SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ১৪-০৮-২০১৯ ১৫:৫৩:৩৬

দুই ভাইয়ের সংঘর্ষে বাবা-ছেলে, ভাতিজা নিহত

maymonsing-somoy

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় দুই ভাইয়ের মধ্যে সংঘর্ষে বাবা-ছেলেসহ তিনজন নিহত, আহত হয়েছেন আরো ৪ জন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, কয়েক মাস আগে বাড়ির পাশের একটি নির্মাণাধীন টিনশেড মাদ্রাসার ছাদে উঠে খেলা করায় বড় ভাই আব্দুর রশিদের নাতি শিশু মিজানকে চড়-থাপ্পড় দেয় হাশিম উদ্দিন। এ নিয়ে দুইভাই আব্দুর রাশিদ ও  হাশিম উদ্দিনের মাঝে ঝগড়া ও সংঘর্ষ হয়। এনিয়ে পাল্টাপাল্টি মামলাও হয়।

এছাড়া পোল্ট্রি খামার নির্মাণ নিয়েও তাদের মাঝে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বিষয়টি মীমাংসার জন্য বুধবার সকালে উভয়পক্ষের মধ্যে সালিশ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সালিশে বসার আগেই রাশিদের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হাশিম উদ্দিনের পরিবারের সদস্যদের ওপর হামলা চালায়।

এসময় রাম দা’র কোপে হাশিম উদ্দিনের ছেলে জহিরুল ঘটনাস্থলেই নিহত হন। হাসপাতালে নেয়ার পথে হাশিম উদ্দিন ও প্রতিপক্ষ রাশিদের ছেলে আজিবুল মারা যান। আহত হাশিম উদ্দিনের দুই ছেলে, এক মেয়ে ও পুত্রবধূকে ময়মনসিংহ মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শান্তির দাবি জানিয়েছেন নিহতদের স্বজন ও স্থানীয়রা।

এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি ও পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন। পুর্ব পরিকল্পিতভাবে হত্যাকান্ডটি ঘটানো হয়েছে বলে জানিয়ে পুলিশ সুপার বলছেন, জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। ঘটনাস্থল থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের প্রকৃত কারণ এখনো উদঘাটন করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পুলিশের পাশাপাশি পিবিআই ও র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে ঘটনার পর থেকে রাশিদের পরিবারের সদস্যরা বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়েছে।