সম্পূর্ণ নিউজ সময়
বাণিজ্য সময়
৫ টা ২৯ মিঃ, ২০ মে, ২০২০

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে ‘পাত্তা দিল না’ টিসিবি

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় চিঠি দেয়ার পরও দেশীয় চিনি নেয়নি ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। চিনি বিক্রি করতে না পারায় শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন ও আখচাষিদের পাওনা পরিশোধ করতে পারছে না চিনিকলগুলো।
হেদায়েতুল ইসলাম বাবু

এদিকে, বকেয়া বেতনের দাবিতে কর্মচারীরা প্রায়ই বিক্ষোভ করায় বেকায়দায় চিনিকল কর্তৃপক্ষ। 

বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে বিক্ষোভ করছেন রংপুর চিনিকলের শ্রমিক-কর্মচারীরা। ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত নয়শ চব্বিশজন শ্রমিকের বকেয়া বেতনের পরিমাণ সাড়ে চার কোটি আর প্রভিডেন্ট ফান্ড ও গ্রাচ্যুইটি মিলে তাদের পাওনা আরো চার কোটি পনেরো লাখ টাকা। কর্তৃপক্ষের কাছে বারবার ধর্না দিয়েও টাকা না পেয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন তারা।

বিক্রি করতে না পারায় মিলটিতে মজুদ রয়েছে দুই হাজার পঞ্চান্ন মেট্রিক টন চিনি। যার বাজার মূল্য প্রায় সাড়ে বারো কোটি টাকা। মিলটির এমন দুর্দশার জন্য কর্তৃপক্ষকে দায়ী করেছে সচেতন মহল। 

টিসিবির কাছে চিনি বিক্রি করেই শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ করা সম্ভব বলে জানান সমাজকর্মী জাহাঙ্গীর কবীর তনু।  

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ প্রধান বলেন, প্রতিবছরই শ্রমিকদের পাওনাটা বকেয়া থেকে যায়।

বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের সচিব আব্দুল ওয়াহাব বলেন, মন্ত্রণালয় থেকে পত্র দেয়ার পরও তাদের চিনি কিনতে আগ্রহী নয় টিসিবি। আর কর্মচারীদের বকেয়া পরিশোধের জন্য চিঠি চালাচালি চলছে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ।

গাইবান্ধার রংপুর চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল ইসলাম বলেন, সাদা চিনিটার ওপর চাপ বেশি, তারা মনে করে এটা ভালো। সাদা চিনির নামে তারা যে কি খাচ্ছেন এটা তারা বুঝতে চাইছেন না।

আখ চাষিদের চৌদ্দ কোটি সত্তর লাখ টাকা পরিশোধ করা হলেও আরো এক কোটি ত্রিশ লাখ টাকা তাদের পাওনা রয়েছে। মিলের কাছে ঠিকাদারদের পাওনা প্রায় দশ কোটি টাকা।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়