SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ১৯-১২-২০১৭ ০৯:৩০:০৯

চিকিৎসা করাতে ছেলে দিলাম মেয়ে হলো কিভাবে?

untitled-3

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নবজাতক পরিবর্তনের অভিযোগ উঠেছে। রোববার রাতে হাসপাতালের নবজাতক ও শিশু বিভাগে এ ঘটনা হয়।

স্বজনরা জানান, গত ১০ ডিসেম্বর বিকেলে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের লেবার ওয়ার্ডে পাপিয়া আক্তার নামে এক নারী একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেন। পরে বাচ্চার শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে তাকে নবজাতক ও শিশু বিভাগে ভর্তি করা হয়।

চিকিৎসা শেষে সোমবার রাতে বাচ্চাটির ছাড়পত্র দেয়া হয়। এ সময় ছেলে সন্তানের পরিবর্তে মেয়ে সন্তান ফেরত দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন স্বজনরা। তারা বাচ্চা ফেরত চেয়ে হাসপাতালে বিক্ষোভ করেন।

স্বজনরা বলেন, 'বাচ্চা ছেলে আমি নিজে টোকেন বেঁধে দিয়েছি সেই ছেলে কেমন করে মেয়ে হয়ে গেলো।'

শিশুটির মা বলে, 'আমার একটায় কথা আমার বাচ্চা যেভাবে ছিলো সেভাবে ফেরত চাই।'

এদিকে, এ ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল স্বজন  নবজাতক ও শিশু বিভাগ বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ডা. আনোয়ার হোসেন, যে বাচ্চাগুলো এখন আছে, সেগুলো সঙ্গে মিলিয়ে দেখছি যদি মিলাতে না পারি আমরা বাচ্চার ডিএনএ টেষ্ট করাবো।'

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল উপ-পরিচালক ডা. লক্ষ্মী নারায়ণ মজুমদার বলেন, 'মায়ের কাছে যে বাচ্চাকে ফেরত দেয়া হয়েছে ট্যাগে ছেলে লেখা অথচ তাদেরকে দেয়া হয়েছে মেয়ে বাচ্চা। এতে কি সমস্যা ঘটেছে তদন্ত না করে সে সম্পর্কে বলা যাচ্ছে না।'

পিএস/