সম্পূর্ণ নিউজ সময়
স্বাস্থ্য
৮ টা ৫৩ মিঃ, ২৭ জুলাই, ২০১৯

৩৫ ভাগই নাক-কান-গলার ক্যান্সারে আক্রান্ত

দেশে মোট ক্যান্সার আক্রান্তের ৩০ থেকে ৩৫ ভাগই নাক-কান-গলার ক্যান্সারে আক্রান্ত। চিকিৎসকরা বলছেন, দেশে নাক-কান-গলার ক্যান্সারের অন্যতম কারণ ধূমপান। এক্ষেত্রে ধূমপান প্রতিরোধের পাশাপাশি প্রাথমিক অবস্থায় রোগ নির্ণয়ে রাজধানীর বাইরে সেবা ছড়িয়ে দেবার পরামর্শ বিশ্লেষকদের।
মুজাহিদ শুভ

১০ বছরের ধূমপানের অভ্যাস জয়নাল আবেদীনকে জড়িয়েছে স্বরযন্ত্রের ক্যান্সারের জালে। এই মধ্যবয়সীকে সুস্থ জীবনে ফেরাতে সার্জারির পর গলায় একটি কৃত্রিম ভয়েস বক্স লাগিয়ে দিয়েছেন চিকিৎসক।

ধূমপান ছাড়াও পান, সুপারি, জর্দায় ব্যাপকভাবে আসক্ত হওয়ায় ক্যান্সারের সহজ শিকার হচ্ছেন গ্রামীণ নারীরা। প্রাথমিক অবস্থায় রোগ নির্ণয়ের সুযোগ সৃষ্টিতে বিভাগীয় শহরে সরকার ঘোষিত ক্যান্সার সেন্টারে নাক কান গলার ক্যান্সারের আলাদা বিভাগ রাখার জোর তাগিদ চিকিৎসকদের।

বিএসএমএমইউ’র হেড নেক সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. সৈয়দ ফারহান আলী রাজিব বলেন, অনকোলজি সেন্টারগুলোতে যদি বিভিন্ন ক্যান্সারের পাশাপাশি যদি হেড নেক ক্যান্সারেরও চিকিৎসা করার প্রভিশন থাকে তবে জনগণ আরও বেশি উপকৃত হবে।

বাংলাদেশ সোসাইটি অব হেড নেক সার্জনসের সভাপতি অধ্যাপক ডা. বেলায়েত হোসেন সিদ্দিক বলেন, আমাদের দেশে পুষ্টিহীনতা, ভিটামিন এ এর অভাব ও নারীদের মধ্যে রক্তশূন্যতা নাক, কান ও গলার ক্যান্সারের জন্য বিশেষভাবে দায়ী।

এদিকে পর্যাপ্ত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তৈরিতে বিশেষ পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের স্বাস্থ্য ও জনশক্তি উন্নয়ন বিভাগের লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. মো. নাজমুল ইসলাম বলেন, ঢাকা মেডিকেল কলেজে একটি স্কিল ল্যাব হবে। যেখানে সারা বাংলাদেশের চিকিৎসকরা এসে প্রশিক্ষণ নিতে পারবেন। 

প্রতি বছর হেড নেক ক্যান্সারে নতুন করে আক্রান্ত হওয়া লক্ষাধিক রোগীর ৬০ শতাংশই মারা যান আক্রান্ত হবার ৫ বছরের মধ্যে। ব্যাপকভাবে সচেতনতা সৃষ্টি, প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সার্জনের সংখ্যা বৃদ্ধি ও রাজধানীর বাইরে সেবা ছড়িয়ে দেবার মাধ্যমে এই ক্যান্সার প্রতিরোধ সম্ভব বলে মত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়