Somoynews.TV Logo
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
মহানগর সময় ডেস্ক
আপডেট
২৬-০৬-২০২০, ১২:৪৬

৫ সমুদ্র বন্দরের মালিক হচ্ছে বাংলাদেশ

৫ সমুদ্র বন্দরের মালিক হচ্ছে বাংলাদেশ
স্বাধীনতার আগে থেকেই বাংলাদেশে সমুদ্র বন্দরের সংখ্যা ছিল মাত্র দুইটি। চট্টগ্রাম এবং মংলা। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে নির্মাণাধীন রয়েছে আরো তিনটি সমুদ্রবন্দর। সময় সংবাদের পাঠকদের জন্য আজ তুলে ধরা হলো বাংলাদেশের বর্তমান ও নির্মাণাধীন সমুদ্রবন্দরগুলোর বিস্তারিত তথ্য। 

১. চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর:

১৮৮৭ সালে চালু হওয়া বাংলাদেশের প্রধান সমুদ্রবন্দর চট্টগ্রাম। বাংলাদেশের আমদানি রপ্তানির ৯০% এই বন্দর ব্যবহার করেই হয়ে থাকে। বিশ্বের সব থেকে ব্যস্ততম বন্দরের তালিকাগুলো লয়েডস প্রতি বছর প্রকাশ করে। ২০১৯ সালে এই বন্দরটিকে বিশ্বের ৬৪তম ব্যস্ত বন্দরের স্বীকৃতি দিয়েছে তারা। ৯.৫ মিটার ড্রাফটের ছোট জাহাজ ভিড়তে পারে এই বন্দরে। ১০ হাজার টনের বেশি জাহাজ ভিড়ানোর ক্ষমতা নেই বন্দরটির। এজন্য মাদার ভেসেল এখানে ভিড়তে পারে না। স্বাধীনতার এত বছর পার হলেও কিছু গ্যানট্রি ক্রেন ছাড়া আহামরি কোন উন্নয়ন হয়নি এই বন্দরে। বন্দরটি বর্ধিত টার্মিনাল করবার স্থান ও নেই। তবে সম্প্রতি চট্টগ্রাম বন্দরের এক্সটেনশন হিসাবে বে টার্মিনাল নির্মাণ করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: বঙ্গোপসাগরের জলজ সম্পদের সম্ভাবনাময় এলাকা সংরক্ষণের আহ্বান

সমুদ্রের মোহনায় জেগে উঠা চরে প্রায় ১২০০ একরের বেশি জমিতে বে টার্মিনাল নির্মাণের কাজ চলছে। এতে খরচ হবে প্রায় ২৫ হাজার কোটি টাকা। এখানে বন্দর চ্যানেলের গভীরতা এমন হবে যাতে প্রায় ১৩ মিটার গভীরতার জাহাজ ভিড়তে পারে। ফলে বড় মাদার ভেসেল গুলি ভিড়তে আর অসুবিধা হবে না। ৫০০০ কন্টেইনার বাহী জাহাজ সহজেই ভিড়তে পারবে। সেই সাথে আনলোড করার সময় কমে হবে ২৪ থেকে ৩৬ ঘণ্টা। গতি আসবে বন্দরের কার্যক্রমে। এখানে মোট তিনটি টার্মিনাল নির্মাণ করা হবে। ১৫০০ মিটার বা ১.৫ কিমি এর মাল্টিপারপাস টার্মিনাল, ১২২৫ মিটারের কন্টেইনার টার্মিনাল ১, এবং ৮৩০ মিটারের কন্টেইনার টার্মিনাল-২।

২. মংলা সমুদ্র বন্দর:

পাটকেন্দ্রিক গড়ে উঠা শত শত শিল্প প্রতিষ্ঠান ছিল খুলনায়। মংলা ছিল জমজমাট একটি বন্দর। কিন্তু কালক্রমে পাটকলসহ অন্যান্য শিল্প প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাবার কারণে মংলা বন্দর তার গুরুত্ব হারিয়েছে। বন্দর চ্যানেলে বেশ কিছু জাহাজ ডুবে যাওয়া এবং গভীরতা কমে যাবার ফলে এখন মংলায় ৭.৫ মিটারে বেশি ড্রাফটের কোন জাহাজ ভিড়তে পারেনা। এক প্রকার অচল বলা চলে এই বন্দর। এই বন্দরের করুণ অবস্থার জন্য আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল অনুন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা। পদ্মার উপর কোন সেতু না থাকায় এই বন্দর এক প্রকার রাজধানী হতে বিচ্ছিন্ন। তবে পদ্মা সেতুর কাজ শেষ হলে এবং সরাসরি রেল সংযোগ নিয়ে চলমান প্রকল্প শেষ হলে এই বন্দর কিছুটা হলেও তার গুরুত্ব ফিরে পাবে। মংলা বন্দরকে আধুনিকায়ন করার অংশ হিসাবেই রেল সংযোগ প্রকল্প এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের সব থেকে বড় রেলসেতু রূপসা রেলসেতুর নির্মাণ কাজ অনেক এগিয়েছে। সেই সাথে ভবিষ্যতে এই বন্দর ব্যবহার করবে নেপাল, ভারত। তখন এই বন্দরের চাহিদা বৃদ্ধি পাবে।


৩. পায়রা গভীর সমুদ্র বন্দর:

পটুয়াখালীর পায়রা নদীর মোহনায় রাবনাবাদ চ্যানেলে পায়রা বন্দরের অবস্থান। একটি দ্বীপে বন্দর করবার থেকে মূল ভূখণ্ডের সাথে বন্দর করলে বন্দরকেন্দ্রিক অন্যান্য স্থাপনা করবার সুযোগ অনেক বেশি। সেই হিসাবে পায়রা বন্দর একটি অনন্য পদক্ষেপ। ব্রিটিশ ফার্ম এইচ আর ওয়ালিংটন এন্ড কনসোর্টিয়াম এর মূল্যায়ন অনুসারে বাংলাদেশে ১৪.৫ মিটার ড্রাফটের একটি সমুদ্র বন্দর করা খুব জরুরি। অবস্থান বিবেচনায় সাতক্ষীরা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত সমুদ্র উপকূল থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশের অর্থনীতিতে সমুদ্র উপকূলের এই জেলাগুলির অবদান সামান্য বলা চলে। অর্থাৎ সমুদ্রের সম্ভাবনা হিসাবে বাংলাদেশের মোট জিডিপির অর্ধেক অন্তত এই জেলাগুলি থেকে আসার কথা থাকলেও অবকাঠামোগত অপ্রতুলতার জন্য সমুদ্রের সুবিধাকে আমরা কাজে লাগাতে পারিনি। যেহেতু দক্ষিণাঞ্চলের ঠিক মাঝ বরাবর পায়রা বন্দরের অবস্থান সেক্ষেত্রে বন্দরকে ঘিরে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে নতুন শক্তি সঞ্চার হবে সেটা সহজেই বোঝা যায়।

পায়রা বন্দরের প্রাথমিক, মধ্যম এবং চূড়ান্ত পর্বে এটি বাংলাদেশের সর্ব বৃহৎ বন্দর হয়ে উঠবে। প্রকল্পটি প্রায় ৭ হাজার একর জমির উপর। পায়রা বন্দরের প্রবেশ চ্যানেলে নদীর প্রশস্ততা প্রায় ৪ কিমি। আর বন্দর থেকে সমুদ্রের দিকে টানা ১১ কিমি দীর্ঘ টার্মিনাল করা হবে। বর্তমানে চট্টগ্রাম বন্দর টার্মিনালে মাত্র ১৫০০ কন্টেইনার রাখবার মত ব্যবস্থা আছে। পায়রার ক্ষেত্রে টার্মিনালে প্রায় ৭৫০০০ কন্টেইনার রাখা যাবে। ১ লক্ষ বর্গ ফিটের ওয়ারহাউজের কাজ প্রাথমিক ভাবেই শেষ করা হবে। গভীরতার বিচারে পায়রা বন্দরে প্রায় ১৪ মিটার ড্রাফটের জাহাজ ভেড়ানোর ব্যবস্থা থাকবে। যেখানে চট্টগ্রাম বন্দরে সর্বোচ্চ ৯.৫ মিটার ড্রাফটের জাহাজ ভিড়তে পারে। আর ১২ মিটারের বেশি ড্রাফট থাকলে সেটাকে গভীর সমুদ্র বন্দর বলা যায়।

উল্লেখ্য পাকিস্তানের গোয়াধর বন্দরের গভীরতাও ১৪ মিটার। ড্রেজিং করে সেটাকে ১৮ মিটার করা হবে। পায়রাকেও সেরকম গভীরতায় চাইলেই নেয়া সম্ভব হবে। মূল ভূখণ্ডের সাথে সংযুক্ত হবার জন্য এটিকে ঘিরে বিশাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল জোন করা সম্ভব হবে। বন্দরের মোট প্রকল্পকে ১৯ টি ভাগে ভাগ করে কাজ এগিয়ে নেয়া হচ্ছে। সেক্ষেত্রে প্রায় ১২ থেকে ১৮ বিলিয়ন ডলারের মত বিনিয়োগ হবে। সেই সাথে বিদ্যুৎ উৎপাদন হাব করা হচ্ছে। থাকছে এলএনজি টার্মিনাল।

এই বন্দরের চাহিদার প্রধান গ্রাহক হবে বন্দর ঘিরে গড়ে তোলা বিদ্যুৎ হাব এবং ১০,০০০ একরের অর্থনৈতিক অঞ্চল। সেই সাথে জাহাজ নির্মাণের জন্য আলাদা অঞ্চল সৃষ্টি করা হচ্ছে। পদ্মা সেতু চালু হলে এবং ঢাকা থেকে পায়রা পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণ শেষ হলে সহজেই স্বল্প সময়ে পণ্য ঢাকাসহ সারাদেশে পৌঁছানো সম্ভব হবে। সরাসরি সড়ক যোগাযোগের জন্য লেবুখালিতে পায়রা নদীর উপর সেতুর নির্মাণ কাজ চলছে যেটি কয়েক বছরের ভেতরেই ঢাকার সাথে পায়রার সরাসরি সংযোগ ঘটাবে। পিছিয়ে পড়া দক্ষিণাঞ্চলের জিডিপি বৃদ্ধিতে এই বন্দর বড় রকমের ভূমিকা রাখবে। ইতোমধ্যে পায়রাকে ঘিরে গড়ে উঠা কয়লা ভিত্তিক দেশের সব থেকে বড় বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রথম ইউনিটের নির্মাণ শেষ হয়েছে।

৪. মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর:

বাংলাদেশের সব থেকে গভীরতম সমুদ্রবন্দর হচ্ছে মাতারবাড়ি সমুদ্রবন্দর। মহেশখালী দ্বীপের আয়তন প্রায় ১৪ বর্গকিলোমিটার। সেই সাথে মাতারবাড়ি চ্যানেলের দৈর্ঘ্য প্রায় ১৪.৫ কিমি। ভাটার সময় গভীরতা থাকে প্রায় ১৪ মিটার। আর জোয়ারের সময় প্রাকৃতিক ভাবেই গভীরতা হয় প্রায় ১৮.৫ মিটার। যদি ড্রেজিং করা হয় তবে গভীরতাকে আরো বাড়ানো সম্ভব।

মাতারবাড়ি এর লোকেশন নির্ধারণ এবং কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ-কেন্দ্র নির্মাণ আর এসবের নিমিত্তে বন্দর করবার কাজ পেয়েছে জাপান। শুরু থেকেই প্রকল্পটি নিয়ে খুব বেশি ঝামেলা পোহাতে হয়নি। খরচ ছিল ৩৬ হাজার কোটি টাকা যার ভেতর জাপান অর্থায়ন করবে ২৯ হাজার কোটি টাকা। আপাতত প্রায় ৪৪০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ তৈরি করা হবে। কয়লা নামানোর জন্য বন্দর সুবিধা এই প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত।

মাতারবাড়ি বন্দরের কাজ শেষ হলে এই দ্বীপে ২৪০০০ একরের বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহৎ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিশাল বিনিয়োগ আসবে। ইতোমধ্যে চীন সেখানে ৩ বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ করার জন্য আগ্রহ দেখিয়েছে। জাপান তাদের বিশাল বিনিয়োগ এখানে আনছে। এই বন্দরকে কক্সবাজারের সাথে যুক্ত করার জন্য রেল ও সড়ক সংযোগ ঘটানো হবে। অর্থনৈতিক অঞ্চলের শিল্প কারখানা এবং দেশের সবথেকে বড় বিদ্যুৎ হাবের জন্য কয়লা বহন এই বন্দরের প্রধান কাজ হবে। এছাড়া এলএনজি এবং অন্যান্য কার্গো বহনেও ব্যাবহার হবে এই বন্দর।

৫. মিরসরাই ইকোনমিক জোন সংলগ্ন প্রথম বেসরকারি সমুদ্রবন্দর:

জাপানের জেডিয়াই, সজিত কর্পোরেশন এবং আমাদের দেশের এনার্জিপ্যাক জোটবদ্ধ হয়ে প্রায় ২.৫ বিলিয়ন ডলার ব্যয় করে উপমহাদেশের সব থেকে বড় ইকোনমিক জোন মিরসরাই সংলগ্ন একটি সমুদ্রবন্দর নির্মাণ করবে। জাইকা এখানে ২ বিলিয়ন ডলার অর্থায়ন করার জন্য রাজি হয়েছে। আইএফসি অর্থায়ন করবে ১০০ মিলিয়ন ডলার।

সারাবিশ্বে মিরসরাই ইকোনমিক জোনের মত এত আকর্ষণীয় ইকোনমিক জোন খুব কম আছে। ইকোনমিক জোন করার প্রকল্প নেয়ার পর এটি এখন কর্মমুখর একটি অঞ্চলে পরিণত হয়েছে। ৩০ হাজার একরের উপর উপমহাদেশের সব থেকে বড় ইকোনমিক জোনের সাথেই মিশে আছে সমুদ্র। এই ইকোনমিক জোনের চাহিদা বিবেচনায় আরো ১৩,০০০ একর জমি যুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে। সেটি হলে অর্থনৈতিক অঞ্চলের আয়তন হবে ৪৩,০০০ একর। ঢাকা চট্টগ্রাম হাইওয়ে এখান থেকে মাত্র ১৮ কিমি দূরে। বিমান বন্দর খুব কাছেই। সেই সাথে চট্টগ্রাম বন্দর ও খুব কাছে।

চট্টগ্রাম বন্দরের উপর এই বিশাল অঞ্চলে গড়ে উঠা শিল্প প্রতিষ্ঠানের চাপ যেন না পড়ে সে কারণেই সজিত কর্পোরেশন এখানে একটি সমুদ্র বন্দর করবে যেটার কাজ মূলত শুধু এখানে বিনিয়োগ করা বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের জন্য পণ্য আমদানি এবং রপ্তানি করা। এর অর্থ দাঁড়ায় এই ইকোনমিক জোনের নিজস্ব একটি ডেডিকেটেড সমুদ্রবন্দর থাকবে। ৪০০০০ টনের মাদার ভেসেল ভিড়তে পারবে এখানে। যদিও বন্দরের আকার ছোট হবে তবুও এত বিশাল বিশাল জাহাজ ভিড়তে পারার সুবিধাযুক্ত ইকোনমিক জোন বিশ্বের কয়টি দেশে আছে?

একই কাজ কিন্তু মাতারবাড়িতেও হচ্ছে। ২৪০০০ একর অর্থনৈতিক অঞ্চলের সাথেই যুক্ত মাতারবাড়ি বন্দর।

ভবিষ্যৎ বাংলাদেশকে বিশ্বের বুকে নতুন করে চেনাতে এই দুটি বন্দর এবং অর্থনৈতিক অঞ্চল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না।

সৌজন্য: ডিফেন্স রিসার্চ ফোরাম।



DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু
২৬৬৪৮৯ ১১৩৪০০ ১৫৩০৮৯ ৩৫১৩
বিস্তারিত
আ.লীগ নেতাকর্মীদের নির্যাতন করেন ভাঙ্গা থানার ওসি সুনামগঞ্জে গায়েবী আগুন, পুড়ে যাচ্ছে বিছানাপত্র কেমন আছেন তারা? ৪৯টি বিষধর সাপ উদ্ধার করলো বন বিভাগ অনলাইনে পাখি বিক্রয়, তিনজন আটক মারা গেছেন সাবেক মন্ত্রী রুহুল হকের স্ত্রী অজ্ঞাত উৎসের আগুনে পোড়ে ঘরবাড়ি, আতঙ্কে স্থানীয়রা বাংলাদেশি ভ্যাকসিন বাজারে আসার সম্ভাব্য সময় জানালেন আসিফ মাহমুদ সেই গোয়েন্দার ছেলে-মেয়েকে হত্যার অভিযোগ সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে রাজশাহীতে ১৭০ পুলিশ সদস্য বদলি কুড়িগ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে কৃষকের মৃত্যু শোক দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের নিয়ম সিনহা হত্যার ঘটনায় গণশুনানি রোববার আত্মবিশ্বাসী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাকিস্তানের সিরিজ বাঁচানোর লড়াই যে ভুল হলে আপনার সিভি খুলবেই না নিয়োগদাতারা সালমান ভক্তদের জন্য সুখবর বেনাপোল বন্দরে পুলিশ মোতায়েন ধোনি চেন্নাইয়ের হয়ে অধিনায়কত্ব করবেন ২০২২ পর্যন্ত! ভারতের পরিবর্তে বিশ্বকাপ হতে পারে শ্রীলঙ্কা অথবা আমিরাতে রাঙামাটির ল্যাবে প্রথম দিনে ৮ জনের করোনা শনাক্ত বৈরুতে আটকেপড়া ৭১ বাংলাদেশি দেশে ফিরেছেন ভুলে নিজেদের শহরে রকেট ছুঁড়ল ইসরায়েলী বাহিনী নামাজ পড়তে মসজিদে ওঠার সময় গলাকেটে হত্যা বেন স্টোকসকে ছাড়া কেমন করবে ইংল্যান্ড? রাতে শুরু হচ্ছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল ফের মুখোমুখি তুরস্ক ও ইরাক টিকা নিয়ে ‘উদ্বেগ’ উড়িয়ে দিল রাশিয়া প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব পরিচয় দেয়া প্রতারক আটক দেশে সোনার দাম কমছে বৃহস্পতিবার থেকে খুলনায় অস্ত্রের মুখে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ১৪ লাখ টাকা ছিনতাই করোনার ধাক্কা সামলাতে মনোবিদ চান ফুটবলাররা 'ইমরান খান একজন বেইমান' ডাকাতি হওয়া দশ লাখ টাকার সিগারেট উদ্ধার কয়েক বছর পর নদী ভাঙন থাকবে না: পানি সম্পদ উপমন্ত্রী পুরোদমে ক্রিকেটে ফিরছে নিউজিল্যান্ড বাংলাদেশ-ভারত হ্যাকাথন: স্টার্টআপদের মেন্টরিং শুরু জিন ছাড়ানোর নামে রাতভর স্কুলছাত্রীকে 'ধর্ষণ' ফরিদপুরে উপজেলা প্রশাসনের ত্রাণ বিতরণ আবারও বাংলাদেশিকে গুলি করে মারল বিএসএফ কোম্পানীগঞ্জে ৪৩টি বাড়ী লকডাউন ঘোষণা 'ক্রীড়া উন্নয়নে বাংলাদেশ-নেপাল যৌথভাবে কাজ করবে' নারী ক্রিকেটের প্রত্যাবর্তন, প্রথম ম্যাচেই জার্মানদের জয় পশুর নদীর তীর থেকে বিপুল পরিমাণ চিংড়ির শুটকি জব্দ নোয়াখালীতে ৫ মাদকসেবীর কারাদণ্ড নাক ডাকায় বাবাকে পিটিয়ে মেরেই ফেলল ছেলে সিনহা হত্যা মামলায় ৪ পুলিশসহ ৭ জন রিমান্ডে ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়ের অভিযোগ পাঁচ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে সিনহা হত্যার দৃশ্য বর্ণনা দিলেন সঙ্গে থাকা সিফাত (ভিডিও) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন পরিবেশ মন্ত্রী জেএসসি-এইচএসসি নিয়ে বিভ্রান্তি দূর করতে মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তি বেঙ্গালুরুতে মন্দির পাহারায় মুসলিম যুবকরা যৌনপল্লীর শিশুদের মূল ধারায় ফেরাতে চায় উত্তরণ ফাউন্ডেশন ঝিনাইদহে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধে সড়কে পুলিশের অভিযান করোনার ‘গুজব’ মানায় প্রাণ গেছে বহু মানুষ বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে সরকার: এলজিআরডি মন্ত্রী অবৈধভাবে নিয়োগকৃত ৫ শিক্ষকের এমপিওভুক্তির অভিযোগ সিফাত-শিপ্রাকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবে র‍্যাব নোয়াখালীতে পানিতে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু তুর্কি মন্ত্রীর সফর বাতিল করল ইরাক অবশেষে বাংলাদেশকে টপকে গেল ভিয়েতনাম দেশে চীনা ভ্যাকসিনের ভাগ্য নির্ধারণ আগামী সপ্তাহে নারায়ণগঞ্জে শুভ হত্যার আসামিদের গ্রেফতার দাবিতে মানববন্ধন বেনাপোলে কোর্ট ফি জালিয়াতি চক্রের তিন সদস্য আটক জামালপুরে র‌্যাবের হাতে অস্ত্রসহ ইউপি সদস্য আটক আইপিএলে সুযোগ না পেয়ে আত্মহত্যা ক্রিকেটারের! বৃহস্পতিবার ঢাকায় গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায় পুকুরে ভাসছিলো মা ও শিশুর মরদেহ দূতাবাসে যাওয়ার পথে ভিয়েতনামে ১৫ বাংলাদেশি আটক পদ্মা সেতুর টোল আদায় কার্যক্রমের নিয়োগ প্রস্তাব অনুমোদন প্রাথমিকের শিক্ষক বদলি শুরু হচ্ছে করোনা আক্রান্ত বার্সেলোনার ফুটবলার করোনায় ‘পরীক্ষা ছাড়াই পাস’ প্রশ্নে অবস্থান জানালেন প্রতিমন্ত্রী উদ্ভাবনী মানসিকতাকে কাজে লাগাতে শিক্ষার্থীদের প্রতি পলকের আহ্বান ভ্যাকসিনের জন্য অর্থও বরাদ্দ রাখা হয়েছে: অর্থমন্ত্রী জানালা দিয়ে মাদ্রাসাছাত্রীর ওপর এসিড নিক্ষেপ নিজের রাইফেলের গুলিতে আহত বিএসএফ সদস্য ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে আরেক হত্যা মামলা মুখোমুখি সেরেনা-ভেনাস উইলিয়ামস জাতীয় দলের ক্যাম্প স্থগিত কুয়েতে ৭৫ হাজার প্রবাসী এখন কী করবেন? একজনের পরিবর্তে অন্যের কারাবাস, ভুয়া আসামির স্বীকারোক্তি ডিএনসিসির চিরুনি অভিযান পুড়ে ছাই হল ঋণের ৪ লাখ টাকা আসছে বিশ্বের প্রথম ৫জি ট্যাব কোহলি-আনুশকার মজার খেলা বেঙ্গালুরুতে সংঘর্ষের পর কারফিউ জারি সম্মানহানির অভিযোগ তুলে ইউপি সদস্যের সংবাদ সম্মেলন সুন্দরবনের কটকা ওসির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন কুমিল্লায় একসঙ্গে ৫ সন্তান প্রসব টুইটারের নতুন ফিচারে নতুন চমক বিপাকে বিদেশফেরত ৭০ শতাংশ বাংলাদেশি কুমিল্লায় পল্লী চিকিৎসক হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন সোনার দাম ১০ হাজার টাকা কমেছে আউন্সে অসচ্ছল ক্রীড়াবিদদের মাঝে চেক বিতরণ চিরকুটে লেখা ছিল 'শয়তান আমাকে বাঁচতে দিল না' নাটোরে ৫০০ একর ফসলী জমির পানি নিষ্কাশন করোনার বুলেটিন সপ্তাহে অন্তত দুদিন প্রচারের আহবান কাদেরের আঘাতে আহত পূজা চেরি আইনের পোশাকে 'বেআইনি কাজে সিদ্ধহস্ত' ওসি প্রদীপ শার্শায় ফেনসিডিলসহ নারী মাদকবিক্রেতা আটক
আরও সংবাদ...
‘সুশান্তের আত্মার’ সঙ্গে কথোপকথন ও ভিডিও রেকর্ড: দাবি গবেষকের (ভিডিও) ইসরাইলে শুক্রাণু বিক্রির হিড়িক তরুণদের ১১ হাজার ছবিকে হারিয়ে প্রথম হলেন বাংলাদেশি আলোকচিত্রী সেলুনের চাকরি থেকে টিকটক, দুমাসে অপুর আয় ৫০ হাজার এক হত্যাকাণ্ডে দুই মেধাবীকে হারালো পৃথিবী বাংলাদেশের বিরুদ্ধে মিয়ানমারকে সামরিক সাহায্য দিচ্ছে ভারত! বিয়ে ছাড়া সন্তান জন্মদানে শীর্ষ চার দেশ লকডাউনে স্বামীকে কাছে না পেয়ে স্ত্রীর আত্মহত্যা টিকটকার ‘অপু ভাই’কে নিয়ে যা বললেন বাবা ব্যান হচ্ছে টিকটকার অপু-মামুনের আইডি এবার বিশ্বজুড়ে কোরবানি একইদিনে হতে পারে বিকাশ অ্যাপে বড় পরিবর্তন ‘ডিম আগে নাকি মুরগি’ সমাধান দিলেন গবেষকরা নোবেলের ১৪ লাখের ইউটিউব চ্যানেল ব্যান দক্ষিণ এশিয়ার বৃহৎ সামরিক ঘাঁটি হচ্ছে নোয়াখালির এই দ্বীপে পুরুষ সংকটে ইউরোপের ৬ দেশ! আরো ৩ স্যাটেলাইটের মালিক হচ্ছে বাংলাদেশ অপু-মামুনকে নিষিদ্ধ করে লাইকি’র বিবৃতি ইতালিতে বাংলাদেশিদের আজীবন নিষিদ্ধের দাবি কট্টরপন্থীদের গোপনে বিয়ে করেছিলেন শাহরুখ-প্রিয়াঙ্কা! বদলে যাচ্ছে সব ফোন নম্বর মেসেঞ্জারে ঢুকতে ফেস বা ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিতে হবে করোনা আক্রান্ত বাংলাদেশীদের তাড়াতে ইতালিতে বিক্ষোভ পিছু হটেছে শিল্পী সমিতি জনপ্রিয় চিত্রনায়ক এখন কাপড়ের ব্যবসায়ী রিয়া চেন দিয়ে বেঁধেও রাখত সুশান্তকে, অভিযোগ বাবার সামরিক শক্তিতে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ মুসলিম দেশ মায়ের সঙ্গে আছেন সুশান্ত, আত্মার সঙ্গে কথোপকথনে গবেষকের দাবি (ভিডিও) ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প’ বিক্রি হলো ১ লাখ ৬৯ হাজার টাকায়! বিকাশের মাধ্যমে ১০ হাজার টাকা ঋণ পাওয়ার নিয়ম তাহসান-মিমের ‘হঠাৎ বিয়ে’ বাংলাদেশের জনসংখ্যা অর্ধেক হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা! মরদেহের সঙ্গে ছবি তুলে ব্যবসা করেন জায়েদ খান: পপি ছাত্রকে ধর্ষণ করে ভিডিও করলেন শিক্ষিকা! সুশান্তের ফরেনসিক টেস্টের ভিডিও ভাইরাল, কথোপকথন ফাঁস (ভিডিও) মোবাইল টাওয়ার থেকে ফ্রি ওয়াইফাই আসছে সবচেয়ে কম সামরিক শক্তির ১০ দেশ সাবেক স্ত্রীকে নিয়ে প্রোপাগান্ডা, মামলা করবেন অপূর্ব কোরবানির জন্য শাকিবের কাছে টাকা চাইলেন অপু বিশ্বাস! ভারতের আকাশে এলিয়েন! (ভিডিও) পাকিস্তানের ১৭০টি ট্যাংক গুঁড়িয়ে দিয়েছিল ভারত! জামালপুরের আকাশে উড়ছে নৌকা (ভিডিও) আবারো আত্মহত্যা ভারতীয় অভিনেতার মালয়েশিয়ার সঙ্গে বিরোধে জড়াবে না বাংলাদেশ দেশ ছাড়ছেন জাজের আজিজ! বাংলাদেশের হাতে ১০ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র সরকারি চাকরির বড় নিয়োগ আসছে শিল্পীদের কোরবানির মাংস দেবে না চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি আসছে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ প্রাইভেট কার কাঠগড়ায় কেঁদে কেঁদে শাহেদ বললেন, ‘আমি করোনায় আক্রান্ত’
আরও সংবাদ...

মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TVEnglish DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে