মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
প্রান্তী সারোয়ার
আপডেট
১৭-০৮-২০১৯, ১৭:৪৫

গরিবদের জন্য বন্ধ হচ্ছে আমেরিকার দুয়ার

গরিবদের জন্য বন্ধ হচ্ছে আমেরিকার দুয়ার
গরিবদের জন্য বন্ধ হচ্ছে আমেরিকা যাওয়ার পথ এমনটাই ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। সেই সাথে বৈধভাবে আমেরিকায় অবস্থানকারী দরিদ্র অভিবাসীদের স্থায়ী বাসিন্দা লাভের পথও বন্ধ হবে। বিশেষ করে যারা মেডিকেউড, ফুড স্ট্যাম্প, হাউজিং সুবিধাসহ অন্যান্য সুবিধা গ্রহণ করছেন। গত ১২ আগস্ট সোমবার ‘ইউনাইটেড স্টেস সিটিজেনশিপ অ্যান্ড ইমিগ্রেশন’(ইউএসসিআইএস)এর পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

এই ঘোষণার ফলে ভয়াবহ পরিস্থিতির জন্ম নিয়েছে। ঘোষিত আইনের আওতায় কোন বৈধ অভিবাসী কখনও ওয়েলফেয়ার (কল্যাণভাতা) গ্রহণ করে থাকলে তবে তার পক্ষে পারমানেন্ট স্ট্যাটাস (গ্রিনকার্ড বা স্থায়ী মর্যাদা) লাভ অত্যন্ত কষ্টকর হবে। তাছাড়া উক্ত আইনের আওতায় যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী বা অস্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য প্রবেশ করতে চাইলে প্রার্থীকে সরকারি সাহায্য সহযোগিতার ওপর নির্ভরশীল না হয়ে অবশ্যই স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে হবে এবং  ব্যক্তিগত সামর্থ্য এবং পরিবারের সদস্যবর্গ, স্পন্সরগণ এবং প্রাইভেট অর্গানাইজেশনের ওপর নির্ভরশীল হতে হবে।

১৫ অক্টোবরের মাঝামাঝি এই নীতিমালা বাস্তবায়িত হতে পারে।

চূড়ান্ত রুলটি ইউনাইটেড স্টেটস সিটিজেনশিপ অ্যান্ড ইমিগ্রেশনের বিদ্যমান আইন-কানুনের ব্যাপক সংশোধন আনয়ন করেছে। ইমিগ্রেশন অ্যান্ড ন্যাশানেলিটি অ্যাক্টে প্রদত্ত নিয়ম-কানুন অনুযায়ী ভবিষ্যতে কোনো অভিবাসী পাবলিক চার্জের আওতায় আসার আশঙ্কা রয়েছে কিনা তার সম্ভাব্যতার ভিত্তিতে কোন কোন ভিনদেশি যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের অযোগ্য, ইউনাইটেড স্টেটস সিটিজেনশিপ অ্যান্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিসেস তা কীভাবে নির্ধারণ করবে তার দিক নির্দেশনা দেয়া হয়েছে সংশোধনীতে।


যে সব অস্থায়ী নাগরিক যুক্তরাষ্ট্রে বাড়তি অবস্থান এবং স্ট্যাটাস পরিবর্তনে সাধারণত সুনির্দিষ্ট সুবিধা লাভের অযোগ্য হওয়া সত্ত্বেও সুনির্দিষ্ট সুবিধা গ্রহণ করছেন তাদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতাও ইউনাইটেড স্টেটস সিটিজেনশিপ অ্যান্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিসেসকে প্রদান করেছে।

‘এক শতাব্দীর বেশি সময় ধরে, অগ্রহণযোগ্যতার পাবলিক চার্জ গ্রাউন্ডটি আমাদের দেশের অভিবাসন আইনের অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। রাষ্ট্রপতি ট্রাম্প আমেরিকান জনগণকে দীর্ঘকাল ধরে অভিবাসন আইন কার্যকর করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, যা বছরের পর বছর ধরে বইগুলিতে রয়েছে এমন পাবলিক চার্জ অনাবশ্যকতার ক্ষেত্রটিকে সংজ্ঞায়িত করে, ইউএসসিআইএসের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক কেন কুকিনেল্লি বলেছিলেন। ‘আমাদের পুরো ইতিহাস জুড়ে, স্বনির্ভরতা আমেরিকান স্বপ্নের মূল লক্ষ্য ছিল। স্বনির্ভরতা, পরিশ্রম এবং অধ্যবসায় আমাদের জাতির ভিত্তি স্থাপন করেছিল এবং ১৯৯০ সাল থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সুযোগ চাইছেন এমন পরিশ্রমী অভিবাসীদের প্রজন্মকে সংজ্ঞায়িত করেছেন। পাবলিক চার্জ অগ্রহণযোগ্যতা আইন প্রয়োগের মাধ্যমে, আমরা এই দীর্ঘস্থায়ী আদর্শ এবং অভিবাসী সাফল্যের প্রচার করব।’

