SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ২১-০৪-২০১৯ ১৭:০৭:০২

আগামীর জন্য তরুণদের প্রস্তুত হতে হবে: জয়

joy-bpo-up

কাউকে অনুকরণ করে নয় বরং নতুন নতুন প্রযুক্তির উদ্ভাবনী শক্তি কাজে লাগাতে দেশের তরুণ জনগোষ্ঠীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

রোববার (২১ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে ৪র্থ বিপিও সামিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এই কথা বলেন তিনি। এ সময় মেধাভিত্তিক অর্থনীতির ওপর নির্ভর করেই ৪র্থ শিল্প বিপ্লব ঘটবে জানিয়ে সজীব ওয়াজেদ বলেন, আগামীর জন্য প্রস্তুত হতে হবে তরুণদের।

প্রযুক্তির এই যুগে এসে কাজের পরিধি এখন শুধু শহর কিংবা গ্রামের গণ্ডিতে সীমাবদ্ধ নেই। ইন্টারনেটের কল্যাণে বিশ্বের যে কোনো প্রান্ত থেকে অন্য প্রতিষ্ঠানের কাজ টাকার বিনিময়ে করার পদ্ধতিই পরিচিত-আউটসোর্সিং হিসেবে।

বিশ্বের দ্রুত অগ্রসর হওয়া এই খাতকে আরো টেকসই করতে কাজ করে থাকে বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং বা বিপিও'র উদ্যোগ। বর্তমানে দেশের ৫০ হাজার তরুণ-তরুণী বিপিও'র মাধ্যমে তাদের ভাগ্য পরিবর্তন করে উপার্জনক্ষম হয়েছেন। আগামী তিন বছরে এই খাত থেকে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে চতুর্থ বারের মতো দেশে আয়োজিত হলো বিপিও সামিট-২০১৯।

সেবা খাতকে ডিজিটালে রূপান্তরের প্রতিপাদ্যে দুদিন ব্যাপী এই আয়োজন উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, নিজেদের অর্থে পদ্মাসেতুর মতো জটিল প্রকল্প বাস্তবায়ন করা বাংলাদেশ, কোনো ক্ষেত্রেই কারো ওপর নির্ভরশীল থাকবে না।

তিনি বলেন, 'বাংলাদেশের সম্পদ ও অর্থ দুটোরই সীমাবদ্ধতা রয়েছে। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মসেতুর মতো প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে আত্মবিশ্বাস বেড়েছে দেশের। আগামীতে পরনির্ভরশীলতা আরো কমিয়ে আনতে হবে।'

দেশব্যাপি প্রযুক্তি শিক্ষার প্রসার ঘটিয়ে ডিজিটাল অর্থনীতির ভিত মজবুত করতে হবে উল্লেখ করে সজীব ওয়াজেদ বলেন, অনুকরণ নয় উদ্ভাবনে মনোযোগী হতে হবে।

এবারের সামিটে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, ভারতসহ বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা দু'দিনের এই আয়োজনে অংশ নিয়েছেন।