মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
বাংলার সময় ডেস্ক
আপডেট
৩১-০৩-২০২০, ২০:২৯

নির্জন সৈকতে জাগছে সাগরলতা, দলে দলে ফিরছে লাল কাঁকড়া

নির্জন সৈকতে জাগছে সাগরলতা, দলে দলে ফিরছে লাল কাঁকড়া
করোনাভাইরাসে সারাবিশ্ব স্তব্ধ। একুশ শতকের এই বিশ্বায়নের যুগে যেটা একদম অকল্পনীয়। শিল্প-কারাখানা আর মানুষের নৈরাজ্যে পৃথিবী নিয়ত অবাসযোগ্য হয়ে উঠছে। ঠিক সেই মুহূর্তে প্রকৃতিই যেনো তার রূপ ফিরিয়ে আনতে সব ভার নিয়েছে। এক অদৃশ্য অণুজীবের কাছে পরাজিত হয়ে থমকে গেছে মানবসভ্যতা। সেই অণুজীব করোনাভাইরাসের আক্রমণ বাংলাদেশকে কঠিন অবস্থায় ফেলে দিয়েছে। মাত্র কয়েকদিনের নিষেধাজ্ঞায় পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতজুড়ে এখন কেবলই নির্জনতা। শুধু রয়েছে অশান্ত সাগরের একের পর এক ঢেউ আছড়ে পড়ার শব্দ।

এমন নির্জনতা বহুদিন উপভোগ করেনি কক্সবাজারবাসী। যেন হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছে পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্রসৈকত। বালিয়াড়িতে মানুষের বিচরণ না থাকায় অবাধ ঘুরে বেড়াচ্ছে লাল কাঁকড়ার দল। অন্যদিকে ডালপালা মেলতে শুরু করেছে সাগরলতা। জমতে জমতে বড় হচ্ছে বালিয়াড়ি। এরমধ্যে একদম লোকালয়ের কাছে এসেই ডিগবাজিতে মেতেছে একদল ডলফিন।

সমুদ্রসৈকতে প্রকৃতির রাজ্যে এমন পরিবর্তন ইতিবাচকভাবে দেখছেন পরিবেশবিদেরা। তারা বলছেন- এসব প্রাণ-প্রকৃতি, জীববৈচিত্র্য রক্ষায় সৈকতের কিছু কিছু অংশে প্রকৃতিবান্ধব হিসেবে গড়ে তোলার উদ্যোগ জরুরি।

কক্সবাজারে পরিবেশ নিয়ে দীর্ঘদিন কাজ করেছে বিশ্বজিত সেন বাঞ্চু। তিনি বলেন, সমুদ্রসৈকতে মাটির ক্ষয়রোধ ও শুকনো উড়ন্ত বালুরাশি আটকে বালিয়াড়ি তৈরির মূল কারিগর হচ্ছে সাগরলতা। বালিয়াড়িকে সাগরের রক্ষাকবচও বলা হয়। কারণ ঝড়-তুফান, ভূমিকম্পের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগে কারণে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসের সময় উপকূলকে ভাঙনের কবল থেকে রক্ষা করে এসব বালিয়াড়ি। মানুষের কোলাহলমুক্ত সৈকত পেয়ে এখন আবার উঁকি দিচ্ছে সেই সাগরলতা। এটি পরিবেশের জন্য খুব ইতিবাচক।


তিনি বলেন, মাত্র এক দশক আগেও কক্সবাজার শহর থেকে টেকনাফ পর্যন্ত সৈকতজুড়ে গোলাপি-অতিবেগুনি রঙের ফুলে ভরা সাগরলতা দেখা যেত। যা পর্যটকদের কাছেও ছিল অন্য রকম আকর্ষণ। কিন্তু আমাদের অতি বাড়াবাড়ির কারণে আজ তা হারিয়ে গেছে। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে সাগরের নির্জনতার সুযোগে সমুদ্রসৈকত তার নিজস্বতা ফিরে পেয়েছে।

