SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ২১-০৫-২০১৯ ২১:৩৬:৪৮

স্কুলছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের ঘটনায় পুলিশ সদস্য কারাগারে

madaripur1

মাদারীপুরে দশম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা ও নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য মোক্তার হোসেনকে গ্রেফতারের পর আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে মোক্তারের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে তদন্ত কমিটি। এর আগে সোমবার রাতে নির্যাতিতার মামা বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় মোক্তারকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। পরে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) উত্তম প্রসাদ পাঠক জানান, মাদারীপুর পুলিশ লাইন্সে কর্মরত পুলিশ সদস্য মোক্তার হোসেন তার ভাড়া বাসায় দশম শ্রেণির ওই স্কুলছাত্রীকে ডেকে নেন। এরপর দরজা বন্ধ করে তাকে ধর্ষণ চেষ্টা চালান। ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে ওই স্কুলছাত্রীর ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায় মোক্তার।

বিষয়টি স্থানীয়রা টের পেয়ে বাইরে থেকে মোক্তারের ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়। এক পর্যায়ে মোক্তার বিষয়টি বুঝতে পেরে ওই স্কুলছাত্রীকে ঘরের পেছনের ভেন্টিলেটর ভেঙে নিচে ফেলে দেয়। এতে গুরুতর আহত হয় ওই স্কুলছাত্রী। পরে স্থানীয়রা ওই শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি ঘটন করা হয়। তদন্তে মোক্তারের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তাকে প্রত্যাহার করে নজরদারিতে রাখে পুলিশ। পরবর্তীতে নির্যাতিতার মামা বাদী হয়ে সোমবার রাতে সদর মডেল থানায় ধর্ষণ ও নির্যাতনের মামলা করেন। রাতেই পুলিশ লাইন্স থেকে মোক্তারকে গ্রেফতার করে থানায় রাখা হয়। পরে সকালে আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ। এ বিষয়ে সব ধরনের আইনগত পদক্ষেপ নেয়ার পাশাপাশি পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে বলে জানিয়েছেন মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক।