মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
স্বাস্থ্য সময় ডেস্ক
আপডেট
০২-০৪-২০২০, ১৪:১২

করোনা: শৈশবে নেয়া এই টিকা হতে পারে আশির্বাদ

করোনা: শৈশবে নেয়া এই টিকা হতে পারে আশির্বাদ
প্রাণঘাতী করোনায় ভীতসন্ত্রস্ত গোটা বিশ্ব। প্রতি মহূর্তে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে।  চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা এক প্রকার যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন ভাইরাসটির বিরুদ্ধে। এরইমধ্যে গণমাধ্যমে প্রকাশিত হচ্ছে এ ভাইরাসের প্রতিষেধক তৈরি নিয়ে নানা প্রতিবেদন। আর বরাত দেয়া হচ্ছে বিভিন্ন স্বাস্থ্য জার্নালের। আদতে প্রতিষেধকের কার্যকরী ফল না পাওয়া পর্যন্ত কোনো প্রতিবেদনই ভরসার স্থান নিতে পারছে না।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি কলেজ অব অস্টিওপ্যাথিক মেডিসিনের এক গবেষণায় জানানো হয়েছে, বিসিজি ভ্যাকসিন করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে একটি সম্ভাব্য নতুন হাতিয়ার হতে পারে। বিশ্বে বিভিন্ন দেশ থেকে করোনা আক্রান্ত রোগীদের প্রাপ্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে এমনটি জানানো হয়েছে।

আর সেটা যদি সত্যি হয় তবে বাহুতে বিসিজি বা ব্যাসিলাস ক্যালমেট-গুউরিন টিকার দাগ হতে পারে স্বস্তির কারণ। বাংলাদেশে বেশিরভাগ মানুষের শরীরে রয়েছে এই টিকার দাগ যা যক্ষ্মার প্রতিষেধক হিসেবে শৈশবে দেয়া হয়েছিল।

তবে যক্ষ্মার প্রতিষেধকে সুফল মিলতে পারে করোনা চিকিৎসার। বিভিন্ন দেশে করোনা যেভাবে প্রভাব ফেলেছে তা পরীক্ষা করে গবেষকরা দেখতে পেয়েছেন বিসিজি বা ব্যাসিলাস ক্যালমেট-গুউরিন যা যক্ষ্মা রোগের (টিবি) ভ্যাকসিন হিসাবে মূলত ব্যবহৃত হয় তা করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে একটি সম্ভাব্য নতুন হাতিয়ার হতে পারে।


এ বিষয়ে নিউইয়র্ক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি কলেজ অব অস্টিওপ্যাথিক মেডিসিনের পক্ষ থেকে বলা হয়, পৃথিবীর যে সব দেশে বিসিজি টিকাদান কর্মসূচি নেই যেমন ইতালি, নেদারল্যান্ডস ও যুক্তরাষ্ট্রের মানুষের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বেশি। তবে দীর্ঘস্থায়ী টিকাদান কর্মসূচি যে সব দেশে চালু আছে ওইসব দেশের মানুষের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা কম।

গবেষণায় দাবি করা হয়, বিসিজি টিকা আসার পর থেকে বিশ্বে মৃত্যুর হার উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে। উদাহরণ স্বরূপ বলা হয়, মৃত্যুর হার বেশি হওয়ায় ১৯৮৪ সালে বিসিজি কার্যক্রম শুরু করে ইরান। দেশটিতে বিসিজি টিকা দেয়া মানুষের মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি তেমন একটা পাওয়া যায়নি।

অস্ট্রেলিয়া এবং ইউরোপের কিছু দেশ এটির ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা করে দেখতে চাচ্ছে যে, এটি কোভিড-১৯ এর উপসর্গের বিস্তার ও তীব্রতা হ্রাসে সাহায্য করতে পারে কিনা।


মার্কিন সাময়িকী টাইম এ নিয়ে একটি নিবন্ধ প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে অবস্থিত মাডক চিলড্রেন রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (এমসিআরআই) গবেষকরা দেশটির বিভিন্ন হাসপাতালের চার হাজার স্বাস্থ্যকর্মীকে তালিকাভুক্ত করে এ নিয়ে বর্তমানে একটি গবেষণা করছেন।

শুধু অস্ট্রেলিয়ায় নয়, জার্মানিতেও এ নিয়ে বড় ধরনের গবেষণা চলছে। তারা এই গবেষণায় বয়স্ক রোগীসহ বিভিন্ন হাসপাতালের স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের অন্তর্ভুক্ত করছে। যুক্তরাজ্য, নেদারল্যান্ডস এবং গ্রিসও এমন ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল করার কাজ শুরু করেছে।

নিউইয়র্ক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির কলেজ অব অস্টিওপ্যাথিক মেডিসিন বলছে, যেসব দেশে বিসিজি টিকাদান কর্মসূচি নেই যেমন ইতালি, নেদারল্যান্ডস ও যুক্তরাষ্ট্র; এসব দেশে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বেশি। তবে টিকাদান কর্মসূচি যেখানে আছে সেখানে করোনায় আক্রান্তের প্রবণতা কম।

বিসিজি টিকা আসলে কী:

বিসিজি টিকার পূর্ণরূপ হলো ব্যাসিলাস ক্যালমেট গুয়েরিন। এটি এমন টিকা যা প্রধানত যক্ষ্মার বা টিবির বিরুদ্ধে ব্যবহার করা হয়। যে সব দেশে যক্ষ্মার প্রাদুর্ভাব আছে, সেখানে সুস্থ শিশুদের জন্মের সময়ের যতটা সম্ভব কাছাকাছি সময়ে একটি ডোজ দেয়ার সুপারিশ করা হয়। তবে এক্ষেত্রে এইচআইভি-এইডস থাকা শিশুদের এই টিকা দেয়া উচিত নয়। যে সব অঞ্চলে শিশুরা উচ্চ ঝুঁকিতে থাকে তাদেরই সাধারণত এ টিকা দেয়া হয়। যক্ষ্মার সন্দেহজনক ঘটনাগুলোকে পরীক্ষা করা হয় এবং চিকিৎসা করা হয়। যেসব প্রাপ্তবয়স্কদের যক্ষ্মা নেই এবং পূর্বে টিকা দেয়া হয়নি কিন্তু ঘন ঘন ওষুধ প্রতিরোধী যক্ষ্মার সংস্পর্শে আসেন, তাদেরও এ টিকা দেয়া যেতে পারে।

সুরক্ষার হারের অনেক পার্থক্য হতে পারে এবং তা দশ থেকে কুড়ি বছর পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে শিশুদের মধ্যে এটা প্রায় ২০%-কে সংক্রমণের থেকে রক্ষা করে এবং যারা সংক্রামিত হয় তাদের মধ্যে এটি অর্ধেককে রোগে আক্রান্ত হওয়া থেকে রক্ষা করে এই টিকাটি ত্বকে ইনজেকশনের মাধ্যমে দেয়া হয়।

এ টিকার গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলো বিরল। প্রায়ই ইনজেকশনের জায়গায় লালভাব, ফোলাভাব ও হালকা ব্যথা থাকে। একটা ছোট ঘা তৈরি হতে পারে যা সেরে যাওয়ার পরে কিছুটা ক্ষতচিহ্ন থাকতে পারে। দুর্বল রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা থাকা মানুষদের মধ্যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলো বেশি সাধারণ, এবং তা সম্ভাব্যরূপে বেশি তীব্র হয়। এটা গর্ভাবস্থায় ব্যবহার করা নিরাপদ নয়। টিকাটি মূলত প্রস্তুত করা হয়েছিল মাইকোব্যাক্টেরিয়াম বোভিস থেকে যা সাধারণভাবে গরুর মধ্যে পাওয়া যায়। এটা দুর্বল হয়ে গেলেও এখনও জীবিত আছে।

বিসিজি টিকা প্রথম ১৯২১ সালে চিকিৎসামূলকভাবে ব্যবহৃত হয়েছিল। এটি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অপরিহার্য ওষুধগুলোর তালিকায় আছে, যেগুলো মৌলিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় প্রয়োজনীয় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ওষুধ। ২০১৪ সালে একটি ডোজের পাইকারি দাম হলো ০.১৬ মার্কিন ডলার। আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রে এর দাম হলো ১০০ থেকে ২০০ মার্কিন ডলার। প্রতি বছর টিকাটি প্রায় ১০০ মিলিয়ন শিশুকে দেয়া হয়।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু কোয়া:
৫২৪৪৫ ৩৪৬২৩ ১১১২০ ৭০৯ ৪২৫২৯
বিস্তারিত
গাজীপুরে এক গৃহকর্মীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ ভিকারুন্নেসার শিক্ষক তাজিন বিনতে রহমান মারা গেছেন করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে: মির্জা ফখরুল কিশোরীকে জোরপূর্বক তুলে আনতে গিয়ে গেলেন শ্রীঘরে ইট ভাটার ধোঁয়ায় ফসল নষ্টের সত্যতা পেল পরিবেশ অধিদপ্তর মরদেহ নিয়ে সারারাত বসে ছিলেন স্ত্রী-সন্তানেরা, স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে দাফন গাঁজাসহ স্বামী-স্ত্রী ও শাশুড়ি আটক সুস্থ আছেন প্রধান বিচারপতি ১৩ বছরের কিশোরের বিরুদ্ধে সাত বছরের শিশু ধর্ষণের অভিযোগ বর্ণ বৈষম্য: প্যারিসেও জ্বালাও-পোড়াও আন্দোলন ফ্রান্সে অনিয়মিত অভিবাসীদের আন্দোলনের ডাক ফরিদপুরে আ. লীগ নেতার বিরুদ্ধে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ কক্সবাজারে হাতির জন্য ভালবাসা আটকে পড়া কুয়েত প্রবাসীদের মেয়াদ বাড়ল ১ বছর চোরাবালিতে আটকে পড়া গরুর জীবন বাঁচাল ফায়ার সার্ভিস এরশাদপুত্রের ওপর হামলা, মেয়রের উল্টো কথা করোনায় মে মাসেই বাংলাদেশে মৃত্যু ৪৮২, আক্রান্ত ৩৯৩৮৬ প্রায় সাড়ে ৫ হাজার পুলিশ করোনায় আক্রান্ত যে কারণে বাংলাদেশের দিকে আসছে না পঙ্গপাল নাসিরনগরে ডিজিটাল আইনে গ্রেফতার দুজনের জামিন নামঞ্জুর মৃতদেহ থেকে ছড়ায় না করোনা, তাই শেষকৃত্যে নয় আতঙ্ক মৃত্যুযন্ত্রণায় টানা ৩ দিন পানিতে দাঁড়িয়ে ছিল হাতিটি করোনায় প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ নির্দেশনা বসুন্ধরা হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা শুরু করোনায় তিন মাসে ১২৭ সাংবাদিকের মৃত্যু ১ টাকা খরচে হাজার টাকার উপকার: স্বাস্থ্য অধিদফতর বিএনপিকে সার্কাসের হাতির সঙ্গে তুলনা করলেন কাদের আপনার মুখটি বন্ধ রাখুন, ট্রাম্পকে হিউস্টনের পুলিশ প্রধান স্বাস্থ্যবিধি না মানায় গণপরিবহনে ৩৫ মামলা, ৮২ হাজার টাকা জরিমানা প্রধানমন্ত্রীর দেয়া টাকা ভুলে ছাত্রলীগ নেতার নম্বরে, ফিরিয়ে দিলেন কোষাগারে শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল চিলি কাল্পনিক যুদ্ধ অবলম্বনে ‘কল অফ ডিউটি’র চতুর্থ সিরিজ প্রকাশ পাচ্ছে না হতাশায় দিন কাটছে কুয়েত প্রবাসী ট্যাক্সি চালকদের করোনায় হাত গুটিয়ে নয়, সুরক্ষা নিশ্চিত করেই চলতে হবে: তথ্যমন্ত্রী মাঝ নদীতে স্পিডবোটে বিস্ফোরণ, ৪ যাত্রী দগ্ধ খাগড়াছড়ি কারাগারে ইউপিডিএফ নেতার মৃত্যু ফায়ার সার্ভিসের ১১৭ সদস্য করোনায় আক্রান্ত তপন শিকদার: প্রয়ান দিবসে বিনম্র শ্রদ্ধা… যাত্রী না থাকায় বিমানের বুধ-বৃহস্পতিবারের ফ্লাইট বাতিল খাগড়াছড়িতে বজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু আরও ১১ জোড়া যাত্রীবাহী ট্রেন চালু ইংল্যান্ডের বিপক্ষে উইন্ডিজের টেস্ট স্কোয়াড ঘোষণা ডেঙ্গু প্রতিরোধে নীলফামারীতে পরিচ্ছন্নতা অভিযান হলিক্রস-নটরডেমসহ চার কলেছে ভর্তি বন্ধ ফেনীর সাহাব উদ্দিনের মৃত্যুতে মানবাধিকার কমিশনের নিন্দা ভৈরবের সেই ৮ যুবককে যেভাবে লিবিয়ায় নেয়া হয় আইটিতে দক্ষদের জন্য আয়ারল্যান্ডের ভিসা সহজ করার অনুরোধ ভুট্টাক্ষেতে ডেকে নিয়ে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা মাস্ক না পরায় গুনতে হলো জরিমানা মাছ ধরা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১৫, ইউপি সদস্যসহ আটক ১২ নামের মিল থাকায় বিনাদোষে জেলে প্রতিবন্ধী যুবক শ্রীমঙ্গলে স্বল্প পরিসরে মৌসুমের প্রথম চা নিলাম অনুষ্ঠিত কাতারে করোনায় আক্রান্ত ৬০ হাজার ছাড়াল লিবিয়া ট্র্যাজেডি: র‍্যাবের হাতে চক্রের ৪ দালাল কাপ্তাই লেকে মাছ ধরা বন্ধে তৎপর নৌপুলিশ স্বাভাবিক হচ্ছে ইতালির জনজীবন আড়াই মাস পর সচল নীলফামারীর রেল স্টেশন দোহারে করোনার উপসর্গ নিয়ে ব্যবসায়ীর মৃত্যু বাজেট অধিবেশনে অংশ নিতে হ্যান্ডরাব পেলেন এমপিরা নিউইয়র্কে রাত্রিকালীন কারফিউ চলবে ৭ জুন পর্যন্ত অ্যান্টিবায়োটিকের অধিক ব্যবহারে মৃত্যু বাড়বে: ডব্লিউএইচও পঞ্চগড়ে মুক্তিযোদ্ধা ও অসহায় দুস্থদের মাঝে সেনাবাহিনীর ত্রাণ বিতরণ নাটোরে ইটভাটা শ্রমিককে হত্যা করোনার দুর্বল হওয়ার প্রমাণ নেই: ডব্লিউএইচও মহারাষ্ট্র উপকূলে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় ‘নিসর্গ’ ট্রাম্পের সমালোচনায় ওয়াশিংটনের প্রধান যাজক ব্রিটেনে ৪০ শতাংশ দম্পতি বিচ্ছেদ চান! বৃদ্ধকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার ৩ টুঙ্গিপাড়ায় সেনাবাহিনীর উদ্যোগে স্বাস্থ্যসেবা অতিরিক্ত ভাড়া আদায়কারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থার নির্দেশ আবারও রাশিয়ার হাসপাতালে আগুন করোনা প্রতিরোধে ইমামদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ: মোশাররফ মুন্সিগঞ্জে ৬ পুলিশসহ ৬৯ জনের করোনা শনাক্ত করোনাকে সঙ্গে নিয়েই ছন্দে ফিরতে মরিয়া ভারত গোপালগঞ্জে আরও ১৬ জনের করোনা শনাক্ত কালীগঞ্জে ট্রাকচাপায় ইমাম নিহত মুন্সিগঞ্জে আইসোলেশন সেন্টারে ৩ জনের মৃত্যু করোনা আতঙ্ক-বেশি ভাড়ায় যাত্রী কম বাসে দেশে নতুন আক্রান্ত ২৬৯৫, মৃত্যু বেড়ে ৭৪৬ রেলওয়ের স্বাস্থ্যবিধি সন্তোষজনক রাতে মুখোমুখি হচ্ছে ব্রেমেন-ফ্রাঙ্কফুর্ট বিজিবিতে যুক্ত হলো অত্যাধুনিক ইন্টারসেপটোর জলযান জার্সি-মাস্ক বিক্রি করে করোনায় আর্থিক সহায়তা বার্সেলোনার ১০ ফুটবলার করোনায় আক্রান্ত ৮২ কোচ পেলেন মাশরাফির ‘উপহার’ স্বাস্থ্যবিধি মেনেই নিজেদের ফিট রাখছেন ফুটবলাররা সিলেটে করোনায় আক্রান্ত ৮৬ পুলিশ সদস্য দুঃসময়ে ইংল্যান্ডের পাশে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বর্ণবাদ থামাতে ‘আহতদের কণ্ঠস্বর’ শুনতে হবে: জর্জ বুশ করোনা সংক্রমণের শীর্ষ সাতে ভারত সুন্দরী এই রাষ্ট্রদূত এখন সবার নজরে অনুশীলন দিয়েই শুরু হচ্ছে থমকে যাওয়া ক্রিকেট ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত কোন ইস্যুতে ট্রাম্প-মোদির ২৫ মিনিটের ফোনালাপ? সরকারি নির্দেশনা মেনে বাস চলাচল নিশ্চিতে পুলিশের তল্লাশি লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যার ‘মূল হোতা’ ড্রোন হামলায় নিহত আন্দোলনকারীদের সামনে হাঁটু গেড়ে কাঁদলেন ৬০ মার্কিন পুলিশ মহারাষ্ট্রের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় বানেশ্বর বাজারে উঠতে শুরু করেছে আম প্রিয়াঙ্কার বেওয়াচকে অর্থহীন বললেন পামেলা
আরও সংবাদ...
সাধারণ ছুটি আর বাড়ছে না করোনায় আক্রান্ত ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী 'লকডাউনে' যাচ্ছে সূর্য, সতর্কতা জারি নাসার দেশের সব মসজিদ খুলে দেয়া হচ্ছে যে ওষুধে ‘করোনায় সুস্থের হার বাড়ছে’ বাংলাদেশে ভারতকে নেপালের 'হুমকি', সীমান্তে সেনা মোতায়েন শনাক্ত মৃত্যুতে নতুন রেকর্ড আজ দেশে প্লাজমা থেরাপিতে একদিনেই বিস্ময়কর সাফল্য অফিস খোলার প্রথম দিনেই সর্বোচ্চ মৃত্যু, শনাক্ত আড়াই হাজারের বেশি ৩৬ দিন রোজা হবে ২০৩০ সালে! ৯ বছরের সংসার ভাঙল অভিনেতা অপূর্ব-অদিতির শাশুড়ির জন্য ১৫ বছর পর নাচলেন মিথিলা! (ভিডিও) দাজ্জালের সঙ্গে ইহুদিদের যোগাযোগ শুরু! ভুল নম্বরে টাকা চলে গেলে ফেরত পাবেন যেভাবে কোনো হাসপাতাল নিল না, কুর্মিটোলায় ভর্তির পর অতিরিক্ত সচিবের মৃত্যু সহকর্মীরাই হত্যা করেন গাজীপুরের সেই প্রকৌশলীকে 'পদত্যাগ করলেন' বিদ্যানন্দের প্রতিষ্ঠাতা পরিস্থিতি অনুকূল না হলে এইচএসসি পরীক্ষা নেয়া সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী দেশে সর্বোচ্চ আক্রান্তের দিনে ১৪ জনের মৃত্যু চারদিনেই সারবে করোনা, গবেষণায় সাফল্যের দাবি বাংলাদেশের আজও শনাক্ত সহস্রাধিক, মৃত্যু ২১ জনের দেশে করোনা ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল হতে পারে জুনে সাধারণ ছুটি আরও বাড়ছে সীমিত পরিসরে চলবে গণপরিবহন শনাক্ত দেড় সহস্রাধিক, মৃত্যু ২২ জনের এসএসসি’র ফল-এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী দেশের ৮০ শতাংশ লোকের করোনা হবে: ড. বিজন শনাক্তের সব রেকর্ড ভাঙল আজ আম্পানের পর আসছে ঘূর্ণিঝড় 'নিসর্গ' নতুন আরো ৭০৬ জন করোনায় আক্রান্ত একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্ত, মৃত্যু ১৪ জনের আক্রান্ত ছাড়াল ১৮ হাজার, মৃত্যু বেড়ে ২৮৩ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তায় ধাপে ধাপে খোলা হবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান: প্রধানমন্ত্রী একদিনে রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, মৃত্যু বেড়ে ১৮৬ রেকর্ড শনাক্তের দিন ২০ জনের মৃত্যু একদিনে বাংলাদেশে করোনা শনাক্তের রেকর্ড ৭৮৬ একদিনে আক্রান্ত ৯৬৯, মোট মৃত্যু ২৫০ করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩০০ ছাড়াল বাংলাদেশে, নতুন আক্রান্ত ৯৩০ ঢাকায় যেসব মার্কেট খোলা থাকবে আক্রান্ত ছাড়াল ১০ হাজার, মৃত্যু বেড়ে ১৮২ কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই চরম আকার ধারণ করবে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্পান’ করোনা সন্দেহে ছাদ থেকে লাফিয়ে কনস্টেবলের আত্মহত্যা মধ্যরাতে করোনা রোগীকে মারধর করে তাড়িয়ে দিল বাড়িওয়ালা ভ্যাকসিন ট্রায়ালের উদ্যোগ নিল বাংলাদেশ দেশে আবারো সর্বোচ্চ আক্রান্ত, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৮৬ শনাক্ত ছাড়াল ৪০ হাজার, নতুন মৃত্যু ১৫ জনের কম যাত্রী নিয়ে বাস চালাতে রাজি নয় পরিবহন কর্তৃপক্ষ দেশে শনাক্তের সব রেকর্ড ভাঙল আজ করোনা নিয়ন্ত্রণে ৫ বছর লাগবে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বাংলাদেশে প্রথম করোনার জিনোম সিকোয়েন্স
আরও সংবাদ...


মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TVEnglish DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে