সম্পূর্ণ নিউজ সময়
ভাইরাল
৮ টা ৯ মিঃ, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

পিঠে চড় মারতেই রেগে আগুন নবজাতক, অবাক চিকিৎসকরা!

শিশু জন্মানোর পরে যা কর্তব্য তাই করছিলেন চিকিৎসকরা। কিন্তু যা স্বাভাবিকভাবে হওয়ার তা হলো না। পিঠে ডাক্তারের চাপড় খেয়ে কেঁদে ওঠার বদলে রেগে আগুন যেন নবজাতক। আর সেই চোখ দেখে রীতিমতো অবাক চিকিৎসকরা।
ভাইরাল

ব্রাজিলের রিও দে জেনেরিওর এই ছবি এখন ভাইরাল। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, নবজাতককে কাঁদানোর জন্য ডাক্তার পিঠে আঘাত করছেন, আর তাতে রেগে গিয়ে তাকেই চোখ গরম দেখাল সদ্যোজাত। রিও দে জেনেরিওর এক হাসপাতালে ১৩ ফেব্রুয়ারি এ কন্যার জন্মা হয়। জন্মের পরে কিছুতেই কাঁদছিল না সে। তখনই তাকে কাঁদাতে পিঠে চড় মারতে শুরু করেন ডাক্তার। আর তখনই কাঁদার বদলে রেগে ওঠে বাচ্চাটি। কটমট করে তাকাতে থাকে ডাক্তারের দিকে।

নবজাতকের এই অভিব্যক্তি দেখে ডাক্তাররা রেগেছিলেন না হেসেছিলেন তা অবশ্য জানা যায়নি। তবে রাগ দেখিয়ে রাতারাতি ফেমাস সেই সদ্যোজাত কন্যা! চিকিৎসকার বলছেন, অনেক সময়েই জন্মের সঙ্গে সঙ্গে কাঁদে না নবজাতক। তখন তাদের কাঁদাতে পিঠে চড় মারার পদ্ধতি অবলম্বন কান্নার বদলে কেন ভয়ানক রেগে ওঠে সে? অনেকে ঠাট্টা করে বলছেন, নির্দিষ্ট সময়ের সাত দিন আগে সিজার করার জন্যই কি এত রাগ?

স্বাভাবিকভাবে শিশুটির ভূমিষ্ঠ হওয়ার কথা ছিল ২০ ফেব্রুয়ারি। সাত দিন আগেই সিজার করা হয়।

জানা গেছে, শিশুটির মা ডায়ান ডি জিসেস বারবোসা একেবারে জন্ম মুহূর্ত থেকে নবজাতকের ছবি তুলে রাখতে একজন ফটোগ্রাফারের ভাড়া করেছিলেন। তিনিই ছবিগুলো ফেসবুকে শেয়ার করেছেন। ফটোগ্রাফার জানান, এই ছবি তোলার কিছু পরেই কাঁদতে শুরু করে শিশুটি। হাসি ফোটে ডাক্তারদের মুখে।
সূত্র : দ্য ওয়াল।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়