সম্পূর্ণ নিউজ সময়
প্রবাসে সময়
১৩ টা ৫৩ মিঃ, ১৭ জুলাই, ২০২০

জাপানের নাগরিকত্ব পেলেও হৃদয় তাঁর বাংলাদেশিদের জন্য

কাজী মাকসুদুর রহমান (৪০), জাপানে বাঙালিদের কাছে সাকুরা মাসুদ নামে পরিচিত। সাকুরা মাসুদের বাড়ি কুমিল্লা জেলার চান্দিনায়। ২০০৪ সাল থেকে তিনি জাপান প্রবাসী। প্রথম জাপানে এসেছিলেন জাপানি ভাষা শিখতে। দুই বছরের ভাষা শিক্ষা কোর্স শেষ করে একটা জাপানি প্রতিষ্ঠানে চাকরি নেন।
পি.আর. প্ল্যাসিড, জাপান

চাকরি করার পাশাপাশি নিজের ক্যারিয়ার ডেভেলপ করতে জাপানে বাঙালি কমিউনিটির বিভন্ন কর্মকাণ্ডে নিজেকে জড়িয়ে ফেলেন।

নিজেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন সৈনিক মনে করায় জাপানে বসেও বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক আদর্শের প্রসার ঘটাতে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন শ্রমিক লীগের জাপান শাখা প্রতিষ্ঠা করেন। বর্তমানে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন।

চাকরি করার পাশাপাশি নিজেকে ব্যবসায়ী হিসেবেও প্রতিষ্ঠিত করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। একটি ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানও গড়ে তুলেছেন। নিজ প্রতিষ্ঠানের প্রেসিডেন্টের পদে রয়েছেন সাকুরা মাসুদ। জাপানের মতো কঠিন বাস্তবতার দেশে চাকরি এবং ব্যবসা দুটোই চালিয়ে যাচ্ছেন সমানতালে।

জাপানে ভবিষ্যতে তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে দেশে একটি জাপানি ভাষা শিক্ষার স্কুল (প্রতিষ্ঠান) গড়ে তুলেছেন। যার অবস্থান ঢাকার মোহাম্মদপুরে। সেখান থেকে এ পর্যন্ত অর্ধশতাধিক ছেলেমেয়ে জাপানি ভাষা শিক্ষার কোর্স সম্পন্ন করে জাপানে পড়া লেখা করার সুযোগ করে নিয়েছেন। তিনি নিজেও বাংলাদেশ থেকে এ পর্যন্ত ১২ জন ছাত্রকে পড়ালেখা করার সুযোগ করে দিয়েছেন।

জাপানে তিনি সাকুরা জে বি ফাউন্ডেশন নামে একটি এনপিও (নন প্রফিটাবল অরগানাইজেশন) প্রতিষ্ঠা করেছেন। যার উদ্দেশ্য জাপানে জন্ম নেয়া নতুন প্রজন্মকে বাংলা ভাষা এবং বাংলাদেশি সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেয়া। ২০১৮ সালে (জুন মাসে) প্রতিষ্ঠা করা এ এনপিও জাপানে জন্মগ্রহণ করা নতুন প্রজন্মের কাছে আমাদের জাতীয় দিবসগুলো পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্য জাপানে বাচ্চাদের নিয়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করছেন তিনি। ছেলেমেয়েদের এ মেধা-বুদ্ধি বৃদ্ধির উদ্দেশে সামাজিক এ ফাউন্ডেশনেরও তিনি প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান।  

কুমিল্লার নিজ এলাকার এক মেয়েকে বিয়ে করে জাপান নিয়ে এসেছেন তিনি। তাদের ঘরে এখন দুই ছেলে, এক মেয়ে; যাদের বয়স বর্তমানে ৮ বছর, ৬ বছর এবং তিন বছর। ছেলেমেয়েদের কথা চিন্তা করেই জাপানে জন্ম নেয়া অন্য ছেলেমেয়েদের ধর্মীয় শিক্ষা ও খেলাধুলার মধ্য দিয়ে বড় করা এবং বুদ্ধি বৃদ্ধি ঘটানোর পরিকল্পনায় সাকুরা জে বি ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করাই তার মূল উদ্দেশ্য বলে জানালেন কাজী মাকসুদুর রহমান।   

এই ধারণা থেকে তার নিজের এলাকা কুমিল্লার চান্দিনায় একটি মাদ্রাসা পরিচালনা করছেন সাকুরা মাসুদ। এমনকি সাকুরা জে বি ফাউন্ডেশনের কর্মকাণ্ড বাংলাদেশে প্রসার ঘটাতে বাংলাদেশের একটি শাখা চালু করার জন্য প্রস্তুতি চালাচ্ছেন। যদিও বর্তমানে করোনা ভাইরাসের কারণে সব কর্মকাণ্ড স্থগিত রয়েছে। তারপরও ভবিষ্যতে তিনি এ সাকুরা জে বি ফাউন্ডেশনের কাজ বাংলাদেশে চালানোর কারণে নিয়মিত দেশে আসা যাওয়ার মধ্যে তার এলাকায় যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন। এর মধ্যে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে নানা ধরনের সাহায্য সহযোগিতা তার এলাকায়। আগামীতেও এসব কাজ নিয়মিত করার কথা জানালেন।  

বর্তমানে এতকিছু করার পাশাপাশি তিনি জাপানের ইন্টারন্যাশনাল একটি ম্যানপাওয়ার অরগানাইজেশন (আই. এম. জাপান)-এর বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ডিপার্টমেন্ট-এ কর্মরত রয়েছেন। বাংলাদেশ থেকে জাপানে দক্ষ এবং অদক্ষ শ্রমিক আনার বিষয়ে অক্লান্ত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে দেশে জাপানে বিভিন্ন কর্মকর্তা এবং বিনিয়োগকারীদের নিয়ে যান।

লেখক: জাপান প্রবাসী।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়