x
অধ্যাপক ড. সৈয়দ সামসুদ্দিন আহমেদ
আপডেট
২৩-০৬-২০২০, ১৬:৫৮

বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও আওয়ামী লীগ

বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও আওয়ামী লীগ
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ; মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী রাজনৈতিক দল। এই দলের সৃষ্টি একটি নতুন রাষ্ট্রের অভ্যূদয়ের রাজনৈতিক ইতিহাস। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখতেন- আওয়ামী লীগ হবে গণমানুষের দল। যে দল বাঙালি জাতীয়তাবাদ, গণতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা তথা সকল ধর্মের স্বাধীনতা নিশ্চিতকরণ ও অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি এবং সমাজতন্ত্র বা শোষণমুক্ত সমাজ এবং সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করবে।

প্রতিষ্ঠার পর থেকে নানা চড়াই-উৎড়াই পেরিয়ে আজকের অবস্থানে এসেছে আওয়ামী লীগ। প্রতিষ্ঠার পর থেকে নিয়মতান্ত্রিক পথে আন্দোলন-সংগ্রাম করে মানুষের অধিকার আদায় করেছে দলটি। এনে দিয়েছে এ দেশের স্বাধীনতা। তাই স্বাধীন বাংলাদেশের ইতিহাসে ‘আওয়ামী লীগ’, ‘বঙ্গবন্ধু’ ও ‘বাংলাদেশ’ একটি আরেকটির সমার্থক।

১৯৭১ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে আপামর বাঙালি জাতি যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। শত্রুমুক্ত করে জন্মভূমি, র্অজন করে বহুল কাঙ্কিক্ষত স্বাধীনতা, স্বতন্ত্র জাতিসত্তা।

যে আওয়ামী লীগের হাত ধরে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীনতা এসেছে, সেই দলটির নেতৃত্বেই অর্থনৈতিক মুক্তি তথা সমৃদ্ধ দেশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে প্রিয় জন্মভূমি। বর্তমানে যার নেতৃত্ব দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

নানা সংগ্রাম ও সাফল্য পেরিয়ে চলতি বছরের ২৩ জুন (মঙ্গলবার)  আওয়ামী লীগ একাত্তর থেকে বাহাত্তরে পড়েছে। নতুন দিন, নতুন চিন্তা, নতুন উদ্যমে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়। প্রতিবছরই ঐতিহ্যবাহী এ রাজনৈতিক দলটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে নানা অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয়ে থাকে।

তবে এবার বৈশ্বিক মহামারি নভেল করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণে জনস্বাস্থ্য রক্ষায় সতর্কতার অংশ হিসেবে তা আর হচ্ছে না। একই কারণে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু  শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষের অনুষ্ঠানসহ বিভিন্ন দিবস বা পার্বণ সীমিত বা স্থগিত করা হয়েছে।

বাংলাদেশে দিন দিন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এরই মাঝে মানুষের কল্যাণে এবং জনস্বাস্থ্যের বিষয়টি বিবেচনা করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সরকার দ্রুত পদক্ষেপ নিয়েছে।

আশা করি, সুষ্ঠু সমন্বয়ের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পদক্ষেপগুলোর পূর্ণ বাস্তবায়ন হবে। একই সঙ্গে সরকারের যে যেখানে রয়েছেন তারা সুষ্ঠুভাবে তদারকি করবেন এবং দেশের আপামর জনসাধারণ দায়িত্বশীল আচরণ করে অর্থাৎ সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে এই ভয়াবহ সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে আমরা সক্ষম হবো।

আওয়ামী লীগ প্রায় একযুগ ধরে টানা ক্ষমতায়। এরই মধ্যে ‘উন্নয়নের মহাসড়কে’ অবস্থান করছে দেশ। সরকার এবং আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, দেশের অগ্রযাত্রা আর থামানো যাবে না।

এরই মধ্যে দেশজুড়ে অবকাঠামোগত নানা উন্নয়ন হয়েছে। বন্দরনগরী চট্টগ্রাম ও রাজধানী ঢাকাতেও রাস্তাঘাটের উন্নয়নসহ অবকাঠামো নির্মাণের কর্মযজ্ঞ চলছে। এর মধ্যে মেট্রোরেল, বিআরটি উল্লেখযোগ্য। নির্মিত হচ্ছে স্বপ্নের পদ্মাসেতু, মোট ৬.১৫ কিলোমিটার সেতুর প্রায় অর্ধেকেরও বেশি এখন দৃশ্যমান। এই সেতু বাস্তবায়ন হলে শুধু দক্ষিণবঙ্গ-ই নয়, বদলে যাবে পুরো দেশের অর্থনৈতিক চিত্র। এই সেতু দক্ষিণ এশিয়া ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার যোগাযোগ, বাণিজ্য, পর্যটনসহ নানা ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে। ঢাকার আশপাশে নদ-নদী রক্ষা করে পরিবেশের সৌন্দর্য্য রক্ষায়ও চলছে নানাবিদ কর্মকান্ড। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণকাজ কোনো সহজ কাজ ছিল না। কিন্তু তা করে বিশ্বকে বঙ্গবন্ধুকন্যা দেখিয়ে দিচ্ছেন যে, বাংলাদেশ পারে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার ফ্রেমওয়ার্ক দিয়েছেন। দিয়েছেন শতবর্ষব্যাপী ডেল্টা প্লান।

‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ এখন বাস্তব। এগিয়ে চলেছে দেশ। ইন্টারনেট অব থিংসকে কাজে লাগিয়ে আসন্ন চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের প্রস্তুতি নিতে এরই মধ্যে কাজ শুরু হয়েছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা কাজে লাগিয়ে এই করোনাকালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ক্লাস অনলাইনে নেওয়া হচ্ছে।

অনেক প্রয়োজনীয় কাজ করা হচ্ছে ভার্চুয়ালি। গড়ে উঠছে হাই টেক পার্ক। শিল্পসমৃদ্ধ দেশ গড়ে তুলতে জোর দেওয়া হচ্ছে দেশি-বিদেশি বিনোয়োগের ক্ষেত্রে।

মূলত আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরই দেশে জনকল্যাণমুখী নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়। এসব উদ্যোগ বাস্তবায়নের ফলেই সারা বিশ্বের কাছে ইতোমধ্যে প্রাকৃতিক দুর্যোগের নিবিড় সমন্বিত ব্যবস্থাপনা, ক্ষুদ্র ঋণের ব্যবহার এবং দারিদ্র্য দূরীকরণে এর ভূমিকা, জনবহুল দেশে নির্বাচন পরিচালনায় স্বচ্ছ ও সুষ্ঠুতা আনয়ন, বৃক্ষরোপণ, সামাজিক ও অর্থনৈতিক সূচকের ইতিবাচক পরিবর্তনের প্রভৃতি ক্ষেত্রে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত হয়ে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ।

৩০ লক্ষ শহীদের প্রাণ, লক্ষ-লক্ষ মা-বোনের অশ্রু, সম্ভ্রম ও রক্তের বিনিময়ে জন্ম নেওয়া এই বাংলাদেশকে আজকের অবস্থানে আসতে অতিক্রম করতে হয়েছে হাজারো প্রতিবন্ধকতা। যুদ্ধ বিধ্বস্ত, প্রায় সর্বক্ষেত্রে অবকাঠামোবিহীন সেদিনের সেই সদ্যজাত জাতির অর্জনের পরিসংখ্যানও অপ্রতুল নয়।

সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার (এমডিজি) ৮টি লক্ষ্যের মধ্যে শিক্ষা, শিশুমৃত্যুহার কমানো এবং দারিদ্র্য হ্রাসকরণের ক্ষেত্রে উল্লে¬খযোগ্য উন্নতি প্রদর্শন করতে সক্ষম হয়েছে বয়সে পঞ্চাশের কাছাকাছি থাকা দেশটি। যার অবদান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার নেতৃত্বাধীন দল আওয়ামী লীগের।

নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন বলেছেন, কিছু কিছু ক্ষেত্রে বিশ্বকে চমকে দেবার মতো সাফল্য আছে বাংলাদেশের। বিশেষত শিক্ষা, নারীর ক্ষমতায়ন, মাতৃ ও শিশু মৃত্যুহার এবং জন্মহার কমানো, গরিব মানুষের জন্য শৌচাগার ও স্বাস্থ্য সুবিধা প্রদান এবং শিশুদের টিকাদান কার্যক্রম অন্যতম।
আর তা সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অসামান্য ও যোগ্য নেতৃত্বের কারণে। আসন্ন চতুর্থ শিল্পবিপ্ল¬বেও বাংলাদেশের নেতৃত্ব দেওয়ার সুযোগ রয়েছে।

আমাদের রয়েছে আটকোটি তরুণ, যাদের বেশির ভাগের বয়স ১৫ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে। তাদের দক্ষ মানবসম্পদ হিসেবে গড়ে তুলতে পারলেই কেবল তা সম্ভব। তাদের দক্ষ করার পাশাপাশি উদ্যোক্তাও হতে হবে। যারা সমৃদ্ধ বাংলাদেশের নেতৃত্ব দেবে।

একটি দেশের উন্নয়নের অন্যতম পূর্ব শর্ত স্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিবেশ, যা বাংলাদেশে বিরাজ করছে। বাংলাদেশ এখন বিশ্ববিনোয়োগেরও অন্যতম কেন্দ্র। এখানে রয়েছে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল, তৈরি করা হচ্ছে হাইটেক পার্ক।

রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা রক্ষার ক্ষেত্রেও রয়েছে আওয়ামী লীগের অবদান। এক্ষেত্রে সংগ্রাম ও ঐতিহ্যের অধিকারী রাজনৈতিক দলটির ভূমিকা প্রশংসনীয়। জাতি যখনই কোনো ক্রান্তিকালে পতিত হয়েছে, তখনই মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে আওয়ামী লীগ।

১৭৫৭ সালের ২৩ জুন পলাশীর আম্রকাননে বাংলার স্বাধীনতা অস্ত যায়। এর প্রায় ১৯২ বছর পর একই দিনে ঢাকার টিকাটুলীর  রোজ গার্ডেন প্যালেসে প্রতিষ্ঠিত হয় ‘পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ’।

যার সভাপতি ছিলেন মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী এবং সাধারণ সম্পাদক হন শামসুল হক। বঙ্গবন্ধু তখন যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হন। ১৯৫২ সালে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান তিনি।

বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক ভাবনা ও চিন্তার বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যায় তার রচিত ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ও ‘কারাগারের রোজনামচা’ বই দুটিতে। জাতীয় ইতিহাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ও  অমূল্য এই গ্রন্থে অনেক অজানা কথা আমরা জানতে পেরেছি।

আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা তোফায়েল আহমেদ তার ‘আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক একটি লেখায় তিনি লিখেছেন, পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার পরই বঙ্গবন্ধু হৃদয় দিয়ে উপলব্ধি করেন, ‘এই পাকিস্তান বাঙালির জন্য হয়নি। একদিন বাংলার ভাগ্যনিয়ন্তা বাঙালিদেরই হতে হবে।’

সেই উদ্দেশ্যে ১৯৪৮ সালে মোগলটুলিতে ‘ওয়ার্কার্স ক্যাম্প’ নামে সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। যার মূল আলোচ্য বিষয় ছিল ‘গণবিচ্ছিন্ন নেতৃত্বের স্থলে জনসম্পৃক্ত নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা’ করে গণমানুষের অসাম্প্রদায়িক দল গঠন।

এই লক্ষ্য সামনে রেখে আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠার আগে ’৪৮-এর ৪ জানুয়ারি ‘ছাত্রলীগ’ গড়ে তোলেন বঙ্গবন্ধু। ‘ছাত্রলীগ’ ও ‘আওয়ামী লীগ’ প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে মহান ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের বীজ রোপিত হয়।
সূচিত হয় রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনের। ’৪৯-এ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিম্ন বেতনভোগী কর্মচারীদের দাবি-দাওয়া আদায়ের সংগ্রাম সংগঠিত করার কারণে ১৯ এপ্রিল বঙ্গবন্ধুকে প্রথমে কারারুদ্ধ করা হয়।

পরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে বহিষ্কার করে শর্ত দেয় যে, যদি তিনি বন্ড দিতে সম্মত থাকেন তবে ছাত্রত্ব ফিরিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু বঙ্গবন্ধু অন্যায় সিদ্ধান্তের কাছে নতি স্বীকার করেননি।

অসমাপ্ত আত্মজীবনী-তে বঙ্গবন্ধু লিখেছেন, ‘‘সকলেই একমত হয়ে নতুন রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান গঠন করলেন; তার নাম দেওয়া হল ‘আওয়ামী মুসলিম লীগ’। মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী সভাপতি, জনাব শামসুল হক সাধারণ সম্পাদক এবং আমাকে করা হল জয়েন্ট সেক্রেটারি। খবরের কাগজে দেখলাম, আমার নামের পাশে লেখা আছে ‘নিরাপত্তা বন্দী’।” (সূত্র: অসমাপ্ত আত্মজীবনী)।

ভাষা আন্দোলন থেকে মুক্তিযুদ্ধ-এর মাঝে ’৫৪-এর যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ছয় দফাসহ সব সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং রাজনৈতিক আন্দোলনে সামনের কাতারে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

এদিকে ১৯৫৪ সালের নির্বাচনে বিজয়ের পর ১৯৫৫ এর কাউন্সিলে দলের নাম থেকে ‘মুসলিম’ শব্দটি বাদ দেওয়া হয়। বাংলাদেশে স্বাধীনতা ঘোষণা করার পর থেকে প্রবাসী সরকারের সব কাগজপত্রে ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ’ নাম ব্যবহার হতে শুরু করে। এভাবে জনগণের পাশে থেকে গণমানুষের দলে পরিণত হতে থাকে দলটি।

মহান মুক্তিযুদ্ধে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে অর্জিত হয় স্বাধীনতা।  পাকিস্তানের জেল থেকে মুক্তি পেয়ে এর মাঝে যুদ্ধবিধ্বস্ত একটি নবীন দেশকে পুনর্গঠনের কাজে হাত দেন বঙ্গবন্ধু। মাত্র সাড়ে তিনবছরেই তার নেতৃত্বাধীন সরকার সময়োপযোগী বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে শুরু করে।

প্রথমভাগে পুনবার্সন ও পুনর্গঠন এবং দ্বিতীয়ভাগে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের দিকে নজর দেন বঙ্গবন্ধু। এরই মধ্যে বাংলায় সোনার ফসল ফলতে শুরু করে, কারখানার চাকা ঘুরতে শুরু করেছে। ঠিক তখনই স্বাধীনতাবিরোধী ঘাতকেরা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে। যা আমাদের জন্য দুভার্গ্য।

ওই সময় তার দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বিদেশে থাকায় প্রাণে বেঁচে যান। এরপর শুরু হয় দেশে আওয়ামী লীগ কর্মীদের ওপর জুলুম-নির্যাতন। এর মাঝে দলে দেখা দেয় কোন্দল; নেতৃত্ব শূন্যের কারণে তৃণমূল থেকে শুরু করে কেন্দ্র পর্যন্ত কর্মীদের মাঝে হতাশা ছড়িয়ে পড়ে। আর দলটির বিরুদ্ধে প্রচার-প্রচারণাও ছিল বেশি।

১৯৮০ সাল পর্যন্ত প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগ বা বঙ্গবন্ধুর নাম নেওয়া অলিখিতভাবে নিষিদ্ধই ছিল। ফলে এসব বাঁধা প্রতিহত করে রাজনীতির মাঠে ঘুরে দাঁড়ানো মোটেও সহজ ছিলো না দলটির জন্য।

এমন প্রেক্ষাপটে ১৯৮১ সালের ১৭ মে দেশে ফিরলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। তিনি দলের হাল ধরলেন। ঘাতকেরা মনে করেছিল, বঙ্গবন্ধু পরিবারের সব সদস্যকে হত্যার মাধ্যমে আওয়ামী লীগ নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে।
আসলে জনগণের সংগঠনের যে মৃত্যু নেই! প্রবাসে প্রাচীন সংগঠনটির সভাপতির দায়িত্ব নিয়ে শেখ হাসিনা যেন আওয়ামী লীগের নবজন্ম দেন।  
দলীয় সভাপতি হিসেবে দেশে ফিরে কয়েকভাগে বিভক্ত আওয়ামী লীগকে ঐক্যবদ্ধ করেন বঙ্গবন্ধুকন্যা। তাঁর ধীশক্তি, দৃঢ়তা, লক্ষ্য স্থিরে বিচক্ষণতা, সাংগঠনিক ও রাজনৈতিক দূরদর্শিতা আওয়ামী লীগকে বর্তমান অবস্থায় নিয়ে এসেছে।

আশির দশকে স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে আওয়ামী লীগের ঐতিহাসিক ভূমিকা এ দেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের একটি মাইলফলক। নানা সঙ্কটের পর ১৯৯৬ সালে রাষ্ট্রক্ষমতায় আসে আওয়ামী লীগ। এরপর ২০০৮ সালের নির্বাচনেও বিপুল ভোটে জয়ী হয় মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী দলটি। এটি সম্ভব হয় জাতির প্রতি আওয়ামী লীগের অঙ্গীকার আর দায়বদ্ধতার কারণে।

এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে বাংলাদেশকে বিশ্বে মর্যাদার আসনে আসীন করেছেন। তার উদ্যোগের ফলেই অর্থনৈতিকভাবে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোলমডেল। ২০২১-এ আমরা স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন করতে যাচ্ছি। বর্তমানে দেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে। স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তীতে শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ রূপান্তরিত হবে মধ্যম আয়ের দেশে।

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আমরা বাংলাদেশ পেয়েছি-শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ভয়াবহ এই দুর্যোগও মোকাবিলা করবো, ইনশাআল্লাহ। আর তাঁর নেতৃত্বেই সৃজনশীল, দক্ষ ও যোগ্য নেতারা অতীতের মতো আগামী দিনেও আওয়ামী লীগে আলো ছড়াবে; যে আলো ছড়িয়ে পড়বে সবুজ-শ্যামল বাংলার ৫৬ হাজার বর্গমাইল পেরিয়ে বিশ্বজুড়ে- এই হোক আজকের প্রত্যয়।

লেখক: শিক্ষাবিদ ও উপাচার্য, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, জামালপুর। ই-মেইল: [email protected]



DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু
৭৫১৬৫৯ ৮৪৭৩২ ৬৬৬৯২৭ ১১২২৮
বিস্তারিত
থ্যালাসেমিয়া নিয়ন্ত্রণে প্রতিরোধের কোনো বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী টাকওয়ালাদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা আড়াইগুণ বেশি: গবেষণা কবিগুরুর ১৬০তম জন্মজয়ন্তী আজ রহমতগঞ্জের জালে আবাহনীর গোলবন্যা, বারিধারাকে হারাল পুলিশ রবীন্দ্রনাথের জীবনাদর্শ এবং সৃষ্টিকর্ম চিরদিন বাঙালিকে অনুপ্রাণিত করবে: প্রধানমন্ত্রী রুশ টিকাকে একে-৪৭ রাইফেলের সঙ্গে তুলনা করলেন পুতিন অফিস খুলে মাদক ব্যবসা, অস্ত্রসহ আটক ১ টি টেন টুর্নামেন্টের দিনক্ষণ চূড়ান্ত বাঙালি শিক্ষার্থীর তৈরি মাস্ক পেল গুগলের স্বীকৃতি ইসরায়েল কোনো দেশ নয়, সন্ত্রাসীদের ঘাঁটি: খামেনি আইপিএলের অর্থ দিয়ে বাবার চিকিৎসা করাচ্ছেন সাকারিয়া ফের অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ হলেন মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন করোনা ঠেকাতে মালয়েশিয়ায় ব্যাপক কড়াকড়ি রোনালদোর গন্তব্য কোথায়? শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে মমতার চিঠি মালয়েশিয়ায় বিদেশি কর্মীদের হয়রানি বন্ধের নির্দেশ আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলো আয়োজনে আগ্রহী শ্রীলঙ্কা শনিবার থেকে দিনে ফেরি চলাচল বন্ধ এবার বলিউডের ৪০ হাজার কর্মীর পাশে দাঁড়ালেন সালমান খান বাদীর ওপর হামলা: গৌরীপুর পৌর মেয়রসহ ৩৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা জুমাতুল বিদায়ে বিক্ষোভে উত্তাল আল-আকসা ‘সুন্দরবনে মানবসৃষ্ট আগুন বন্ধ হওয়া দরকার’ চারবার সংসার ভাঙার পরও প্রেমে পড়া যায়: পূজা বেদি যেসব ফলে দ্রুত ওজন কমায় ভারত ছাড়লেন কলকাতার অধিনায়ক বাংলাদেশিদের জন্য ফ্রান্সে কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক করোনা নিয়ে আলিয়ার বক্তব্যে আপ্লুত নেটিজেনরা বেনাপোলে শুক্রবার পর্যন্ত ভারতফেরত ২১৬৮ জন, পজিটিভ ১২ রাত ১২টা পর্যন্ত দোকানপাট খোলা চান ব্যবসায়ীরা সোনাহাট স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি ৬ দিন বন্ধ জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন পেল চীনের টিকা ইফতার খেতে গিয়ে প্রাণ গেল শিশুর কুমারখালীতে টাকা ছাড়াই পছন্দের ‘ঈদ পোশাক’ একা পেয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার জরিমানার টাকা তুলতেই ৩-৪ গুণ বেশি ভাড়া আদায়! ফের অনিশ্চয়তায় টোকিও অলিম্পিক শনিবার থেকে ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে ১০ মে’র মধ্যে পোশাকশ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব-উস্কানির অভিযোগে সাবেক এমপি কারাগারে ভোটের রসগোল্লা সব নিয়ে গেল বেরসিক পুলিশ গওহর খানের চার আঙুল থেঁতলে গেছে নিয়ন্ত্রণহীন রকেটে ঝুঁকির শঙ্কা উড়িয়ে দিল চীন গাজীপুরে দুস্থদের মাঝে ‘ঈদ সামগ্রী’ বিতরণ জনগণের সেবাই রাজনীতির প্রধান লক্ষ্য: শিক্ষামন্ত্রী সংকটাপন্ন অবস্থায় মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্ট পদ্মা সেতু নিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন সত্য নয়: সেতুমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রত্যাবর্তন গণতন্ত্রের অগ্নিবীণার দেশে ফেরা: তথ্যমন্ত্রী করোনার ভারতীয় ধরন নিয়ে সুখবর, তবে... কি‌শোরগ‌ঞ্জে বজ্রপাতে মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু পেঁয়াজের ভালো দাম পাচ্ছেন না চাষিরা খালেদা জিয়ার সর্বশেষ অবস্থা জানালেন চিকিৎসকরা ইংল্যান্ড সফরে ভারতের দল ঘোষণা হাওরে প্রায় শতভাগ বোরো ধান কাটা শেষ: কৃষিমন্ত্রী মৌলভীবাজারে কোটি টাকার ভারতীয় পণ্যসহ আটক ১ ঈদে নাগরিকে শাকিব খানের ১৮ সিনেমা! সোহরাওয়ার্দীর গাছ রক্ষায় অনিন্দ্য অমাতের অভিনব প্রতিবাদ প্রধানমন্ত্রী কোরআন-সুন্নাহর বাইরে কিছু করেন না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মুসলমানদের সঙ্গে নামাজ পড়লেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট কঙ্গনার বিরুদ্ধে কলকাতার থানায় অভিযোগ খালেদার চিকিৎসার বিষয়ে বিএনপির সিনিয়র নেতাদের ভূমিকা কী? সিনেমা হলে মিলবে করোনা ভ্যাকসিন ছুটির দিনেও খালেদা জিয়ার জন্য পাসপোর্ট অফিস খোলা, নির্দেশ পেলে প্রিন্ট খালেদার বিদেশ যাওয়া নিয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি, দ্রুত হয়ে যাবে: আইনমন্ত্রী কমেডিয়ান সুনীলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ অভিনেত্রী সন্ধ্যা রায় হাসপাতালে স্পিডবোট ও ট্রলারের পাখা খুলে নিলেন ভ্রাম্যমাণ আদালত পশ্চিমবঙ্গে অক্সিজেন সরবরাহ বাড়াতে মোদিকে মমতার চিঠি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির রুটিন দায়িত্বে ড. আনোয়ার শিক্ষার্থীদের ভিসা সমস্যা সমাধানে যুক্তরাষ্ট্রকে অনুরোধ বাংলাদেশের ‘করোনাকালীন প্রধানমন্ত্রীর গৃহীত পদক্ষেপ বাস্তবসম্মত’ ৬০ লাখ মানুষের পুরনো রাউটার হ্যাক হওয়ার ঝুঁকিতে ফেরিতে গাদাগাদি করে ভ্রমণে সংক্রমণ বাড়ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী শিল্পার গোটা পরিবারে করোনার থাবা করোনায় আন্ডারওয়ার্ল্ডের ‘কুখ্যাত ডনের’ মৃত্যু নিয়ে ধোঁয়াশা লকডাউন উপেক্ষা করেই ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ যেসব কারণে বিলম্বিত হতে পারে খালেদা জিয়ার বিদেশযাত্রা ধেয়ে আসছে চীনা রকেটের সেই নিয়ন্ত্রণহীন অংশ করোনায় মুক্তি পেতে জুমাতুল বিদা’য় বিশেষ মোনাজাত কেন কোভিশিল্ড টিকা নেবেন কোহলিরা? রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৩৫ বিপণিবিতানে এত ভিড়, পা রাখার জায়গা নেই পশ্চিমবঙ্গে ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক সহিংসতা অব্যাহত ‘আমাকে অক্সিজেন দাও, আমি বাঁচতে চাই’ প্ল্যাকার্ডে ৬ বছরের শিশু সম্পর্কের টানাপোড়েনের পর সৌদি সফরে ইমরান খান পর্তুগালে নোয়াখালী অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার কোভিড যুদ্ধে এবার রণাঙ্গনে বিরাট-আনুশকা বাসে জমবে নিশো-মেহজাবীনের প্রেম! ‘চাকরিচ্যুতির ক্ষোভে’ ম্যানেজারকে হত্যার আসামি গ্রেফতার নিষেধাজ্ঞার পরও গ্রামে ছুটছে মানুষ নেত্রকোনায় অটোরিকশায় আগুন, চালক আহত করোনায় প্রাণ গেল ক্রিকেটারের করোনার ভারতীয় ধরনে দেশে তৃতীয় ঢেউয়ের ঝুঁকি মুন্সীগঞ্জের মাওয়ায় ইলিশ বিক্রির ধুম সন্ধ্যার মধ্যেই জানা যাবে খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়ার সিদ্ধান্ত নির্বাসনে শেখ হাসিনার দুঃসহ দিনগুলি অটোপাসে চবিতে ভর্তির আবেদন ২ লাখ ছুঁই ছুঁই, শেষ হচ্ছে শনিবার বন্দুক বের করে করে গুলি চালাল ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী, আহত ৩ ‘দানবগর্ত’ গ্রাস করছে একের পর এক ভূমি! ইউটিউব চ্যানেল খুললেন প্রিন্স উইলিয়াম-কেট (ভিডিও) মোটরসাইকেলসহ চোর চক্রের সদস্য আটক
আরও সংবাদ...
কাবিলার মুক্তির দাবি দর্শকদের, যা বললেন নির্মাতা পরশ মনিকে ফলো করেন মামুনুল হক! অশ্লীল ভিডিওতে ঠাসা ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের ফোন, বিয়েতেও ধোঁয়াশা! সত্য প্রকাশ হওয়ায় চটেছেন নোবেল ঢাকায় লকডাউনের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীদের মিছিল-অবরোধ (ভিডিও) মুনিয়ার মৃত্যু রহস্য নিয়ে যা জানাল ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা মামুনুলকে ‘গাদ্দার’ বলে ক্ষোভ ঝাড়লেন সেই নারীর ছেলে (ভিডিও) মামুনুলের সঙ্গে থাকা সেই নারীর পরিচয় মিলেছে যে কাজ অসম্পূর্ণ রেখে গেলেন কবরী শৌচাগারে ঢুকে পুরুষের নগ্ন ভিডিও করা মিথিলা এখন ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ সাসপেন্ড হলেন ফেসবুক লাইভে আসা সেই পুলিশ সদস্য এবার তৃতীয় বিয়ের দাবি মামুনুল হকের! শুক্রবার টানা সাড়ে ৭ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায় বাংলাদেশের আকাশে রহস্যময় মিথেন গ্যাস! করোনায় দেশের ইতিহাসে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু, শনাক্তেও রেকর্ড ‘তুই মেডিকেলে চান্স পাস নাই, তাই তুই পুলিশ’ (ভিডিও) মামুনুলের বিষয়ে হেফাজতের সিদ্ধান্ত জানালেন বাবুনগরী পড়াশোনার খরচ চালাতে দেহ ব্যবসায় ঝুঁকছেন শিক্ষার্থীরা! টানা দু’দিন গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায় মামুনুল কাণ্ড: জান্নাত আরার সাবেক স্বামী শহিদুল আটক আরেফিন শুভর দেওয়া কষ্ট মৃত্যু পর্যন্ত মনে রাখবেন পরিচালক ছেলের বিয়ের দিন মা জানলেন কনে তার হারিয়ে যাওয়া মেয়ে! লকডাউনে দোকান বন্ধ করতে বলায় আনসারকর্মীকে খুন মিনা পাল থেকে কবরী হলেন যেভাবে শারীরিক সম্পর্কে জোর করায় হাত-পা বেঁধে স্বামীকে হত্যা আবারও কঠোর লকডাউনের হুঁশিয়ারি কাদেরের শামীম-সারিকার ‘সীমিত পরিসরে বিয়ে’ সর্বাত্মক লকডাউনের প্রজ্ঞাপন মামুনু‌ল হকের প‌ক্ষে স্ট্যাটাস দেয়ায় বহিষ্কার ছাত্রলীগ নেতা ৩ পুরুষাঙ্গের বিরল শিশুর জন্ম লাখ টাকার ভাড়া ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন তরুণী জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ফারুক-কবরী ছাত্রলীগ নেতা রাব্বানীকে নিয়ে জনপ্রিয় অভিনেত্রী ‘জবা’র স্ট্যাটাস ‘অসম্ভবকে’ সম্ভব করল জাপান মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ পেলেন যে স্কুলের ২২ শিক্ষার্থী ভারতফেরত ১০ করোনা রোগী পালিয়েছেন, ‘ভারতীয় ধরন’ ছড়ানোর শঙ্কা! এক বছরেই দুই রমজান! এবার কঠোর লকডাউনের ঘোষণা ফেসবুকে দেওয়া ছবিই কাল হলো মুনিয়ার! ‘বুর্জ আল খালিফা’র গায়ে কুমিল্লার মোশাররফের ছবি! (ভিডিও) অভিজাত ফ্ল্যাটে তরুণীর ঝুলন্ত মরদেহ, যাতায়াত ছিল এক শিল্পপতির ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ নাটকের নতুন খবর দিলেন নির্মাতা করোনায় দেশে মৃত্যুর নতুন রেকর্ড নিয়মিত পর্নোগ্রাফি দেখতেন রফিকুল মাদানী: পুলিশ মামুনুল হককে কি গ্রেফতার করা হয়েছে? ‘হুজুর, দয়া করে আপনার লাইভ লাইভ খেলা বন্ধ করেন’ মামুনুল কাণ্ড: ‘রোমান্টিক প্রেমের’ চার অডিও ফাঁস শিল্পী মমতাজের সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি ‘ভুয়া’! কেজিপ্রতি ১০০ টাকা কমেছে মুরগির দাম, ডিম ডজনে ১০ ‘শিশু বক্তা’ রফিকুলকে নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিল র‍্যাব
আরও সংবাদ...

মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  EnglishLive TV DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে