মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
বাংলার সময় ডেস্ক
আপডেট
১৪-০৭-২০২০, ১৫:৪৮

দেশে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, দুর্ভোগে বানভাসীরা

দেশে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, দুর্ভোগে বানভাসীরা
দেশের প্রায় সবকটি নদীর পানি বেড়েই চলেছে। বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন বানভাসী মানুষেরা।

বগুড়ায় হু হু করে বেড়েই চলছে যমুনার পানি। একই সাথে দুর্ভোগ বেড়েছে চরাঞ্চলের হাজার হাজার মানুষের। বাড়িঘরের আসবাবপত্র, গবাদিপশু নিয়ে দিকবিদিক ছুটছেন আশ্রয়ের আশায় তারা। দ্বিতীয় দফার বন্যায় বগুড়ার সারিয়াকান্দি সোনাতলা ও ধুনটের ১৬ ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি রয়েছে। খাবার, বিশুদ্ধ পানি, পয়ঃনিষ্কাশন নিয়ে বিপাকে পানিবন্দি এসব মানুষ।

সারিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল মিয়া জানান, সারিয়াকান্দি উপজেলার ১২ ইউনিয়নের মধ্যে ৯টি ইউনিয়নই বন্যায় খতিগ্রস্ত।

এদিকে সোনাতলা উপজেলার ৪টি এবং ধুনটে ৩টি ইউনিয়নের ৮৮টি গ্রামে পানি ঢুকেছে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় মানুষ মধ্যে শঙ্কা বিরাজ করছে।
 
বগুড়া কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ জানায়, এ পযর্ন্ত ১২ হাজার হেক্টর জমির আউশ ধান, পাট, মরিচ, বাদাম নষ্ট হয়ে গেছে। এছাড়া গো-চারণ ভূমিতে পানি উঠায় পশুখাদ্য নিয়ে বিপাকে পড়েছেন খামারিরা।

জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক জানান, নতুন করে বন্যায় ক্ষতি নিরুপনের কাজ চলছে। এ পর্যন্ত ৫ শ মেট্রিক টন চাল ১৫ লাখ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গিয়েছে। আরো বরাদ্দের জন্য সরকারের কাজে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, উজানের নদ-নদীর বয়ে আসা পানির কারণে দিনাজপুর জেলার ৩টি নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে নদী তীরবর্তী নিমাঞ্চলের বসতবাড়ি প্লাবিত হয়েছে। ইতোমধ্যে আত্রাই নদীর পানি বিপদসীমার কাছাকাছি অবস্থান করছে।
 
মঙ্গলবার সকাল থেকেই জেলা সদর ও বিরল উপজেলার মধ্যদিয়ে প্রবাহিত পূর্ণভবা নদীর শহর রক্ষা বাধ সংলগ্ন নিমাঞ্চলগুলো ও বিরল অংশের কয়েকটি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। এভাবে পানি বাড়তে থাকলে দিনের মধ্যেই পানি বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন পানি উন্নয়ন বোর্ড সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।
 
দিনাজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী ইলিয়াস হোসেন জানান, জেলার প্রধান তিনটি নদীর পানি বিপদসীমার কাছাকাছি অবস্থান করছে। যদি উজানের পানি এবং বৃষ্টির পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকে তাহলে বিপদসীমা অতিক্রম করবে।
 
তিনি আরো জানান, দিনাজপুর শহরের পাশ দিয়ে প্রবাহিত পূর্ণভবা নদীর পানি ৩৩ দশমিক ৫০ মিটার বিপদসীমার বিপরীতে বর্তমানে পানির স্তর রয়েছে ৩২ দশমিক ৬০ মিটার। আত্রাই নদীর পানি ৩৯ দশমিক ৬০ মিটারের বিপরীতে বর্তমানে ৩৯ দশমিক ৯৬ মিটার ও ইছামতি নদীর পানি ২৯ দশমিক ৯৫ মিটারের বিপরীতে ২৮ দশমিক ৯৮ মিটারে অবস্থান করছে। এছাড়াও জেলার অন্যান্য ছোট নদীর পানিও বৃদ্ধি পেয়েছে।

দ্বিতীয় দফায় উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল অব্যাহত থাকায় নেত্রকোনায় প্লাবিত হচ্ছে নতুন নতুন এলাকা। জেলার কংস নদীর পানি বিপদসীমার নিচে থাকলেও সীমান্ত উপজেলা কলমাকান্দার উব্দাখালি নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে জেলার কলমাকান্দা, বারহাট্টা ও সদর উপজেলাসহ নদী তীরবর্তী অর্ধলক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন।

কলমাকান্দা উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের ২ শতাধিক গ্রামের প্রায় ৩০ হাজারের মতো মানুষ পানিবন্দি রয়েছেন।
এছাড়াও জেলার সদর বারহাট্টা, দূর্গাপুরসহ হাওর উপজেলাগুলোর বিভিন্ন এলাকায় ২০ হাজারের মতো মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছে বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে যদিও হাওরাঞ্চল পুরো সাত থেকে আটমাস পানিতেই থাকে তারপরও সুনামগঞ্জ থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল খালিয়াজুরির ধনু নদ দিয়ে প্রবেশ করছে। মদন, মোহনগঞ্জ, খালিয়াজুরিসহ কলমাকন্দার বেশ কিছু গ্রামে পানি প্রবেশ করেছে।

জেলা প্রাশাসক মঈনউল ইসলাম জানান, এ পর্যন্ত সব মিলিয়ে জেলায় ২২ থেকে ২৩ হাজার পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জেলা প্রশাসন থেকে ইতিমধ্যে সব ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।  

তবে রোদ উঠলে এবং মেঘালয়ের ভারি বৃষ্টিপাত কমে গেলে পানিও নামতে শুরু করবে বলে জানায় পানি উন্নয়ন বোর্ড।

উজানের পাহাড়ি ঢল আর লাগাতার বর্ষণে ২য় দফায় টাঙ্গাইলে বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি ৩২ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বর্তমানে বিপদসীমার ৩৭ সে.মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

বন্যায় ভেসে গেছে বির্স্তীণ এলাকার ফসলি জমি ও রাস্তাঘাট। প্রথম দফার বন্যার রেশ কাটতে না কাটতে আবার পানি বৃদ্ধি পেয়ে ভূঞাপুর,কালিহাতি, টাঙ্গাইল সদর ও নাগরপুরের বেশ কিছু নিম্নাচলের লোকালয়ে পানি প্রবেশ করায় চরম দুর্ভোগের স্বীকার হচ্ছে এসব বন্যা কবলিত মানুষ।

বানভাসী মানুষদের মাঝে শিশু খাদ্য বিশুদ্ধ পানি ও শুকনো খাবারের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে।

সরকারি-বেসরকারি ত্রাণ সহায়তা না পাওয়ার অভিযোগ বানভাসী মানুষের।

দ্রুত ত্রাণ সহায়তার দাবি  জানান তারা। তবে জেলা প্রশাসনের তথ্য অনুযায়ী বানভাসীদের মাঝে ৪শ মে.টন চাল ও নগদ ৮লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। আর ২লাখ টাকার শিশু খাদ্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এবং বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও টানা বর্ষণে যমুনা নদীর পানি সিরাজগঞ্জ ও কাজিপুর পয়েন্টে অস্বাভাবিক হারে বাড়ছে। ইতোমধ্যে দুইটি পয়েন্টেই দ্বিতীয়বারের মতো বিপৎসীমা অতিক্রম করেছে যমুনার পানি। ফলে আবারও নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এতে প্রায় সোয়া লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন।

মঙ্গলবার  দুপুর সোয়া ১২টায় সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের দেয়া তথ্যমতে যমুনার পানি সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে ১৩ দশমিক ৮০ মিটার রেকর্ড করা হয়েছে, যা বিপদসীমার (১৩.৩৫ মিটার) ৪৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত। অপরদিকে কাজিপুর পয়েন্টে রেকর্ড করা হয়েছে ১৬ মিটার, যা বিপদসীমার (১৫.২৫ মিটার) ৭৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত।

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী এ কে এম রফিকুল ইসলাম জানান, যমুনার পানি দ্রুতগতিতে বেড়েই চলেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কাজিপুর পয়েন্টে ৪৩ সেন্টিমিটার ও সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে ৩৬ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। সেসঙ্গে বাড়ছে অভ্যন্তরীণ করতোয়া, ফুলজোড়, ইছামতি ও বড়াল নদীর পানিও। বেড়েছে যমুনা নদীর পানি। তিনি আরও বলেন, আগামী ৭২ ঘণ্টা যমুনায় পানি বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র।

