মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
সময় সংবাদ
আপডেট
১৪-০৮-২০১৯, ১৪:৪২

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু : বাঙালির মুক্তির নায়ক

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু : বাঙালির মুক্তির নায়ক
আগস্ট মাস বাঙালির ইতিহাসের শোকের মাস। এ মাসে আমরা হারিয়েছি তিনজন মহান বাঙালিকে রবীন্দ্রনাথ, বঙ্গবন্ধু এবং নজরুল। রবীন্দ্রনাথ ছিলেন পৃথিবীর প্রথম অশ্বেতাঙ্গ নোবেল বিজয়ী। এই মহান মনীষীর মহাপ্রয়াণের ঠিক ত্রিশ বছর পর স্বাধীন বাংলাদেশের জন্ম হয় এমন আর এক বাঙালির নেতৃত্বে কালের বিবর্তনে তাঁকে মনে করা হয় সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, এমনকি রবীন্দ্রনাথের মতো কালজয়ী বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ মানুষটিকে ডিঙ্গিয়ে, ঠিক যেমনটা ইংরেজরা উইনস্টন চার্চিলের গলায় শ্রেষ্ঠ ইংরেজের বরমাল্য পরিয়ে দিয়েছেন শেক্সপিয়রের মতো আর এক কালজয়ী মানুষকে ডিঙ্গিয়ে।
   
১৯৯৫ সালে কানাডার দু’জন সাংবিধানিক বিশেষজ্ঞ লিখছিলেন, ‘১৯৪৫ সালের পর বাংলাদেশই একমাত্র দেশ যে সফলভাবে সশস্ত্র সংগ্রামের মাধ্যমে পাকিস্তান থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করার কৃতিত্ব অর্জন করে। এ সশস্ত্র সংগ্রামের প্রধান শক্তি ছিল ঐ জাতির সহজাত নেতা শেখ মুজিবুর রহমান, যাঁর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ নির্বাচনে এক অতুলনীয় বিজয় ছিনিয়ে আনে। তিনি যে আস্বাদিত জনসমর্থন পেয়েছিলেন সেটা একটি পশ্চিমা গণতন্ত্রে অভাবনীয়।’ অনুরূপ মতামত যেমন- ‘শেখ মুজিবের একমাত্র অপরাধ একটি গণতান্ত্রিক নির্বাচনে তিনি জয়ী হয়েছিলেন’- আমাদের স্বাধীনতাযুদ্ধ চলাকালে, ক্যাপিটল হিলে যেটা নিরন্তর প্রতিধ্বনিত হয়েছিল।


নিউইয়র্ক টাইমস পত্রিকার লেখক পেগী ডারদিন যিনি ১৯৭১ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ঢাকায় অবস্থান করছিলেন, তিনি ২ মে ১৯৭১ সালে ‘পূর্ব পাকিস্তানে তাড়িত রাজনৈতিক জোয়ার’ শিরোনামে একটি নিবন্ধ লিখেছিলেন। যেটাতে তিনি লেখেন, ‘সমস্ত মার্চে শেখ মুজিব এবং তাঁর সহকর্মীরা আঁকাবাঁকা গেম খেলেন এবং তাঁদের লক্ষ্য ও কৌশল স্পষ্ট করতে অস্বীকার করেন। অবশ্য তাঁদের এটা করা ছাড়া কোন উপায় ছিল না। স্বাধীনতার জন্য একটি খোলাস্ট্যান্ড হতো সরাসরি বিশ্বাসঘাতকতা এবং তাঁদের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের অভিযোগ আনা যেত। ... শেখ মুজিব পূর্ব ও পশ্চিমের এক জাতীয় নেতা হয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার বিন্দুমাত্র আগ্রহ দেখাননি, যদিও একটি সর্বপাকিস্তান সরকারের প্রধানমন্ত্রীর পদ পাওয়ার মতো সংখ্যাগরিষ্ঠতা জাতীয় পরিষদে তাঁর ছিল।’