প্রাপ্ত নাগরিক সুবিধাকে অন্তর্ভুক্ত করার নিমিত্তে ‘ইউনাইটেড স্টেটস সিটিজেনশিপ অ্যান্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিসেস পাবলিক চার্জের’ সংজ্ঞার পুনঃসংশোধন করেছে। সংশোধিত সংজ্ঞানুযায়ী যে সব লোক ১২ মাসের বেশি বা সর্বমোট ৩৬ মাসের মধ্যে এক বা একাধিক বিদ্যমান নাগরকি সুবিধা যেমন ক্যাশ বেনিফিট, সাপ্লিমেন্টাল সিকিউরিটি ইনকাম (এসএসআই- সম্পূরক নিরাপত্তা আয়), টেম্পরারী অ্যাসিস্ট্যান্স টু নিডি ফ্যামিলিজ (টিএএনএফ- অভাবী পরিবারের জন্য অস্থায়ী সাহায্য), সাপ্লিমেন্টাল নিউট্রিশনাল অ্যাসিস্ট্যান্স প্রোগ্রাম (স্ল্যাপ- সম্পূরক পুুষ্টি সাহায্য কর্মসূচি) অধিকাংশ মেডিকেইড এবং কতক ধরনের হাউজিং কর্মসূচিও পাবলিক চার্জের আওতায় আনা হয়েছে।


ফেডারেল রেজিস্ট্রারে তালিকাভুক্ত আইনটি কোনো ধরনের আইনি চ্যালেঞ্জ ছাড়া ২ মাসের মধ্যে কার্যকর হবে। এর ফলে গ্রিনকার্ড ও সিটিজেনশিপের জন্য আবেদনকারীদের অবশ্যই প্রদর্শন করতে হবে যে তাদের আর্থিক পর্যাপ্ত সক্ষমতা রয়েছে। বর্তমানে মেডিকেইড, ফুড স্টাম্পস বা ফেডারেল হাউজিং অ্যাসিস্ট্যান্সও পাবলিক চার্জ অভিযোগ হিসেবে গণ্য হতে পারে এবং পারমেনেন্ট স্ট্যাটাসের জন্য আবেদনকারীদের অযোগ্যতার কারণ হবে। সংশোধিত আইনে শিক্ষা, বয়স, সম্পদ এবং ইংরেজিতে দক্ষতাও সম্ভাব্য পাবলিক চার্জ অফেন হিসেবে গণ্য হবে।

এক কথায় বলা যায়: আর্থিক অসচ্ছলদের জন্য আমেরিকার দুয়ার বন্ধ হতে চলেছে।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন ১০ মাস আগেই জানিয়েছিল এ রকম নীতিমালা চালু হবে। সে সময় বিভিন্ন মহলে আপত্তি ওঠে।

ট্রাম্প প্রশাসনের অভিবাসনবিষয়ক শীর্ষ কর্মকর্তা কেন কুচিনেলি গত ১২ আগস্ট সোমবার নতুন নিয়ম ঘোষণার প্রেক্ষাপট বর্ণনা করে বলেন, ‘আমরা চাই এমন মানুষ এ দেশে স্থায়ী বসবাসের জন্য আসুন, যাঁরা নিজেদের খরচ বহন করতে পারে। আগাগোড়াই এই নিয়মের ভিত্তিতে এ দেশে অভিবাসননীতি পরিচালিত হয়েছে।’ ১৫ অক্টোবরের মাঝামাঝি এই নীতিমালা বাস্তবায়িত হবে বলে তিনি জানান। যারা ইতিমধ্যে গ্রিন কার্ড পেয়েছেন বা মার্কিন নাগরিকত্ব পেয়েছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে এই নীতিমালা প্রযোজ্য হবে না। তবে তাঁদের পরিবারের সদস্যদের ক্ষেত্রে তা কার্যকর হতে পারে। অন্তঃসত্ত্বা মায়েরা যারা সরকারি স্বাস্থ্যসেবা পান সন্তান জন্ম দেয়ার সময় তাদের ক্ষেত্রে এই নীতিমালা কার্যকর হবে না। মার্কিন সেনাবাহিনীর সদস্য, উদ্বাস্তু ও আশ্রয় প্রার্থনা করেছেন এমন ব্যক্তিদের ক্ষেত্রেও এই নীতিমালা কার্যকর হবে না।

অভিবাসন অধিকার নিয়ে কাজ করেন এমন বিভিন্ন সংস্থা নতুন এই নীতিমালার কঠোর সমালোচনা করেছে। তারা বলেছে, এই ঘোষণার ফলে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবে দরিদ্র মানুষেরা। বৈধ হওয়া সত্ত্বেও শুধু আইনি ঝামেলা এড়াতে ও ভয়ে তাদের অনেকেই খাদ্য, স্বাস্থ্য বা শিক্ষার মতো সরকারি অনুদান নিতে চাইবে না। ফলে, যাদের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন, যেমন শিশুরা, তারাই সাহায্য থেকে বঞ্চিত হবে।

প্রতিক্রিয়া হিসেবে বিভিন্ন নাগরিক অধিকার সংস্থা জানিয়েছে, তারা এই নীতিমালার বিরুদ্ধে আদালতে আবেদন করবে। নিউইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেলও জানিয়েছেন, তিনি এই নীতিমালার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন। নতুন নীতিমালার ফলে যেসব অভিবাসী বা বহিরাগত ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে চিন্তিত নিউইয়র্ক সিটির মেয়রের অফিস থেকে তাদের আইনি সাহায্যের জন্য ৩১১ নম্বরে ফোন করতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। যারা ফোন করবে তাদের ‘অ্যাকশন নিউইয়র্ক’ কথা উল্লেখ করতে বলা হয়েছে। এতে সঠিক দপ্তরে তাদের প্রশ্ন পাঠানো সহজ হবে।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিবছর প্রায় সাড়ে পাঁচ লাখ মানুষ গ্রিন কার্ডের জন্য আবেদন করে থাকে। তাদের মধ্যে ৩ লাখ ৮২ হাজার আবেদনকারী নতুন নীতিমালার আওতায় পড়তে পারে। জানা গেছে, গ্রিন কার্ডের জন্য আবেদন করেছেন- এমন ব্যক্তিদের নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণের জন্য অন্তত তিন বছরের কর প্রদানের হিসাব ও এই সময়ে চাকরির প্রমাণ দেখাতে হবে। যাদের বেসরকারি স্বাস্থ্যবিমা আছে তাদের ক্ষেত্রে গ্রিন কার্ডের অনুমোদন সহজ হবে।

যুক্তরাষ্ট্র সরকারের এমন কঠোর সিদ্ধান্তের ব্যাপারে বিশেষজ্ঞেরা বলছেন- ট্রাম্প প্রশাসন এ দেশে অভিবাসীদের সংখ্যা কমানোর লক্ষ্যে নানা রকম ফন্দিফিকির খুঁজছে, এই নতুন নীতিমালা তারই অংশ। এর ফলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে মেক্সিকো ও দক্ষিণ আমেরিকা থেকে আগত দরিদ্র বহিরাগতরা। এ ছাড়াও পারিবারিক সূত্রে যারা নাগরিকত্বের সুযোগ পেত, তারাও এই নিয়মের আওতায় আসতে পারে। এর আগে হোয়াইট হাউস থেকে জানানো হয়েছে, পারিবারিক সূত্রে অভিবাসনব্যবস্থা পরিবর্তন করে মেধাভিত্তিক নিয়ম চালু করতে তারা আগ্রহী। এই নিয়মে শিক্ষিত, আর্থিকভাবে সচ্ছল ও ইংরেজি ভাষায় অভিজ্ঞ আবেদনকারীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। কবে এই মেধাভিত্তিক নিয়ম চালু হবে, তা এখনো নিশ্চিত নয়। এমন নীতিমালার খবর পেয়ে ইতোমধ্যে অভিবাসীদের মধ্যে নানা ভীতি ও জল্পনাকল্পনার সৃষ্টি হয়েছে

সূত্র: ইউনাইটেড স্টেস সিটিজেনশিপ অ্যান্ড ইমিগ্রেশন




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু কোয়া:
৪৯ ২৫ ১৯ ২৬০২৩
বিস্তারিত
করোনায় মার্কিন সেনা সদস্যের মৃত্যু বিশ্বব্যাপী খাদ্য সঙ্কটের পূর্বাভাস দিল ফাও ১৮ বছর পর জ্বালানি তেলের দর সর্বনিম্ন করোনা: বাংলাদেশকে আশার কথা শোনালেন ইতালির চিকিৎসক ইউরোপের বাজারে জিএসপি সুবিধা হারাচ্ছে না বাংলাদেশ সাধারণ ছুটি আরও বাড়ানোর ইঙ্গিত প্রধানমন্ত্রীর একই ঘরে স্বামী-স্ত্রী ও শিশুর মরদেহ করোনায় এশিয়ার আড়াই কোটি মানুষ নিঃস্ব হবে বাংলা নববর্ষের অনুষ্ঠান না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা: ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনা স্পেনে করোনায় মৃত্যু বেড়েছে, কমেছে সংক্রমণ মিথুনের অশান্তির দিনে বৃষের সুনাম বৃদ্ধি চীনে করোনা নিয়ে মুখ খুললেই ধরপাকড়-গুম তাপমাত্রা আরও বাড়বে, বৃষ্টি হবে আগামী সপ্তাহে করোনা: ফোনে তথ্য সংগ্রহ হচ্ছে, তৈরি হবে ডিজিটাল ম্যাপ করোনার বাঁচা-মরা নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে বিশেষজ্ঞরা! চীনে ফের বাদুড় বিড়াল কুকুরের মাংস বিক্রি শুরু যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় ২৯ বাংলাদেশির প্রাণহানী নওগাঁর স্বাস্থ্যকর্মীরা পিপিই সঙ্কটে, সিভিল সার্জনও জানালেন একই কথা মালয়েশিয়ায় করোনায় আক্রান্ত ২৬০০ ছাড়িয়েছে করোনায় কলকাতায় অপরাধ কমেছে ৫০ শতাংশ! ফ্রান্সে করোনায় আরও ৪১৮ জনের মৃত্যু দেশে দেশে করোনার ছোবল, মৃত বেড়ে ৩৭৮১৫ ভেন্টিলেটরের সাহায্যে সিংহভাগ করোনা রোগী সুস্থ সম্ভব ইতালিতে করোনায় আরেক বাংলাদেশির মৃত্যু সাতক্ষীরায় করোনার উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশনে এনজিও কর্মী দিল্লিতে করোনায় তাবলিগ জামাতের ৬ জনের মৃত্যু চিকিৎসকদের দেখা মিলছে না খুলনা মেডিকেলে করোনা: ছুটিতেও নিরবচ্ছিন্ন সেবা দিচ্ছে বিদ্যুৎ-জ্বালানি বিভাগ করোনার সঙ্গে যুদ্ধে নামতে চান তরুণরা করোনায় অবলা পশুপাখির মুখে খাবার দেবে কে? জ্বর আছে শুনে স্বামীকে ঘর থেকে বের করে দিলেন স্ত্রী দেশের প্রথম লকডাউন মুক্ত ঘোষণা যে এলাকা বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনের দুঃসংবাদ যেনো শেষই হচ্ছে না করোনা মোকাবেলায় আগামী ৩০ দিন খুবই গুরুত্বপূর্ণ: ট্রাম্প করোনার থাবায় হুমকির মুখে বাফুফের দেশি-বিদেশী নানা চুক্তি শুভ জন্মদিন আমলা এমন দুর্যোগে ক্রিকেটারদের ভূমিকা রাখার আহ্বান পাইলটের করোনা নিয়ে আবারও কবিতা লিখলেন মমতা ভারতে ভয়াবহ হচ্ছে করোনা, একদিনেই শনাক্ত ২৩০ সেকেন্ডের মধ্যেই করোনা শনাক্ত করবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার এক্সরে! করোনা মুক্ত ঘোষণা করা হলো যে শহরকে কোনভাবেই ভাইরাসের লাগাম টানা যাচ্ছে না, বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিতে বেনাপোল বন্দর এলাকা বরিশালে পথশিশু ও শ্রমিকদের রাতের খাবারের দিচ্ছেন সাংবাদিকরা করোনাা: দিনমজুরদের তালিকা করতে গিয়ে হামলার শিকার ইউপি সদস্য ইতালিতে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর মিছিলে যোগ হল ৮১২ জন বাবা-মা'র সামনে থেকে তুলে নিয়ে কিশোরীকে গণধর্ষণ ‘আমার এখন শুধুই মৃত্যুর অপেক্ষা’ বললেন যুবলীগ নেতার স্ত্রী আইসোলেশনে নেতানিয়াহু, করোনা আক্রান্তের আশঙ্কা করোনায় শুধু নিউইয়র্কেই নিহত এক হাজারের বেশি মানিকগঞ্জে গণপরিবহন শ্রমিকদের শুকনো খাবার ও স্যানিটাইজার বিতরণ প্রশ্নগুলোর জবাব দিন, প্রয়োজন হলে আপনাকেই কল দেবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর নরসিংদীতে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের অর্থায়নে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অবশেষে খোঁজ মিলল তার, যার শরীর থেকে সারা বিশ্বে ছড়িয়েছে করোনা নরসিংদীতে পুলিশের সাড়াশি অভিযান অব্যাহত দুর্বৃত্তের আগুনে ছাই ৩০টি পানের বরজ করোনার থাবায় নিউইয়র্কে ভয়াবহ অবস্থা ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় ব্যবসায়ীকে হত্যা কোয়ারেন্টিন শেষে বাড়ি ফিরলেন ৩৬ ইতালি প্রবাসী রংপুর-নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৬ বাগেরহাটে হিজড়াদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ৩ বিভাগে পৌছেছে করোনা টেস্ট কিট হরিণের ৪২ কেজি মাংস উদ্ধার, থানায় জমা দেয়া হল ৩৪ কেজি অবশেষে আসলো করোনার ‘ওষুধ’, শরীরে ঢুকেই গিলে ফেলবে ভাইরাস ‘পেটের ব্যথা’ সইতে না পেরে আত্মহত্যা করোনার মধ্যে হামের প্রাদুর্ভাব থানা হেফাজতে মৃত্যু: ওসির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের বরিশালে ৫০ হিজড়াকে খাদ্য সামগ্রী দিল জেলা প্রশাসন ছুটি না দেয়ায় পোশাক কারখানায় আগুন দিয়ে ধরা শ্রমিক মাস্ক বিক্রি করে পরিবারের খাবার যোগাচ্ছে হিমু করোনার ক্ষতি সামলাতে প্রণোদনার দাবি দুঃসময়ে জনসেবায় কাটছে যাদের দিন-রাত করোনা ঠেকাতে ১ কোটি রুপি দিলেন গৌতম গম্ভীর নদীতে পাথর তুলতে গিয়ে ডুবে শ্রমিকের মৃত্যু যা আছে স্যামসাং এ০১-এ লকডাউনে ঘরে বসে যা করছেন মীর গাইবান্ধায় বালু উত্তোলনের দায়ে যুবলীগ নেতার কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রীর প্রতি বিটিইএ চেয়ারম্যানের খোলা চিঠি দোকান খোলা রাখায় ৭ ব্যবসায়ীকে জরিমানা ট্রাকে রাস্তায় জীবাণুনাশক ছিটাল পৌর কর্তৃপক্ষ ওয়ারেন্টির সময় বাড়াল অপো বিভিন্ন স্থানে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন ঘরে বসেই স্মার্টফোন বাজারে রিয়েলমি সাতে চাঁদপুরে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করল পুলিশ করোনায়ও সজীব ক্যাম্পাস সাংবাদিকতা চুয়াডাঙ্গায় করোনা সন্দেহে এক নারী আইসোলেশনে এক ঘণ্টায়ও মিলল না অক্সিজেন, শ্বাসকষ্টে অন্তঃসত্ত্বার মৃত্যু নরসিংদীতে হাসপাতালে চিকিৎসক-নার্সদের জন্য গাড়ি বরাদ্দ বিভিন্ন স্থানে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শ্রমিকদের রাস্তায় বসিয়ে করা হলো স্প্রে খাবার সামগ্রী নিয়ে বেদে পল্লীতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ছুটির সময় ‘বাড়ছে’ নগরবাসীকে ঘরে রাখাই চট্টগ্রাম পুলিশের বড় চ্যালেঞ্জ যশোরে গণধর্ষণের অভিযোগে মামলা, গ্রেফতার ১ মাস্ক বিতরণে সংঘর্ষ, ভাই টেঁটাবিদ্ধ-বোনের মাথা ফাটল ইটে বিএসএমএমইউ’তে রোগীদের সুবিধার্থে হেল্প লাইন চালু বরিশালে ৫০ হিজড়াকে ২০ দিনের খাদ্যসামগ্রী দিল জেলা প্রশাসন বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিলেন এসিল্যান্ড সজল
আরও সংবাদ...
দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা বাংলাদেশে প্রথম তিন করোনা রোগী শনাক্ত কোটি টাকা জমা থাকলেও ফেরত পাবেন এক লাখ! দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৮ করোনা সংক্রমণে সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে চট্টগ্রাম গোপনে জিকে শামীমের জামিন মোদিকে কটুক্তি করে কারাগারে ময়মনসিংহের যুবক নামাজ পড়তে মসজিদে কম আসাই ভাল: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ধূমপায়ীরাই বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন করোনায় অত্যধিক গোমূত্র পান করে হাসপাতালে বাবা রামদেব, ফেসবুকে ছড়ানো হলো ছবি পাপিয়ার ফোনে শিল্পপতি আমলা ও নেতাদের নগ্ন ভিডিও! ধেয়ে আসছে ৪ কিলোমিটারের বিশাল গ্রহাণু, এক আঘাতেই শেষ মানবসভ্যতা করোনায় সফল কিউবার ওষুধ ‘আলফা টু-বি’, কিনছে বহু দেশ অশ্লীল ভিডিওতে ঠাঁসা পাপিয়ার মোবাইল ফোন করোনায় একা মরতে চান না, তাই ভাইরাস ছড়াতে ঘুরলেন শহরে ১৯ বছরের আফগান যুদ্ধে পরাজয় মানল যুক্তরাষ্ট্র নোয়াখালীতে ছাত্রলীগ নেতা হত্যার আসামি শিবিরকর্মী ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত বাংলাদেশে করোনায় প্রথম একজনের মৃত্যু দেশে করোনা ‘কমিউনিটি ট্রান্সমিশন’ পর্যায়ে করোনার বেশি ঝুঁকিতে রক্তের ‘এ’ গ্রুপ, কমে 'ও' ‘আমরা করোনার ভ্যাকসিন পেয়ে গেছি’ কোয়ারেন্টাইনে ৪০ জন: স্বাস্থ্য সচিব সারোয়ারসহ তিন জনের বিচারিক ক্ষমতা বাতিল চেয়ে রিট পাপিয়া-তুহিনের ভিডিও ফাঁস করোনায় কোন দেশে কত মানুষ মরতে পারে, জানালেন গবেষকরা ভারতে করোনা সন্দেহে হাসপাতালে ভর্তি সৌদি ফেরত যুবকের মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্র কীভাবে করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে, জানালো চীন জিকে শামীমের জামিনের কথা জানেই না রাষ্ট্রপক্ষ ১২ রুশ তরুণীর জন্যই ধরা পাপিয়া! করোনা আক্রান্ত ৬০ হাজার মানুষ এখন সুস্থ নাম বলছেন পাপিয়া, ফেঁসে যাচ্ছেন ভিআইপিরা করোনায় স্বস্তির বাণী দিল নাসা ২৮ মার্চ মাঠে নামছেন সাকিব করোনার ‘উৎপত্তিস্থল’ উহানে সুখবর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত ইরানের সেই হামলায় ১২০ মার্কিন সেনা নিহত! খুলনায় ছাত্রলীগ নেতা খুন একসঙ্গে ‘দুই স্বামী’ যুব মহিলা লীগ নেত্রীর, ফেনসিডিল খাওয়ার দৃশ্য ভাইরাল মুজিববর্ষে ২০০ টাকার নোট সেব্রিনা ফ্লোরাসহ ৩ জনকে আইনি নোটিশ আম্বানির সম্পদে করোনার হানা, হারালেন শীর্ষ ধনীর মুকুট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় করোনার প্রতিষেধক আবিষ্কার সুইজারল্যান্ডের! সারোয়ার আলমের ফেসবুক স্ট্যাটাস মুহূর্তেই ভাইরাল বাংলাদেশে নতুন দুই করোনা রোগী শনাক্ত যুবকের সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্ত, ৪ ঘণ্টায় ১২শ’ টাকা নিয়েছিলেন সোনিয়া অহংকারে পতন হচ্ছে রাণু মন্ডলের খদ্দেরদের প্রথমে যেখানে নিয়ে যেতেন পাপিয়া ১৭ মার্চ ঢাকায় আসছেন মোদি গণপরিহনে যাতায়াত ফ্রি করে দিলো ইউরোপের দেশ
আরও সংবাদ...


মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TVEnglish DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে