সম্পূর্ণ নিউজ সময়
বাংলার সময়
৩ টা ১৯ মিঃ, ১৫ মার্চ, ২০২০

করোনা চিকিৎসার সরঞ্জাম-প্রশিক্ষণ নেই ফেনীতে

ফেনী জেনারেল হাসপাতালসহ জেলায় ১০৫ শয্যার আইসোলেশন ওয়ার্ড চালু করা হলেও করোনা ভাইরাস চিকিৎসায় কোনো সরঞ্জাম নেই। ‘আইসোলেশন ইউনিট’ ঘোষণা করলেও চিকিৎসক-নার্স কারোই ন্যূনতম ধারণা বা প্রশিক্ষণ নেই। ইতোমধ্যে জনবল ও সরঞ্জাম সরবরাহ করার জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে লিখিত আবেদন পাঠানো হয়েছে জানিয়েছে জেলার স্বাস্থ্য বিভাগ।
আতিয়ার রহমান সজল

শনিবার (১৪ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে মহিপাল ট্রমা সেন্টারে গিয়ে দেখা যায়, মূল ফটকে তালা লাগানো। সামনে বেশ কিছু সিএনজি অটোরিকশা দাঁড়ানো। দেখে মনে হয়নি এটি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের জন্য প্রস্তুত রাখা। ফেনীর মহিপালে ট্রমা সেন্টার দীর্ঘদিন ধরে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে ছিল। করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ার পর এই হাসপাতালটিকে করোনা রোগীদের জন্য প্রস্তুত করার ঘোষণা দিয়েছেন ফেনীর স্বাস্থ্য বিভাগ।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, কাগজে-কলমেই শুধু করোনা মোকাবিলার প্রস্তুতি সীমাবদ্ধ। করোনাভাইরাস চিকিৎসায় 'আইসোলেশন ওয়ার্ড' খোলা ছাড়া আর কোন প্রস্তুতি নেই জেলায়।

স্থানীয় একজন বলেন, হাসপাতালের কথা বলা হলেও সেখানে কোনো সুবিধা নাই।

রোগীদের সেবা দিতে চিকিৎসক, নার্স, পরিচ্ছন্নতাকর্মীসহ অর্ধশতাধিক কর্মী নিযুক্ত করা হয়েছে বলে স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে। তবে তারা কেউ এ বিষয়ে এখনও পায়নি প্রশিক্ষণ।

ফেনী সদর হাসপাতালের এক নার্স বলেন, এখানে যেকোনো রোগী আসলে আমরা সেবা দিতে পারব। 

ফেনী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. ইকবাল হোসেন করোনাভাইরাস চিকিৎসায় হাসপাতালে কোনো ধরনের সরঞ্জাম ও প্রশিক্ষণ না পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে জানান তাদের প্রস্তুতির কথা।

ইকবাল হোসেন বলেন, কেউ আইসোলেশনে আসলে তাদের কীভাবে সেবা দিতে হবে সেই বিষয়ে আমাদের দুইজন চিকিৎসক এখন প্রশিক্ষণে রয়েছেন। তারা ফিরে অন্যদের প্রশিক্ষণ দিবেন।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ১২ সদস্য বিশিষ্ট জেলা কমিটি গঠন করা হয়েছে। প্রতিটি আইসোলেশন ওয়ার্ড ঘিরে একটি কমিটি কাজ করবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়