কক্সবাজার পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আয়াছুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, সমুদ্রসৈকতে মানুষের অবাধ বিচরণের কারণে সেখানকার প্রকৃতি, জীববৈচিত্র্য এখন হুমকির মুখে। এক সময় সৈকতজুড়ে দেখা যেত লাল কাঁকড়ার দৌড়ঝাঁপ। সেই দৃশ্য এখন আমরা হারাতে বসেছি। আশার কথা হলো, অন্তত এই দুর্যোগময় মুহূর্তে হলেও প্রকৃতি তার নিজের পরিবেশ ফিরিয়ে পেয়েছে।

তিনি বলেন, এতদিন পরে ডলফিনের ঝাঁক লোকালয়ের একদম কাছে এলো। এতেই আমাদের বুঝতে হবে, এতদিন মানুষের ভিড়ের কারণে আসার পরিবেশ পায়নি। আমাদের উচিত প্রাণ-প্রকৃতি, জীববৈচিত্র্য বাঁচানো। পর্যটনের স্বার্থে পুরো সৈকতে পারা না গেলেও সৈকতের বিশেষ বিশেষ অংশ যেন প্রকৃতিবান্ধব, পরিবেশবান্ধব রাখা হয় যাতে এসব প্রাণী নিজেদের মতো করে  বাঁচতে পারে, সাগরলতা আপন বলয়ে বিস্তার ঘটতে পারে।


বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, সৈকতের পরিবেশগত পুনরুদ্ধারে সাগরলতার মতো দ্রাক্ষালতা বনায়নের মাধ্যমে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ফ্লোরিডা এবং অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সৈকতের হ্যাস্টিং পয়েন্টসহ বিশ্বের বিভিন্ন সৈকতে বালিয়াড়ি সৃষ্টিতে সফল হয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের দেখানো পথে সৈকতের মাটির ক্ষয়রোধ ও সংকটাপন্ন পরিবেশ পুনরুদ্ধারে বিশ্বের দেশে দেশে কাজে লাগানো হচ্ছে সাগরলতাকে।

উন্নত বিশ্বের গবেষণালব্ধ ফলাফলে সাগরলতার মতো দ্রাক্ষালতা সৈকত অঞ্চলে পরিবেশগত পুনরুদ্ধার ও মাটির ক্ষয় রোধের জন্য একটি ভালো প্রজাতি বলে প্রমাণিত। সাগরলতা ন্যূনতম পুষ্টিসমৃদ্ধ বেলে মাটিতে বেড়ে উঠতে পারে। তার পানির প্রয়োজনীয়তাও কম হয়। উচ্চ লবণাক্ত মাটিও তার জন্য সহনশীল। এর শিকড় মাটির তিন ফুটের বেশি গভীরে যেতে পারে।

এটি দ্রুতবর্ধনশীল একটি উদ্ভিদ। বাইরের কোনো হস্তক্ষেপ না হলে লতাটি চারিদিকে বাড়তে থাকে এবং সর্বোচ্চ সামুদ্রিক জোয়ারের উপরের স্তরের বালিয়াড়িতে জাল বিস্তার করে মাটিকে আটকে রাখে। এরপর বায়ু প্রবাহের সঙ্গে আসা বালি ধীরে ধীরে সেখানে জমা হয়ে মাটির উচ্চতা বাড়ায়। এতে সাগরলতার ও সৈকতের মাটির স্থিতিশীলতা তৈরি হয়। সাগরলতার ইংরেজি নাম রেলরোড ভাইন, যার বাংলা শব্দার্থ করলে দাঁড়ায় রেলপথ লতা। আসলেই রেলপথের মতোই যেন এর দৈর্ঘ্য। একটি সাগরলতা ১শ ফুটেরও বেশি লম্বা হতে পারে। এর বৈজ্ঞানিক নাম ‘Ipomea pes caprae’।

পরিবেশ বিজ্ঞানী ড. আনসারুল করিম গণমাধ্যমকে বলেন, কক্সবাজার থেকে টেকনাফ পর্যন্ত সমুদ্রের তীর ধরে ২০ থেকে ৩০ ফুট উঁচু পাহাড়ের মতোই বড় বড় বালির ঢিবি ছিল। এসব বালিয়াড়ির প্রধান উদ্ভিদ ছিল সাগরলতা। সাগরলতার গোলাপি-অতিবেগুনি রঙের ফুলে সৈকতে এক অন্য রকমের সৌন্দর্য তৈরি হতো। কিন্তু সাগরলতা ও বালিয়াড়ি হারিয়ে যাওয়ায় গত প্রায় তিন দশকে কক্সবাজার সৈকতের ৫শ মিটারের বেশি ভূমি সাগরে বিলীন হয়ে গেছে।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ ও বনবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. কামাল হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, সাগরলতা হলো সৈকতের সুস্থতার পরিচায়ক। এগুলো বালিকে ধরে রেখে বালিয়াড়ি সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখে, তাই এ উদ্ভিদকে সৈকতের বাস্তুতন্ত্রের অগ্রপথিক বলা হয়।

তিনি বলেন, মানুষ সরে গেছে তাই এগুলো আবার ফিরে আসছে সৈকতে যা খুবই আশাব্যঞ্জক দিক। মানুষের অতি আনাগোনায় সাগরতলা হারিয়ে যায়। তাই আমাদের উচিত হবে সৈকতের সুস্থতা ধরে রাখতে এখনই পদক্ষেপ নেয়া।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু কোয়া:
৬০৩৯১ ৩৪৬২৩ ১২৮০৪ ৮১১ ৪২৫২৯
বিস্তারিত
কাজ থেকে বাদ দেয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে গৃহকর্ত্রীর শিশুকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা টর্নেডোয় ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি মোকতাদির চৌধুরীর সমবেদনা মাস্ক না পরায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬৫ জনকে জরিমানা খেলতে গিয়ে পুকুরে ডুবে ২ স্কুলছাত্রীর মৃত্যু পাটক্ষেতে নিয়ে ‘শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা’, কিশোর গ্রেফতার ভর্তি নিলো না হাসপাতাল, করোনায় বলিউড প্রযোজকের মৃত্যু হাসপাতালের বেড চেয়ে কোর্টে আবেদন, রায়ের আগেই চলে গেলেন তিনি ৭২ ঘণ্টা পর নাসিমের বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন চিকিৎসকরা কলাবাগানে নিয়ে গৃহবধূকে ‘পালাক্রমে ধর্ষণ’ করোনা ভেবে মাকে রাস্তায় ফেলে গেলেন সন্তান ললিপপ অর্ডার করে চাকরি হারালেন মাদাগাস্কারের মন্ত্রী এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পেছানো উচিত: মাহমুদউল্লাহ করোনা নিয়ে দুঃসংবাদ শোনালেন ইরানের প্রেসিডেন্ট দেখা হবে বাংলাদেশ, আমি আসছি... মাওয়া-আরিচায় ফেরি, লঞ্চ ও স্পিডবোটে যাত্রীদের গাদাগাদি গাইবান্ধায় শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা রাজধানীতে নির্মাণাধীন ভবনের ছাদে নারীর হাত-পা-মুখ বাঁধা লাশ হেলিকপ্টারে যশোর থেকে ঢাকা আনা হল অসুস্থ চিকিৎসককে করোনা সংক্রমণে ৪ নম্বরে কক্সবাজার ঘুরে ঘরে হাসপাতাল মনিটরিং করছেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা ইতালির করোনা পরিস্থিতির উন্নতির রশিতে ফের টান হাতির পর ভারতে একই কাণ্ড ঘটলো গরুর সঙ্গেও! হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরত দেয়া মানবতাবিরোধী কাজ: তথ্যমন্ত্রী অনলাইনে 'ব্লকচেইন' প্রযুক্তির ওপর প্রশিক্ষণ পোড়া হাতে লিখেই জিপিএ-৫, প্রকৌশলী হতে চায় সুপন বজ্রপাতে একদিনেই ৮ জনের মৃত্যু ২৫ হাজার বর্গ মাইল নতুন ভূমি যুক্ত হতে পারে বাংলাদেশে মুন্সিগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় গ্রামপুলিশ নিহত খুলে দেয়া হল বান্দরবানের হোটেল-মোটেল-রিসোর্ট হবিগঞ্জে আ্যাম্বুলেন্সে করে গাঁজা পাচার, আটক ৩ হবিগঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে নতুনভাবে করোনা ছড়াল ইরানে রাহুল দ্রাবিড়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ রশিদ লতিফ ৬ দফা দিবস উপলক্ষে বিশেষ আলোচনা ও কুইজ প্রতিযোগিতা চীন-ভারতে করোনা পরীক্ষা ঠিকমতো হলে সংখ্যা বাড়ত: ট্রাম্প আয়ারল্যান্ডে দ্বিতীয় ধাপের লকডাউন শুরু উত্তেজনার মধ্যেই সীমান্তে নতুন জেনারেল নিয়োগ দিল চীন এবার সুস্থ-অসুস্থ সবাইকেই মাস্ক পরতে বললো হু হাসপাতালে সাহারা খাতুন কাতারের ওপর নিষেধাজ্ঞায় সৌদিই বেশি ক্ষতিগ্রস্ত! মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে ৩ জনের মৃত্যু বৃষ্টির মধ্যে সড়কে পাশে নবজাতকের কান্না, ব্যাগের ভেতর ফুটফুটে কন্যা ডোমারে আশ্রয়ন প্রকল্প না করার দাবিতে মানববন্ধন আইনি প্রক্রিয়ায় জিতে ফ্লয়েডের আন্দোলনে অস্ট্রেলিয়ানরা কুড়িগ্রামে অবিরাম বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত জনজীবন করোনায় সুইডেনে পর্যটনের ভিন্নচিত্র সামাজিক দূরত্ব, ইচ্ছে করেই কি মানা হয় না? দেশের বাজারে অপোর রেনো থ্রি প্রো মৌলভীবাজারে বজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু সাতক্ষীরায় অপহরণের একদিন পর উদ্ধার, ৪ অপহরণকারী গ্রেফতার প্রাইভেট পড়ানোয় শিক্ষকের জরিমানা ভারতে আক্রান্ত ২ লাখ ৩৬ হাজার, তাবলিগিদের ভিসা না দেয়ার সিদ্ধান্ত নড়াইলে খালে মাছ ধরা নিয়ে সংঘর্ষ, নারীসহ আহত ১২ মাস্ক না পরায় ৫১ জনকে জরিমানা করোনায় ‘ভুল গবেষণায়’ নড়বড়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা! কৃষ্ণাঙ্গকর্মী নিয়োগ দিতে নিজের পদ ছাড়লেন রেডিটের সহপ্রতিষ্ঠাতা 'হঠাৎ একটা পাক আইয়া আমার ঘরডারে কই জানি নিয়া গেছে' হাসপাতালে ভর্তি হলেন করোনা আক্রান্ত কামরান মরণব্যাধী কোলন ক্যান্সারের লক্ষণ ও প্রতিকার আকরামের সেরা ব্যাটসম্যানের তালিকায় সবার শেষে টেন্ডুলকার শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যবাদী গোষ্ঠীর ২০০ অ্যাকাউন্ট সরাল ফেসবুক এডিস মশা নিধনে ডিএনসিসি'র চিরুনি অভিযান ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভয়াবহ টর্নেডোতে একজনের মৃত্যু, মুহূর্তেই তছনছ ১০ গ্রাম (ভিডিও) বাগেরহাটে ভ্রাম্যমান মৎস্য ক্লিনিক চালু রোববার থেকেই ঢাকায় জোনভিত্তিক লকডাউন কক্সবাজারে রেডজোনেও নেই কোন স্বাস্থ্যবিধি চাঁদপুরে নমুনা সংগ্রহ করতে গিয়ে ৮ জন আক্রান্ত ক্রিকেট বন্ধ তবুও আয় থেকে নেই মিতু হত্যাকাণ্ড: চার বছরে অভিযোগপত্রই জমা পড়েনি সাধারণ ছুটি আর নয়, হবে এলাকাভিত্তিক লকডাউন বটি দিয়ে স্বামীর গলা কেটে নিজেই চিৎকার করে মানুষকে ডাকলেন স্ত্রী নতুন শনাক্ত আড়াই হাজারের বেশি, মৃত্যু ৩৫ জনের কর্মক্ষেত্রে করোনা থেকে বাঁচতে যা করবেন করোনাকালে অভিবাসীদের প্রতি মানবিক হওয়ার আহ্বান চীনকে বিশ্বাস করে না ৯৪ শতাংশ ভারতীয়! প্রতিবাদের মাঝেই নেট দুনিয়ায় ‘জর্জ ফ্লয়েড চ্যালেঞ্জ’, মরণ ফাঁদে শিক্ষার্থীরা জাম্বিয়ায় ৩ চীনা নাগরিককে পুড়িয়ে হত্যা গাড়িতে উঠলেই যাত্রীরা পাচ্ছেন মাস্ক-স্যানিটাইজার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ৩ রাউন্ডের সূচি চূড়ান্ত মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের দাবি চুল কাটিয়ে জরিমানা গুনলেন এই ফুটবলাররা অফিসারকে জুতোপেটা করলেন বিজেপি নেত্রী, ভিডিও ভাইরাল ইংল্যান্ড-উইন্ডিজ সিরিজেই 'কোভিড-১৯ বদলি' ক্রিকেটার! যে দুই রোগে করোনার ঝুঁকি মারাত্মক করোনা: স্বার্থ হাসিলে মরিয়া চীন ফেসবুক থেকে ছবি ডিলিট করার নতুন ফিচার শেষকৃত্যে যাওয়ার পথে বিমান বিধ্বস্ত, একই পরিবারের ৪ জনসহ নিহত ৫ করোনা থেকে মুক্তি মিলতে পারে ক্যান্সারের ওষুধে পর্তুগালে ফুটবল ক্লাবের বাসে হামলা, খেলোয়াড়রা আহত 'স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ঘরেই পানীয়তে ঘুমের ওষুধ দিয়ে আমায় ধর্ষণ করেন' যক্ষ্মার টিকা করোনায় কার্যকর হবে? নাসিমের অবস্থা সঙ্কটাপন্ন করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৪ লাখ ছুঁই ছুঁই, আক্রান্ত ৬৮ লাখ ইরান কখনো আলোচনা টেবিল ত্যাগ করেনি: জারিফ সৌদির পর্যটন নির্ভর অর্থনীতির স্বপ্নে শুরুতেই বিশাল ধাক্কা মহাকাশেও পৌঁছলো লোগো 'কৃষ্ণাঙ্গরাও মানুষ', বদলে গেল সড়কের নাম খোলার পর শুরুর দিনের সূচকের ঊর্ধ্বমুখিতা ধরে রাখতে পারেনি ডিএসই মৃত্যুর রেকর্ড, আক্রান্তে ইতালিকেও ছাড়িয়ে গেল ভারত হাঁটু গেড়ে বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনে সংহতি জানালেন ট্রুডো করোনাভাইরাসের অধিক ঝুঁকিতে টাক মাথার মানুষেরা
আরও সংবাদ...
সাধারণ ছুটি আর বাড়ছে না করোনায় আক্রান্ত ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী 'লকডাউনে' যাচ্ছে সূর্য, সতর্কতা জারি নাসার দেশের সব মসজিদ খুলে দেয়া হচ্ছে যে ওষুধে ‘করোনায় সুস্থের হার বাড়ছে’ বাংলাদেশে ভারতকে নেপালের 'হুমকি', সীমান্তে সেনা মোতায়েন শনাক্ত মৃত্যুতে নতুন রেকর্ড আজ দেশে প্লাজমা থেরাপিতে একদিনেই বিস্ময়কর সাফল্য অফিস খোলার প্রথম দিনেই সর্বোচ্চ মৃত্যু, শনাক্ত আড়াই হাজারের বেশি ৩৬ দিন রোজা হবে ২০৩০ সালে! ৯ বছরের সংসার ভাঙল অভিনেতা অপূর্ব-অদিতির শাশুড়ির জন্য ১৫ বছর পর নাচলেন মিথিলা! (ভিডিও) দাজ্জালের সঙ্গে ইহুদিদের যোগাযোগ শুরু! ভুল নম্বরে টাকা চলে গেলে ফেরত পাবেন যেভাবে কোনো হাসপাতাল নিল না, কুর্মিটোলায় ভর্তির পর অতিরিক্ত সচিবের মৃত্যু সহকর্মীরাই হত্যা করেন গাজীপুরের সেই প্রকৌশলীকে 'পদত্যাগ করলেন' বিদ্যানন্দের প্রতিষ্ঠাতা পরিস্থিতি অনুকূল না হলে এইচএসসি পরীক্ষা নেয়া সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী দেশে সর্বোচ্চ আক্রান্তের দিনে ১৪ জনের মৃত্যু চারদিনেই সারবে করোনা, গবেষণায় সাফল্যের দাবি বাংলাদেশের আজও শনাক্ত সহস্রাধিক, মৃত্যু ২১ জনের দেশে করোনা ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল হতে পারে জুনে সাধারণ ছুটি আরও বাড়ছে সীমিত পরিসরে চলবে গণপরিবহন শনাক্ত দেড় সহস্রাধিক, মৃত্যু ২২ জনের এসএসসি’র ফল-এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী দেশের ৮০ শতাংশ লোকের করোনা হবে: ড. বিজন শনাক্তের সব রেকর্ড ভাঙল আজ আম্পানের পর আসছে ঘূর্ণিঝড় 'নিসর্গ' নতুন আরো ৭০৬ জন করোনায় আক্রান্ত একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্ত, মৃত্যু ১৪ জনের আক্রান্ত ছাড়াল ১৮ হাজার, মৃত্যু বেড়ে ২৮৩ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তায় ধাপে ধাপে খোলা হবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান: প্রধানমন্ত্রী একদিনে রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, মৃত্যু বেড়ে ১৮৬ রেকর্ড শনাক্তের দিন ২০ জনের মৃত্যু একদিনে বাংলাদেশে করোনা শনাক্তের রেকর্ড ৭৮৬ একদিনে আক্রান্ত ৯৬৯, মোট মৃত্যু ২৫০ করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩০০ ছাড়াল বাংলাদেশে, নতুন আক্রান্ত ৯৩০ ঢাকায় যেসব মার্কেট খোলা থাকবে আক্রান্ত ছাড়াল ১০ হাজার, মৃত্যু বেড়ে ১৮২ কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই চরম আকার ধারণ করবে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্পান’ করোনা সন্দেহে ছাদ থেকে লাফিয়ে কনস্টেবলের আত্মহত্যা মধ্যরাতে করোনা রোগীকে মারধর করে তাড়িয়ে দিল বাড়িওয়ালা ভ্যাকসিন ট্রায়ালের উদ্যোগ নিল বাংলাদেশ দেশে আবারো সর্বোচ্চ আক্রান্ত, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৮৬ শনাক্ত ছাড়াল ৪০ হাজার, নতুন মৃত্যু ১৫ জনের কম যাত্রী নিয়ে বাস চালাতে রাজি নয় পরিবহন কর্তৃপক্ষ দেশে শনাক্তের সব রেকর্ড ভাঙল আজ করোনা নিয়ন্ত্রণে ৫ বছর লাগবে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বাংলাদেশে প্রথম করোনার জিনোম সিকোয়েন্স
আরও সংবাদ...


মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TVEnglish DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে