SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ১৮-০৬-২০১৯ ০৭:০৬:২৬

আতঙ্কে কুমারখালী নদী পাড়ের মানুষ

kush-dam

পদ্মার পানি বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে আতঙ্ক বাড়ছে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর নদী পাড়ের ৮ গ্রামবাসীর। শুধু তাই নয় ভাঙনের ঝুঁকিতে রয়েছে রবীন্দ্র কুঠিবাড়ী রক্ষা বাঁধ। এ অবস্থায় টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।  তবে শিলাইদহ রবীন্দ্র কুঠিবাড়ী রক্ষাবাঁধ মেরামতের কাজ দ্রুত শেষ করা হবে বলে জানিয়েছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা।

২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে কুষ্টিয়ার শিলাইদহ রবীন্দ্রকুঠিবাড়ী ও পার্শ্ববর্তী কুমারখালী এলাকার পদ্মা পাড়ের ৮টি গ্রামকে রক্ষায় বাঁধ নির্মাণ প্রকল্প হাতে নেয় জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড । ২০১৮ সালের জুনে প্রকল্পের কাজ শেষ হয়।  কিন্তু কয়েকদিন পরই প্রবল স্রোতে রবীন্দ্র কুঠিবাড়ী রক্ষা বাঁধের ৩ টি পয়েন্টে প্রায় ১শ ৫০ মিটার ধ্বসে পড়ে।

চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরে পুনরায় বরাদ্দ পাওয়ার পর গত মে মাসে পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত্বাবধানে ধসে যাওয়া বাঁধের অংশের মেরামত কাজ শুরু হবার কথা থাকলেও এখনও তা হয়নি। তাই পদ্মার পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রতিনিয়ত আতংক বাড়ছে এলাকাবাসীর। ভাঙন ঝুঁকিতে রয়েছে রবীন্দ্র কুঠিবাড়ীও।  

তবে দ্রুত সময়ের মধ্যে বাঁধের ক্ষতিগ্রস্ত অংশের মেরামত কাজ শেষ করার আশ্বাস দিয়েছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী পীযূষ কুমার কন্ডু।

তিনি বলেন, এরইমধ্যে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত অংশ মেরামতের জন্য ডিজাইন শেষ করেছি। আশা করছি আগামী বর্ষা মৌসুমের আগেই আমরা এই কাজ শেষ করতে সক্ষম হব।

কুমারখালী উপজেলার নদীপাড় ও রবীন্দ্র কুঠিবাড়ী রক্ষায় ৩ হাজার৭শ' ২০ মিটার দীর্ঘ এই বাঁধ নির্মাণে ব্যয় হয় ১শ' ৪৪ কোটি টাকা।