SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ২৮-১২-২০১৭ ০৩:১২:২৭

জয়বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড অনাথ শিশুদের মুখে হাসি ফেরাচ্ছে ‘মানব কল্যাণময়ী অনাথালয়’

mym-mka

নানা প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অনবদ্য ভূমিকা রাখায় এ বছর 'জয়বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড' পেয়েছে তরুণ উদ্যোক্তাদের ৩০টি সংগঠন। অদম্য বাংলাদেশের গল্পে আজ থাকছে ‘মানব কল্যাণময়ী অনাথালয়’।

কেউ জন্মের আগে বা পরে হারিয়েছে বাবা-মা। আবার কেউ জানেই না নাম-পরিচয়। অথচ ছোট্ট এই শিশুদের চোখেমুখে কতো স্বপ্ন। ভালো করে বাঁচতে চাই, বই নিয়ে স্কুলের বারান্দায় পা রাখতে চাই.কিন্তু যাদের কেউ নেই, রুদ্ধশ্বাস দৌড়ে সামিল এই সমাজে তাদের দেখবেই বা কে?

পথে-স্টেশনে পড়ে থাকা এমনই সব অনাথ শিশুদের মুখে হাসি ফেরাচ্ছে ‘মানব কল্যাণকামী অনাথালয়’। ১৯৯৬ সালে নেত্রকোনার চন্ডিগড়ে মানবসেবার এ আশ্রম গড়ে তোলেন নিত্যানন্দ গোস্বামী।

যেখানে প্রথমেই শৃঙ্খলা, জীবনবোধ ও সততার শিক্ষা পাচ্ছে আশ্রিত শিশুরা। তিনবেলা ভালো খাবারের পাশাপাশি আশ্রমের স্কুলে দেয়া হয় অক্ষর জ্ঞান। পরে যাদের বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত শিক্ষার দায়িত্ব নেয়া হয়।

মানব কল্যাণকামী অনাথালয়’র শিক্ষক নাজমুল তুহিন বলেন, মানবজনম সফল হতে পারে একমাত্র মানব ও জীবের প্রতি দয়ার মাধ্যমে। আমরা এখন শতাধিক শিশুকে নিয়ে কাজ করছি। আমাদের ইচ্ছা দেশব্যাপী কাজ করে যাওয়ার।

শিক্ষার পাশাপাশি নানা সাংস্কৃতিক আয়োজন বিনোদনের খোরাক যোগায় আশ্রিতদের। শেখানো হয় নাচ-গান। শুরুর দিকে নানা প্রতিবন্ধকতা থাকলেও ধীরে ধীরে বেড়েছে পরিধি। যোগ হয়েছে দাতব্য চিকিৎসা কেন্দ্র। যেখানে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছেন দরিদ্র ও দুস্থরা।

নারীদের কর্মক্ষমতা বাড়াতে খোলা হয়েছে সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। যে প্রশিক্ষণ অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করেছে পিছিয়ে থাকা নারীদের। শেষ বয়সে সহায়-সম্বলহীন মানুষের জন্য আছে বৃদ্ধাশ্রম। যেখানে সবকষ্ট ভুলে বৃদ্ধ মানুষগুলোর দিন কাটছে হাসি-আনন্দে। আশ্রয় পাচ্ছেন বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা ও নির্যাতিতারাও।

শিক্ষা ও নারী উন্নয়নসহ মানবসেবার এমন কর্মকাণ্ডের স্বীকৃতি ও সম্মাননা মিলেছে নানা প্লাটফর্মে। বেগম রোকেয়া স্মৃতিপদক, ড. শহীদুল্লাহ পদকের সঙ্গে সর্বশেষ যোগ হলো ‘জয়বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড’।

এমএইচ