SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ১২-০১-২০১৯ ১৬:০৭:৩৩

অকশনে নমিনেশন বেচলে জিতবে কীভাবে: তথ্যমন্ত্রী

info-min-2pm

নির্বাচনের ব্যর্থতা ঢাকতেই ঐক্যফ্রন্ট জাতীয় সংলাপের কথা বলছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

শনিবার (১২ জানুয়ারি) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত আলোচনা সভায় তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, তিনশো আসনে আটশো মনোনয়নের বাণিজ্য করে বিএনপি রেকর্ড করেছে।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, 'বিএনপির সঙ্গে হায়ার করে খেলতে গেছেন ড. কামাল হোসেন। তিনি নাকি সংলাপ করবেন। আসলে নেতাদের ব্যর্থতা ঢাকার জন্য সংলাপের ভাউতাবাজি কথা বলছেন। নির্বাচনের ব্যর্থতা ঢাকার জন্য এই সংলাপের কথা।'

তিনি আরো বলেন, 'যাতে করে জনগণের চোখ অন্যদিকে ফেরানো যায়। অকশনে যারা নমিনেশন বিক্রি করে তারা কিভাবে জয়লাভ করবে। বাংলাদেশের কোথাও কোনোদিন দেখিনি ৩শ' আসনে ৮শ' নমিনেশন। এটা একটা রেকর্ড।'

হাছান মাহমুদ বলেন, '১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশে স্বাধীনতা অর্জনের পর বাংলাদেশের স্বাধীনতা পূর্ণতা পায়নি। সমস্ত মানুষের মধ্য বাংলাদেশ জুড়ে হাহাকার ছিলো। সেটি হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতি। ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু যখন স্বাধীন বাংলাদেশে ফিরে এলেন, তখনি বাংলাদেশের স্বাধীনতা পূর্ণতা পায়। অনেকেই হয়তো জানেন না। বঙ্গবন্ধু দেশে ফিরে পরিবারের কাছে যায়নি গিয়েছিলেন জনতার কাছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, 'সেখানে গিয়ে বঙ্গবন্ধু ঘোষণা করেছিলেন আপনারা যেভাবে জীবন দিয়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছেন, আমাকে মুক্ত করে এনেছেন এর প্রতিদান প্রয়োজনে জীবন দিয়ে দেব। বঙ্গবন্ধুর রক্তে বাংলাদেশের সবুজ রঞ্জিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখেছিলেন বাংলাদেশকে সোনার বাংলায় রূপান্তর করবেন।'

হাছান মাহমুদ আরো বলেন, 'একটি যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশ, ১ কোটি মানুষ শরণার্থী ভারতে আশ্রয় গ্রহণ করেছে। দেশের অভ্যন্তরে আরো প্রায় দেড় কোটি মানুষ ঘরহারা। এদেরকে পূর্ণবাসন, ফিরিয়ে আনাটাইতো একটা দুরূহ কাজ সেটা করেছেন বঙ্গবন্ধু। বাংলাদেশের সকল যোগাযোগ ব্যবস্থা ভঙ্গুর। বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভে কোনো বিদৈশিক অর্থ নেই। এগুলোকে তিনি আবার সচল করেছেন। সমস্ত প্রতিকূলতাকে যখন একটু একটু করে ঠেলে এগিয়ে যাচ্ছিলো দেশ ঠিক তখনই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়।'