SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ১৮-০৬-২০১৯ ১৩:২৫:১৫

বিকেলে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে স্বাগতিকরা

2c98e-15607875828557-8001

নিজেদের পঞ্চম ম্যাচে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। আসরের অন্যতম ফেভারিট ইংলিশরা এই ম্যাচে জয় নিয়ে এগিয়ে যেতে চায় সেমিফাইনালের পথে। অন্যদিকে টুর্নামেন্টে প্রথম জয়ের খোঁজে আফগানরা। বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা স্পিন অ্যাটাক নিয়ে থ্রি লায়নদের মুখোমুখি হবে তারা। ম্যানচেস্টারে দুই দলের ম্যাচটি শুরু হবে মঙ্গলবার (১৮ জুন) বিকেল সাড়ে তিনটায়।

বিশ্বকাপে খেলা ১০ দলের মধ্যে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ ও তলানিতে থাকা দু'দলের লড়াই। একপেশে ম্যাচের কথাই হয়তো ভাবছেন সবাই। তবে অতোটা হালছাড়ার পাত্র নয় আফগানরা। মাঠের বাইরে কথার তুবড়ি ছুটিয়ে বারবারই সেসব বলে এসেছে তারা।

নির্ভার থাকার সুযোগ ইংলিশদেরও নেই। আফগানদের আছে বৈচিত্র্যময় স্পিন অ্যাটাক। তাছাড়া ফেভারিটের তকমা সাঁটিয়ে পচা শামুকে পা কাটার ভয় তো থাকছেই।

ইয়ন মরগ্যান বলেন, ওদের স্পিনে বৈচিত্র্যই সবচে ভয়ংকর। প্রতিবার এশিয়ান দলগুলোর বিপক্ষে খেলার আগেই আমরা এসব নিয়ে কাজ করি। দেখুন আমরা নেটে সারাক্ষণ স্পিন খেলছি। ওরাও নিশ্চয়ই আমাদের পেস অ্যাটাক নিয়ে ভাবছে।

টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত জয়ের দেখা পায়নি আফগানিস্তান। চার ম্যাচের সবকটিতে হার। পাকিস্তানের বিপক্ষে হার ছাড়া বাকি তিনটি ম্যাচেই জয় তুলে নিয়েছে ইংলিশরা।

ওয়ানডেতে দুই দলের একমাত্র দেখা গেল বিশ্বকাপে। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে আফগান বাহিনীকে হেসেখেলে নয় উইকেটে হারিয়েছিল ইংলিশরা।

বিশ্বকাপ শুরুর কদিন আগে অধিনায়ক পরিবর্তন আসরের মাঝপথে মোহাম্মদ শাহজাদকে দল থেকে ছাঁটাই আর অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান নাজিবুল্লাহ জাদরানকে গেল ম্যাচে একাদশের বাইরে রেখে একের পর এক বোমা ফাটাচ্ছে আফগানরা। দল জিতুক কিংবা না জিতুক, গণমাধ্যমের শিরোনামে ঠিকই থাকছে এই দলটি।

গুলবাদিন নাইব বলেন, গত চার ম্যাচে আমরা আসলে অতোটা খারাপ খেলিনি। আমাদের ভাগ্য খারাপ। সবাই নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলতে চায়। ওদের দলটা দারুণ, তার ওপর সবকিছুই ওদের চেনা। আমরা আশা করছি কালকে একটি ভালো ম্যাচ হবে।

ইংলিশদের বিপক্ষে আবারো ফেরানো হতে পারে জাদরানকে। আসগর আফগানকে হটিয়ে একাদশে দেখা মিলতে পারে স্পিনার মুজিবুর রহমানের।

স্বাগতিকদের একাদশেও আসছে পরিবর্তন। ইনজুরির কারণে এরইমধ্যে ২ ম্যাচের জন্যে ছিটকে গেছেন ওপেনার জেসন রয়। তার স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন জেমস ভিন্স। মরগান আর লিয়াম প্ল্যাঙ্কেট হালকা ইনজুরিতে থাকলেও, ম্যাচের আগেই ফিট হয়ে উঠবেন বলে আশা করছে টিম ম্যানেজমেন্ট।

দুই দলের লড়াইয়ের পাশাপাশি ম্যাচটি দুই রশীদেরও লড়াই। দুই লেগির লড়াইয়ে উইকেটশিকারে শীর্ষে আছেন আদিল রশীদ। ২০১৫ বিশ্বকাপের পর থেকে ৮৭ ম্যাচে ১৩১ উইকেট শিকার করেছেন তিনি। একইসময়ে ১২৮ উইকেট শিকার করেছেন রশীদ খান। তবে এই আফগানের বোলিং গড় ঈর্ষণীয়, মাত্র ১৫.৮৬।

এই লড়াইটা প্রায় সমান সমান হলেও, মূল ম্যাচে দুই দলের লড়াইটা কতোটা জমে ওঠে, সেটিই মূলত দেখার বিষয়।