SomoyNews.TV

শিক্ষা সময়

আপডেট- ০৬-১১-২০১৯ ১৯:২০:০৭

হল ছাড়ার নির্দেশ উপেক্ষা করে আবারো ভিসির বাড়ি ঘেরাও

juboleague

দ্বিতীয়বারের মতো হল ছাড়ার নির্দেশ উপেক্ষা করে বুধবার বিকেলে ফের ভিসির পদত্যাগের দাবিতে তার বাসভবন অবরুদ্ধ করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। বরাবরের মতো এসময়ও তাদের সঙ্গে যোগ দেন আন্দোলনরত শিক্ষকরাও। 

এ সময় শিক্ষার্থীরা বলেন, দুর্নীতিবাজ ও হামলাকারী ভিসির অপসারণ না হওয়া পর্যন্ত তারা ক্যাম্পাস ছাড়বেন না। এসময় মঙ্গলবারের হামলায় গুরুতর আহত এক ছাত্রী ভিসিপন্থী শিক্ষকদের কঠোর সমালোচনা করেন। ড. ফারজানা ইসলাম ভিসি পদে থাকার সমস্ত যোগ্যতা হারিয়েছেন বলে এ সময় দাবি করেন সাধারণ শিক্ষকরাও।

এর আগে সকালে বিক্ষোভ মিছিল করে পুরো ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ শেষে পুরাতন রেজিস্ট্রার ভবনের সামনে ভিসির পদত্যাগের দাবিতে সংহতি সমাবেশ করেন আন্দোলনকারীরা। সংহতি সমাবেশে যোগ দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক ও শিক্ষারথীরাও। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষকরা ভিসির দুর্নীতির বিষয়ে আচার্যকে তদন্তের দাবি জানান।

এদিকে আন্দোলনকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই ভিসির বাসভবনের সামনে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। বিকেলে ভিসির বাসভবনে প্রোভোস্টদের বৈঠক শেষে প্রক্টর দ্বিতীয়বারের মতো শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেন। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) আ স ম ফিরোজ-উল-হাসান বলেন, ‘অধিকাংশ হল খালি হয়ে গেছে। হলগুলোতে তালা লাগিয়ে দেওয়া হবে। এরপরও সিন্ডিকেটের নির্দেশ অমান্য করে যদি কেউ হলে অবস্থান করে তবে এর জন্য অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি হলে তার দায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নেবে না।'

তিনি আরও বলেন, ‘কারও সঙ্গে খারাপ আচরণ হোক আমরা তা চাই না। আমরা চাই বিশ্ববিদ্যালয়ে সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশ বজায় থাকুক। আজীবনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকবে না। পরিবেশ স্বাভাবিক হলে  তারা ফিরে আসুক। সিন্ডিকেটের নির্দেশ অমান্য করলে প্রয়োজনে পুলিশ ব্যবস্থা নেবে।'