SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ০৯-০৩-২০১৯ ০৫:১১:০৯

একমাত্র অ্যাম্বুলেন্সটিও বিকল!

hili-health

নানা সংকটে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে দিনাজপুরের হিলি সীমান্তবর্তী হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কার্যক্রম। বিকল হয়ে পড়ে আছে একমাত্র অ্যাম্বুলেন্স। টেকনেশিয়ানের অভাবে অলস পড়ে আছে এক্সরে মেশিনও।

২১ জন চিকিৎসকের বিপরীতে আছেন মাত্র ২ জন চিকিৎসক। এ অবস্থায় কাঙ্ক্ষিত সেবা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ রোগীদের। আর শূন্যপদে নিয়োগের দাবি জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। 

হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। দিনাজপুর শহর থেকে প্রায় ৯০ কিলোমিটার দক্ষিণে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট এই স্বাস্থ্যকেন্দ্র। সরকারি সহায়তায় স্বল্প খরচে এখানে চিকিৎসা নিতে আসেন সীমান্তবর্তী এলাকার নানা বয়সী মানুষ।কিন্তু মিলছে না কাঙ্ক্ষিত সেবা। চিকিৎসক ও চিকিৎসা সরঞ্জামের সংকটে ব্যাহত হচ্ছে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কার্যক্রম। এতে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী জানান, একটা জরুরি অ্যাম্বুলেন্স আমাদের নাই। এখানে যে অ্যাম্বুলেন্স আছে সেটা অকেজো।

এক রোগীর স্বজন জানান, বাহির থেকে অ্যাম্বুলেন্স এনে আমার মাকে রংপুর নিয়ে যাচ্ছি।

রোগীরা জানান, একটু পেট ব্যাথা হলে যেতে হয় অন্য মেডিকেলে। সরকারে বলছে, এখানে ফ্রি চিকিৎসা দেয়া হয়, কই আমরা তো পাই না।

হাসপাতালের নার্স ও চিকিৎসকরা জানান, প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও জনবল সংকটে সেবা দিতে হিমশিম খেতে হয় তাদের।

দিনাজপুর হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স  মেডিকেল অফিসার রুপা বসাক বলেন, প্রতিদিন আসলে দুই জন মেডিকেল অফিসারে পক্ষে সেবা আমাদের জন্য খুবই কষ্টকর হয়ে যাচ্ছে।

দিনাজপুর হাকিমপুর  উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আব্দুল জব্বার বলেন, এই হাসপাতালে কমপক্ষে ২১ জন ডাক্তার থাকার কথা, সেখানে কর্মরত আছে মাত্র দুই জন।  

হামিকপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বহির্বিভাগে প্রতিদিন ৩ শতাধিক রোগী চিকিৎসা নিতে আসেন। ভর্তি থেকে চিকিৎসা নেন অর্ধশত রোগী।