জেনারেল রাও ফরমান আলী অবশ্য বলেন ভিন্ন কথা। ‘সবশেষে তারা (বাঙালিরা) পাকিস্তান শাসন করার সম্ভাবনা দেখেছিল। মুজিব (পাকিস্তানের) প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন। কিন্তু জাতীয় পরিষদের অধিবেশন স্থগিত হয়ে যাওয়ার পর তাঁর উপদেষ্টারা তাঁকে বুঝাতে সক্ষম হয়েছিলেন এবং তিনি এ সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছিলেন যে, সামরিক এবং পিপিপির সম্মিলিত বাহিনীর শক্তি তাঁকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার ইচ্ছা সত্যে পরিণত হতে দেবে না। অতএব তিনি একটি নতুন জাতির ‘জনক’ হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।’

যাই হোক, তাঁর ছয় দফা থেকে এক দফায় রূপান্তর একটি দিন বা একটি মাসে ঘটেনি। নোভাকের কথায়- ‘মুক্তিযুদ্ধের বহু আগেই, মুজিব পূর্ববাংলাবাসীদের মনে সাফল্যের সঙ্গে এই বোধ সঞ্চারিত করতে পেরেছিলেন যে, তারা পাকিস্তানী আগ্রাসন ও অবিচারের শিকার। এর ফলে আন্দোলনরত বাঙালিরা সবসময় এক ধরনের নৈতিক স্বস্তিতে থেকেছে যে, তারা নির্দোষ এবং যা করছে তা ন্যায্য। তাঁর বিশ্বাস যাই হোক না কেন, তাঁর ব্যক্তিত্বই তাঁকে তাঁর যুগের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিতে পরিণত করেছিল। রাজনীতিতে তিনি ছিলেন ধূমকেতুর মতো। বস্তুত তিনি ছিলেন এক সজ্ঞাত শক্তি, যার ব্যক্তিত্ব এবং কর্মকাণ্ড বাংলাদেশ মানসের গভীরতম প্রদেশকে অনুপ্রাণিত করেছিল। তিনি ছিলেন এক নৌকা, যাতে চেপে জনগণের আকাক্সক্ষা বয়ে যেতে পারত।’


বহুদিন আগে সক্রেটিস যেমনটা বুঝেছিলেন তেমনি রাজনীতিবিদ শেখ মুজিবও বুঝেছিলেন যুক্তি এবং আবেগের সংমিশ্রণের। নোভাকের কথায়- ‘মুজিব সামরিক এবং মার্শাল পাকিস্তানী পাঞ্জাবীদের তুলনায় বাংলা সংস্কৃতির শ্রেষ্ঠত্বের বোধকে সবসময় উস্কে দিয়েছেন। এটা করতে গিয়ে তিনি বাঙালি কবিদের কবিতা দিয়ে পাকিস্তানের মহান কবি ইকবালের কবিতাকে প্রতিস্থাপিত করেছেন। জনগণকে উদ্দীপ্ত করার জন্য তিনি ব্যবহার করেছেন কাজী নজরুলের উদ্দীপনাময় গান এবং কবিতা। অকৃত্রিম বাঙালি মনের সূক্ষ্ম এবং শৈল্পিক গুণাবলী এবং সেই মনের নৈতিক অবস্থান ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণে কবিতার ভূমিকা কি তা মুজিব বুঝেছিলেন। এটা বিশ্বাস করা হয়, ‘বাংলাদেশ কখনই কিছু বিশ্বাস করে না যতক্ষণ না একজন কবির দ্বারা তা উচ্চারিত হয়।’ রবীন্দ্রনাথ ছিলেন ইকবালের থেকেও বড় বাঙালি কবি। তার চেয়ে বড় যেটা রবীন্দ্রনাথ ছিলেন বাংলার সন্তান। ফলে ইকবালের চাইতে অনেক বেশি প্রিয়। মুজিবের এই কবিতা কৌশল এত ফলপ্রসূ হয়েছিল যে, এক পর্যায়ে পাকিস্তান সরকার রবীন্দ্রনাথের গান ও সাহিত্য গাওয়া এবং পাঠ করাকে দেশদ্রোহিতা আখ্যা দিয়ে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। বলার অপেক্ষা রাখে না, এটাই মুজিব চেয়েছিলেন। অন্যদিকে উদ্দীপনাময় গান ও কবিতার কারণে বিদ্রোহের পূর্বক্ষণে নজরুল হয়ে উঠেছিলেন আওয়ামী লীগের কর্মী বাহিনীর কাব্যিক কণ্ঠস্বর।’

তাঁর কঠোর পরিশ্রম, সরলতা এবং সত্যবাদিতার কথা উল্লেখ করতে গিয়ে নোভাক লিখেছেন, ‘পশ্চিমা ধ্যান-ধারণায় অভ্যস্ত মুসলিম লীগাররা ঢাকা অথবা চট্টগ্রামের চেয়ে লন্ডনে থাকতে এবং দেশী নৌকার তুলনায় এ্যারোপ্লেনে ভ্রমণ করতে বেশি স্বচ্ছন্দবোধ করতেন। একইভাবে তারা ভোট প্রার্থনা বা ভোট অর্জনের চাইতে ভোট কিনতেন। অন্যদিকে শেখের রীতি ছিল কঠোর পরিশ্রম। অক্লান্তভাবে তিনি জেলায় জেলায়, মহকুমায় মহকুমায় ঘুরে বেড়িয়েছেন। গ্রাম থেকে গ্রামান্তরে মাঠের পর মাঠ হেঁটে মানুষের সঙ্গে মিশেছেন, মানুষদের সংগঠিত করেছেন। তাদের চা, ভাত, ডাল, লবণ ভাগ করে খেয়েছেন; নাম মনে রেখেছেন, তাদের সঙ্গে মসজিদে নামাজ আদায় করেছেন, ফসলের মাঠে প্রখর রোদে ঘর্মাক্ত হয়েছেন, কেউ মারা গেলে শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে কেঁদেছেন এবং কুলখানিতে উপস্থিত থেকেছেন। শেখ মুজিব অন্যের আবেগ-অনুভূতির সঙ্গে একাত্ম হতেন আন্তরিকতার সঙ্গে, আচরণ করতেন সহানুভূতির সঙ্গে এবং হাত বাড়িয়ে যা স্পর্শ করতেন তা গোলফ ক্লাব বা ক্লাবের চেয়ার নয়, জনগণের ঘর্মাক্ত ধূলিমলিন হাত। জনগণ কি বিশ্বাস করে, কি চায় তা তিনি জানতেন এবং তাদের বোধগম্য ভাষায় সবকিছু ব্যাখ্যা করতে পারতেন। জনগণও এটা জানত বলে তারা বিশ্বাস করত তাঁর মিথ্যা বলার প্রয়োজন নেই।’ 

গণহত্যা, সশস্ত্র সংগ্রাম এবং অনুচ্চারিত দুঃখভোগের নয় মাসে শেখ মুজিবের নাম লাখ লাখ মানুষের অন্তরে রাতদিন প্রজ্বলিত হয়েছিল এবং তিনি হয়ে উঠেছিলেন বাংলাদেশের জনগণের এক উপদেবতা। জেনারেল রাও ফরমান আলীর ভাষায়Ñ ‘বাংলাদেশের জনগণের ৯০% শেখ মুজিবের ঐন্দ্রজালিক ক্ষমতা দ্বারা বিমোহিত হয়েছিল এবং তারা বাংলাদেশ সৃষ্টির জন্য তাদের জীবন দিতে প্রস্তুত ছিল।’


বিবিসির বাংলা বিভাগের শ্রোতাদের পৃথিবীব্যাপী জরিপে তিনি যখন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি হিসেবে বিবেচিত হন তখন বিবিসি শ্রোতাদের মতামতের সংক্ষিপ্ত সার ছিল নিম্নরূপ : ‘তিনি ছিলেন বাঙালি জনগণের অন্ধকারাচ্ছন্ন যুগের আলোর বাতিঘর। তাঁর রাজনৈতিক প্রজ্ঞা, বাঙালিদের স্বার্থের জন্য আপোসহীনতা শুধু বাংলাদেশের ভৌগোলিক সীমার মধ্যে নয়, সারাবিশ্বের বাঙালিদের প্রথমবারের মতো ঐক্যবদ্ধ করে এবং তিনিই তাদের জাতীয়তা দিয়েছেন। সারা পৃথিবীর বাঙালি, যারা বাংলাদেশের নাগরিকত্ব লালন করেন, তারা এক ব্যক্তির নেতৃত্বের কাছে এই জাতীয়তার জন্য ঋণী এবং তিনি শেখ মুজিবুর রহমান ছাড়া অন্য কেউ নন।’

এ্যারিস্টটল লিখেছেন, বিয়োগান্তের নায়ক হওয়ার কারণ তার ‘ত্রুটিময় বিবেচনা’ বা তার নেতৃত্বের ‘দুঃখজনক ত্রুটির’ কারণে। তার দৈবদুর্বিপাক, যতটুকু তার ভাগ্যে প্রাপ্য তার চেয়ে অনেক বেশি। মুজিব প্রকৃতপক্ষে এক বিয়োগান্তক নায়ক।

 

[লেখক: শফিকুল আলম রেজা, প্রচার সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।] 




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
করোনা ভাইরাস লাইভ আপডেট
আক্রান্ত চিকিৎসাধীন সুস্থ মৃত্যু কোয়া:
৩৮২৯২ ২৯৮২৩ ৭৯২৫ ৫৪৪ ৪২৫২৯
বিস্তারিত
ছুটি শেষে ১৫ জুন পর্যন্ত নানা নির্দেশনায় প্রজ্ঞাপন জারি ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২৫ হাজার ছাড়াল ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড: ধোঁয়ায় মারা গেছেন পাঁচজনই রাজধানীর কোন এলাকায় কতজন করোনা রোগী শনাক্ত ইউনাইটেডের ১২ অগ্নি নির্বাপক যন্ত্রের ৯টিই মেয়াদোত্তীর্ণ ৪৪ বছরের যুদ্ধের প্রাণহানীর রেকর্ড চারমাসেই ভাঙল যুক্তরাষ্ট্র ভারতে মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৫৮ হাজার, মৃত ৪৫৩১ নাসার স্পেসএক্স ফ্যালকন রকেট উড্ডয়ন স্থগিত ভ্রমণে গিয়ে আরব আমিরাতে আটকা হাজার বাংলাদেশি আইসিসি’কে ‘কড়া হুমকি’ ভারতের আসন্ন বাজেটে বিশেষ বরাদ্দের দাবি কাতার প্রবাসীদের লাদাখে চীনের অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান, ধরা পড়ল স্যাটেলাইটে বিরামপুরে মদপানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০, গ্রেফতার ১ করোনা উপসর্গ নিয়ে ব‌রিশা‌লে পুলিশ সদস্যের মৃত্যু আম্পানে সুন্দরবনে আড়াই কোটি টাকার ক্ষতি লৌহজংয়ের বেদেপল্লীতে ‘করোনা উপসর্গ’ নিয়ে দুই ভাইয়ের মৃত্যু বেলুন উড়ানো নিয়ে আ.লীগের সংঘর্ষে নিহত ১ ঝড়-বৃষ্টিতে দিনাজপুরে ৭ শতাংশ লিচু নষ্ট কর্মসংস্থান হবে কন্যার, শরীর সুস্থ থাকবে মিথুনের হারিয়ে যাওয়া স্মার্টফোন খুঁজে পাবেন যেভাবে করোনা শনাক্তকরণে মেডিকেল রোবট তৈরি করল ইরান ঝরে পড়েছে ৩শ’ কোটি টাকার আম বন্ধ হচ্ছে গুগল প্লে মিউজিক ১৫ শতাংশ কর্মী ছাঁটাই করবে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড আবারো সোশ্যাল মিডিয়া বন্ধের হুমকি দিলেন ট্রাম্প টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে ধোঁয়াশা সব হাসপাতালে করোনা চিকিৎসার সিদ্ধান্তে আপত্তি প্রাইভেট মেডিকেলের উত্তর কোরিয়া ছাড়লেন ব্রিটিশ দূতাবাসকর্মীরা দুঃখ প্রকাশেই দায় সারছে ইউনাইটেড কর্তৃপক্ষ ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনের ঘটনায় তদন্ত কমিটি অগ্নিকাণ্ডে পাঁচজন মৃত্যুর ঘটনায় ইউনাইটেডের দুঃখ প্রকাশ বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩ লাখ ৫৭ হাজার কাঁঠালবাড়িতে ফেরি চলাচলে ধীরগতি, ঢাকামুখী যাত্রীর চাপ চীন-ভারত সীমান্তে অচলাবস্থা নিরসনে মধ্যস্থতার প্রস্তাব ট্রাম্পের মেঘনায় ডুবে যাওয়া ট্রলার উদ্ধার হয়নি যে কারণে অবসর নেননি মাশরাফি, নিজেই ফাঁস করলেন সেই তথ্য! করোনার ক্রান্তিকালে ফুটবল চলার সঙ্গে সঙ্গে চলছে দলবদল 'স্বাস্থ্য নয় বরং অর্থকেই বেশি প্রাধান্য দিচ্ছে লা লিগা' ডিসেম্বরে ভারতের বিপক্ষে টেস্টের সূচি চূড়ান্ত করেছে অস্ট্রেলিয়া করোনার সুযোগে ক্রিকেট রাজনীতিতে মেতেছে বিসিসিআই দোহারে স্বাস্থ্যকর্মী সহ নতুন আরও ৯ জন করোনায় আক্রান্ত হৃদয়কে পিটিয়ে হত্যা মামলার ৩ আসামিকে ৫ দিন করে রিমান্ড সিলেটের সাবেক মেয়র কামরানের স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত ভারতে ঢুকলেই গ্রেফতার হবেন নোবেল সীমিত আকারে চলবে ট্রেন ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে মৃত ৫ জনই করোনা রোগী করোনা জয় করে ফিরেই মুখে মাস্ক না থাকায় জরিমানা করলেন তিনি ইউনাইটেড হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আগুন, ৫ জনের মৃত্যু করোনার প্রাদুর্ভাব রোধে রোবট তৈরি করলো ইরান হবিগঞ্জে ভয়াবহ সংঘর্ষে ১৯ পুলিশসহ শতাধিক আহত, আটক ৪৯ আলো আসবেই: প্র্যাবের একটি সচেতনতামূলক ভিডিও লকডাউন শিথিল মানে অপ্রয়োজনে ঘোরাঘুরি করা নয়: তথ্যমন্ত্রী ট্রাম্প ‘আস্ত একটা বোকা’: বাইডেন টাঙ্গাইলে শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা, যুবককে গণধোলাই সুবর্ণচরে সরকারি চাল জব্দ, ক্রেতার অর্থদণ্ড, ডিলার পলাতক চট্টগ্রামের ৪ হাসপাতালকে কোভিড হাসপাতাল ঘোষণা ট্রেনের মালামাল চুরির সময় হাতেনাতে ধরা প্রকৌশলী, বহিষ্কার সিলেটে লিচু খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে আ. লীগ নেতাসহ আহত ১২ দিনাজপুরে বিষাক্ত অ্যালকোহল পানে মৃত্যু বেড়ে ৮ নারায়ণগঞ্জে আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে স্কুলছাত্র নিহত কালবৈশাখীতে লণ্ডভণ্ড এফডিসি বগুড়ায় বজ্রপাতে নিহত ২ শ্রীমঙ্গলে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ৬৭ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের জরিমানা সীমিত পরিসরে চলবে গণপরিবহন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাংবাদিকসহ আরো ১৩ জনের করোনা শনাক্ত মুন্সিগঞ্জে অটোচালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার পাকিস্তানের বিমানবাহিনীতে প্রথম হিন্দু পাইলট নিয়োগ ব্রিটেনের প্রথম হিজাব পরা বিচারক হলেন রাফিয়া কিশোরীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ফেসবুকে আপলোড,কিশোর গ্রেফতার মুন্সীগঞ্জে ইমাম নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১১ ‘ক্রাইম প্যাট্রোল’ অভিনেত্রীর আত্মহত্যা সুস্থ হলেন আরও ১৬১ পুলিশ সদস্য কক্সবাজারে নতুন করে করোনা শনাক্ত ৪৬ জনের বিএনপি রাজনৈতিক আইসোলেশনে রয়েছে: কাদের রাজবাড়ীতে অস্ত্র-মাদকসহ ডাকাত দলের সদস্য গ্রেফতার লাদাখের কাছে চীনা বিমানঘাঁটিতে যুদ্ধবিমানের উপস্থিতি বাড়ছে এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল ইস্তাম্বুলে নতুন প্রজাতির পলিকীটের সন্ধান পেলেন শিক্ষক, এলো আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি ডিএমপি'র দুই কর্মকর্তাকে বদলি করোনা চিকিৎসায় হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন নিষিদ্ধ করল ফ্রান্স 'নদী ভাঙ্গনপ্রবণ এলাকায় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বেড়িবাঁধ নির্মাণ করা হবে' ‘সন্তানকে দুধ খাওয়ালে করোনা সংক্রমিত হয় না’ সুইট চিলি সস রেসিপি করোনা নেগেটিভ, গ্রামে ঢুকতে না পেরে গাড়িতেই কোয়ারেন্টাইন আম্পানের ক্ষত না শুকাতেই ঝড়ে ফের বিপর্যস্ত নওগাঁ বাংলাদেশের সবচেয়ে দীর্ঘ রেলসেতু 'হার্ডিঞ্জ' ব্রিজের অজানা গল্প ফোন নম্বরে কল করার নতুন অ্যাপ আনলো ফেসবুক গর্ভবতী ও বয়স্করা অফিসে আসবেন না: ফরহাদ হোসেন শিল্প সচিবের দায়িত্ব নিলেন কে এম আলী আজম চীনের ইন্ধনে নেপাল চোখ রাঙাচ্ছে ভারতকে? ছুটি না বাড়লেও গণপরিবহন বন্ধ থাকবে বিরামপুরে ভুয়া হোমিও ওষুধ খেয়ে স্বামী-স্ত্রীসহ মৃত ৫ আরো বাড়ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি মহামারিতেও বদলায় নি তারা! 'নিজেই নিজের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট সাইন করলাম’ করোনা চিকিৎসায় ‘বিস্ময়কর সফল’ এ ওষুধ আছে বাংলাদেশেও! সাধারণ ছুটি আর বাড়ছে না নেত্রকোনায় এনজিও কর্মী স্বামী-সন্তানসহ অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার নিয়মিত ঘি খেলে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে করোনা: হাসপাতালেই বিয়ে করলেন চিকিৎসক-নার্স
আরও সংবাদ...
করোনার প্রাদুর্ভাব অব্যাহত থাকলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্কুল-কলেজ বন্ধ 'লকডাউনে' যাচ্ছে সূর্য, সতর্কতা জারি নাসার করোনায় আক্রান্ত ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী অসুস্থ বাচ্চাকে নিয়ে হাসপাতালে হাজির বিড়াল মঙ্গলবার থেকে ইফতার বিক্রি হবে রেস্তোরাঁগুলোতে দেশের সব মসজিদ খুলে দেয়া হচ্ছে যে ওষুধে ‘করোনায় সুস্থের হার বাড়ছে’ বাংলাদেশে চুরি দেখে ফেলায় এলোপাথাড়ি কোপ, দুই বোনকে ধর্ষণের পর চারজনকেই জবাই ভারতকে নেপালের 'হুমকি', সীমান্তে সেনা মোতায়েন শনাক্ত মৃত্যুতে নতুন রেকর্ড আজ চিকিৎসক পরিবারে ১৮ জন করোনায় আক্রান্ত, বাড়িতে স্থানীয়দের ইট নিক্ষেপ দেশে প্লাজমা থেরাপিতে একদিনেই বিস্ময়কর সাফল্য ৩৬ দিন রোজা হবে ২০৩০ সালে! ৯ বছরের সংসার ভাঙল অভিনেতা অপূর্ব-অদিতির জনপ্রিয় অভিনেতা ইরফান খান মারা গেছেন লকডাউনে বাবাকে রোগী সাজিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে বিয়ে! দাজ্জালের সঙ্গে ইহুদিদের যোগাযোগ শুরু! শরীরে লালচে র‌্যাশ, করোনার নতুন উপসর্গ! কোনো হাসপাতাল নিল না, কুর্মিটোলায় ভর্তির পর অতিরিক্ত সচিবের মৃত্যু ভুল নম্বরে টাকা চলে গেলে ফেরত পাবেন যেভাবে সহকর্মীরাই হত্যা করেন গাজীপুরের সেই প্রকৌশলীকে 'পদত্যাগ করলেন' বিদ্যানন্দের প্রতিষ্ঠাতা করোনা: এক বাড়িতেই ৩১ লাশ! শাশুড়ির জন্য ১৫ বছর পর নাচলেন মিথিলা! (ভিডিও) দেশে সর্বোচ্চ আক্রান্তের দিনে ১৪ জনের মৃত্যু চারদিনেই সারবে করোনা, গবেষণায় সাফল্যের দাবি বাংলাদেশের আজও শনাক্ত সহস্রাধিক, মৃত্যু ২১ জনের আম্পানের তাণ্ডব শুরু, সক্রিয় হতে পারে শনিবার সাধারণ ছুটি আরও বাড়ছে ১৫ জুলাই করোনামুক্ত হবে বাংলাদেশ! এসএসসি’র ফল-এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী আম্পানের পর আসছে ঘূর্ণিঝড় 'নিসর্গ' একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্ত, মৃত্যু ১৪ জনের আক্রান্ত ছাড়াল ১৮ হাজার, মৃত্যু বেড়ে ২৮৩ নতুন আরো ৭০৬ জন করোনায় আক্রান্ত একদিনে রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, মৃত্যু বেড়ে ১৮৬ একদিনে বাংলাদেশে করোনা শনাক্তের রেকর্ড ৭৮৬ দেশে করোনা ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল হতে পারে জুনে স্ত্রী-মেয়ের কান্না শুনেও এগিয়ে এল না কেউ, সিঁড়িতেই পড়ে রইল লাশ একদিনে আক্রান্ত ৯৬৯, মোট মৃত্যু ২৫০ একদিনে সর্বাধিক রোগী শনাক্ত, মৃত্যু বেড়ে ১৫৫ রেকর্ড শনাক্তের দিন ২০ জনের মৃত্যু করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩০০ ছাড়াল বাংলাদেশে, নতুন আক্রান্ত ৯৩০ একদিনে নতুন আক্রান্ত ৫৬৪, মৃত্যু বেড়ে ১৬৮ আক্রান্ত ছাড়াল ১০ হাজার, মৃত্যু বেড়ে ১৮২ ঢাকায় যেসব মার্কেট খোলা থাকবে কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই চরম আকার ধারণ করবে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্পান’ করোনা সন্দেহে ছাদ থেকে লাফিয়ে কনস্টেবলের আত্মহত্যা মধ্যরাতে করোনা রোগীকে মারধর করে তাড়িয়ে দিল বাড়িওয়ালা করোনার মধ্যে টেকনাফে দেখা মিলল ‘পঙ্গপাল’ প্রজাতির পতঙ্গ
আরও সংবাদ...


মেনে চলি

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TVEnglish DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে