SomoyNews.TV

ধর্ম

আপডেট- ২২-০৪-২০১৯ ১১:১৭:৪৮

‘ভাগ্য রজনী’তে ইবাদত বন্দেগি মুসল্লিদের

barkat-8am1

পবিত্র শবেবরাতে মহান আল্লাহ তাআলার নৈকট্য লাভ ও গুনাহ মাফের আশায় রাতভর ইবাদত বন্দেগি করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। ভাগ্য রজনী বলে পরিচিত এ রাতে কল্যাণ কামনায় মসজিদে মসজিদে চলে কোরআন তেলাওয়াত, জিকির আসগার ও কবর জিয়ারত। ফজরের নামাজের পর বিশ্বশান্তি কামনায় বিশেষ দোয়া করা হয়।

পরম করুণাময় আল্লাহর কাছে সমর্পিত বান্দা। চাওয়ার শেষ যেখানে সেখানেই তীব্র আকুতি।

ভাগ্য রজনীতে সৃষ্টিকর্তা সাড়া দেবেন সেই আশায় রাতের প্রতিটি ক্ষণ ঘুমহীন ইবাদত বন্দেগি। ফজরের নামাজ শেষে আল্লাহ কাছে সম্মিলিত ফরিয়াদ। ব্যক্তিগত বিভিন্ন চাওয়ার পাশাপাশি সবার কামনা দূর হবে সংঘাত, শান্তি ফিরবে সারা বিশ্বে।

মহান রাব্বুল আলামিনের সন্তুষ্টি লাভের আশায় রাতভর মসজিদে মসজিদে ছিলো মুসল্লিদের ঢল। রোববার এশার নামাজের পর থেকে ফজর পর্যন্ত নফল ইবাদতে মশগুল ছিলেন মুসলিম সম্প্রদায়।

কোরআন তিলাওয়াত, জিকির আসগারের ফাঁকে ফাঁকে প্রাণ খুলে আল্লাহ রাব্বুল আলামিনকে ডাকা। দুই জাহানেই কামিয়াবি হওয়ার প্রত্যাশা সবার কণ্ঠে।

পবিত্র রাত যেন মাহে রমজানেরই আগমনী বার্তা। রমজানকে স্বাগত জানিয়ে ব্যক্তিগত চাওয়ার সাথে সমাজ রাষ্ট্রের ও সকল ধর্মের মানুষের শান্তি কামনায় একত্রিত মুসল্লিরা।

ইবাদত বন্দেগির পাশাপাশি স্বজনদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় অনেকে জড় হন রাজধানীর আজিমপুর কবরস্থানে।

মুসলমানদের পাঁচটি সৌভাগ্যের রজনীর একটি শবে বরাত বিশ্ব শান্তির ও মানুষের মধ্যে সম্প্রতির বন্ধন তৈরি করবে এমন প্রত্যাশার কথা জানিয়েছেন মুসল্লিরা।