SomoyNews.TV

ভোটের হাওয়া

আপডেট- ০৪-০৪-২০১৯ ০৭:৪৫:১৯

সিটি নির্বাচন: সরব হয়ে উঠেছে ময়মনসিংহের রাজনীতি

-mym-city-elc1

নবগঠিত ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন ৫ই মে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সম্ভাব্য প্রার্থীদের পদচারণায় মুখর সিটি করপোরেশন এলাকা। মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টিতে একাধিক প্রার্থী দলীয় মনোনয়ন পেতে কাজ করছেন মাঠে। তবে এ নির্বাচন নিয়ে বিএনপি তাকিয়ে আছে কেন্দ্রের দিকে।

এদিকে নতুন এই সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ এবং যোগ্য প্রার্থীদের দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি ভোটারদের।

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের তফসিল ঘোষণার পর সরব হয়ে উঠেছে ময়মনসিংহের রাজনীতি। সবার আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু এখন সিটি নির্বাচন। নির্বাচনের মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন পেতে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা স্থানীয় ও কেন্দ্রে চালাচ্ছেন জোর তৎপরতা। মনোনয়নের লড়াইয়ে আছেন সাবেক পৌর মেয়র ও সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক ইকরামুল হক টিটু, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত। তবে মনোনয়ন যাকেই দেয়া হোক, তার পক্ষেই কাজ করবেন বলে জানান তারা।

মো. ইকরামুল হক টিটু বলেন, সুখে-দুঃখে পাশে থাকার চেষ্টা করেছি সবসময়। সর্বত্র উজাড় করে কাজ করার চেষ্টা করছি।'

এহতেশামুল আলম বলেন, আমি বঙ্গবন্ধুর, মুক্তিযুদ্ধের সৈনিক। দল যাকে নমিনেশন দেবে, তার পক্ষেই আমি কাজ করবো।

এদিকে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে নীরব বিএনপি তাকিয়ে আছে কেন্দ্রের দিকে। আর একাধিক প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহী বলে জানান জাতীয় পার্টির নেতারা।

অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম বলেন, আমি বিশ্বাস করি, বর্তমান সরকারের অধীনে কোন নির্বাচন হবে না। তাই এই নির্বাচনে যাওয়াও উচিত হবে না।

নতুন সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ চান ভোটাররা।

তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনে মেয়র, ৩৩টি সাধারণ ও ১১টি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ ৮ এপ্রিল। যাচাই-বাছাই ১০ এপ্রিল এবং প্রত্যাহার ১৭ এপ্রিল। আর ১৩০টি ভোটকেন্দ্রের সবক'টিতেই ইভিএমে ভোট গ্রহণ করা হবে।