SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ০১-১২-২০১৭ ০৯:০৬:২৮

পদ্মাসেতুতে যোগ হবে আরও দুটি স্প্যান

padma-47

আগামি বছরের শুরুতে পদ্মা সেতুতে যোগ হতে যাচ্ছে আরো দুটি স্প্যান। প্রথম স্প্যানটির পাশেই জাজিরা প্রান্তে এ দুটি স্প্যান বসানো হবে। ফলে আরো বেশি দৃশ্যমান হবে সেতুর একাংশ। 

তবে শুকনো মৌসুমে নদীতে পলি জমে যাওয়ার হার বাড়ায় পাইলিংয়ের কাজ ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এছাড়া, চলতি মাসে প্রকল্পে আরো একটি নতুন হ্যামার যোগ হলে কাজে গতি আসার ব্যাপারে আশাবাদী প্রকৌশলীরা। 

পদ্মা সেতুর বিজ্ঞাপনে যেন জ্বলজ্বল করছে নদীর বুকে প্রথম স্প্যানটি। অনেক আশা জাগানিয়া এ সেতুতে প্রথম স্প্যানটি বসানো হয়েছিলো সেপ্টেম্বর মাসের শেষ দিনে।

তারপর আবার অপেক্ষা। কবে বসবে দ্বিতীয় স্প্যান? সরেজমিন ঘরে দেখা গেছে, প্রস্তুত এখন ৩৯ নম্বর পিলারটিও। প্রথম স্প্যানটি বসেছে ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিলারের মধ্যে। এবার ক্রমান্বয়ে ৩৯ ও ৪০ নম্বর পিলারে বসানো হবে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্প্যান। তাই পাইল ক্যাপ বসানোর পর ৪০ নম্বর পিলারের কংক্রিটিংয়ের কাজও শেষ দিকে ।

প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম এ ব্যাপারে জানান, ‘আরও দুটি স্প্যান প্রায় রেডি। এই দুটি হয়তো ডিসেম্বরে একটা এবং জানুয়ারিতে একটা লেগে যাবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘হ্যামারের কাজের সঙ্গে এটা রিলেডেট। হ্যামার পাইল করলে, তারপর পাইল ক্যাপ করবো, তারপর কলাম করবো। এরপর পিআর ক্যাপ করার পর এটা বসবে।’ 

বর্ষা মৌসুমে নদীর স্রোতের কারণে পলি না জমলেও, এখন শুকনো মৌসুমে এ সমস্যা প্রকট। সেতুর পিলারগুলো যেখানে বসানো হবে, সে স্থানগুলোতে নদীতে জমেছে পলি। সেতুর প্রয়োজনীয় মালামাল পরিবহনে ভারী নৌযান চলাচলেও বাধা হয়ে উঠছে নদীর নাব্য সমস্যা। তাই বাড়তি গুরুত্ব দিয়ে চালিয়ে যেতে হচ্ছে ড্রেজিংয়ের কাজ।

শফিকুল ইসলঅম এ ব্যাপারে বলেন, ‘এখানে মালামাল ও যন্ত্রপাতি নেয়ার স্পিডবোটই আটকে যাচ্ছে। জটিল কাজের অন্যতম অংশ হচ্ছে ড্রেজিং। প্রতিনিয়ত ড্রেজিং। যেটা হয়তো অন্য কোনো প্রজেক্টে লাগে নাই।’ 

সেতুর কাজে ৪টি হ্যামার আনা হলেও বিকল হয়ে আছে ২টি। গত মাসে আনা ৩ হাজার কিলোজুল ক্ষমতার নতুন হ্যামারটি কাজের জন্য পুরো প্রস্তুত করা সম্ভব হবে এ মাসের মাঝামাঝি। তখন কিছুটা বাড়বে কাজের গতি। এখন পর্যন্ত মূল সেতুর কাজে ৭৭.৫২ ভাগ অগ্রগতি হওয়ার কথা থাকলেও কাজ হয়েছে ৫৫.৩৮ ভাগ।

এসএন