সম্পূর্ণ নিউজ সময়
বাণিজ্য সময়
২ টা ৫৩ মিঃ, ৪ আগস্ট, ২০১৮

সর্বনিম্ন দামে মসুর ডাল

কয়েক ধাপে কমে এক বছরের মধ্যে পাইকারি বাজারে এখন সর্বনিম্ন মসুর ডালের দাম। প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে মানভেদে ৪৫ থেকে ৭৫ টাকায়। ব্যবসায়ীরা বলছেন, অধিক উৎপাদন ও বিদেশ থেকে আমদানি হওয়ায় স্বস্থি ফিরেছে দামে।
বাণিজ্য সময় ডেস্ক

এছাড়া পর্যাপ্ত মজুদ থাকায় কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে নতুন করে মসলার দাম বাড়ার সম্ভাবনা দেখছেন না পাইকাররা। সপ্তাহ শেষে স্থিতিশীল রয়েছে চাল, তেল সহ অন্যান্য নিত্য পণ্যের দাম।

সরকারি সংস্থা ট্রেডিং কর্পোরেশনের তথ্যানুযায়ী ২০১৭ সালের মাঝামাঝি সময়ে প্রতিকেজি দেশি মসুর ডালের দাম ছিলো ৯০ থেকে ১০০ টাকা। আর মোটা দানার মসুর ডালের দাম ছিলো ৬৫ থেকে ৭৫ টাকা।

তবে এবারের মৌসুমে উৎপাদন ভালো হওয়ায় পরিস্থিতি পাল্টে যায়। পাইকারিতে চলতি বছরে কয়েক ধাপে কমে বর্তমানে প্রতিকেজি মোটা মসুর ডালের দাম দাঁড়িয়েছে মানভেদে ৪৫ থেকে ৪৭ টাকা। আর চিকন ডাল বিক্রি হচ্ছে ৬৫ থেকে ৭৫ টাকায়। নিত্যপণ্যের পাইকার জানালেন, স্থিতিশীল রয়েছে সব ধরণের সয়াবিন তেল, চিনি, মসলাসহ অন্যান্য পণ্যের দাম। বাজারে প্রতিকেজি চিনি ৪৬ টাকা ও খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ৮৬-৮৮ টাকা।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, পাইকারি পর্যায়ে স্থিতিশীল রয়েছে আদা, রসুন ও আলুর দাম। তবে সপ্তাহ শেষে কেজিতে ২-৩ টাকা বেড়ে দেশি পেঁয়াজ ৫০-৫২ টাকা আর আমদানি করা পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৮-৩০ টাকায়।

কৃষি মার্কেটের পাইকারি দোকানে চালের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। তাই সপ্তাহ শেষে দামের কোনো হেরফের নেই। পাইকারিতে প্রতিকেজি মিনিকেট ৪৭-৫০ টাকা, আর মোটা চাল বিক্রি হচ্ছে ৩৫-৪০ টাকায়।

© ২০২১ সময় টিভি মিডিয়া নেটওয়ার্ক
সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত
DMCA.com Protection Status
সময় মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন
Somoy Tv App PlayStore Somoy Tv App AppleStore
ফলো সামাজিক সময়