SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ১৪-০৮-২০১৯ ১২:০১:৫৬

নারায়ণগঞ্জে ডেঙ্গুতে এ পর্যন্ত ৫ জনের মৃত্যু

narayongonj

ডেঙ্গুর ভয়াবহতা থেকে রক্ষা পায়নি শিল্পনগরী নারায়ণগঞ্জর মানুষও। ডেঙ্গু মহামারি আকার ধারণ না করলেও জেলায় এ পর্যন্ত দুই শিশুসহ পাঁচজন মারা গেছেন।

তবে তাদের মধ্যে জেলা শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে একজনের মৃত্যু হয়েছে। অপর চারজন রাজধানীর বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

গত এক মাসে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে জেলা শহরের সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন প্রায় পাঁচ শতাধিক মানুষ। এখনো ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন অর্ধ শতাধিক ব্যক্তি। সময় সংবাদের গত এক মাসের পর্যবেক্ষণে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

পর্যবেক্ষণে জানা গেছে, সর্বশেষ শহরের আমলাপাড়া এলাকার এগারো বছরের শিশু অভিজিৎ সাহা ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে মারা যায়।

১২ আগস্ট রাত একটায় রাজধানীর গেন্ডারিয়ার ধুপখোলায় আজগর আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটির মৃত্যু হয়।

অভিজিত সাহা শহরের আমলাপাড়ার মন্টু সাহা ও পদ্মা সাহা দম্পতির ছেলে। এবং সে চাষাড়ার ইংরেজি মাধ্যম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মাউন্টেন একাডেমীর পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

অভিজিতের বাবা মন্টু সাহা জানান, ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হলে গত বৃহস্পতিবার রাতে গেন্ডারিয়ার ধুপখোলায় আজগর আলী হাসপাতালে অভিজিৎকে ভর্তি করা হয়। রবিবার রাতে অভিজিতের শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকলে তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়। পরে সোমবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায়ই মৃত্যু হয় তার।

এর আগে ৮ আগস্ট রাতে তিন বছরের শিশু মেহরিমা ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। সে রূপগঞ্জের ভাওয়ালিয়া এলাকার মোজাম্মেল বেপারীর মেয়ে। ঘটনার চারদিন আগে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ঢাকার ধানমন্ডির রেনেসাঁ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলো শিশুটি।

২৮ জুলাই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় ফতুল্লার বক্তাবলীর ছমিরনগর এলাকার জসিম উদ্দিনের ছেলে শান্ত। ঈদের পর তার কোরিয়া যাওয়ার কথা ছিলো।

১২ জুলাই নারায়ণগঞ্জ শহরের বালুর মাঠ এলাকায় ইসলাম হার্ট সেন্টারে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত নারায়ণগঞ্জ কণ্ঠমালা আবৃত্তি সংগঠনের আবৃত্তি শিল্পী শাওন কবির (৩২) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

২৫ জুলাই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর মহাখালী এলাকার একটি হাসপাতালে মৃত্যু হয় ফতুল্লার দেলপাড়া এলাকার আইডিয়াল স্কুলের প্রধান শিক্ষক বেলাল হোসেন মিন্টু’র।

নারায়ণগঞ্জের সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইমতিয়াজ মৃত্যুর ব্যাপারে সময় সংবাদকে জানান, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে এই নিয়ে নারায়ণগঞ্জে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে বলে শুনেছি। তাদের মধ্যে দুজন শিশু রয়েছে। 

সময় সংবাদকে সিভিল সার্জন বলেন, জেলার কোন সরকারি বা বেসরকারি হাসপাতালে তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে শুনিনি। যতটুকু জেনেছি ঢাকায় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়েছে। তবে আমাদেরকেেএ ব্যাপারে কোন পরিবারের পক্ষ থেকেই জানানো হয়নি।

ডেঙ্গু নিয়ে নারায়ণগঞ্জবাসীকে আতংকিত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে জেলা সিভিল সার্জন সময় সংবাদকে আরো বলেন, ডেঙ্গু জ্বরের রোগীদের চিকিৎসার ব্যাপারে সদরের দুইটি সরকারি হাসপাতালে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা সরকার করেছে। পরীক্ষা নিরীক্ষাসহ চিকিৎসার পর্যাপ্ত ওষুধ পথ্য ও কিট আমাদের কাছে মজুদ রয়েছে। আশা করছি আমাদের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নিলে কারো মৃত্যুর আশংকা থাকবে না। ডেঙ্গু প্রতিরোধে সবাইকে সচেতন এবং সতর্ক হওয়ারও আহ্বান জানান তিনি।