এদিকে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় যমুনার অভ্যন্তরীণ চারঞ্চলের মানুষেরা দ্বিতীয় দফায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। প্লাবিত হয়েছে বাড়ি-ঘর, শিক্ষা ও ধর্মী প্রতিষ্ঠানসহ ফসলি জমি। বাড়িঘর ছেড়ে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ কিংবা উঁচু জায়গায় আশ্রয় নিয়েছে শত শত মানুষ। অস্বাভাবিক হারে পানি বাড়ায় এসব এলাকার মানুষের মধ্যে ভয়াবহ বন্যা আতঙ্ক বিরাজ করছে।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আব্দুর রহিম জানান, জেলার পাঁচ উপজেলার যমুনা নদী অধ্যুষিত ৩৫টি ইউনিয়নে ২৫ হাজার পরিবারের প্রায় সোয়া লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। ইতোমধ্যে আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছে ২৮০টি ঘর-বাড়ি। ২২টি শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। নষ্ট হয়ে গেছে প্রায় ১৭ কিলোমিটার রাস্তা ও বাঁধ।

তিনি আরও বলেন, প্রথম দফা বন্যাকবলিতদের জন্য ১২৫ মেট্টিক টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছিল। দ্বিতীয় দফাতেও আমরা প্রস্তুত রয়েছি।

উজানে বৃষ্টিপাত কমে যাওয়ায় জেলার প্রধান নদনদীর পানি কমতে শুরু করেছে। তবে সুরমা নদীর পানি এখনো বিপদসীমার উপরে প্রবাহিত হচ্ছে। তবে মানুষের ঘরবাড়ি থেকে বন্যার পানি এখনো নামেনি।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) সকালে বন্যা কবলিত এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে সদর উপজেলার লালপুর ও রাধানগর, রসুলপুর গ্রামের বেশির ভাগ ঘরবাড়ি এখনো পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে। এদিকে সুনামগঞ্জ শহরের শান্তিবাগ, নুতনপাড়া, পশ্চিমহাজীপাড়া, তেঘরিয়া, বড়পাড়া, কালীপুর মরাটিলা হাছননগরসব সকল আবাসিক এলাকা পানিতে তলিয়ে রয়েছে। বসতবাড়ি বন্যার পানিতে ডুবে থাকায় মানুষ পড়েছেন সীমাহীন দুর্ভোগে।

প্রশাসনের বন্যা নিয়ন্ত্রণ কক্ষ সূত্রে জানা গেছে, জেলার ১১টি উপজেলার ৮৪টি ইউনিয়ন ও চারটি পৌরসভার ২০টি ওয়ার্ডে ৩২৭টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এসব আশ্রয় কেন্দ্রে ২৮৮১টি পরিবারের ১১হাজার ৫২৪ জন নারী পুরুষ ও শিশু আশ্রয় নিয়েছেন। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ১ লাখ ২ হাজার ৭২৯টি পরিবার। প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা শুকনো খাবার ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার পর্যন্ত ৮৫৫ মেট্রিক টন চাল ৪৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা ১৯০০ প্যাকেট শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের বন্যা নিয়ন্ত্রণ কক্ষ সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ৫ হাজার ২২২টি, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের ১১ হাজার ৫৩৫টি, তাহিরপুর উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের ২৬ হাজার ৭৮০টি, জামালগঞ্জ উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের ১০ হাজারটি, ছাতক উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের ২ হাজার ৩৫০টি, দোয়ারাবাজার উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ১০ হাজার ২২২টি, শাল্লা উপজেলার ৪ টি ইউনিয়নের ২ হাজার ৩০০টি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত  হয়েছে।

এছাড়াও দিরাই উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের ১ হাজার টি, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার ৮ টি ইউনিয়নের ১১ হাজার ৭৫০টি, ধর্মপাশা উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের ১৫ হাজার ৭০০টি, জগন্নাথপুর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের ৩  হাজার ৬০০টি ও সুনামগঞ্জ পৌরসভার ৫৩২টি, ছাতক পৌরসভার ৯২৫টি,দিরাই পৌরসভার ২৫১টি ও জগন্নাথপুর পৌরসভার ৫৬২টি পরিবার ক্ষতিগ্রস্তসহ সারা জেলায় মোট ১ লাখ ২ হাজার ৭২৯টি পরিবার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সবিবুর রহমান জানান, উজানে বৃষ্টি কম হওয়ায় নদনদীর পানি কমতে শুরু করেছে। বৃষ্টি না হলে পরিস্থিতি উন্নতি হতে পারে। তবে ধীর গতিতে পানি নামছে।



DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু
২৪৯৬৫১ ১০৫৮২৭ ১৪৩৮২৪ ৩৩০৬
বিস্তারিত
রাম মন্দিরের পর ভারতে হবে ২১৫ মিটারের হনুমান মূর্তি ! খাশোগির মতো আরেক হত্যা মিশনে কানাডায় সালমানের হিট স্কোয়াড! চীনা অনুপ্রবেশের সব নথি ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট থেকে গায়েব! আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে এশিয়ানদের দাপট লেবানন বিস্ফোরণ: ভাগনিদের আর চকলেট দেবে না মেহেদী ‘রোনালদো খুনি, আর মেসি খুনের আগে টর্চারও করে’ করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৩ সহস্রাধিক পরিবারের পাশে ‘এডুকো বাংলাদেশ’ মালয়েশিয়ায় শেখ কামালের ৭১তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে যা জানা দরকার রবীন্দ্রনাথ বিজ্ঞাপনেও অংশ নিয়েছিলেন! এরদোয়ানকে ‘সৌদির আসনে’ বসাতে চান ইমরান খান ও শি জিনপিং চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে মরিয়া বার্সেলোনা ওসি প্রদীপসহ ৭ আসামির রিমান্ডের আদেশে পরিবর্তন রাজশাহী বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ১৭৯, মৃত বেড়ে ১৮৭ ‘মেসির ইন্টার মিলানে যোগ দেয়া অসম্ভব নয়’ রাজবাড়ীতে পুকুরে বর্জ্য ও নোংড়া পানিতে মাছের মড়ক করোনায় আক্রান্তে ইতালিকে ছাড়িয়ে গেল বাংলাদেশ সিরাজগঞ্জের যমুনায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান হাতিয়ায় স্বাস্থ্যকর্মী নিয়োগে প্রতারণা, আটক ১ করোনায় আক্রান্ত আরো ৭ ফুটবলার মৌলভীবাজারে বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে কুড়িগ্রামে ৭২ লিটার মদসহ মাদক বিক্রেতা আটক ইজিবাইক কেড়ে নিল শিশুর প্রাণ বগুড়ায় হত্যা মামলার আসামি রিংকু আটক ভ্যাকসিন তৈরিতে যুক্তরাষ্ট্র অন্যদের চেয়ে এগিয়ে: ফাউসি সৌদি আরবে বাংলাদেশি প্রবাসীদের ‘সবুজ বিপ্লব’ যুক্তরাষ্ট্রে বন্ধ হতে পারে আরও বড় বড় চীনা অ্যাপ যমুনায় নৌকাডুবি, নিখোঁজদের সন্ধান মেলেনি বালুবাহী লরি উল্টে চালক নিহত কাতারে ফেরার অনুমতি পেলেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা, কিন্তু... শ্রীলঙ্কা সিরিজেই ফিরছেন সাকিব! প্রদীপসহ ৩ আসামি রিমান্ডে, চারজনকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ বিপদসীমার উপরে থাকছে ঢাকার ৪ নদীর পানি চীনা যুদ্ধবিমানের কাছে পাত্তাই পাবে না ভারতের রাফায়েল! রোহিঙ্গা গণহত্যা : গাম্বিয়াকে তথ্য দেবে না ফেসবুক! ছাতনী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কারাগারে সবার আগে ইমরুল কায়েস বাস চাপায় প্রাণ গেল নারীর ‘বড় এক কর্মকর্তার সঙ্গে হাতাহাতি হয়েছিল মাহবুব কবিরের’ 'ফ্লপ' সানচেজের স্থায়ী ঠিকানা ইন্টারমিলান! টানা ৭০ দিনে যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদ বিরোধী বিক্ষোভ করোনার পর তুর্কি খিলাফত প্রতিষ্ঠার শঙ্কা এফএআই সভাপতির মিলনকে ওএসডি করায় সমালোচনার ঝড় সিনহা হত্যা মামলার ৯ আসামির ৭ জন কারাগারে সরিয়ে ফেলা হলো অলিম্পিকের প্রতীক লণ্ডভণ্ড শহরটিতে এখনো নিখোঁজ শত শত মানুষ বার্সেলোনার নতুন এই 'বিস্ময়বালক' কে? পাচারের হাত থেকে রক্ষা পেলেন গৃহবধূ বিউটি হিরোশিমায় পরমাণু বোমা হামলার ৭৫ বর্ষপূর্তি পালন বন্ধ হলো সরকারি চাকরিজীবীদের হোম অফিস বিশ্বে জ্বালানির চাহিদা ৮ শতাংশ কমবে গিনেস বুকে নাম লেখানো আশিকুরকে সংবর্ধনা অটোরিকশাকে সাইড দেয়া নিয়ে সংঘর্ষে নাসিরনগরে নিহত ১ কক্সবাজারে সেনাবাহিনী ও পুলিশের প্রতি নির্দেশনা ২২ ঘণ্টা পর জানা গেল ওটা ‘বোমা’ নয়, গ্রাইন্ডিং মেশিন স্ত্রীর ওপর অভিমান করে আত্মহত্যা ডা. স্যামুয়েলের, ধারণা পুলিশের মৌলভীবাজারের ১৫ সাংবাদিককে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই কোম্পানীগঞ্জের ‘মুছাপুর ক্লোজারে’ ভিড় আদালতে ওসি প্রদীপসহ ৯ জন সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র-ইসরাইলের বিপুল অস্ত্র জব্দ কানের দুলে সেরে যেতে পারে মাইগ্রেন! ‘একজন করোনায় আক্রান্ত হলে পুরো আইপিএল শেষ’ দেবীগঞ্জে নদীতে নিখোঁজ শিশুর মরদেহ উদ্ধার যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিম নিষিদ্ধের বিরুদ্ধে বিল পাসের নেপথ্যে যে নারী এবার ওএসডি হলেন মাহবুব কবির মিলন সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদা দাবির অভিযোগ বাবরি মসজিদের স্থলে মন্দির নির্মাণের প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মানববন্ধন করোনা মোকাবিলায় চীন-যুক্তরাষ্ট্র একসঙ্গে কাজ করা উচিত: চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিয়ের পিঁড়িতে বসা হলো না রেজাউলের ন্যাথান আকিকে দলে নিয়েছে ম্যান সিটি ‘আত্মহত্যা’ করেছেন বডিউডের আরেক তারকা অনুশীলনে ফিরতে মুখিয়ে আছেন বিজয় বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ১ কোটি ৯০ লাখ ছুঁইছুঁই কক্সবাজারে বন দখলকারীদের হামলায় বন কর্মকর্তা নিহত তিন কিশোরীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ২ উইন্ডোজ ৭ বিপজ্জনক, বলছে এফবিআই বিস্ফোরণের ভয়ংকর অভিজ্ঞতা জানালেন বাংলাদেশি জাহাজ বিজয়ের ক্যাপ্টেন ওসি প্রদীপের আত্মসমর্পণ বৈরুতে বিস্ফোরণ ‘পরিকল্পিত হামলা’ বললেন ট্রাম্প পুলিশ পাহারায় আদালতের পথে ওসি প্রদীপ সিনহার সহযোগী দুই শিক্ষার্থীর মুক্তির দাবিতে প্রেসক্লাবে সহপাঠীরা নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১ হাসপাতালে অভিযান না চালানোর বিষয়ে কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা? স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক ডিজি আবুল কালামকে দুদকে তলব বড় আকারের জরিমানার মুখোমুখি টুইটার! প্রতিদিন প্রায় ৫০ লাখ মানুষের করোনা পরীক্ষা করছে চীন রাঙামাটিতে পিসিআর ল্যাব উদ্বোধন ৪৬ বছরে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত ভারতের মুম্বাইয়ে, দুর্ভোগ চরমে করোনা আক্রান্তের গুজব উড়িয়ে দিলেন লারা শরীয়তপুরে ৩য় দফা পদ্মার পানি বৃদ্ধি, দুর্ভোগে মানুষ হাওরে ট্রলারডুবির ঘটনায় চার সদস্যের কমিটি গঠন বঙ্গমাতার ৯০তম জন্মদিনে সেলাই মেশিন-ল্যাপটপ দেবে মন্ত্রণালয় করোনার ধাক্কা সামলাতে যা বললেন প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতিতে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না: চসিক’র নবনিযুক্ত প্রশাসক কুড়িগ্রাম-নওগাঁয় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ৩ করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু বেড়েছে বাগান বন্ধে অনিশ্চয়তায় দলই চা-বাগানের চা-শ্রমিকরা শূন্য থেকে শীর্ষে এলন মাস্ক, নতুনত্ব যার বড় বিনিয়োগ বৃষ্টি নিয়ে দুঃসংবাদ দিল আবহাওয়া অফিস
আরও সংবাদ...
‘সুশান্তের আত্মার’ সঙ্গে কথোপকথন ও ভিডিও রেকর্ড: দাবি গবেষকের (ভিডিও) ইসরাইলে শুক্রাণু বিক্রির হিড়িক তরুণদের ১১ হাজার ছবিকে হারিয়ে প্রথম হলেন বাংলাদেশি আলোকচিত্রী এবার দেশেই তৈরি প্রাইভেটকার! পৃথিবীর সর্ববৃহৎ নিরাপত্তা বাহিনী বাংলাদেশের বাংলাদেশের বিরুদ্ধে মিয়ানমারকে সামরিক সাহায্য দিচ্ছে ভারত! লকডাউনে স্বামীকে কাছে না পেয়ে স্ত্রীর আত্মহত্যা শুধু চুল পাকা রোধ নয়, নতুন চুল গজাবে পরীক্ষা ছাড়াই কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পাসের সিদ্ধান্ত! বিয়ে ছাড়া সন্তান জন্মদানে শীর্ষ চার দেশ বাংলাদেশে প্রথম করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দাবি, বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলন এবার বিশ্বজুড়ে কোরবানি একইদিনে হতে পারে দেশে পরীক্ষা ছাড়াই স্কুল-কলেজে পাসের ঘোষণা আসতে পারে হিরো আলমের আপত্তিকর ভিডিও ফাঁস ভারতের ইটের জবাব পাথরে দিল বাংলাদেশ পুরুষ সংকটে ইউরোপের ৬ দেশ! করোনা আক্রান্ত বাংলাদেশীদের তাড়াতে ইতালিতে বিক্ষোভ গোপনে বিয়ে করেছিলেন শাহরুখ-প্রিয়াঙ্কা! এক হত্যাকাণ্ডে দুই মেধাবীকে হারালো পৃথিবী তাহসান-মিমের ‘হঠাৎ বিয়ে’ মরদেহের সঙ্গে ছবি তুলে ব্যবসা করেন জায়েদ খান: পপি সাবেক স্ত্রীকে নিয়ে প্রোপাগান্ডা, মামলা করবেন অপূর্ব সামরিক শক্তিতে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ মুসলিম দেশ সবচেয়ে কম সামরিক শক্তির ১০ দেশ ইতালিতে বাংলাদেশিদের আজীবন নিষিদ্ধের দাবি কট্টরপন্থীদের দক্ষিণ এশিয়ার বৃহৎ সামরিক ঘাঁটি হচ্ছে নোয়াখালির এই দ্বীপে আরো ৩ স্যাটেলাইটের মালিক হচ্ছে বাংলাদেশ জনপ্রিয় চিত্রনায়ক এখন কাপড়ের ব্যবসায়ী ছাত্রকে ধর্ষণ করে ভিডিও করলেন শিক্ষিকা! মালয়েশিয়ার সঙ্গে বিরোধে জড়াবে না বাংলাদেশ মায়ের সঙ্গে আছেন সুশান্ত, আত্মার সঙ্গে কথোপকথনে গবেষকের দাবি (ভিডিও) মেসেঞ্জারে ঢুকতে ফেস বা ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিতে হবে জামালপুরের আকাশে উড়ছে নৌকা (ভিডিও) বাংলাদেশের জনসংখ্যা অর্ধেক হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা! ‘ডিম আগে নাকি মুরগি’ সমাধান দিলেন গবেষকরা কোরবানির জন্য শাকিবের কাছে টাকা চাইলেন অপু বিশ্বাস! শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে ইন্টারনেট দেয়ার উদ্যোগ ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প’ বিক্রি হলো ১ লাখ ৬৯ হাজার টাকায়! পাকিস্তানের ১৭০টি ট্যাংক গুঁড়িয়ে দিয়েছিল ভারত! কাঠগড়ায় কেঁদে কেঁদে শাহেদ বললেন, ‘আমি করোনায় আক্রান্ত’ ফালতু ছেলের জন্য গলা ভাঙ্গার দরকার নাই, ডিপজলকে ওমর সানী সুশান্ত আত্মহত্যা করেছে আমার মত অবস্থার কারণেই: হিরো আলম সালমান শাহের সেই গাড়িটি ছিল সামিরার! ভারতের আকাশে এলিয়েন! (ভিডিও) আসছে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ প্রাইভেট কার ঘুষ না দেয়ায় কিশোরের সব ডিম ভেঙে দিল পুলিশ (ভিডিও) শাহেদকে পিটুনির ভিডিও ভাইরাল করোনায় বাংলাদেশে নতুন রোগ শনাক্ত ধেয়ে আসছে পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়! কলেজে ভর্তি শুরুর সিদ্ধান্ত
আরও সংবাদ...

মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TVEnglish DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে