সম্পূর্ণ নিউজ সময়
বাংলার সময়
১৩ টা ৪২ মিঃ, ২৬ এপ্রিল, ২০২০

পানির দামে দুধ বিক্রি, এগিয়ে এলো পুষ্টির ফেরিওয়ালা

মহামারি করোনার প্রভাবে বগুড়ায় ছোট বড় প্রায় দেড় হাজার খামারি বিপাকে পড়েছেন। উৎপাদিত দুধ পানির দামে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন তারা। তবে গত কয়েকদিন ধরে শেরপুর প্রাণিসম্পদ বিভাগ ও ডেইরি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন স্বেচ্ছাসেবীদের মাধ্যমে দুধ বিক্রির উদ্যোগ নেয়ায় পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে।
Somoy News
মাজেদুর রহমান

বগুড়ার শেরপুর উপজেলার খামারগুলোতে প্রতিদিন ১৬ হাজার লিটার দুধ উৎপাদিত হয়। উৎপাদিত দুধের বেশির ভাগই ব্যবহার হতো দই এবং মিষ্টি তৈরিতে। বাকি দুধ বেসরকারি চিলিং সেন্টারে বিক্রি হতো। কিন্তু করোনার লকডাউন পরিস্থিতিতে গত এক মাস ধরে দোকানপাট ও যানচলাচল বন্ধ থাকায় পানির দামে দুধ বিক্রিতে বাধ্য হন খামারিরা।

খামারিদের এমন দুরাবস্থায় এগিয়ে এসেছেন একদল তরুণ স্বেচ্ছাসেবী। পুষ্টির ফেরিওয়ালা নামের সংগঠনটি, প্রাণি সম্পদ বিভাগ ও ডেইরি অ্যাসোসিয়শনের সহযোগিতায় খামারগুলো থেকে দুধ কিনে এলাকার বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিক্রি করছেন।

পুষ্টি ফেরিওয়ালা নামের সংঘঠনের এক তরুণ বলেন, প্রাণি সম্পদ বিভাগ ও ডেইরি অ্যাসোসিয়শনের সহযোগিতায় পুষ্টি ফেরিওয়ালা নামের একটি সংগঠন করে দিছে। যার কারণে আমরা বাড়ি বাড়ি দুধ বিক্রি করছি।

এ অবস্থায় সরকারি সহযোগিতা চায় ডেইরি ওর্নাস অ্যাসোসিয়েশন।

প্রাণি সম্পদ বিভাগ পিএএ ভেটেরিনারি  সার্জন ডা. মোহাম্মদ রায়হান বলছে, খামারে চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি দুধ বিপণনে সহযোগিতা করছে তারা।

শেরপুর ডেইরি ওর্নাস অ্যাসোসিয়েশন সভাপতি বদরুল ইসলাম পোদ্দার বলেন, প্রধানমন্ত্রী প্রতিটি সেক্টরে নজর দিয়েছেন। এই সেক্টরেও তিনি নজর দিলে খামারিরা বিপদ থেকে উদ্ধার হবে।

করোনার প্রভাবে প্রথম দিকে ২০ টাকা লিটার হলেও উদ্যোগের ফলে এখন ৩০ টাকায় দুধ বিক্রি হচ্ছে। স্বাভাবিক সময়ে প্রতি লিটার দুধ বিক্রি হতো ৫০ টাকায়।

© ২০২১ সময় মিডিয়া লিমিটেড
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়