ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলমকে নোটিশ মোবাইল কিনতে শিক্ষার্থীদের ১০ হাজার টাকা করে ঋণ দেয়ার সিদ্ধান্ত বাইকার ফারহানা ‘নববধূ’ নয়, বিয়ে তিন বছর আগে, রয়েছে সন্তানও ‘দুই আর দুই পাঁচ’ বলছেন শাহেদ ডাল-আলু ভর্তা খেয়ে মাকে টাকা পাঠান সৌদি প্রবাসী কিশোর (ভিডিও) দেখা মিলল বিশ্বের সবচেয়ে বড় নীল তিমির (ভিডিও) ওয়াইফাই ইন্টারনেটের গতি বাড়ানোর কৌশল আল বুখারি বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর হলেন ড. ইউনূস দু'বোনের মারামারিতে দেরিতে ছাড়ল বিমান (ভিডিও) শিক্ষার্থীদের এক হাজার করে টাকা দেবে সরকার চেয়ার ছেড়ে পালালেন জায়েদ খান! মিয়া খলিফাকে খুঁজছে মার্কিন সেনারা (ভিডিও) সুশান্তের মৃত্যু: ‘আওয়াজ আসলেই তালা ভাঙা বন্ধ করে দিও’ (ভিডিও) মসজিদের একটি এসিও বিস্ফোরিত হয়নি এক সপ্তাহ পরেই বদলে যাচ্ছে ফেসবুক, বাধ্যতামূলক নতুন ডিজাইন ঘুষের ৫০ হাজার টাকা না দেয়ায় ঝরল ১৮ প্রাণ, শঙ্কা আরো! গ্রিসের ছয়টি যুদ্ধবিমানকে তুরস্কের ধাওয়া (ভিডিও) খোঁজ মিলেছে অভিনেতা শুভর মেসি-বার্সা ইস্যুতে নাটকীয় মোড়! পৃথিবীর সবচেয়ে বিষাক্ত সাপের দেখা মিলল সমুদ্রে জয়কে সাতদিনের আলটিমেটাম, নিঃশর্ত ক্ষমা না চাইলে মামলা এবার ভারতের প্রদেশের মালিকানা দাবি করল চীন মেয়েসহ দেশ ছাড়লেন মিথিলা গভীর রাতে বাসভবনে ঢুকে ইউএনওকে হাতুড়ি পেটা জাদুকরি পরিবর্তন ঘটে সকালে কুসুম গরম লেবু পানিতে দেশে পাঁচ রকম করোনা ভাইরাসের সন্ধান চাঁদে পড়ছে মরচে! বাংলাদেশি ভ্যাকসিন কবে আসবে জানালেন আসিফ মাহমুদ লাইভ কনসার্টে টাকা ছুঁড়লেন দর্শক, উচিৎ শিক্ষা দিলেন অরিজিৎ (ভিডিও) দেশে বিমান তৈরি শুরু হবে ২০২১ সালে (ভিডিও) তুরস্ককে চারদিকে ঘিরে ফেলছে ফ্রান্স? পছন্দের রঙ বলে দেয় ব্যক্তিত্ব কেমন আড়াইহাজারে এশিয়ার সবচেয়ে বড় বিদেশি বিনিয়োগ! মোবাইল কিনতে ‘ঋণ’ দিচ্ছে রবি ইসরায়েল-আমিরাতের চুক্তি, মুখ খুললো সৌদি শোক দিবসে তারকাদের আচরণে সমালোচনার ঝড় সময় টিভিতে তিন ক্যাটাগরিতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি সুশান্ত হত্যায় নাম জড়াল ভারতীয় খেলোয়াড়ের! নতুন নিয়মে ট্রেনের টিকিট-ভ্রমণ করবেন যেভাবে রিয়াকে জড়িয়ে ধরা মহেশ ভাটের ভিডিও ভাইরাল দেশে আরো একটি গাধার জন্ম সুশান্তের মৃত্যু: সন্দীপের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট প্রকাশ তুরস্কের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় গ্যাস ক্ষেত্রের সন্ধান এসি বিস্ফোরণের কারণ ও রক্ষা পেতে যা করবেন প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার প্রস্তুতির নির্দেশ
আরও সংবাদ...


মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  EnglishLive TV DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে